X
বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

জমিয়তের নির্বাহী সভাপতি ওয়াক্কাছ, মহাসচিব নূর হোসাইন কাসেমী

আপডেট : ০৩ ডিসেম্বর ২০১৫, ১৩:২৪

ওয়াক্কাছ-কাসেমী জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের ত্রিবার্ষিক কাউন্সিলে  মুফতি ওয়াক্কাছকে নির্বাহী সভাপতি ও মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমীকে মহাসচিব করা হয়েছে। শনিবার সকালে রাজধানীর আজিমপুর এলাকায় একটি কমিউনিটি সেন্টারে অনুষ্ঠিত এই কাউন্সিলে দলটির আট শতাধিক কাউন্সিলর যোগ দেন।

যদিও কাউন্সিলের আগে থেকেই দলের নির্বাহী সভাপতি ও মহাসচিব পদ নিয়ে লবিং শুরু হয় এবং বড় পরিবর্তনেআভাস পাওয়া যায়।  ২০ দলীয় জোটের শরিক দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের একাধিক বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত চলেছে নাটকীয়তা। দলের গুরুত্ব পূর্ণ পদে নিজেদের অবস্থান  ধরে রাখতেজমিয়তে মধ্যরাতে ঝড় বয়ে যায়।

সূত্র জানায়, দলের পদ পাওয়া-না পাওয়ার জেরে ভাঙতে-ভাঙতে শেষ পর্যন্ত রক্ষা পেয়েছে ২০ দলীয় জোটের অন্যতম শরিক দল জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ। শুক্রবার বিকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত চলেছে নাটকীয়তা। অবশেষে শুক্রবার দিবাগত মধ্যরাতে সিদ্ধান্ত হয়েছে ২৪ বছরের অভিজ্ঞ মহাসচিব মুফতি ওয়াক্কাছকে নির্বাহী সভাপতি ও মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমীকে মহাসচিব করার। যদিও  বিগত এক বছরের বেশি সময় ধরে মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমীর প্রশ্রয়ে একটি বিরোধী গ্রুপ তাকে মহাসচিব পদ থেকে সরাতে তৎপর ছিল। এই গ্রুপে মাওলানা আবদুর রব ইউসূফী, মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক, শাহীনূর পাশা চৌধুরী, মাওলানা জিয়াউদ্দীনসহ আরও অনেকে ছিলেন। কিন্তু  নির্বাহী সভাপতি বা আগের পদ মহাসচিব না পেলে মুফতি ওয়াক্কাছের নেতৃত্ব নতুন জমিয়ত দাঁড়িয়ে যেত। এমনকি শনিবারই অন্য অংশের কাউন্সিলের পাশাপাশি রাজধানীর কোনও অডিটোরিয়ামে তারা নতুন কমিটির ঘোষণা হতো। এই কমিটিতে হবিগঞ্জের মাওলানা তাফাজ্জুল হক, শায়খ নোমানের নাম সভাপতি হিসেবে প্রস্তুত ছিল। পাশাপাশি মানসুরুল হক রায়পুরী, মহিউদ্দীন ইকরাম, অলিউল্লাহ নোমানসহ অনেকে কেন্দ্রীয় বড় পদ থাকত।

শনিবার সকালে রাজধানীর আজিমপুরে ঢাকা কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্ঠিত  কাউন্সিলে দেশের বিভিন্ন স্থান থেকেই দলটির আট শতাধিক কাউন্সিলর যোগ দেন। এরমধ্যে নব নির্বাচিত মহাসচিব মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমীর অনুসারীদের প্রভাব বেশি দেখা যায়। কাউন্সিলের শুরুতে দলের নেতারা বক্তব্য রাখেন। কাউন্সিলে মজলিসে আমেলার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ১০১ সদস্যের নতুন কমিটির নাম প্রস্তাব করেন মাওলানা জহুরুল হক ভূইয়া। কণ্ঠভোটে এই কমিটি অনুমোধিত হয়।

