X
শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ৩১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

যেভাবে পাবেন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট

আপডেট : ২৪ এপ্রিল ২০২১, ১২:৪৫

পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেতে হলে কিছু নিয়ম মেনে আবেদন করতে হবে। সেগুলো হলো, আবেদনকারীর পাসপোর্টে উল্লিখিত স্থায়ী কিংবা বর্তমান ঠিকানার যেকোনও একটি অবশ্যই সংশ্লিষ্ট মেট্রোপলিটন কিংবা জেলা পুলিশের আওতাধীন এলাকায় থাকতে হবে। আবেদনকারীকে কিংবা যার জন্য পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট চাওয়া হয়েছে, তাকে অবশ্যই ওই ঠিকানার বাসিন্দা হতে হবে।

বিদেশে অবস্থানকারী কোনও ব্যক্তির পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেতে হলে তিনি যে দেশে অবস্থান করছেন, সে দেশে বাংলাদেশ দূতাবাস কিংবা হাইকমিশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কর্তৃক পাসপোর্টের সত্যায়িত ফটোকপি তার পক্ষে করা আবেদনের সঙ্গে দিতে হবে।

মেশিন রিডেবল পাসপোর্টের (এমআরপি) ক্ষেত্রে যদি পাসপোর্টে ঠিকানা উল্লেখ না থাকে সেক্ষেত্রে ঠিকানার প্রমাণ স্বরূপ জাতীয় পরিচয় পত্র বা জন্ম নিবন্ধন সনদপত্র বা স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলরের সনদপত্রের ফটোকপি প্রথম শ্রেণির সরকারি গেজেটেড কর্মকর্তার মাধ্যমে সত্যায়িত করে দাখিল করতে হবে।

যেভাবে আবেদন করতে হবে
বিদেশগামী বা বিদেশে বসবাসকারী বাংলাদেশি নাগরিকরা দেশে বা দেশের বাইরে যেকোনও স্থান থেকে ইন্টারনেট ব্যবহার করে pcc.police.gov.bd ঠিকানায় অথবা বাংলাদেশ পুলিশের ওয়েবসাইটে (www.police.gov.bd) গিয়ে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স মেন্যুতে ক্লিক করে অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। কম্পিউটার কিংবা মুঠোফোনেও আবেদন করা যাবে। আবেদনের সঙ্গে প্রয়োজনীয় দলিলাদি এবং সরকারি ফি পরিশোধের চালান স্ক্যান করে আপলোড করতে হবে। আবেদনকারীর ব্যক্তিগতভাবে থানায়ও যাওয়ার প্রয়োজন হবে না।

আবেদন ফরমের প্রথম ধাপে ব্যক্তিগত বিস্তারিত তথ্য, দ্বিতীয় ধাপে বর্তমান এবং স্থায়ী ঠিকানা পুরণ করতে হবে। তৃতীয় ধাপে প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের স্ক্যান কপি আপলোড করতে হবে। পূরণকরা সকল তথ্য চতুর্থ ধাপে দেখা যাবে। আবেদনে কোনও ভুল থাকলে তা আগের ধাপগুলোতে গিয়ে সংশোধন করা যাবে। তবে চতুর্থ ধাপে আবেদনটি সাবমিট করার পর সংশোধনের আর কোনও সুযোগ থাকবে না। আবেদন ফরমের পঞ্চম ধাপে ফি পরিশোধ করার জন্য Pay Offline বাটনে ক্লিক করতে হবে। চালানের মাধ্যেমে ৫০০ টাকা ফি পরিশোধের উপায় এবং পরবর্তী করণীয় সম্পর্কে সেখানে কিছু নির্দেশনা থাকবে। সেসব নির্দেশনা অনুসরণ করতে হবে। চালানের মূল কপিটি আপলোড করার আগে অবশ্যই এর ওপর অ্যাপ্লিকেশন রেফারেন্স নম্বরটি লিখে দিতে হবে। অন্যথায় আপনার পেমেন্টটি গ্রহণযোগ্য হবেনা এবং আবেদনটি বাতিল হয়ে যাবে।

