X
শুক্রবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৯ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক ১৭টি এনজিও’র বিরুদ্ধে বাংলাদেশে জঙ্গি অর্থায়নের অভিযোগ

আপডেট : ২০ জুলাই ২০১৭, ১৭:৩৫
image

সৌদিসহ অন্যান্য উপসাগরীয় আরব দেশের এনজিওগুলো বাংলাদেশ ও ভারতের জঙ্গি সংগঠনগুলোকে অর্থ দিচ্ছে বলে দাবি করেছেন গোয়েন্দারা। বাংলাদেশ ব্যাংক সংশ্লিষ্ট অর্থ তদারিক বিষয়ক গোয়েন্দা সংস্থা ফিন্যান্স ইন্টিলিজেন্স ইউনিট সাংবাদিকদের এ কথা জানান। যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম মর্নিং স্টার-এর প্রতিবেদন অনুযায়ী, সরকারি বিশেষ প্রতিনিধি দলের এক বৈঠকে জঙ্গি অর্থায়নের বিষয়টি উন্মোচিত হয়।

২১ জুন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমুর নেতৃত্বে ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের উপস্থিতিতে এক বৈঠকে গোয়েন্দারা ১৭টি এনজিওকে সনাক্ত করে। সংস্থাগুলো সৌদি আরব, কাতার, ‍কুয়েতসহ মধ্যপ্রাচ্যের কয়েকটি দেশের অর্থায়নের পরিচাললিত হয়। শিল্পমন্ত্রীকে উদ্ধৃত করে মর্নিং স্টার বলেছ, ওই এনজিওগুলোকে নজরদারির আওতায় আনা হয়েছে। কয়েকটির বিরুদ্ধে ইতোমধ্যে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এর আগে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে সৌদি এরাবিয়ান এয়ারলাইনসের বিরুদ্ধে জঙ্গিবাদে অর্থায়নের অভিযোগ তুলেছিলেন। বাংলাদশে ফিন্যান্স ইন্টিলিজেন্স ইউনিটের জেনারেল ম্যানেজার দেবপ্রসাদ দেবনাথ বলেন, ২১ জুনের বৈঠকে জঙ্গিবাদে অর্থায়ন সহ বেশ কিছু বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।’ তবে এর মধ্যে জঙ্গিবাদে অর্থায়নই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় বলে জানান তিনি।

ফিন্যান্স ইন্টিলিজেন্স ইউনিটের জেনারেল ম্যানেজার দেবনাথ বলেন, এই ১৭টি এনজিওতে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। এই সংস্থাগুলো ভারতের আটটি রাজ্যেও জঙ্গি কার্যক্রমে সহায়তা করে যাচ্ছে। রাজ্যগুলো বাংলাদেশের সীমান্তবর্তী অঞ্চলে অবস্থিত।

বাংলাদেশ ব্যাংককে উদ্ধৃত করে মর্নিং স্টার বলছে, বেশিরভাগ সংস্থাগুলোই জামাতে-ইসলামীর নিয়ন্ত্রিত। সন্দেহভাজন এনজিওগুলো হলো, বাংলাদেশ কৃষি কল্যাণ সমিতি, মুসলিম এইড বাংলাদেশ, রাবেতা আল-আলম আলস্লামি, কাতার চ্যারিটেবল সোসাইটি, ইসলামিক রিলিফ এজেন্সি, আল-ফুরকান ফাউন্ডেশন, কুয়েত জয়েন্ট রিলিফ কমিটি, ইন্টারন্যাশনাল ইসলামিক রিলিফ সংস্থা, হায়তুল ইগাছা, রিভাইভাল অফ ইসলামিক হেরিটেজ সোসাইটি, তাওহীদি নুর ও আলমুনতাদা আল ইসলামি।

২০১২ সালে জঙ্গি হামলার শুরু হওয়ার পর থেকেই বাংলাদেশ গোয়েন্দারা নজরদারি বাড়িয়েছেন। ৫ বছর সময়ে অনেকগুলো এনজিও’র উপর তদন্ত করেছেন তারা। সংস্থাগুলোর আর্থিক লেনদেনে অসঙ্গতির প্রমাণ পেয়েছেন তারা।

/এমএইচ/বিএ/

সম্পর্কিত

সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে: ইরান

সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে: ইরান

‘আমরা কি আফগানিস্তানে বাস করছি?’, পুলিশের সমালোচনায় ইসরায়েলি বিচারক

‘আমরা কি আফগানিস্তানে বাস করছি?’, পুলিশের সমালোচনায় ইসরায়েলি বিচারক

ইরানের পারমাণবিক পরিকল্পনা ঠেকাতে সহায়তা দেবে সৌদি আরব

ইরানের পারমাণবিক পরিকল্পনা ঠেকাতে সহায়তা দেবে সৌদি আরব

মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের পারমাণবিক আলোচনা চায় ইরান

মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের পারমাণবিক আলোচনা চায় ইরান

ভারতে ৯ মাস ধরে কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, ২৮ জন আটক

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৫৯

ভারতের মহারাষ্ট্রের থানে ১৫ বছরে এক কিশোরীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগে ২৮ জনকে আটক করেছে পুলিশ। পুলিশ বলছে, ওই কিশোরীকে টানা ৯ মাস ধরে ধষর্ণ করে অভিযুক্তরা। এ ঘটনায় বিস্তর তদন্তে নেমেছে প্রশাসন।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি তাদের খবরে জানিয়েছে, চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে তার ওপর শারীরিক নির্যাতন শুরু হয়। এ ঘটনায় জড়িতদের মুম্বাই থেকে আটক করা হয়েছে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে বলা হয়েছে, প্রথমে ওই কিশোরীর প্রেমিক তাকে ধর্ষণ করে এবং এর ভিডিও ধারণ করে। পরে ওই ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে দিনের পর দিন তার প্রেমিক ও বন্ধুরা মিলে ধর্ষণ করে আসছিল।

নির্যাতিত ওই মেয়ে বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) থানায় এ বিষয়ে অভিযোগ করে। মহারাষ্ট্রের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার দত্তরায় কারালে জানিয়েছেন, কিশোরী নিজেই থানায় এসে গত নয় মাসে তার ওপর হওয়া নির্যাতনের বর্ণনা দিয়েছে। তাকে  হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ভারতের গত বছরে ২৮ হাজার ৪৬টি ধর্ষণের প্রমাণ পাওয়া গেছে।

/এলকে/

সম্পর্কিত

ভবানীপুর জিতে বিজেপিকে দুর্বল করতে চান মমতা

ভবানীপুর জিতে বিজেপিকে দুর্বল করতে চান মমতা

উচ্ছেদ অভিযান ঘিরে রণক্ষেত্র আসাম, পুলিশের গুলিতে নিহত ২

উচ্ছেদ অভিযান ঘিরে রণক্ষেত্র আসাম, পুলিশের গুলিতে নিহত ২

অকাস জোটে ভারত-জাপানকে রাখছে না যুক্তরাষ্ট্র

অকাস জোটে ভারত-জাপানকে রাখছে না যুক্তরাষ্ট্র

মিয়ানমারে ফের সংঘর্ষ, ভারতে পালাচ্ছে মানুষ

মিয়ানমারে ফের সংঘর্ষ, ভারতে পালাচ্ছে মানুষ

কাতালোনিয়ার স্বাধীনতাকামী নেতা পুজদেমন ইতালিতে গ্রেফতার

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১৩

স্পেনের কাতালোনিয়ার বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা কার্লেস পুজদেমন ইতালি থেকে গ্রেফতার হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) ইতালির সার্দিনিয়া দ্বীপে ভ্রমণের সময় গ্রেফতার হন তিনি। স্পেন সরকারের একটি অ্যারেস্ট ওয়ারেন্টের ভিত্তিতে তাকে আটক করা হয়েছে।  

পুজদেমনের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ এনেছে স্পেন। দেশটির দাবি, ২০১৭ সালে কাতালানের স্বাধীনতার দাবিতে অবৈধ গণভোট আয়োজনে মুখ্য ভূমিকা পালন করেন এই আলোচিত কাতালান নেতা।

২০১৭ সালে কাতালোনিয়ার স্বাধীনতার দাবিতে বিক্ষোভ

তিনি স্বায়ত্বশাসিত কাতালোনিয়া অঞ্চলের সাবেক প্রেসিডেন্ট ছিলেন। সেখানে গণভোটের আয়োজনের পর রাজনৈতিক সংকট সৃষ্টি হওয়ায় স্পেন থেকে পালিয়ে যান। এরপর থেকেই বেলজিয়ামে অবস্থান করছিলেন তিনি।

কার্লেস পুজদেমনের আইনজীবী বলছেন, স্থানীয় সময় শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) তাকে আদালতে তোলা হবে। এছাড়া তাকে প্রত্যর্পণ করা হতে পারে। তাকে গ্রেপ্তারে টুইট বার্তায় নিন্দা জানিয়েছেন কাতালোনিয়ার নতুন প্রেসিডেন্ট পেরে আরাগোনস। আরাগোনস নিজেও একজন বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতা। 

/এলকে/

সম্পর্কিত

সব শ্রমিকের জন্য হেলথ পাস বাধ্যতামূলক করলো ইতালি

সব শ্রমিকের জন্য হেলথ পাস বাধ্যতামূলক করলো ইতালি

কাবুল বিমানবন্দরে ইতালির সামরিক বিমানে গুলি

কাবুল বিমানবন্দরে ইতালির সামরিক বিমানে গুলি

ইতালির এই শহরে মাত্র ১০০ টাকায় মিলবে বাড়ি!