নতুন কমিটিতে যারা আছেন

সভাপতি মাওলানা শেখ আব্দুল মুমিন, নির্বাহী সভাপতি মুফতি ওয়াক্কাছ, মহাসচিব মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমী, সহ-সভাপতি- মাওলানা মহিউদ্দীন খান, মাওলানা তাফাজ্জল হক হবিগঞ্জী, মাওলানা মোস্তফা আজাদ, মাওলানা জিয়া উদ্দিন, মাওলানা জহিরুল হক ভূইয়া, মাওলানা আব্দুর রব ইউসূফী, মাওলানা জোনায়েদ আল হাবীব, কারী আব্দুল খালেক, মাওলানা তৈয়ব নেজামী, মাওলানা আনোয়ারুল করীম, মাওলানা মনসূর হাসান রায়পূরী, মাওলানা গোলামুর রহমান, মাওলান আব্দুর রহিম ইসলামাবাদী,  যুগ্ম মহাসচিব- মাওলনা মঞ্জুরুল ইসলাম, মাওলানা বাহাউদ্দীন যাকারিয়া, মাওলানা শাহীনুর পাশা, মাওলানা নাজমুল হাসান, মাওলনা ফজলুল করীম, মাওলানা তাফাজ্জল হক আজীজ, মাওলানা মোহাম্মদুল্লাহ জামী, মাওলানা শেখ মুজিবুর রহমান, মাওলানা মহিউদ্দিন ইকরাম, সহকারি মহাসিচব মাওলানা মাসউদুল করীম, মাওলানা আব্দুল বছীর, মাওলনা আতাউর রহমান, মাওলানা মতিউর রহমান কাসেমী, মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ সাদী, মাওলানা আরিফ বিল্লাহ, মাওলানা আব্দুল হক কাউছারী, সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা উবায়দুল্লাহ ফারুক, অর্থ সম্পাদক মাওলানা মুনীর হোসাইন, কৃষি সম্পাদক মাওলানা ওয়ালী উল্লাহ আরমান, প্রচার সম্পাদক মাওলানা যয়নুল আবেদীন প্রমুখ।

/সিএ/এমএনএইচ/  

সম্পর্কিত

আমাদের আন্দোলনে যেতে হবে: মির্জা ফখরুল

আমাদের আন্দোলনে যেতে হবে: মির্জা ফখরুল

পদক জীবনের চেয়ে মূল্যবান হতে পারে না: আ স ম রব

পদক জীবনের চেয়ে মূল্যবান হতে পারে না: আ স ম রব

শেখ হাসিনা বার্নের ওয়ার্ড বয়কে মারধর করা সেই ছাত্রলীগনেতা বহিষ্কার

শেখ হাসিনা বার্নের ওয়ার্ড বয়কে মারধর করা সেই ছাত্রলীগনেতা বহিষ্কার

জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় আগামীর বাংলাদেশ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় আগামীর বাংলাদেশ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

আমাদের আন্দোলনে যেতে হবে: মির্জা ফখরুল

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ২২:০৭

বর্তমান সংকট উত্তরণে আন্দোলনের বিকল্প নেই বলে উল্লেখ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, ‘আমরা এই অবস্থার পরিবর্তন চাই। সেজন্য আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান, আমাদের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া, যিনি বন্দি হয়ে আছেন, তাদের নেতৃত্বে আজকে দল সংগঠিত হচ্ছে। আমাদের আন্দোলনে যেতে হবে এবং এই ভয়াবহ যে দানব আমাদের বুকের ওপর চেপে বসে আছে, সেই দানবকে সরিয়ে দিতে হবে।’

বুধবার (২৮ জুলাই) ভার্চুয়াল এক আলোচনা সভায় বিএনপি মহাসচিব এই অভিযোগ করেন।

স্বেচ্ছাসেবক দলের প্রয়াত সভাপতি শফিউল বারী বাবুর প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিএনপির উদ্যোগে এই ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান।

ফখরুল বলেন, ‘আমাদের মনে রাখতে হবে, এই দানব ছোটখাটো দানব নয়, এটা একটা ভয়াবহ দানব। এরমধ্যে আন্তর্জাতিক চক্রান্ত রয়েছে, সাম্রাজ্যবাদ এবং আধিপত্যবাদের চক্রান্ত রয়েছে। সব মিলিয়ে আমাদের অত্যন্ত শক্তি নিয়ে, আমাদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে, জনগণকে ঐক্যবদ্ধ করে এদের সরাতে হবে। এর কোনও বিকল্প নেই।’

