স্মার্টফোন থেকে তথ্য চুরি ঠেকাবেন যেভাবে

Send
মোখলেছুর রহমান
প্রকাশিত : ১২:৩০, আগস্ট ০৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৩০, আগস্ট ০৫, ২০১৯

অ্যান্ড্রয়েড লোগোবর্তমানে অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য মোটেই নিরাপদ নয়। হ্যাকাররা ফেসবুকসহ জনপ্রিয় বেশ কয়েকটি অ্যাপকে লক্ষ্যবস্তু করেছে ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য চুরি করার জন্য।
এছাড়া অনুসন্ধান বা ব্রাউজ করার সময় আমাদের সামনে আসা বিজ্ঞাপনগুলোও এসব হ্যাকিংয়ের পেছনে অনেকাংশে দায়ী। বড় বড় প্রতিষ্ঠান স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নিচ্ছে তাদের পছন্দের সঙ্গে মিল রেখে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করার জন্য। আপনি যদি নিজের ব্যক্তিগত তথ্য সুরক্ষিত রাখতে চান তাহলে নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করতে পারেন।
বেশিরভাগ অ্যাপ ব্যবহারের আগে ব্যবহারকারীদের ফোনের কন্টাক্ট, ক্যামেরা, মাইক্রোফোন এসব পরিষেবা একসেসের অনুমতি চায়। বিশেষ করে বার্তা আদান প্রদানকারী অ্যাপগুলো ব্যবহার করে কল করার সময় এ ধরনের একসেস চাওয়া হয়। এক্ষেত্রে অনুমতি দিলেই ব্যক্তিগত তথ্য বেহাত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। 
তাই যদি কোনও অ্যাপ এমন অনুমতি চায়, যা আপনার কাছে অদ্ভুত মনে হয়, তাহলে তা এড়িয়ে চলুন। অনুমতি ছাড়া ব্যবহারের সমস্যা হলে বিকল্প অ্যাপ অনুসন্ধান করুন।
আপনি চাইলে প্রতিটি অ্যাপে আলাদাভাবে এই অনুমতির বিষয় পর্যালোচনা করতে পারেন। আর তা করতে নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করুন।
১. অ্যান্ড্রয়েড ফোন ‘সেটিংস’-এ যান।
২. স্মার্টফোনভিত্তিক ‘অ্যাপস’ বা অ্যাপ ম্যানেজার সন্ধান করুন।

৩. তালিকা থেকে নির্দিষ্ট অ্যাপে চাপুন।

৪. ‘অনুমতি’ বিভাগে যান।

৫. মাইক্রোফোন, ক্যামেরা, কলিং –এ ধরনের পরিষেবাগুলোর প্রতিটির অনুমতির জন্য টগল বন্ধ এবং চালু করুন।

সূত্র: গেজেটস নাউ

/এইচএএইচ/এমওএফ/

লাইভ

টপ