ইতালির এই শহরে মাত্র ১০০ টাকায় মিলবে বাড়ি!

২ হাজার বছরের পুরনো গাছ বাঁচাতে স্থানীয়দের 'যুদ্ধ'

২ হাজার বছরের পুরনো গাছ বাঁচাতে স্থানীয়দের 'যুদ্ধ'

কমলা হ্যারিসে মুগ্ধ নরেন্দ্র মোদি

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:০৫

প্রথম সাক্ষাতেই কমলা হ্যারিসে মুগ্ধ হলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভারতীয় বংশোদ্ভূত প্রথম মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস-কে সকলের কাছে ‘অনুপ্রেরণা’ বলেন তিনি। আগামীতে ভারতে আসার জন্যও আমন্ত্রণ জানান কমলা হ্যারিসকে।

শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) হোয়াইট হাউসে মুখোমুখি হন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস ও ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আফগানিস্তান, কোভিড পরিস্থিতিসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয় মোদি-কমলার।

এদিন কমলার প্রশংসা করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট পদের নির্বাচনে আপনার লড়াই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও ঐতিহাসিক একটি পর্ব ছিল। গোটা বিশ্বজুড়েই আপনি অনুপ্রেরণা। আমি নিশ্চিত যে প্রেসিডেন্ট বাইডেন ও আপনার নেতৃত্বে দিল্লি ও ওয়াশিংটনের মধ্য দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক এক নতুন উচ্চতায় পৌঁছবে’।

মোদি আরও বলেন, ‘ভারত ও আমেরিকার মূল্যবোধ অনেকটাই একই রকম, রাজনৈতিক স্বার্থও এক। সকল ভারতীয়ই আপনার জন্য অপেক্ষা করছে, সেই কারণে আমি আপনাকে ভারত সফরে আসার জন্য আমন্ত্রণ জানাচ্ছি’।

/এলকে/

সম্পর্কিত

মোদি-কমলার বৈঠক, পাকিস্তানকে সন্ত্রাসীদের সমর্থন বন্ধ করা উচিত: কমলা

মোদি-কমলার বৈঠক, পাকিস্তানকে সন্ত্রাসীদের সমর্থন বন্ধ করা উচিত: কমলা

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় হতাহত ১৩, হামলাকারীর আত্মহত্যা

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় হতাহত ১৩, হামলাকারীর আত্মহত্যা

মোদি-কমলার বৈঠক, পাকিস্তানকে সন্ত্রাসীদের সমর্থন বন্ধ করা উচিত: কমলা

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৪৩

যুক্তরাষ্ট্রে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসের সঙ্গে প্রথমবার সাক্ষাৎ হয়েছে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। হোয়াইট হাউসে এক ঘণ্টার বৈঠকে দিল্লি-ওয়াশিংটনের কূটনৈতিক সম্পর্ক, আফগানিস্তান ও পাকিস্তানের প্রসঙ্গসহ নানা বিষয়ে কমলার সঙ্গে আলোচনা হয় মোদির।

আলোচনা নিয়ে ভারতের পররাষ্ট্র সচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা জানান, পাকিস্তান সীমান্তে সন্ত্রাসী কার্যক্রমে সমর্থন দিয়ে আসায় প্রধানমন্ত্রী মোদি মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলার কাছে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। কমলা হ্যারিস প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে সহমত পোষণ করেন যে ভারত বিগত কয়েক দশক ধরে সন্ত্রাসবাদের শিকার হয়ে এসেছে। এই ধরণের সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর প্রতি পাকিস্তানের সমর্থনকে লাগাম টানার কথাও বলেন তিনি। বিষয়টির উপর নজরদারি চালানোর প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর সাথে একমত হন মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট।

কমলা পাকিস্তানকে পদক্ষেপ নিতে বলেছেন যাতে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীগুলো মার্কিন নিরাপত্তা এবং ভারতের নিরাপত্তার উপর প্রভাব না ফেলে।