তিনি বলেন, ‘আমরা দেখলাম এই কোভিডে তারা কীভাবে পুরো বিষয়টাকে উদাসীনতা, অযোগ্যতা, ব্যর্থতা দিয়ে জনগণের জীবন-জীবিকাকে বিপন্ন করে ফেলেছে। এখন মানুষকে এত বেশি তারা প্রতারণা করে, এত মিথ্যা কথা বলে, এত ভাঁওতাবাজি করে, দেখেন টিকাই এখন পর্যন্ত পুরো সংগ্রহ হলো না। এ পর্যন্ত তিন কোটি টিকাই আনতে পারলো না ভারত থেকে।’

‘তারা এখন বলছে ই্উনিয়ন পর্যায়ে টিকা দেবে। এগুলো জাতিকে বিভ্রান্ত করা ছাড়া আর কিছু নয়। এই সরকার এই একটা জিনিস খুব ভালো পারে, অবলীলায় গোয়েবলসীয় পদ্ধতিতে মিথ্যা প্রচার করতে থাকে এবং সেই মিথ্যাকে সত্য প্রমাণিত করতে থাকে, যোগ করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, তারা ‘শিক্ষা ব্যবস্থা একেবারে ধ্বংস করে দিয়েছে। আপনারা দেখেছেন ভিখারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের মতো একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে একজন সন্ত্রাসী দলবাজ মহিলাকে অধ্যক্ষ করা হয়েছে। আমরা দেখলাম যে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে যাদের উপাচার্য নিয়োগ দেওয়া হলো, তারা দুর্নীতি করছে, নিয়োগে দুর্নীতি করছে। এভাবে তারা শিক্ষা ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে ফেলেছে এবং এই করোনার অজুহাতে তারা শিক্ষা বন্ধ করে দিয়েছে।’

‘স্বাস্থ্য ব্যবস্থা তো পুরোপুরি ভেঙে চুরমার হয়ে গেছে। ব্যাংকিং সেক্টরকে গিলে ফেলেছে। তারা আমাদের সব অর্জন ধ্বংস করছে।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘মানুষকে জাগাতে হবে, তাদের নতুন স্বপ্ন দেখাতে হবে। মানুষকে সেই সুদিনের গান শোনাতে হবে, যেন তারা জেগে ওঠেন—তাদের সেই পথ দেখাতে হবে।’

/এসটিএস/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় আগামীর বাংলাদেশ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় আগামীর বাংলাদেশ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

ভিকারুননিসায় নতুন অধ্যক্ষ নিয়োগের দাবি মির্জা ফখরুলের

ভিকারুননিসায় নতুন অধ্যক্ষ নিয়োগের দাবি মির্জা ফখরুলের

মণি সিংহের ১২০তম জন্মবার্ষিকী কাল

মণি সিংহের ১২০তম জন্মবার্ষিকী কাল

পদক জীবনের চেয়ে মূল্যবান হতে পারে না: আ স ম রব

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৮:৪৫

পদক জীবনের চেয়ে মূল্যবান হতে পারে না বলে মন্তব্য করেছেন জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি’র সভাপতি আ স ম আবদুর রব। তিনি কোভিড পরিস্থিতিতে সরকারিভাবে ওসমানী মিলনায়তনে গতকাল মঙ্গলবার পদক প্রদান অনুষ্ঠান আয়োজনের সমালোচনা করেন।

বুধবার (২৮ জুলাই) বিকালে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে রব এ কথা জানান।

বিবৃতিতে বলা হয়, পুলিশ-ম্যাজিস্ট্রেট  দিয়ে যখন স্বাস্থ্যবিধি পালন নিশ্চিত করতে নাগরিকদের গ্রেপ্তার ও জেল-জরিমানা করা হচ্ছে তখন পদক প্রদানের জন্য শারিরীক উপস্থিতি ও সমাবেশ অনুষ্ঠানের আয়োজন সরকারের করোনা নিয়ন্ত্রণের সকল কার্যক্রমকে প্রশ্নবিদ্ধ করছে।

রব বলেন, ‘করোনার ভয়াবহ বিস্তার এবং কঠোর লকডাউনের মধ্যে এই ধরনের অনুষ্ঠান শুধু মৃত্যুঝুঁকি নয় সরকারের ঘোষিত লকডাউন পরিস্থিতির সাথেও সাংঘর্ষিক।এর মাধ্যমে জনগণের কাছে ভুল বার্তা যাচ্ছে।’

