সেকশনস

নিজেকে রক্ষায় আপ্রাণ চেষ্টা করেছিলেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী

আপডেট : ০৬ জানুয়ারি ২০২০, ২০:০৯

ঘটনাস্থলে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা শিক্ষার্থীর ব্যবহৃত জিনিসপত্র ধর্ষকের হাত থেকে নিজেকে রক্ষায় আপ্রাণ চেষ্টা করেছিলেন রাজধানীতে ধর্ষণের শিকার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। নিজেকে বাঁচানোর সেই চিত্র ঘটনাস্থলে পাওয়া গেছে। সেখানে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে ছিল তার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ও ব্যবহৃত সামগ্রী।
সোমবার (৬ জানুয়ারি) দুপুরে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) ১৫ ধরনের আলামত সংগ্রহ করেছে যার বেশিরভাগই ওই শিক্ষার্থীর ব্যবহৃত জিনিসপত্র। কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের প্রধান ফটক থেকে উত্তরার দিক ১০০ গজ যেতেই ফুটপাতের সৌন্দর্য বর্ধনের ফুল গাছের ঝোপে তাকে জোর করে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সেখানে নিজেকে বাঁচাতে ধর্ষকের সঙ্গে তার ধস্তাধস্তি হয় বলে ঘটনাস্থল দেখে ধারণা করছে পুলিশ। ব্যস্ততম সড়ক হলেও রাতে এই ফুটপাতে পথচারীদের তেমন যাতায়াত থাকে না।
সিআইডির আলামত সংগ্রহ ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গুলশান বিভাগের উপকমিশনার (ডিসি) সুদীপ চক্রবর্তী বলেন, ‘সড়কটি ব্যস্ততম হলেও এই ফুটপাতে মানুষের যাতায়াত কম থাকে। এই সড়কে গাড়ি চলাচল করে বেশি। ভিকটিম আমাদের কাছে একজনের কথা বলেছেন। আমরা আলামত সংগ্রহ করেছি।’
ক্যান্টনমেন্ট থানা পুলিশের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘ভিকটিমের শরীরে জখম রয়েছে। নিজেকে রক্ষা করতে তিনি চেষ্টা করেছিলেন।’
ঘটনাস্থল সরেজমিনে দেখা গেছে, শিক্ষার্থীর ব্যবহৃত হাতঘড়ি, চাবির রিং, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন কাগজপত্র, জুতা, ফাইল সেখানে পড়ে আছে। এছাড়া তার ব্যবহৃত ইনহেলার ও ওষুধসহ বিভিন্ন প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে। ঘটনাস্থলে কালো একটি জিন্স প্যান্ট পড়েছিল। এছাড়া ছয়টি ফেন্সিডিলের বোতল সেখানে পড়েছিল যেগুলো সাস্প্রতিক ও পুরানো বলে মনে করছেন আলামত সংগ্রহকারী পুলিশ কর্মকর্তারা।
সিআইডির এক কর্মকর্তা বলেন, ‘ঘটনাস্থলে ধস্তাধস্তির চিহ্ন রয়েছে।’
ভিকটিমের সঙ্গে থাকা কাগজপত্র পড়ে থাকতে দেখা যায়  ডিসি সুদীপ চক্রবর্তী বলেন, ‘আমরা প্রযুক্তির সহায়তায় আলামত ও সোর্স নিয়োগ করে তদন্ত শুরু করেছি। সিআইডি ক্রাইম সিন ভিকটিমের বই, পরিধেয় কাপড় ও কিছু কাগজপত্র সংগ্রহ করেছে। ভিকটিমের ভাষ্য অনুযায়ী, ধর্ষক একজন।’ বস্ততম সড়ক হলেও সেখানে মানুষ হাঁটা-চলা কম করে। ধর্ষক এটির সুযোগ নিয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন। তবে ঘটনাস্থলে ধর্ষকের কোনও আলামত পাওয়া যায়নি বলে জানান তিনি।
ভিকটিম শিক্ষার্থীর এক সহপাঠী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘তার শ্বাসকষ্ট সমস্যা রয়েছে। এ ধরনের পরিস্থিতিতে হয়তো তিনি আক্রান্ত হয়েছেন। কী ভীষণ যন্ত্রণা পেতে হয়েছে। তার সাহসের কারণেই আজ আমরা তাকে ফিরে পেয়েছি। মানসিকভাবে শক্ত থেকে তিনি সেখান থেকে বেঁচে ফিরতে চেয়েছেন।’
ঘটনাস্থল থেকে সংগ্রহ করা আলামত এদিকে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে জানিয়ে ঘটনার বিবরণ দিয়েছেন ফরেনসিক বিভাগের প্রধান ডা. সোহেল মাহমুদ। সেই বিবরণীতে ভিকটিমের সারা শরীরে আঘাতের চিহ্নের কথা বলা হয়েছে। স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে তিনি জানিয়েছেন, ভিকটিমের গলায় আঘাতের চিহ্ন ছিল। ঝোপঝাড়ের মধ্যে গাছের ডালের খোঁচার বেশকিছু আঘাত শরীরে দেখা গেছে।
প্রসঙ্গত, রবিবার (৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস থেকে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের সামনে নামলে তাকে ফুটপাতে এক ব্যক্তি অনুসরণ করে এবং জোর করে ঝোপের মধ্যে নিয়ে যায়। সেখানে ওই শিক্ষার্থী ধর্ষণের শিকার হন। পরে তিনি তার বন্ধুদের সহায়তায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হন। বর্তমানে সেখানেই তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এই ঘটনায় ক্যান্টনমেন্ট থানায় ভিকটিমের বাবা একটি ধর্ষণ মামলা করেছেন। মামলাটি পুলিশের পাশাপাশি ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ ও র‌্যাব তদন্ত শুরু করেছে। 