বৈঠক প্রসঙ্গে শ্রিংলা আরও জানান, প্রধানমন্ত্রী মোদীর সঙ্গে ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলার বৈঠকে উষ্ণতা ও সৌহার্দ্যের প্রতিফলন ঘটে। আলোচনায় সন্ত্রাসবাদের সমস্যা ছাড়াও উঠে আসে কোভিড, জলবায়ু পরিবর্তন, প্রযুক্তি খাতে সহযোগিতাসহ সাইবার নিরাপত্তার বিষয়।

এদিকে গত জুনে ভারতে করোনার চূড়ান্ত অবস্থায় যুক্তরাষ্ট্রের সহায়তার কথা মনে করিয়ে কমলা হ্যারিসকে ধন্যবাদ জানান মোদি। বলেন, বিপদের সময় ভারতের পাশে দাঁড়িয়ে সত্যিকারের বন্ধুত্বের পরিচয় দিয়েছেন। ভারত সব সময় তা মনে রাখবে বলেও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন নরেন্দ্র মোদি।

/এলকে/

সম্পর্কিত

কমলা হ্যারিসে মুগ্ধ নরেন্দ্র মোদি

কমলা হ্যারিসে মুগ্ধ নরেন্দ্র মোদি

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় হতাহত ১৩, হামলাকারীর আত্মহত্যা

যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় হতাহত ১৩, হামলাকারীর আত্মহত্যা

তালেবান সরকারের আসল ক্ষমতা কার হাতে?

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩০

তালেবান আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখলের এক মাসেরও কম সময়ের মধ্যে দলটির নেতৃত্বের মধ্যে বিভেদের খবর আসতে শুরু করে। এর মধ্যেই অন্তর্বর্তী সরকারের প্রধানমন্ত্রীসহ কয়েকজন মন্ত্রীর নাম ঘোষণা করা হয়। সর্বশেষ মঙ্গলবার মন্ত্রিসভার আরও কয়েকজন সদস্যের নাম ঘোষণা করা হয়। এদিন ঘোষিত সদস্যদের বেশিরভাগই উপমন্ত্রী। তবে তালেবান প্রশাসনে বৈচিত্র্য আনতে এদিনের ঘোষণা ছিল তাৎপর্যপূর্ণ।

এ দফায় মন্ত্রিসভায় ঠাঁই পেয়েছেন এক সময় তালেবানবিরোধী প্রতিরোধ আন্দোলনের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত পাঞ্জশির এবং বাঘলানের প্রতিনিধিরাও। মিলিশিয়া গোষ্ঠী ন্যাশনাল রেজিস্টেন্স ফ্রন্টের ঘাঁটি হিসেবে বিবেচনা করা হয় পঞ্জশিরকে। রাজধানী কাবুলসহ পুরো দেশের বিস্তীর্ণ এলাকা দখলের পরও এই উপত্যকার নিয়ন্ত্রণ নিতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয়েছে তালেবানকে। গত কয়েক মাসে বাঘলানেরও কিছু জেলায় প্রতিরোধের চিত্র দেখা গেছে।

তালেবান সতর্ক ছিল যে, সম্প্রসারিত মন্ত্রিসভায় তাজিক ও উজবেক অধ্যুষিত পঞ্জশির, বাঘলান এবং সার-ই পোল এলাকার যেন প্রতিনিধিত্ব থাকে। সরকারে এরইমধ্যে তাজিক, উজবেক ও তুর্কমেনদের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে সমর্থ হয়েছে দলটি। তবে তাদের সরকারে এখনও শিয়া, হাজারা বা অন্য কোনও সংখ্যালঘু গোষ্ঠীর প্রতিনিধিত্ব নেই।

তালেবান প্রধান হাইবাতুল্লাহ আখুন্দজাদার বসবাস কান্দাহারে। ক্ষমতার মূল কেন্দ্র হিসেবে দেখা হয় শহরটির একটি গোপন শুরা বা উপদেষ্টা শিবিরকে। এই সার্কেলটিই এখন আফগানিস্তানের প্রকৃত সিদ্ধান্ত গ্রহণকারী হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে।

কয়েক বছর ধরে তালেবানের নিউজ করেছেন এমন একজন সংবাদকর্মী বলেন, কাবুলের আনুষ্ঠানিক সরকারের তেমন ক্ষমতা নেই। বেশ কিছু তালেবান নেতা নতুন প্রশাসনে তাদের অবস্থান নিয়ে স্পষ্টতই বিরক্ত ছিলেন। কূটনৈতিক ও রাজনৈতিক সূত্রগুলোর আশঙ্কা, তালেবানের অভ্যন্তরীণ নানা বিরোধ রাজধানী কাবুলসহ অন্যান্য প্রদেশে তাদেরকে নিজেদের মধ্যে লড়াইয়ের দিকে নিয়ে যেতে পারে।