রবের মন্তব্য, করোনা মহামারিতে দীর্ঘ হচ্ছে লাশের মিছিল। এই অবস্থায় ওসমানী মিলনায়তনে পদক প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা কোনক্রমেই সরকারের সুবিবেচনার বহিঃপ্রকাশ নয়। পদক কখনো জীবনের চেয়ে মূল্যবান হতে পারে না।

তিনি বলেন, ‘জীবন সুরক্ষার প্রশ্নে যখন রাষ্ট্রীয় সকল অনুষ্ঠান বাতিল করা হচ্ছে, সারাদেশে কঠোর লকডাউন পালিত হচ্ছে তখন 'জাতীয় পাবলিক সার্ভিস দিবস' বা পদক প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করা কোনোক্রমেই রাষ্ট্রের জন্য  অতীব জরুরি কাজ হতে পারে না।’

/এসটিএস/এমএস/

সম্পর্কিত

‘আইসোলেশন ও কন্টাক্ট ট্রেসিং ছাড়া লকডাউন অকার্যকর’

‘আইসোলেশন ও কন্টাক্ট ট্রেসিং ছাড়া লকডাউন অকার্যকর’

ভোটার তালিকা নির্বাহী বিভাগে স্থানান্তর হবে অসাংবিধানিক: আবদুর রব

ভোটার তালিকা নির্বাহী বিভাগে স্থানান্তর হবে অসাংবিধানিক: আবদুর রব

রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা রাষ্ট্রের ভয়ংকর চিত্র: রব

রোজিনা ইসলামকে হেনস্তা রাষ্ট্রের ভয়ংকর চিত্র: রব

শেখ হাসিনা বার্নের ওয়ার্ড বয়কে মারধর করা সেই ছাত্রলীগনেতা বহিষ্কার

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৬:৪৬

সাংগঠনিক শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে ছাত্রলীগের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার মুক্তিযোদ্ধা জিয়াউর রহমান হলের উপ-দফতর সম্পাদক আকতারুল করিম রুবেলকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বুধবার (২৮ জুলাই) ছাত্রলীগ সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক জরুরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক জানানো যাচ্ছে যে, সংগঠনের নীতি-আদর্শ ও শৃঙ্খলা পরিপন্থী কার্যকলাপে জড়িত থাকায় আকতারুল করিম রুবেলকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হলো।

বহিষ্কারের বিষয়ে জানতে চাইলে লেখক ভট্টাচার্য বলেন, ‘রুবেলের বিরুদ্ধে মাদক সেবন, চাঁদা দাবি এবং শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের ওয়ার্ড বয়কে মারার যে অভিযোগ সেটা প্রমাণিত হয়েছে। ইতোমধ্যে প্রশাসন তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিয়েছে। অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় তাকে ছাত্রলীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

গত ২৬ জুলাই শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের এক ওয়ার্ড বয়ের কাছে চাঁদা দাবি করে না পেলে তাকে মারধর করে রুবেল। ভুক্তভোগী ওয়ার্ড বয়ের মামলা দায়েরের ভিত্তিতে ২৭ জুলাই তার এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। রুবেল নিজেকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের রাজা দাবি করতেন বলে একাধিক সূত্রে জানা যায়।

 

/আইএ/

সম্পর্কিত

জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় আগামীর বাংলাদেশ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় আগামীর বাংলাদেশ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

দেশে করোনায় মৃত্যুর হার ভারতের চেয়ে বেশি: ওবায়দুল কাদের

দেশে করোনায় মৃত্যুর হার ভারতের চেয়ে বেশি: ওবায়দুল কাদের

আমি একজন মধ্যবয়সী প্রযুক্তি উদ্যোক্তা: জয়

আমি একজন মধ্যবয়সী প্রযুক্তি উদ্যোক্তা: জয়

জয়ের হাত ধরেই বিশ্বকে নেতৃত্ব দিবে বাংলাদেশ: ওবায়দুল কাদের

জয়ের হাত ধরেই বিশ্বকে নেতৃত্ব দিবে বাংলাদেশ: ওবায়দুল কাদের

জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় আগামীর বাংলাদেশ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৫:৪৬

আগামীর বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় রয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। মঙ্গলবার (১৭ জুলাই) রাতে জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