আরও পড়ুন:  কুর্মিটোলায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

                 ‘স্পট চিহ্নিত, আলামত সংগ্রহ করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী’

/এআরআর/ওআর/

সম্পর্কিত

আজ ঢাকা আসছেন জয়শঙ্কর

আজ ঢাকা আসছেন জয়শঙ্কর

এনআইডি জালিয়াতি:  ২০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র

এনআইডি জালিয়াতি: ২০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র

ভুট্টাক্ষেতে গৃহবধূ মরদেহ, স্বামী আটক

ভুট্টাক্ষেতে গৃহবধূ মরদেহ, স্বামী আটক

সিংগাইরে ছাত্রলীগ নেতা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার ৩

সিংগাইরে ছাত্রলীগ নেতা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার ৩

গ্রেফতারকৃতদের জামিন না দেওয়ায় ফের মশাল মিছিল

গ্রেফতারকৃতদের জামিন না দেওয়ায় ফের মশাল মিছিল

খাল থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

খাল থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির লাশ উদ্ধার

সেপটিক ট্যাংকিতে পড়ে মা-ছেলেসহ নিহত ৩

সেপটিক ট্যাংকিতে পড়ে মা-ছেলেসহ নিহত ৩

গৃহকর্মীদের শ্রমকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান

গৃহকর্মীদের শ্রমকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান

বেজার জমিতে কাজ করবে বেপজা

বেজার জমিতে কাজ করবে বেপজা

সুনামগঞ্জে সওজের কয়েক কোটি টাকার জায়গা উদ্ধার

সুনামগঞ্জে সওজের কয়েক কোটি টাকার জায়গা উদ্ধার

সোহেল তাজের শরীরচর্চা কেন্দ্রে বন্ধু কাজী নাবিল আহমেদ

সোহেল তাজের শরীরচর্চা কেন্দ্রে বন্ধু কাজী নাবিল আহমেদ

সর্বশেষ

আজ ঢাকা আসছেন জয়শঙ্কর

আজ ঢাকা আসছেন জয়শঙ্কর

যশোরে খুন হওয়া ব্যক্তির পরিচয় মিলেছে

যশোরে খুন হওয়া ব্যক্তির পরিচয় মিলেছে

এনআইডি জালিয়াতি:  ২০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র

এনআইডি জালিয়াতি: ২০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র

মে মাসের মধ্যে সবার জন্য পর্যাপ্ত টিকা পাবে যুক্তরাষ্ট্র: বাইডেন

মে মাসের মধ্যে সবার জন্য পর্যাপ্ত টিকা পাবে যুক্তরাষ্ট্র: বাইডেন

ভুট্টাক্ষেতে গৃহবধূ মরদেহ, স্বামী আটক

ভুট্টাক্ষেতে গৃহবধূ মরদেহ, স্বামী আটক

ভারতের পর জিম্বাবুয়েও করে দেখালো

ভারতের পর জিম্বাবুয়েও করে দেখালো

‘পর্যটন খাতে ধারাবাহিক উন্নয়ন অর্থনৈতিক ভিত্তিকে মজবুত করবে’