আবেদনকারী তার আবেদনের সর্বশেষ অবস্থা অনলাইনে নিয়মিত জানতে পারবেন। পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার স্বাক্ষর, পুলিশ সুপার কিংবা উপ-পুলিশ কমিশনারের প্রতিস্বাক্ষর এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সত্যায়ন হওয়ার পর আবেদনকারী ব্যক্তিগতভাবে জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয় অথবা মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনারের কার্যালয়ের ওয়ান স্টপ সার্ভিস কাউন্টার থেকে হাতে হাতে নিতে পারেন। কুরিয়ার বা ডাকে পেতে চাইলে আবেদন করার সময় উল্লেখ করতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে ডাক বা কুরিয়ার ফি পরিশোধ সাপেক্ষে আবেদনকারী ঘরে বসে সার্টিফিকেট পেতে পারেন।

অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের ক্ষেত্রে একটি কিউআর কোড প্রিন্ট করা থাকে। যে কোনও স্মার্ট ফোন থেকে কিউআর কোড স্ক্যানার অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে কোডটি স্ক্যান করলে ইস্যুকৃত সার্টিফিকেটের একটি অনলাইন লিংক পাওয়া যাবে। যেকোনও ইন্টারনেট ব্রাউজার ব্যবহার করে লিংকটি ভিজিট করলে ইস্যু করা সার্টিফিকেটের একটি অবিকল ডিজিটাল কপি কম্পিউটারে দেখা যাবে। ফলে এখন থেকে ইস্যুকৃত পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট জাল হওয়ার কোনও সম্ভাবনা থাকবে না এবং যে কোন বিদেশি মিশন অনলাইনে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট যাচাই করতে পারবে।

জেইউ/এমএনএইচ

সম্পর্কিত

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগে একজন গ্রেফতার

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগে একজন গ্রেফতার

অনলাইনে হয়রানি, নারীদের পাশে ‘সাইবার সাপোর্ট ফর ওমেন’

অনলাইনে হয়রানি, নারীদের পাশে ‘সাইবার সাপোর্ট ফর ওমেন’

ই-কমার্সের পলাতকদের ফেরাতে ইন্টারপোলের সহায়তা চাওয়া অব্যাহত থাকবে: সিআইডি

ই-কমার্সের পলাতকদের ফেরাতে ইন্টারপোলের সহায়তা চাওয়া অব্যাহত থাকবে: সিআইডি

টেস্ট ড্রাইভের কথা বলে বাইক নিয়ে পলায়ন, গ্রেফতার ৫

টেস্ট ড্রাইভের কথা বলে বাইক নিয়ে পলায়ন, গ্রেফতার ৫

বিশ্ব খাদ্য দিবস 

ঢাকার ফুটপাতে খাবার থাকে না ঢাকা (ফটো স্টোরি)

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৬:৪৩

আজ শনিবার (১৬ অক্টোবর) বিশ্ব খাদ্য দিবস। সারাবিশ্বের মতো বাংলাদেশেও দিবসটি পালিত হচ্ছে। দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করলেও চ্যালেঞ্জ রয়ে গেছে নিরাপদ খাদ্য নিয়ে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বেঁচে থাকার জন্য খাদ্য জরুরি হলেও তার চেয়ে বেশি জরুরি নিরাপদ খাদ্য। টেকসই জীবন ও সুস্বাস্থ্যের জন্য নিরাপদ ও পুষ্টিকর খাবারের বিকল্প নেই। অনিরাপদ খাদ্য শুধু স্বাস্থ্যের ঝুঁকিরই কারণ না, বরং দেহে রোগের বাসা বাঁধারও অন্যতম কারণ। ডায়রিয়া থেকে শুরু করে ক্যান্সার— এমন দুই শতাধিক রোগের জন্য দায়ী অনিরাপদ খাদ্য।