বুধবার (২৮ জুলাই) তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সজীব ওয়াজেদ জয়ের ৫১তম জন্মদিন উপলক্ষ্যে ‘ডিজিটাল বাংলাদেশের স্বপ্নযাত্রায় সজীব ওয়াজেদ জয়: আমাদের প্রত্যাশা ও সম্ভাবনা’ শীর্ষক ভার্চুয়াল আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে যুক্ত হয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, তথ্য প্রযুক্তিকে পাথেয় করে একটি সমৃদ্ধ স্বদেশ বিনির্মাণে নিরন্তর কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। তিনি কোটি কোটি তরুণের স্বপ্ন সারথী, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার নেপথ্যের কারিগর। আগামীর বাংলাদেশ তার নেতৃত্বের জন্য অধীর আগ্রহে প্রতীক্ষা করছে।

ডা. মুরাদ হাসান আরও বলেন, তরুণদের তথ্য-প্রযুক্তির বিপ্লবের মাধ্যমে কর্মসংস্থান, বিনিয়োগ ও বাণিজ্য সম্প্রসারণের মাধ্যমে দেশের অগ্রগতির ভিত রচনায়ও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখছেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর এই দৌহিত্র। জাতির পিতার বঙ্গবন্ধুর আজন্ম লালিত স্বপ্নের ‘সোনার বাংলা’ প্রতিষ্ঠায় প্রধানমন্ত্রীকে তিনি সর্বোতভাবে সহযোগিতা করে যাচ্ছেন। জয়ের চিন্তা ও কর্মধারা দেশে-বিদেশে প্রশংসিত হচ্ছে; যা বাংলাদেশকে মর্যাদার আসনে নিয়ে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত।

সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট বাকী বিল্লাহর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ফরিদুল হক খান দুলাল, সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোজাফফর হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহমেদ চৌধুরী প্রমুখ।

/এসএমএ/ইউএস/

সম্পর্কিত

আমাদের আন্দোলনে যেতে হবে: মির্জা ফখরুল

আমাদের আন্দোলনে যেতে হবে: মির্জা ফখরুল

শেখ হাসিনা বার্নের ওয়ার্ড বয়কে মারধর করা সেই ছাত্রলীগনেতা বহিষ্কার

শেখ হাসিনা বার্নের ওয়ার্ড বয়কে মারধর করা সেই ছাত্রলীগনেতা বহিষ্কার

দেশে করোনায় মৃত্যুর হার ভারতের চেয়ে বেশি: ওবায়দুল কাদের

দেশে করোনায় মৃত্যুর হার ভারতের চেয়ে বেশি: ওবায়দুল কাদের

ভিকারুননিসায় নতুন অধ্যক্ষ নিয়োগের দাবি মির্জা ফখরুলের

ভিকারুননিসায় নতুন অধ্যক্ষ নিয়োগের দাবি মির্জা ফখরুলের

দেশে করোনায় মৃত্যুর হার ভারতের চেয়ে বেশি: ওবায়দুল কাদের

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৩:৪৯

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে নিজ নিজ অবস্থান থেকে দলমত নির্বিশেষে সচেতনতা তৈরি করতে হবে। পাশাপাশি সরকারকে সহযোগিতা করার আহবান জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে করোনায় মৃত্যুর হার প্রতিবেশী দেশ ভারতের চেয়ে বেশি। এমন বাস্তবতায় মানুষের জীবনের সুরক্ষাকেই সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিচ্ছে সরকার।

বুধবার (২৮ জুলাই) নিয়মিত ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। তার বাসভবন থেকে ভার্চুয়ালি বলেন তিনি।

জীবন রক্ষা না পেলে জীবিকা দিয়ে কী হবে ‑ জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, অনেকে লকডাউন শিথিলের কথা বললেও এমন সংকটকালে জীবনের সুরক্ষাকেই অগ্রাধিকার দিতে হবে। মনে রাখতে হবে, কারও কারও অবহেলায় পরিস্থিতি ক্রমে অবনতির দিকে যাচ্ছে। এ অবস্থা চলমান থাকলে অনাকাঙ্ক্ষিত বিপর্যয়ের পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে।

তিনি বলেন, দেশের মানুষের সুরক্ষায় বিশেষজ্ঞদের সাথে পরামর্শ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তার প্রতি আস্থা রাখার জন্য আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সকলের প্রতি আহবান জানান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, ব্যাপকহারে সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে মেনে চলার পাশাপাশি ভ্যাকসিন প্রদানকেই সরকার সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়েছে।

