দেশের ১২টি হাইটেক পার্কে ২০০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগে আগ্রহী ভারত

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ০১:০০, জুলাই ২০, ২০১৬ | সর্বশেষ আপডেট : ০৮:২৫, জুলাই ২০, ২০১৬

বৈঠকের ছবিদেশের নির্মাণাধীন ১২টি হাইটেক পার্কে ২০০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের আগ্রহ প্রকাশ করেছে ভারত। সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলকের কাছে এ আগ্রহের কথা জানিয়েছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা।
মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের আইসিটি টাওয়ারে জুনাইদ আহমেদ পলকের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে আসেন হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা। এসময় আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রীর কাছে তার দেশের সরকারের এ আগ্রহের কথা তিনি জানান।
তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সহযোগিতার ক্ষেত্র প্রস্তুতে বাংলাদেশ ও ভারতের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সমন্বয়ে ফ্রেম ওয়ার্ক এগ্রিমেন্ট করা, জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপের আওতায় নিয়মিত বৈঠকের মাধ্যমে পারস্পরিক সহযোগিতার ক্ষেত্রগুলো চিহ্নিত করা ও তথ্যপ্রযুক্তির টেকসই বিস্তারে কাজ করার বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী ও রাষ্ট্রদূত একমত পোষণ করেন।

এছাড়া, ই-কমার্স, সাইবার নিরাপত্তা, গবেষণা, মানবসম্পদ উন্নয়ন, আইটিইএস, শিক্ষাসহ তথ্যপ্রযুক্তির সামগ্রিক বিষয়ে আলোচনার পাশাপাশি পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়েও উক্ত বৈঠকে আলোচনা করা হয়। তথ্যপ্রযুক্তি খাতে ভারতের ১০০ বিলিয়ন ডলার রফতানির মাধ্যমে বিশ্ব দরবারে ভারতের অবস্থানে তারুণ্যের ভূমিকার কথা উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বাংলাদেশের ৫ বিলিয়ন ডলার রফতানির লক্ষ্যমাত্রাকে উল্লেখযোগ্য অভিহিত করে বাংলাদেশের তরুণদের প্রসংশা করেন।

হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে ভারত সরকারের সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে বলে জানান।

এ সময় প্রতিমন্ত্রী বলেন, ভারত বাংলাদেশের পরিক্ষীত বন্ধু। ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নে ভারতের সহযোগিতা ভবিষ্যতে আরও জোরদার সহযোগিতার প্রত্যাশা করছি। ফ্রেম ওয়ার্ক

এগ্রিমেন্টের বিষয়ে জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ফ্রেমওয়ার্ক এগ্রিমেন্টটা হবে দুই দেশের মধ্যে আইসিটি ইন্ডাস্ট্রি ফর গ্রোথ, মানব সম্পদ উন্নয়ন ও সাইবার সিকিউরিটি নিয়ে।  

এসময় উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার, বাংলাদশে হাইটেক পার্কের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, আইসিটি বিভাগের অতিরিক্ত সচিব সুশান্ত কুমার সাহা প্রমুখ।

/এইচএএইচ/এনএস/

আরও পড়ুন: রবিতে প্রথম বাংলাদেশি সিইও

লাইভ

টপ