করোনার প্রকোপ কমে আসায় সবকিছু স্বাভাবিক হয়ে এসেছে। আর রাজধানীর ফুটপাতগুলোতে বিক্রি বেড়েছে মুখরোচক খোলা খাবারেরও। শনিবার রাজধানীর বিভিন্ন স্থান থেকে তোলা ছবি।

 

/ইউএস/

সম্পর্কিত

নকল কসমেটিক-ভেজাল খাদ্য উৎপাদন: ১৫ লাখ টাকা জরিমানা  

নকল কসমেটিক-ভেজাল খাদ্য উৎপাদন: ১৫ লাখ টাকা জরিমানা  

গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু (ফটো স্টোরি)

গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া শুরু (ফটো স্টোরি)

ধুলো জমা শ্রেণিকক্ষে চলছে ঝাড়পোঁছ (ফটো স্টোরি)

ধুলো জমা শ্রেণিকক্ষে চলছে ঝাড়পোঁছ (ফটো স্টোরি)

ছবিতে চেয়ারম্যান বাড়ির আগুন

ছবিতে চেয়ারম্যান বাড়ির আগুন

যাত্রাবাড়ীতে ৩ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৬:২১

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানা এলাকা থেকে গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) যাত্রাবাড়ী থানা। তারা হলো মো. বিল্লাল হোসেন ও মো. আলামিন হাওলাদার। গতকাল (১৫ অক্টোবর) রাতে যাত্রাবাড়ীর দক্ষিণ কুতুবখালী এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। 

শনিবার (১৬ অক্টোবর) দুপুরে যাত্রাবাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাজহারুল ইসলাম জানান, দক্ষিণ কুতুবখালীর পচা ডোর নামের একটি দোকানের সামনে মাদক ব্যবসায়ীরা গাঁজা বিক্রি করছে এমন তথ্য পেয়ে অভিযান চালান তারা। তখন ধরা পড়ে বিল্লাল ও আলামিন। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৩ কেজি গাঁজা উদ্ধার করা হয়।

পুলিশের এই কর্মকর্তা উল্লেখ করেন, গ্রেফতার হওয়া দুই মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে যাত্রাবাড়ী থানায় মামলা হয়েছে।

/আরটি/জেএইচ/

সম্পর্কিত

আইস ধরা পড়লে দাম নেয় না মিয়ানমারের সরবরাহকারীরা

আইস ধরা পড়লে দাম নেয় না মিয়ানমারের সরবরাহকারীরা

যাত্রাবাড়ীতে ৫ কেজি আইসসহ দু’জন গ্রেফতার

যাত্রাবাড়ীতে ৫ কেজি আইসসহ দু’জন গ্রেফতার

মিরপুরে ১১৬ লিটার চোলাই মদসহ একজন গ্রেফতার

মিরপুরে ১১৬ লিটার চোলাই মদসহ একজন গ্রেফতার

আরও নাশকতার আশঙ্কায় সতর্ক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

আরও নাশকতার আশঙ্কায় সতর্ক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

আইস ধরা পড়লে দাম নেয় না মিয়ানমারের সরবরাহকারীরা

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৫:১৯

মিয়ানমারের মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে সখ্য গড়ে তুলছেন বাংলাদেশের মাদক ব্যবসায়ীরা। আর এই সুযোগে প্রতিবেশি দেশটির মাদক ব্যবসায়ীরাও তাদের প্রলুব্ধ করতে গ্রহণ করছে বিভিন্ন ধরনের ‘বিজনেস স্ট্র্যাটেজি’। যার মধ্যে একটি হলো- বাংলাদেশে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারীবাহিনীর হাতে কখনও ভয়ংকর মাদক আইসের চালান ধরা পড়লে তার মূল্য পরিশোধ করতে হতো না ব্যবসায়ীদের।

