X
বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১৩ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

১৮ বিচারপতিকে ২ বার শপথ পড়ানোর ব্যাখ্যা দিলো সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন

আপডেট : ৩১ মে ২০২০, ১৭:০৪

করোনার কারণে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শপথ বাক্য পাঠ করানোর কয়েক ঘণ্টা পর সশরীরে হাইকোর্টের ১৮ বিচারপতিকে শপথ পড়ানোর বিষয়ে ব্যাখ্যা দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট প্রশাসন। রবিবার (৩১ মে) সুপ্রিম কোর্টের মুখপাত্র মো. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে শপথ বাক্য পাঠ করানোর সময় কারিগরি ত্রুটির কারণে বিচারপতিদের শপথ গ্রহণ স্পষ্টভাবে শ্রুত না হওয়ায় পুনরায় তাদের শপথ পড়ানোর প্রয়োজনীয়তা অনুভব করেন প্রধান বিচারপতি। সে কারণে গত ৩০ মে রাত ৯ টা ৩০ মিনিটে প্রধান বিচারপতির খাস কামড়ায় তাদের (হাইকোর্টের ১৮ বিচারপতি) বিচারপতিকে শপথ পড়ানো হয়।
এর আগে গত ৩০ মে বিকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ১৮ বিচারপতিকে এক এক করে শপথ বাক্য পাঠ করান প্রধান বিচারপতি। এ সময় সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচারপতিরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উপস্থিত ছিলেন। আর অনুষ্ঠানটি পরিচালনার দায়িত্বে ছিলেন সুপ্রিম কোর্টের। রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবর। এরপর কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে গত ৩০ মে রাতে সুপ্রিম কোর্টে ডেকে এনে পুনরায় ১৮ বিচারপতিকে শপথ বাক পাঠ করান বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন।
২০১৮ সালের ৩১ মে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে নিয়োগপ্রাপ্ত অতিরিক্ত ১৮ জন বিচারপতি শপথ গ্রহণ করেন। এরপর গত ২৯ মে তাদেরকে স্থায়ী বিচারপতি হিসাবে নিয়োগ দেন রাষ্ট্রপতি। এই ১৮ বিচারপতি হলেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের বিচারক হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসা মো. আবু আহমাদ জমাদার, আইন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মোস্তাফিজুর রহমান, নরসিংদীর জেলা ও দায়রা জজ ফাতেমা নজীব, ঢাকা মহানগর দায়রা জজ মো. কামরুল হোসেন মোল্লা, ঢাকার জেলা ও দায়রা জজ এস এম কুদ্দুস জামান, ঢাকার বিভাগীয় বিশেষ জজ মো. আতোয়ার রহমান, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী এস এম আব্দুল মবিন, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল খিজির হায়াত, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এস এম মনিরুজ্জামান, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল শশাংক শেখর সরকার, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোহাম্মদ আলী, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মহি উদ্দিন শামীম, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. রিয়াজ উদ্দিন খান, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. খায়রুল আলম, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী আহমেদ সোহেল, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সরদার মো. রাশেদ জাহাঙ্গীর, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল খোন্দকার দিলীরুজ্জামান ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ড. কে এম হাফিজুল আলম।

/বিআই/এমআর/

সম্পর্কিত

দক্ষিণখানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী কারাগারে

দক্ষিণখানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী কারাগারে

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ছাত্রলীগ নেতা তরিকুলের জামিন হয়নি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ছাত্রলীগ নেতা তরিকুলের জামিন হয়নি

সৌদিতে ইয়াবা নেওয়ার চেষ্টা, ৮৯৫০ পিস ট্যাবলেটসহ যাত্রী ধরা

সৌদিতে ইয়াবা নেওয়ার চেষ্টা, ৮৯৫০ পিস ট্যাবলেটসহ যাত্রী ধরা

করোনায় মৃত চিকিৎসক–স্বাস্থ্যকর্মীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে আইনি নোটিশ 