সেতুমন্ত্রী বলেন, দেশে ভ্যাকসিনের কোন সংকট নেই।মানুষের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক ভ্যাকসিন নিশ্চিত করতে চূড়ান্ত করা হয়েছে ভ্যাকসিন রোডম্যাপ।

দুর্যোগ ও সংকটে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি জনমানুষের আস্থা রয়েছে জানিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী জনমানুষের আস্থা পূরণে দিনরাত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। করোনার এ সংকটে তিনি বিনিদ্র রজনীও যাপন করছেন।

জীবন ও জীবিকার সমন্বয় করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী সিদ্ধান্তে দেশের সামষ্টিক  অর্থনীতি অন্যান্য দেশের তুলনায় ভালো অবস্থায় রয়েছে বলে জানান মন্ত্রী।

তিনি বলেন, দেশের উন্নয়ন-অর্জন ও সমৃদ্ধিতে যারা লাভবান হয়েছে, বিশেষ করে সমাজের ধনী শ্রেণী‑ মানুষের প্রতি এই সংকটে অন্তত কিছু সহযোগিতা নিয়ে হলেও অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ান।

ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ একটি বিশাল রাজনৈতিক সংগঠন। কেন্দ্র থেকে তৃণমূল পর্যন্ত এ সংগঠনের বিস্তৃতি। অনেকসময় দলে অনুপ্রবেশকারীরা বিতর্কিত কর্মকাণ্ড চালায়। এসকল কর্মকাণ্ড নজরে এলে সাথে সাথেই তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

তিনি জানান, অনেক সময় শুধু সাংগঠনিক নয়। আইনগত ব্যবস্থাও নেওয়ার নজির রয়েছে। যার উদাহরণ সাম্প্রতিককালে সাহেদ, পাপিয়াসহ অনেকের ক্ষেত্রে দল অত্যন্ত কঠোর অবস্থান দেখিয়েছে।

অনেকে অনেক কথাই বলেন, কিন্তু দল ক্ষমতায় থাকাকালে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগে দলের নেতাকর্মী এমনকি জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে যে কঠোরতা আওয়ামী লীগ দেখিয়েছে তা অতীতে দেশের কোন রাজনৈতিক দল দেখাতে পেরেছেন কী? ‑ প্রশ্ন ওবায়দুল কাদেরের।

শেখ হাসিনা সরকার এবং আওয়ামী লীগ অনিয়ম ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান ইতিমধ্যেই স্পষ্ট করেছে‑ উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, দলের অনেক সংসদ সদস্যদের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা চলমান এবং তদন্তাধীন, আবার কারও সাজাও হয়েছে।

তিনি বলেন, দল কখনো অনিয়মকারীদের প্রশ্রয় দেয়নি। ভবিষ্যতেও দিবে না।

তিনি বলেন, করোনার এ সংকটকালে আওয়ামী লীগের প্রতিটি ইউনিট অত্যন্ত সক্রিয় ভূমিকা পালন করছে, কোথাও নেই কোন গতিহীনতা।

ওবায়দুল কাদের বলেন, কেন্দ্র থেকে তৃণমূলে সাংগঠনিক সিদ্ধান্তসমূহ অত্যন্ত দক্ষতার সাথে বাস্তবায়িত হচ্ছে। পাশাপাশি দলের উপকমিটি ও সহযোগী সংগঠনগুলো সক্রিয়তার সাথে নিরলস কাজ করে যাচ্ছে।

/পিএইচসি/এমএস/

সম্পর্কিত

শেখ হাসিনা বার্নের ওয়ার্ড বয়কে মারধর করা সেই ছাত্রলীগনেতা বহিষ্কার

শেখ হাসিনা বার্নের ওয়ার্ড বয়কে মারধর করা সেই ছাত্রলীগনেতা বহিষ্কার

জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় আগামীর বাংলাদেশ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় আগামীর বাংলাদেশ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