শনিবার (১৬ অক্টোবর) ভোরে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে সাড়ে ৫ কেজি আইসসহ দুজনকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। গ্রেফতারকৃতদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের পর এমন তথ্য পাওয়া গেছে। পরে দুপুরে রাজধানীর কাওরান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে আইন ও গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মুঈন সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।

র‌্যাব বলছে, গ্রেফতারকৃত খোকন টেকনাফকেন্দ্রিক আইস ও ইয়াবার ব্যবসার সাথে জড়িত একটি সিন্ডিকেটের অন্যতম হোতা। আর গ্রেফতারকৃত রফিক তার সহযোগী। আজ ভোরে রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থেকে গ্রেফতারের সময় তাদের কাছ থেকে আইসের পাশাপাশি বিদেশি অস্ত্র এবং গুলিও উদ্ধার করা হয়েছে। দেশে এখন পর্যন্ত এটাই সর্বোচ্চ পরিমাণের আইসের চালান, যার আনুমানিক বাজারমূল্য প্রায় সাড়ে ১২ কোটি টাকা।

সংবাদ সম্মেলনে খন্দকার আল মুঈন বলেন, গ্রেফতারকৃতরা প্রায় পাঁচ বছর ধরে ইয়াবা ব্যবসার সাথে জড়িত। অধিক মুনাফার আশায় তারা গেল কয়েক মাস ধরে আইসের ব্যবসায় জড়িয়ে পড়েছে। র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘এই মাদক ব্যবসায়ীদের পার্শ্ববর্তী দেশ মিয়ানমারের সাথে এতটাই সখ্যতা গড়ে উঠেছে যে, যদি কোনও চালান আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ধরা পড়ে তাহলে সে চালানের টাকাও তাদের পরিশোধ করতে হয় না। বিদেশি যেসব মাদক ব্যবসায়ী রয়েছে, তারা আমাদের দেশের চোরাকারবারিদের প্রলুব্ধ করার জন্য এরকম একটি বিজনেস স্ট্র্যাটেজি নিয়েছে।’

বেশিরভাগই আসে নদীপথে

মিয়ানমার থেকে আসা এসব ইয়াবা এবং আইসের বেশিরভাগই দেশে আসতো নদীপথ ব্যবহার করে। সাধারণত সেন্টমার্টিনের দক্ষিণ-পূর্ব এলাকার সমুদ্রে নৌপথে মালামাল স্থানান্তর করে চোরাকারবারিরা। এসময় তারা নিজস্ব সিগন্যাল ব্যবহার করে থাকে।

র‌্যাব বলছে, গ্রেফতারকৃত খোকন এর আগেও বেশ কয়েকটি আইসের চালান নিয়ে এসেছে। তার নামে একাধিক মামলাও রয়েছে। ঢাকা ও চট্টগ্রাম কেন্দ্রিক একটি অভিজাত শ্রেণীর মধ্যে আইসের ডিমান্ড রয়েছে। প্রতিবেশি দেশ থেকে আনার পর মাদকের চালান প্রথমে টেকনাফে রাখা হয়। পরে বিভিন্ন সময় নৌপথ ব্যবহার করে টেকনাফ থেকে এসব মাদক চট্টগ্রামে নিয়ে আসা হয়। চট্টগ্রাম থেকে বিভিন্ন যানবাহন ব্যবহার করে চালানটি রাজধানীর যাত্রাবাড়িতে আসে। সেখান থেকে ছড়িয়ে দেওয়া রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে

