behind the news
Rehab ad on bangla tribune
Vision Refrigerator ad on bangla Tribune

প্রিমিয়ার লিগে ‘প্লেয়ার বাই চয়েজ’-এর তালিকা চূড়ান্ত

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট১৮:৩২, এপ্রিল ০৬, ২০১৬

২২ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ। এর প্রেক্ষিতে আগামী ১০ এপ্রিল প্লেয়ার বাই চয়েজ অনুষ্ঠিত হবে। ইতোমধ্যেই খেলোয়াড়দের ক্যাটাগরি এবং মূল্য তালিকাও চূড়ান্ত হয়ে গেছে। যদিও বিসিবি অফিসিয়ালি এখনও খেলোয়াড়ের ক্যাটাগরির তালিকা চূড়ান্ত করেনি।
মোট আটটি ক্যাটাগরিতে ক্রিকেটারদের ভাগ করা হয়েছে। সেগুলো হচ্ছে-আইকন, এ প্লাস গ্রেড, এ গ্রেড, বি প্লাস গ্রেড, বি গ্রেড, সি গ্রেড, ডি গ্রেড ও ই গ্রেড। আইকন ক্রিকেটারের পারিশ্রমিক নির্ধারণ করা হয়েছে ৩০ লাখ টাকা, ‘এ’ প্লাস গ্রেড ২৫ লাখ, ‘এ’ গ্রেড ২০ লাখ, ‘বি’ প্লাস গ্রেড ১৫ লাখ, ‘বি’ গ্রেড ১২ লাখ, ‘সি’ গ্রেড ৮ লাখ, ‘ডি’ গ্রেড ৫ লাখ এবং ‘ই’ গ্রেড সাড়ে তিন লাখ টাকা করে পাবেন। ক্রিকেটাররা তাদের পারিশ্রমিক পাবেন তিনটি ধাপে। দল পাওয়ার পর ৩০ শতাংশ, সুপার লিগের আগে ৪০ শতাংশ এবং বাকি ৩০ শতাংশ লিগ শেষ হওয়ার পর।
আগামী ১০ এপ্রিল ক্লাবগুলো তাদের ক্রিকেটারদের দলভূক্ত করতে পারবে। সব ক্যাটাগরি মিলিয়ে একটি ক্লাব ১৬ রাউন্ড ডাকার সুযোগ পাবে। যে কোনও ক্লাব যে কোনও গ্রেড থেকে ক্রিকেটার ডাকতে পারবে। এ পদ্ধতির নিলামে প্রতিটি দলের জন্য ১৫ জন করে ক্রিকেটার দলে নেওয়া বাধ্যতামূলক। আর ১৫ রাউন্ড শেষে হবে আইকন এবং এ প্লাস ক্রিকেটারদের নিলাম। এই কারণে কোনও ক্লাব ইচ্ছে করে কোনও রাউন্ড পাস দিতে পারবে।

এছাড়া আইকন ও এ প্লাস ক্যাটাগরি ছাড়া অন্য ক্যাটাগরিতে থাকা ক্লাবগুলো আগের মৌসুমের যে কোনও দু'জন ক্রিকেটারকে দলে রেখে দিতে পারবে। নিলামে যদি কোনও ক্রিকেটার দল না পান, তাহলে তিনি ফ্রি ক্রিকেটার হিসেবে বিবেচিত হবেন। পরে তিনি ব্যক্তিগতভাবে যোগাযোগ করে কোনও ক্লাবে যোগ দিতে পারবেন। আর যেসব ক্রিকেটারের নাম তালিকায় নেই, তারাও ফ্রি ক্রিকেটার হিসেবে বিবেচিত হবেন। তারাও যে কোনও ক্লাবের সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে যোগাযোগ করে দলভুক্ত হতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে অবশ্যই প্রথম বিভাগের রেজিস্ট্রেশন থাকতে হবে।

প্লেয়ার বাই চয়েজের তালিকাতে পরিচিত প্রায় সব ক্রিকেটারই রয়েছেন। পরিচিত ক্রিকেটারদের মধ্যে কেবলমাত্র নারী নির্যাতনের মামলায় থাকা শাহাদাত হোসেন রাজীবের নাম নেই তালিকাতে। এছাড়া আইপিএল-এ ব্যস্ত থাকার কারণে সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমানের নাম নেই তালিকায়।

আইকন ক্রিকেটার : মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, সাব্বির রহমান, ইমরুল কায়েস

প্লাস গ্রেডের ক্রিকেটাররা : সৌম্য সরকার, মুমিনুল হক, আব্দুর রাজ্জাক, মিঠুন আলী, নাসির হোসেন ও এনামুল হক বিজয়।

গ্রেডের ক্রিকেটাররা : নুরুল হাসান সোহান, রুবেল হোসেন, আরাফাত সানি, জহুরুল ইসলাম অমি, শুভাগত হোম, রনি তালুকদার, শাহরিয়ার নাফিস, মোশারফ হোসেন রুবেল, নাঈম ইসলাম, লিটন কুমার দাস, শামসুর রহমান শুভ, তাসকিন আহমেদ।

বি প্লাস গ্রেডের ক্রিকেটাররা : জিয়াউর রহমান, অলক কাপালী, এনামুল হক জুনিয়র, ইলিয়াস সানি, আসিফ আহমেদ, জুনায়েদ সিদ্দিকী, মেহরাব জুনিয়র, মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত, আসিফ হোসেন, আরিফুল হক, ফরহাদ হোসেন, ফরহাদ রেজা, সানজামুল ইসলাম, মার্শাল আইয়্যুব, শফিউল ইসলাম, আল আমিন-২, মাহমুদুল হাসান লিমন, মুক্তার আলী, নাদিফ চৌধুরী, মেহেদী মারুফ, তানভীর হায়দার, তাইবুর পারভেজ, সৈকত আলী, তাইজুল ইসলাম, সোহরওয়ার্দী শুভ, আল আমিন হোসেন, শরীফুল্লাহ, মেহেদী হাসান মিরাজ, মো. শরীফ, রকিবুল হাসান, সোহাগ গাজী, মো, শহীদ, তাপস বৈশ্য, তুষার ইমরান, ধীমান ঘোষ, সাকলাইন সজিব, আবুল হাসান, কামরুল ইসলাম।