‘পর্যটন খাতে ধারাবাহিক উন্নয়ন অর্থনৈতিক ভিত্তিকে মজবুত করবে’

সিংগাইরে ছাত্রলীগ নেতা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার ৩

সিংগাইরে ছাত্রলীগ নেতা হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার ৩

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা প্রত্যাহার চেয়ে  ‘সিটিও ফোরাম’ সভাপতির চিঠি

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের নির্দেশনা প্রত্যাহার চেয়ে  ‘সিটিও ফোরাম’ সভাপতির চিঠি

গ্রেফতারকৃতদের জামিন না দেওয়ায় ফের মশাল মিছিল

গ্রেফতারকৃতদের জামিন না দেওয়ায় ফের মশাল মিছিল

৩৭১ ইউনিয়ন পরিষদে ভোটের তারিখ ঘোষণা

৩৭১ ইউনিয়ন পরিষদে ভোটের তারিখ ঘোষণা

আফগানিস্তান না খেললে ‘বিকল্প’ আছে বাংলাদেশের

আফগানিস্তান না খেললে ‘বিকল্প’ আছে বাংলাদেশের

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

এনআইডি জালিয়াতি:  ২০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র

এনআইডি জালিয়াতি: ২০ কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র

গ্রেফতারকৃতদের জামিন না দেওয়ায় ফের মশাল মিছিল

গ্রেফতারকৃতদের জামিন না দেওয়ায় ফের মশাল মিছিল

গৃহকর্মীদের শ্রমকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান

গৃহকর্মীদের শ্রমকে প্রাতিষ্ঠানিক রূপ দিতে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান

সোহেল তাজের শরীরচর্চা কেন্দ্রে বন্ধু কাজী নাবিল আহমেদ

সোহেল তাজের শরীরচর্চা কেন্দ্রে বন্ধু কাজী নাবিল আহমেদ

ভুল ই-রিকুইজিশন সংশোধনে পাঠাতে হবে শূন্যপদের তথ্য

ভুল ই-রিকুইজিশন সংশোধনে পাঠাতে হবে শূন্যপদের তথ্য

দুই হাজার কোটি টাকা পাচার: ফরিদপুরের দুই ভাইসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

দুই হাজার কোটি টাকা পাচার: ফরিদপুরের দুই ভাইসহ ১০ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

সড়কে আহতদের তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দেবে ট্রাফিক পুলিশ

সড়কে আহতদের তাৎক্ষণিক চিকিৎসা দেবে ট্রাফিক পুলিশ

মশক নিধন কার্যক্রমে ভুল ছিল: তাপস

মশক নিধন কার্যক্রমে ভুল ছিল: তাপস

সিনহার দুর্নীতি মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ

সিনহার দুর্নীতি মামলার তদন্ত কর্মকর্তাকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.