behind the news
Rehab ad on bangla tribune
Vision Refrigerator ad on bangla Tribune

স্বাধীনতা কাপে জয়ে শুরু শেখ রাসেলের

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট১৮:১০, এপ্রিল ০৫, ২০১৬

আরামবাগের বিপক্ষে ২-১ গোলের কষ্টার্জিত জয়ে কেএফসি স্বাধীনতা কাপ ফুটবলে নিজেদের পথচলা শুরু করলো শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। আজ মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এ খেলায় সমান তালেই শেখ রাসেলের সঙ্গে পাল্লা দেয় আরামবাগ। কিন্তু খেলা শেষের আট মিনিট আগে পল এমিলের গোল গড়ে দেয় জয়-পরাজয়ের ব্যবধান।
খেলার তৃতীয় মিনিটে শেখ রাসেলকে চমকে দেয় আরামবাগ। দ্রুত গতির কাউন্টার অ্যাটাকে গোলটি করেন আরামবাগের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড কেস্টার একন। মাঝমাঠ থেকে দ্রুতগতির একটি থ্রু পাস বাড়িয়ে দিয়েছিলেন মিডফিল্ডার শাহাদুজ্জামান পলাশ, কেস্টার কোনাকুনি দৌড়ে বল আয়ত্বে নেন এবং বক্সের ডান প্রান্ত থেকে মাটি কামড়ানো শটে বল জড়িয়ে দেন দূরের জালে।
কিন্তু আরামবাগের আনন্দের স্থায়ীত্ব ছিল মাত্র এক মিনিট। ঢাকার মাঠে নামার চার মিনিটের মাথায় নিজের প্রথম গোল করে রাসেলকে সমতায় ফেরান ইন্ডিয়ান সুপার লিগে চেন্নাই এফসি’র পক্ষে খেলা ইথিওপিয়ান স্ট্রাইকার ফিকরু জিয়েদা। রাসেল অধিনায়ক আতিকুর রহমান মিশুর একটি দ্রুত গতিতে নেওয়া ফ্রি-কিক ঠিকমতো ক্লিয়ার করতে না পারার কারণে বল পেয়ে যান ফিকরু। আরামবাগ গোলরক্ষক মিটুল হাসানের সামনে থেকে বল তিনি নিয়ন্ত্রণে নেন। এরপর ঠাণ্ডা মাথায় তার মার্কারকে কাটিয়ে বল ঠেলে দেন পোস্টে। ট্রেড মার্ক তিনটি ডিগবাজি দিয়ে ফিকরু উদযাপন করেন তার প্রথম গোলটি।

বিরতির পর আবারও গোলের সুযোগ পেয়েছিল আরামবাগ। এবারও উৎস ছিলেন কেস্টার একন, তবে ৫১ মিনিটে তার নেওয়া বাঁকানো শটটি রাসেল গোলরক্ষক রাসেল মাহমুদ লিটনের গ্লাভস ছুঁয়ে আঘাত হানে ক্রসপিসে।

রাসেল গোল পেতে পারতো ৬৫ মিনিটে। কিন্তু মিটুল হাসানের দৃঢ়তায় লক্ষ্যভেদ করতে পারেনি তারা। বক্সের বাম প্রান্ত থেকে বাঁকানো ফ্রি কিক নিয়েছিলেন আতিকুর রহমান মিশু। মিটুল হাওয়ায় গা ভাসিয়ে দিয়ে বল পাঞ্চ করে দলকে বিপদমুক্ত বরেন।

রাসেলের রক্ষণভাগের দুর্বলতা আবারও দৃশ্যমান হয়ে উঠে ৭২ মিনিটে। মিডফিল্ডার আবু সুফিয়ান সুফি দ্রুত গতির একটি কাউন্টার অ্যাটাকে একা পেয়ে গিয়েছিলেন রাসেল গোলরক্ষক লিটনকে। কিন্তু পরাস্ত করতে পারেননি তাকে, ফিস্ট করে বলের গতিপথ বদলে দেন লিটন।

নাইজেরিয়ান মিডফিল্ডার পল এমিলের ৮২ মিনিটের করা গোলে জয় নিশ্চিত হয় রাসেলের। অরুপ বৈদ্যর করা একটি ক্রস  এসে পড়ে আরামবাগ বক্সে। ডিফেন্সের ক্লিয়ারের পর বল পেয়ে যান ফাঁকায় দাঁড়ানো পল এমিল। ডানপায়ের জোরালো শটটি সাইডপোস্টে আঘাত করে আছড়ে পড়ে জালে। শেষ পর্যন্ত ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে শেখ রাসেল।

/আরএম/এফআইআর/

ULAB
Ifad ad on bangla tribune

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