বি গ্রেডের ক্রিকেটাররা : আলাউদ্দিন বাবু, ফয়সাল হোসেন ডিকেন্স, রবিউল ইসলাম শিবলু, নাজমুল হোসেন শান্ত, নাজমুল অপু, রাজিন সালেহ, ডলার মাহমুদ, মাইশুকুর রহমান, নাবিল সামাদ, সাইফ হাসান, জয়রাজ শেখ ঈমন, সাজেদুল ইসলাম, আবু হায়দার রনি, ইরফান শুক্কুর, ইয়াসির আলী, সাইফউদ্দিন, ইমতিয়াজ হোসেন, নাজমুল হোসেন, রাসেল আল মামুন, মিজানুর রহমান, মুনির হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, তাসামুল হক, নাজমুল মিলন, বিশ্বনাথ হালদার, জুবায়ের লিখন, ফজলে রাব্বি, শুভাশীষ রায়, এজাজ আহমেদ, সাদমান ইসলাম, দেওয়ান সাব্বির, নাজিম উদ্দিন, নাফিস ইকবাল, আব্দুল মজিদ, আবু সায়েম ও আবু জায়েদ।

সি গ্রেডের ক্রিকেটাররা: সগীর হোসেন পাভেল, সৈয়দ রাসেল, রাহাতুল ফেরদৌস, আবু বক্কর সিদ্দিক, আবদুল হালিম, জাকারিয়া মাসুদ, জাবিদ হোসেন, সায়েম আলম রিজভি, পিনাক ঘোষ, সালমান হোসেন ঈমন, জসীমউদ্দিন, মেহেদী হাসান রানা, তৌহিদুল ইসলাম রাসেল, শহিদুল ইসলাম, অমিত মজুমদার, মুরাদ খান, নাজমুস সাদাত, সাকের আহমেদ, নাসুম আহমেদ, হামিদুল ইসলাম হিমেল, মোহাম্মদ ফুরকান, শেহনাজ আহমেদ, রুম্মন আহমেদ, রেজাউল করিম রাজীব, নাঈম ইসলাম জুনি, অভিষেক মিত্র, আহমেদ সাদিকুর রহমান, জাকির হাসান, নুর হোসেন মুন্না, নাসির উদ্দিন ফারুক, সালেহ আহমেদ শাওন, নিহাদ উজ জামান, সাজ্জাদুল হক রিপন, জনি তালুকদার, শাফাক আল জাবের, গোলাম কবির সোহেল, মাহবুবুল আলম রবিন, জুবায়ের আহমেদ, শাহিন হোসেন, নুরুজ্জামান, রবিউল ইসলাম রবি, মাহবুবুল করিম মিঠু, মনিরুজ্জামান, বেলাল হোসেন, কাফি খান, সঞ্জিত সাহা দ্বীপ, আলামিন সিদ্দিক সুজন, সুমন কুমার সাহা, মামুন হোসেন, খালেদ মাসুদ পাইলট, ইমতিয়াজ আহমেদ চৌধুরী, মেহরাব হোসেন অপি, আফতাব আহমেদ, নাহিদুল ইসলাম, জুপিটার ঘোষ, তাপস ঘোষ ও ইফতিখার সাজ্জাদ রনি।

ডি গ্রেডের ক্রিকেটাররা: অমিতাভ কুমার নয়ন, মনোয়ার হোসেন, মেহরাব হোসেন জোশি, আরমান বাদশাহ, আশরাফুল হক শান্ত, আসলাম খান, আরমান হোসেন, সজীব মিয়া, ইয়াসিন আরাফাত, প্রসেনজিৎ দাস, মো. আজিম, হুমায়ুন কবির শাহিন, রাইয়ান উদ্দিন আরাফাত, হাবিবুর রহমান জনি, আবদুল্লাহ আল মামুন, ইমামুল মুস্তাকিন রাসেল ও ইসলামুল আহসান আবির।

গ্রেডের ক্রিকেটাররা : আবদুর রহমান রনি, ইমন দাস, আনামুল হক, আনিসুর রহমান, মশিউর রহমান লিমন, গিয়াসউদ্দিন টুটুল, আহসানুল হক, রিফাতুজ্জামান অভি, রুবাইত হক সুমন, সৈয়দ গোলাম কিবরিয়া, শফিউল আলম, সুব্রত সরকার, ভিক্টর বড়ুয়া, মনির হোসেন খান, ইমরান হোসেন নয়ন, ইমরান আলী এনাম, নূর আলম সাদ্দাম, রাহি হাসান প্রান্ত, শরিফুল ইসলাম, সৈয়দ খালেদ আহমেদ, ইয়াসির আরাফাত মিশু, শেখ নাজমুল হোসেন, সুলতান হোসেন, কাজী অনিক ইসলাম, রিফাত প্রধান, মুজিবর রহমান, ইমন আহমেদ, ইনামুল মুস্তাকিন রাসেল, রিয়াদ হোসেন, রাহি নাহিদ ও মাহমুদুল হক সেতু।

/আরআই/এফআইআর/

ULAB
Ifad ad on bangla tribune

লাইভ

Nitol ad on bangla Tribune
টপ