সিন্ডিকেটের ২০-২৫ জনের নাম পেয়েছে র‌্যাব

গ্রেফতার দুজনকে জিজ্ঞাসাবাদে এই মাদক সিন্ডিকেটের ২০ থেকে ২৫ জনের নাম পাওয়া গেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আইস ব্যবসার সাথে জড়িত টেকনাফে এবং ঢাকায় অনেকের নাম পেয়েছি। সে বিষয়ে আমরা অভিযান পরিচালনা করবো। গুলশান, বনানী, মিরপুর ও মোহাম্মদপুর কেন্দ্রিক যে সিন্ডিকেট গড়ে উঠেছে, এসব জায়গায় আইস পৌঁছে দেওয়ার জন্যই চালানটি নিয়ে আসা হয়েছিল। চালান পৌঁছে দেওয়ার পরই টাকা সংগ্রহ করতো তারা। কিন্তু এর আগেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে ধরা পড়েছে তারা।

চা ও আচারের প্যাকেটে আসতো আইস

মাদকের এই টাকা মিয়ানমারের মাদক ব্যবসায়ীদের কাছে হুন্ডির মাধ্যমে পরিশোধ করা হতো উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘গ্রেফতারকৃত খোকন নিয়মিত মিয়ানমারে যেতো। সেখান থেকে চা ও আচারের প্যাকেটে করে অভিনব কৌশল ব্যবহার করে আনা হতো আইস। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দেওয়ার জন্য এসব অভিনব কৌশল ব্যবহার করতো চোরাকারবারীরা।’

র‌্যাব বলছে, গ্রেফতারকৃত রফিক ছদ্মবেশে অটোরিকশা চালক হিসেবে কাজ করতো। পার্শ্ববর্তী দেশ থেকে আসা মাদক প্রথমে তার বাসায় রাখতো। পরবর্তীতে সুযোগমতো আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর চোখ ফাঁকি দিয়ে অন্য জায়গায় স্থানান্তর করে তারা।

/আরটি/ইউএস/

সম্পর্কিত

যাত্রাবাড়ীতে ৩ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

যাত্রাবাড়ীতে ৩ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন

ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

যাত্রাবাড়ীতে ৫ কেজি আইসসহ দু’জন গ্রেফতার

যাত্রাবাড়ীতে ৫ কেজি আইসসহ দু’জন গ্রেফতার

নিত্যপণ্যের মূল্য নিয়ন্ত্রণের দাবিতে মানববন্ধন

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১৩:৩৪

নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম নিয়ন্ত্রণের দাবিতে মানববন্ধন করেছে ‘সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন’ ও ‘ইমারত নির্মাণ শ্রমিক ইউনিয়ন বাংলাদেশ (ইনসাব)’। শনিবার (১৬ অক্টোবর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে যৌথ উদ্যোগে এই মানববন্ধনের আয়োজন করে সংগঠন দুটি।

বৈশ্বিক মহামারিতে ব্যবসা-বাণিজ্যে মন্দা ও কর্মহীনতার পাশাপাশি সর্বস্তরে মানুষের আয় কমেছে উল্লেখ করে আয়োজকরা বলেন, দেশে ইতোমধ্যে রেমিটেন্সের গতি কমে এসেছে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদির মূল্য ঊর্ধ্বমুখী। আর অব্যাহত মূল্যবৃদ্ধিতে জনজীবনে অন্ধকার নেমে এসেছে। 

মানববন্ধনে অবিলম্বে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যমূল্যের দাম কমানোর পাশাপাশি বেকার শ্রমজীবী মানুষদের জন্য বিকল্প কর্মসংস্থান ও রেশনিং ব্যবস্থা চালু এবং গ্যাসের দাম কমানোর দাবি জানানো হয়।

/জেডএ/ইউএস/

সম্পর্কিত

সারাদেশের শিক্ষক নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন

সারাদেশের শিক্ষক নির্যাতনের প্রতিবাদে মানববন্ধন

‘কৃষক ঠকছে মাঠে, ভোক্তা ঠকছে হাটে’

‘কৃষক ঠকছে মাঠে, ভোক্তা ঠকছে হাটে’

