গ্লোবাল ইয়ুথ লিডারশিপ সামিটে পুরস্কার পেলেন বাংলাদেশের ৭ তরুণ

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৩:১৮, মে ২৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৩:২০, মে ২৩, ২০১৯

গ্লোবাল ইয়ুথ পার্লামেন্ট আয়োজিত গ্লোবাল ইয়ুথ লিডারশিপ সামিটে ম্মাননা পদক জিতেছেন বাংলাদেশের সাত তরুণ। বিভিন্ন ক্ষেত্র থেকে সামাজিক ও রাজনৈতিক ভাবনায় তরুণদের মাঝে পরিবর্তন আনার প্রচেষ্টার কারণে বিশ্বের ৪২টি দেশের ৭১জন প্রাথমিকভাবে নির্বাচিত হন। চূড়ান্ত ধাপে এসে নির্বাচিত হয়েছেন ৩৭টি দেশের ৪৬জন তরুণ।

প্রতি বছর ভিন্ন ভিন্ন দেশে ‘গ্লোবাল ইয়ুথ পার্লামেন্ট’ তাদের এই লিডারশিপ সামিটের আয়োজন করে আসছে। এবারের আয়োজক দেশ ছিল নেপাল, আগামী বছর এর আয়োজক দেশ সুইজারল্যান্ড। তিন দিনব্যাপী চলা এই সম্মেলনের প্রথম অধিবেশনে রাজধানী কাঠমান্ডুতে অবস্থিত জাতীয় এসেম্বলি হলে সাবেক প্রধানমন্ত্রী জলানাথ খানালের হাত থেকে তারা এই সম্মাননা পদক গ্রহন করেন।

এই অধিবেশনে বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক অর্থমন্ত্রী রাম শারান মহত এবং উপস্থিত ছিলেন দেশটির মন্ত্রীবর্গ ও নানা দেশের কূটনীতিকবৃন্দ এবং আন্তর্জাতিক জোটের স্থায়ী প্রতিনিধিগণ।

বাংলাদেশ থেকে গ্লোবাল ইয়ুথ লিডারশিপ ২০১৯ সম্মাননা পদকে ভূষিতরা হলেন, লিডারশিপ ক্যাটাগরিতে অ্যাড. খালেদ মাসুদ মজুমদার ও অ্যাড. ফারুক তপাদার। উদ্যোক্তা ক্যাটাগরিতে ‘অদম্য’ ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারপার্সন ড. আমানা আনোয়ার ও প্রকাশনা সংস্থা বর্ষাদুপুরের স্বত্তাধিকারী জনাব মাশফিকুল্লাহ তন্ময়।

এছাড়াও লাইফ কোচ রাওমান স্মিতা মোটিভেশন ক্যাটাগরিতে ছড়াকার ও সাংবাদিক অনিক খান গণতন্ত্র ক্যাটাগরিতে, লেখক রাকিব আল হাসান ইনফ্লুয়েন্সার ক্যাটাগরিতে পদকলাভ করেন।  এখানে উল্লেখ্য, অনিক খান পুরোনো হলেও বাকি দুজন নতুন এবং এই তিনজনই বষার্দুপুর প্রকাশনীর লেখক।

পদক প্রদান শেষে কাঠমান্ডুর বৌধা অঞ্চলে মুহকুম ইন্টারন্যাশনালে শুরু হয় তিন দিনের মূল সম্মেলন। 

/এফএএন/

লাইভ

টপ