স্টিভ জবসের সেরা ৬ উদ্ভাবন

Send
মোখলেছুর রহমান
প্রকাশিত : ২১:০০, অক্টোবর ১১, ২০১৮ | সর্বশেষ আপডেট : ২১:০০, অক্টোবর ১১, ২০১৮

অ্যাপল লোগোস্মার্টফোন শিল্প: আইফোন

স্টিভ জবস ২০০৭ সালের জানুয়ারিতে প্রথম আইফোন বাজারে ছাড়ার সঙ্গে সঙ্গে স্মার্টফোন শিল্পে আমূল পরিবর্তন এনেছিলেন। অ্যাপলের স্মার্টফোনটি ওই বছরই জুনে যুক্তরাষ্ট্রে খুচরা বাজারে সর্বোচ্চ বিক্রির রেকর্ড স্পর্শ করেছিল। টাচ-স্ক্রিনের স্মার্টফোনটি জিপিআরএস ও ইডিজিই’র পাশাপাশি ডাটা ট্রান্সফারের জন্য জিএসএম সংযোগ সমর্থন করত।

ডেস্কটপ শিল্প: ম্যাকিনটশ ১২৮কে
অ্যাপলের ‘ম্যাকিনটশ ১২৮ কে’ ছিল কোম্পানিটির তৈরি প্রথম ডেস্কটপ কম্পিউটিং মেশিন। ‘ম্যাকিনটোশ ১২৮কে’-তে ছিল একটি ৯ ইঞ্চি সিআরটি মনিটর, একটি কি-বোর্ড, মাউস ইত্যাদি। এটিকে বহনের জন্য ছিল একটি হ্যান্ডেল। মূলত এর পরই পাওয়ারবুক সিরিজের অধীনে অ্যাপল ল্যাপটপ আলোর মুখ দেখে।

সঙ্গীত শিল্প: আইপড (এম ৮৫৪১)

আইপড (এম ৮৫৪১) ছিল অ্যাপলের প্রথম পোর্টেবল মিডিয়া প্লেয়ার। ২০০১ সালের অক্টোবরে প্রকাশিত আইপডগুলো ‘আপনার পকেটে ১০০০ গান’ এই ট্যাগ লাইন নিয়ে চালু হয়েছিল। প্রথম আইপডটিতে ৫ গিগা স্টোরেজের সঙ্গে একটি এলসিডি ডিসপ্লে ছিল।

ল্যাপটপ শিল্প: ১৫ ইঞ্চির ম্যাকবুক প্রো

অ্যাপলের ম্যাকবুক প্রোকে আজও সবচেয়ে শক্তিশালী ল্যাপটপ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ২০০৬ সালে জবস প্রথম ১৫-ইঞ্চি ম্যাকবুক প্রো ল্যাপটপ চালু করে।

অ্যাপ শিল্প: অ্যাপ স্টোর

২০০৪ সালে স্টিভ জবসের হাত ধরেই মাত্র ৫০০ অ্যাপ নিয়ে প্রথমবারের ‘অ্যাপল অ্যাপ স্টোর’ যাত্রা শুরু করে। এখন এই অ্যাপস্টোর আইওএস ব্যবহারকারীদের ২০ লাখের বেশি অ্যাপ্লিকেশন সরবরাহ করে।

ট্যাবলেট শিল্প: আইপ্যাড

স্টিভ জবস ২০১০ সালের জানুয়ারিতে প্রথম আইপ্যাড চালু করেন। প্রথম প্রজন্মের অ্যাপল আইপ্যাডটি ট্যাবলেট শিল্পকে নাড়া দিতে পেরেছিল। ২০০০ সালেও মাইক্রোসফ্ট ওই একই ধরনের ‘ফ্যাক্ট ফ্যাক্টর’ ডিভাইস বাজারে এনেছিল। কিন্তু এটি খুব বেশি সাড়া ফেলতে পারেনি। ট্যাবলেট শিল্পে জবসের তৈরি আইপ্যাডটি মূলত ২০১০ সাল পর্যন্ত আধিপত্য ধরে রাখতে পেরেছিল। প্রথম আইপ্যাড ডিভাইসটিতে অ্যাপল এ৪ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছিল এবং এতে ৯.৭ ইঞ্চি টাচ-স্ক্রিন ছিল।

/এইচএএইচ/

লাইভ

টপ