হয়রানির অভিযোগ রিক্রুটিং এজেন্সিগুলোর, বিদেশে কর্মী পাঠানো বন্ধের হুঁশিয়ারি

হয়রানির অভিযোগ রিক্রুটিং এজেন্সিগুলোর, বিদেশে কর্মী পাঠানো বন্ধের হুঁশিয়ারি

শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা বন্ধ করে প্যানেলভিত্তিক নিয়োগের দাবি

শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষা বন্ধ করে প্যানেলভিত্তিক নিয়োগের দাবি

ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন

আপডেট : ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১২:৩০

ভ্যাপসা গরমে অতিষ্ঠ জনজীবন। গতকাল শুক্রবার (১৫ অক্টোবর) সন্ধ্যার পর দেশের কোথাও কোথাও বৃষ্টি হওয়ায় তাপমাত্রা কিছুটা কমেছিল। তবে আজ সকাল থেকেই আবার ‘আগুন ছড়াচ্ছে’ সূর্য। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সাগরে সৃষ্ট লঘুচাপের কারণে বাতাসেও বেড়েছে জ্বলীয় বাষ্পের পরিমাণ। আর এ কারণে গরমের অনুভূতিও বেশি হচ্ছে। আরও দু’দিন এমন গরম পড়তে পারে। এরপর আগামী সোমবার (১৮ অক্টোবর) থেকে টানা দুই-তিনদিন বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।
 
আবহাওয়াবিদ আরিফ হোসেন বলেন, ক্ষণিকের বৃষ্টিতে তাপমাত্রা গতকালের তুলনায় আজ কিছুটা কম। যদিও গরমের ভ্যাপসা ভাবটা আগের মতোই আছে। ১৮ অক্টোবর থেকে ২০ অক্টোবর বৃষ্টি হতে পারে। এরপর থেকে আস্তে আস্তে তাপমাত্রা আগের তুলনায় অনেক কমে আসবে।
 
আজ ঢাকা, টাঙ্গাইল, ফরিদপুর, ময়মনসিংহ, কুমিল্লা, নোয়াখালী, ফেনী, চাঁদপুর, পাবনা, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, দিনাজপুর, পঞ্চগড়, যশোর, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট অঞ্চলের ওপর দিয়ে মৃদু তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। 

আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাসে বলা হয়, সাগরে সৃষ্টি হওয়া লঘুচাপটি এখন ভারতের উড়িষ্যা উপকূলে অবস্থান করছে। দক্ষিণ পশ্চিম মৌসুমী বায়ু বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল থেকে বিদায় নিয়েছে। দেশের অন্য এলাকায় কম সক্রিয়। এটি উত্তর বঙ্গোপসাগরে দুর্বল অবস্থায় আছে। 
এর প্রভাবে সিলেট‌, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় এবং ঢাকা, ময়মনসিংহ, রংপুর ও রাজশাহী বিভাগের দু-এক জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি হতে পারে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল বগুড়ায় ৩৮ দশমিক ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস। এছাড়া বিভাগীয় শহরগুলোর মধ্যে ঢাকায় আজ ৩৭ দশমিক ৪, ময়মনসিংহে আজ ৩৬ দশমিক ৫, চট্টগ্রামে ৩৫ দশমিক ৬, সিলেটে ৩৬ দশমিক ৪, রাজশাহীতে ৩৫ দশমিক ৭, রংপুরে ৩৪ দশমিক ৩, খুলনায় ৩৬ দশমিক ৫, এবং বরিশালে ৩৬ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে।

/এসএনএস/ইউএস/

সম্পর্কিত

আইস ধরা পড়লে দাম নেয় না মিয়ানমারের সরবরাহকারীরা

আইস ধরা পড়লে দাম নেয় না মিয়ানমারের সরবরাহকারীরা

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

অ্যানেস্থেসিওলজিস্ট সংকটে চালু হয় না আইসিইউ

যাত্রাবাড়ীতে ৫ কেজি আইসসহ দু’জন গ্রেফতার

যাত্রাবাড়ীতে ৫ কেজি আইসসহ দু’জন গ্রেফতার

আরও নাশকতার আশঙ্কায় সতর্ক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

আরও নাশকতার আশঙ্কায় সতর্ক আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগে একজন গ্রেফতার