আমি একজন মধ্যবয়সী প্রযুক্তি উদ্যোক্তা: জয়

আমি একজন মধ্যবয়সী প্রযুক্তি উদ্যোক্তা: জয়

জয়ের হাত ধরেই বিশ্বকে নেতৃত্ব দিবে বাংলাদেশ: ওবায়দুল কাদের

জয়ের হাত ধরেই বিশ্বকে নেতৃত্ব দিবে বাংলাদেশ: ওবায়দুল কাদের

সর্বশেষ

ক্যাম্প থেকে পালিয়ে কুড়িগ্রামে আটক ৯ রোহিঙ্গা

ক্যাম্প থেকে পালিয়ে কুড়িগ্রামে আটক ৯ রোহিঙ্গা

করোনায় আটকে আছে ত্রিদেশীয় বৈঠক

করোনায় আটকে আছে ত্রিদেশীয় বৈঠক

কিউকম ও রানার এর মধ্যে ব্যবসায়িক চুক্তি

কিউকম ও রানার এর মধ্যে ব্যবসায়িক চুক্তি

বলপূর্বক কাবুল দখল করলে তালেবান স্বীকৃতি পাবে না: যুক্তরাষ্ট্র

বলপূর্বক কাবুল দখল করলে তালেবান স্বীকৃতি পাবে না: যুক্তরাষ্ট্র

বিলের মাঝখানে উপহারের ঘর, ডুবলো পানিতে

বিলের মাঝখানে উপহারের ঘর, ডুবলো পানিতে

নতুন রূপে ‘বাংলাদেশ ফাইন্যান্সের’ পথ চলা

নতুন রূপে ‘বাংলাদেশ ফাইন্যান্সের’ পথ চলা

পাকিস্তান-ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৯ ওভারের ম্যাচটিও শেষ হলো না

পাকিস্তান-ওয়েস্ট ইন্ডিজের ৯ ওভারের ম্যাচটিও শেষ হলো না

দেয়ালেও করোনাভাইরাস, সাতক্ষীরা মেডিক্যালের ল্যাব বন্ধ

দেয়ালেও করোনাভাইরাস, সাতক্ষীরা মেডিক্যালের ল্যাব বন্ধ

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশ হাইকমিশনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় পরিবেশমন্ত্রীর

যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশ হাইকমিশনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় পরিবেশমন্ত্রীর

সেই লাকী আক্তারের কণ্ঠে কন্যা ও কান্নার গল্প (ভিডিও)

সেই লাকী আক্তারের কণ্ঠে কন্যা ও কান্নার গল্প (ভিডিও)

ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের দেখভালে জাতিসংঘ-সরকার একমত

ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের দেখভালে জাতিসংঘ-সরকার একমত

খালাস শেষে অক্সিজেন নিয়ে নারায়ণগঞ্জের পথে শেষ ট্যাংকলরিটি

খালাস শেষে অক্সিজেন নিয়ে নারায়ণগঞ্জের পথে শেষ ট্যাংকলরিটি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আমাদের আন্দোলনে যেতে হবে: মির্জা ফখরুল

আমাদের আন্দোলনে যেতে হবে: মির্জা ফখরুল

পদক জীবনের চেয়ে মূল্যবান হতে পারে না: আ স ম রব

পদক জীবনের চেয়ে মূল্যবান হতে পারে না: আ স ম রব

শেখ হাসিনা বার্নের ওয়ার্ড বয়কে মারধর করা সেই ছাত্রলীগনেতা বহিষ্কার

শেখ হাসিনা বার্নের ওয়ার্ড বয়কে মারধর করা সেই ছাত্রলীগনেতা বহিষ্কার

জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় আগামীর বাংলাদেশ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

জয়ের নেতৃত্বের অপেক্ষায় আগামীর বাংলাদেশ: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

দেশে করোনায় মৃত্যুর হার ভারতের চেয়ে বেশি: ওবায়দুল কাদের

দেশে করোনায় মৃত্যুর হার ভারতের চেয়ে বেশি: ওবায়দুল কাদের

‘সুপারিশ’ বন্ধ না হলে আ.লীগে বিতর্কিতদের সংখ্যা বাড়বেই

‘সুপারিশ’ বন্ধ না হলে আ.লীগে বিতর্কিতদের সংখ্যা বাড়বেই

ভিকারুননিসায় নতুন অধ্যক্ষ নিয়োগের দাবি মির্জা ফখরুলের

ভিকারুননিসায় নতুন অধ্যক্ষ নিয়োগের দাবি মির্জা ফখরুলের

মণি সিংহের ১২০তম জন্মবার্ষিকী কাল

মণি সিংহের ১২০তম জন্মবার্ষিকী কাল

জাসদকে চীনের ক্ষমতাসীন দলের উপহার  

জাসদকে চীনের ক্ষমতাসীন দলের উপহার  

টিকা আমদানি জোরদার করার দাবি

টিকা আমদানি জোরদার করার দাবি

© 2021 Bangla Tribune