স্মার্ট অফিস চালু করলো সিসটেক ডিজিটাল

Send
রুশো রহমান
প্রকাশিত : ২০:৫১, এপ্রিল ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫১, এপ্রিল ২৩, ২০১৯

স্মার্ট অফিস উদ্বোধন করেন মোস্তাফা জব্বারপূর্ণাঙ্গ স্মার্ট অফিস হিসেবে যাত্রা শুরু করলো রাজধানীর কারওয়ান বাজারের সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্কের সিসটেক ডিজিটাল লিমিটেডের শাখা অফিস। মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) এই স্মার্ট অফিসের উদ্বোধন করেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিসটেক ডিজিটাল লিমিটেডের চেয়ারম্যান নাহিদ মওলা মৌরী, ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম রাশিদুল হাসান, বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, হাই-টেক পার্ক পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম, উইটসার সাধারণ সম্পাদক ড. জেমস এইচ. পুইসান্ট, অ্যাসোসিও’র সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ এইচ কাফি, বেসিসের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এ তৌহিদ, বর্তমান সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির, বিসিএস সভাপতি শাহিদ উল মুনীর, বাক্যর সভাপতি ওয়াহিদুর রহমান শরিফ, মহাসচিব তৌহিদ হোসেন, আপডেট সলিউশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক টিআইএম নুরুল কবির প্রমুখ।

স্মার্ট অফিস হলো ইন্টারনেট অব থিংস (আইওটি) প্রযুক্তি ও সেবাকে কাজে লাগিয়ে বুদ্ধিমান ও চৌকস পরিবেশে কাজের উপযোগী একটি অফিস, যেখানে সবকিছুই নিয়ন্ত্রিত হয়ে স্মার্ট উপায়ে। অফিসের বাতি, এসি, ডেস্ক, ভ্যানিশিং ব্লাইন্ড, স্ক্রিন, নানা ধরনের যন্ত্রপাতিসহ সবকিছুই নিয়ন্ত্রিত হয় ইন্টারনেট নিয়ন্ত্রিত উপায়ে। প্রায় এক বছর ধরে সিসটেক ডিজিটাল লিমিটেড বেশ কিছু বিদেশি স্মার্ট ডিভাইস উৎপাদনকারী কোম্পানিকে বাংলাদেশ থেকে সফটওয়্যার ও প্রযুক্তি সেবা দিয়ে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় ওই কোম্পানিগুলোর সঙ্গে দেশীয় সফটওয়্যার ও প্রযুক্তির সংমিশ্রণে সিসটেক তাদের বাংলাদেশ, যুক্তরাজ্য ও জাপান অফিস থেকে সম্পূর্ণ স্মার্ট অফিস অটোমেশন সেবা চালু করতে যাচ্ছে। যার একটি ব্যবহারিক বাস্তবায়ন করা হয়েছে সিসটেক ডিজিটালের জনতা টাওয়ার সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক অফিসে।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মোস্তাফা জব্বার বলেন, আমাদের দেশীয় প্রতিষ্ঠান অনেক আগেই সফটওয়্যার সেবা রফতানিতে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে অনেক সুনাম অর্জন করেছে। বিগত কয়েক বছর ধরে বাংলাদেশ থেকে আমরা হার্ডওয়্যার তৈরিতেও এগিয়ে যাচ্ছি। অচিরেই আমরা হার্ডওয়্যার রফতানিতে সুনাম অর্জন করতে সক্ষম হবো।

সিসটেক ডিজিটাল লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম রাশিদুল হাসান বলেন, শত প্রতিকূলতার মাঝেও বাংলাদেশের মতো একটি উন্নয়নশীল দেশে এই ধরনের স্মার্ট অফিস সেবা চালু করতে পেরে আমরা আনন্দিত। প্রযুক্তির উৎকর্ষকে কাজে লাগিয়ে এই খাতে আমাদের গবেষণা ও উদ্ভাবন ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে।

 

/এইচএএইচ/

লাইভ

টপ