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার পরিচয়ে প্রতারণার অভিযোগে একজন গ্রেফতার

অনলাইনে হয়রানি, নারীদের পাশে ‘সাইবার সাপোর্ট ফর ওমেন’

অনলাইনে হয়রানি, নারীদের পাশে ‘সাইবার সাপোর্ট ফর ওমেন’

ই-কমার্সের পলাতকদের ফেরাতে ইন্টারপোলের সহায়তা চাওয়া অব্যাহত থাকবে: সিআইডি

ই-কমার্সের পলাতকদের ফেরাতে ইন্টারপোলের সহায়তা চাওয়া অব্যাহত থাকবে: সিআইডি

টেস্ট ড্রাইভের কথা বলে বাইক নিয়ে পলায়ন, গ্রেফতার ৫

টেস্ট ড্রাইভের কথা বলে বাইক নিয়ে পলায়ন, গ্রেফতার ৫

পুলিশের মাদক নিরাময় কেন্দ্র ‘ওয়েসিস’-এর কার্যক্রম শুরু

পুলিশের মাদক নিরাময় কেন্দ্র ‘ওয়েসিস’-এর কার্যক্রম শুরু

রাশিয়ার তৈরি দু’টি হেলিকপ্টার পাচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশ

রাশিয়ার তৈরি দু’টি হেলিকপ্টার পাচ্ছে বাংলাদেশ পুলিশ

পুলিশ সার্জেন্টের ডিভোর্সে জালিয়াতি, আদালতে সিআইডির প্রতিবেদন

পুলিশ সার্জেন্টের ডিভোর্সে জালিয়াতি, আদালতে সিআইডির প্রতিবেদন

মিরপুরে নিখোঁজ সাত মেয়ের মধ্যে চার জনের সন্ধান

মিরপুরে নিখোঁজ সাত মেয়ের মধ্যে চার জনের সন্ধান

গ্রাহকদের ২৫০ কোটি টাকা আটকে রেখেছে কিউকম: ডিবি

গ্রাহকদের ২৫০ কোটি টাকা আটকে রেখেছে কিউকম: ডিবি

কাজের গতি আনতে নিয়মিত ছুটি পাবেন পুলিশ সদস্যরা

কাজের গতি আনতে নিয়মিত ছুটি পাবেন পুলিশ সদস্যরা

সর্বশেষ

ষড়যন্ত্রকারীরা মন্দিরে কোরআন শরীফ রেখেছিল: খন্দকার মোশারফ

ষড়যন্ত্রকারীরা মন্দিরে কোরআন শরীফ রেখেছিল: খন্দকার মোশারফ

সরকারের সঙ্গে আলেমদের কোনও বিরোধ নেই: মাওলানা হাসান

সরকারের সঙ্গে আলেমদের কোনও বিরোধ নেই: মাওলানা হাসান

ঢাকার ফুটপাতে খাবার থাকে না ঢাকা (ফটো স্টোরি)

বিশ্ব খাদ্য দিবস ঢাকার ফুটপাতে খাবার থাকে না ঢাকা (ফটো স্টোরি)

এম‌পি খুনে সন্দেহে জ‌ঙ্গিবাদ, মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ

এম‌পি খুনে সন্দেহে জ‌ঙ্গিবাদ, মুসলিম কমিউনিটিতে উদ্বেগ

দুই সন্তানসহ স্ত্রীর লাশ উদ্ধার, স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা

দুই সন্তানসহ স্ত্রীর লাশ উদ্ধার, স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা

© 2021 Bangla Tribune