ওই সংবাদকর্মী বলেন, ‘রাজনৈতিক আসনের জন্য লড়াই এক জিনিস। কিন্তু যোদ্ধারা যদি তাদের দীর্ঘদিনের বিরোধের ভিত্তিতে যুদ্ধ শুরু করে, তখন কোনও জায়গাই আর নিরাপদ থাকবে না।’ সূত্র: আল জাজিরা।

/এমপি/

সম্পর্কিত

সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে: ইরান

সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে: ইরান

আসিয়ানের প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলো যুক্তরাষ্ট্র

আসিয়ানের প্রতি অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করলো যুক্তরাষ্ট্র

‘আফগানিস্তানে রক্তপাত ও অস্থিতিশীলতার জন্য যুক্তরাষ্ট্র দায়ী’

‘আফগানিস্তানে রক্তপাত ও অস্থিতিশীলতার জন্য যুক্তরাষ্ট্র দায়ী’

করোনায় মৃত্যু ‘স্বপ্নে নিরাময় পাওয়ার’ দাবি করা এলিয়ান্থা হোয়াইটের

করোনায় মৃত্যু ‘স্বপ্নে নিরাময় পাওয়ার’ দাবি করা এলিয়ান্থা হোয়াইটের

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে: ইরান

সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনায় ব্যাপক অগ্রগতি হয়েছে: ইরান

‘আমরা কি আফগানিস্তানে বাস করছি?’, পুলিশের সমালোচনায় ইসরায়েলি বিচারক

‘আমরা কি আফগানিস্তানে বাস করছি?’, পুলিশের সমালোচনায় ইসরায়েলি বিচারক

ইরানের পারমাণবিক পরিকল্পনা ঠেকাতে সহায়তা দেবে সৌদি আরব

ইরানের পারমাণবিক পরিকল্পনা ঠেকাতে সহায়তা দেবে সৌদি আরব

মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের পারমাণবিক আলোচনা চায় ইরান

মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের পারমাণবিক আলোচনা চায় ইরান

পাপেই জন্ম ইসরায়েলের: সাবেক প্রধানমন্ত্রীর ছেলে

পাপেই জন্ম ইসরায়েলের: সাবেক প্রধানমন্ত্রীর ছেলে

পশ্চিমা দুনিয়ার রাজনীতি ইসলামবিদ্বেষের কাছে জিম্মি: এরদোয়ান

পশ্চিমা দুনিয়ার রাজনীতি ইসলামবিদ্বেষের কাছে জিম্মি: এরদোয়ান

কাবুল বিমানবন্দর নিয়ে বাইডেনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

কাবুল বিমানবন্দর নিয়ে বাইডেনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

‘শুধু ক্ষমা চাইলেই হবে না, যুক্তরাষ্ট্রকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে’   

‘শুধু ক্ষমা চাইলেই হবে না, যুক্তরাষ্ট্রকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে’   

পুতিনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

পুতিনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

ফিলিস্তিনিদের ‘মুক্তি’র নতুন প্রতীক চামচ

ফিলিস্তিনিদের ‘মুক্তি’র নতুন প্রতীক চামচ

সর্বশেষ

জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন ব্যবসায়ী ফজলুল হক বাবু

জাতীয় পার্টিতে যোগ দিয়েছেন ব্যবসায়ী ফজলুল হক বাবু

ঘরের শত্রু নিয়ে সতর্ক হোন, প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

ঘরের শত্রু নিয়ে সতর্ক হোন, প্রধানমন্ত্রীকে ইনু

বঙ্গোপসাগরে সাড়ে চার লাখ ইয়াবাসহ আটক ৫

বঙ্গোপসাগরে সাড়ে চার লাখ ইয়াবাসহ আটক ৫

বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসায় জাতিসংঘ মহাসচিব

বাংলাদেশ ও শেখ হাসিনার নেতৃত্বের প্রশংসায় জাতিসংঘ মহাসচিব

অধিভুক্ত কলেজের নাম থেকে ‘বিশ্ববিদ্যালয়’ শব্দ প্রত্যাহারের নির্দেশ

অধিভুক্ত কলেজের নাম থেকে ‘বিশ্ববিদ্যালয়’ শব্দ প্রত্যাহারের নির্দেশ

© 2021 Bangla Tribune