গ্রামীণফোন ও রবিতে প্রশাসক নিয়োগের অনুমোদন দিলো মন্ত্রণালয়

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৮:৪০, অক্টোবর ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৯:৪১, অক্টোবর ১৭, ২০১৯

গ্রামীণফোন ও রবিমোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোন ও রবিতে প্রশাসক নিয়োগের জন্য অনুমোদন দিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয়। বৃহস্পতিবার (১৭ অক্টোবর) এই অনুমোদন দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

মোস্তাফা জব্বার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় এবং টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলেই অপারেটর দুটিতে প্রশাসক বসানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বিটিআরসি প্রস্তাব পাঠিয়েছে। আমরা অনুমোদন দিয়েছি। এখন বিটিআরসি ঠিক করবে প্রশাসক বা রিসিভার হিসেবে কাকে নিয়োগ দেবে, কীভাবে নিয়োগ দেবে, প্রশাসকের কোনও সহযোগী থাকবে কিনা ইত্যাদি বিষয়।

প্রসঙ্গত, গত এপ্রিলে ১২ হাজার ৫৮০ কোটি টাকা বকেয়া দাবি করে গ্রামীণফোনকে এবং ৮৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা দাবি করে রবিকে নোটিশ পাঠায় বিটিআরসি। টাকা পরিশোধের জন্য অপারেটর দুটিকে দুই সপ্তাহ সময়ও দেওয়া হয়। বিটিআরসি থেকে তখন বলা হয়, গ্রামীণফোন ও রবির সর্বশেষ অডিটের পরে এই ডিমান্ড লেটার পাঠানো হয়েছে। কিন্তু দুই সপ্তাহের মধ্যে টাকা পরিশোধ না করায় বিটিআরসি গত ৪ জুলাই অপারেটর দুটির ব্যান্ডউইথ সীমিত করে দেয়। এরপর এই আদেশ প্রত্যাহার করে এনওসি (নো-অবজেকশন সার্টিফিকেট) দেওয়া বন্ধ করা হয়। এরপরও অপারেটর দুটি সমস্যা সমাধানে কোনও উদ্যোগ না নেওয়ায় গত ৫ সেপ্টেম্বর কেন অপারেটর দুটির লাইসেন্স বাতিল হবে না তা জানতে চেয়ে কারণ দর্শাও নোটিশ পাঠায় বিটিআরসি। এরপরই আসে প্রশাসক নিয়োগের সিদ্ধান্ত।

/এইচএএইচ/টিএন/এমওএফ/

লাইভ

টপ