করোনায় মৃত চিকিৎসক–স্বাস্থ্যকর্মীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে আইনি নোটিশ 

মাদকের মামলায় ৪ নাইজেরিয়ান কারাগারে

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৮:১৭

রাজধানীর পল্লবী এলাকা থেকে গ্রেফতার চার নাইজেরিয়ান নাগরিককে মাদক দ্রব্য আইনের মামলায় কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।

মামলার আসামিরা হলেন— ওকাফোর উগোচুকউ প্রিন্সওয়েল, অনায়ানউ ওলুচিজুললেট, উডেজোবিনা রুবেন ও মিস্টার পিটার।

বুধবার (২৮ জুলাই) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশীদের আদালত আসামিদের রিমান্ড ও জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন (জিআর) শাখা  এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পল্লবী থানার এসআই সোহেল সিকদার আসামিদের আদালতে হাজির করার পর প্রত্যেকের ৫ দিন করে রিমান্ডের আবেদন জানান। অপরদিকে আসামি পক্ষের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত রিমান্ড ও জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) বিকাল সোয়া ৫টার দিকে পল্লবী থানার কালশী এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করে পুলিশ।  এ সময় আসামিদের কাছ থেকে ১২ বোতল বিদেশি  মদ, পাঁচ বোতল হুইস্কি, ৩২টি  বিদেশি বিয়ারের ক্যান উদ্ধার করা হয়।  যার আনুমানিক মূল্য এক লাখ ২০ হাজার টাকা।

 

/এমএইচজে/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

ডেঙ্গুর লার্ভার তথ্য দেওয়ার আহ্বান তাপসের

ডেঙ্গুর লার্ভার তথ্য দেওয়ার আহ্বান তাপসের

এখনও ঢাকা ছাড়ছেন মানুষ

এখনও ঢাকা ছাড়ছেন মানুষ

নৌ-চলাচলে বিঘ্ন, বছিলা সেতু ভেঙে ফেলার চিন্তা

নৌ-চলাচলে বিঘ্ন, বছিলা সেতু ভেঙে ফেলার চিন্তা

ঢাকায় আরও ১৫০ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

ঢাকায় আরও ১৫০ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত

দক্ষিণখানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী কারাগারে

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৮:০৫

রাজধানীর দক্ষিণখান থানায় মাদকদ্রব্য আইনে করা মামলায় ইয়াবাসহ গ্রেফতার মোছা. জননেছাকে (৩০) কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। বুধবার (২৮ জুলাই) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মামুনুর রশীদের আদালত এ আদেশ দেন। আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন (জিআর) শাখা থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।

এ দিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আসামিকে আদালতে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। এরপর আদালত আবেদন নামঞ্জুর করে আসামিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে বুধবার (২৮ জুলাই) দক্ষিণখান থানার নদ্দাপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে ইয়াবাসহ মোছা. জননেছাকে গ্রেফতার করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) দক্ষিণখান থানা পুলিশ। এ সময় তার কাছ থেকে দুটি প্যাকেটে ৪০৩ পিস ইয়াবা জব্দ করা হয়। এ ঘটনায় দক্ষিণখান থানায় মাদকদ্রব্য আইনে তার বিরুদ্ধে একটি মামলা করা হয়।

 

/এমএইচজে/আইএ/

সম্পর্কিত

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ছাত্রলীগ নেতা তরিকুলের জামিন হয়নি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ছাত্রলীগ নেতা তরিকুলের জামিন হয়নি

সৌদিতে ইয়াবা নেওয়ার চেষ্টা, ৮৯৫০ পিস ট্যাবলেটসহ যাত্রী ধরা

সৌদিতে ইয়াবা নেওয়ার চেষ্টা, ৮৯৫০ পিস ট্যাবলেটসহ যাত্রী ধরা

করোনায় মৃত চিকিৎসক–স্বাস্থ্যকর্মীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে আইনি নোটিশ 

করোনায় মৃত চিকিৎসক–স্বাস্থ্যকর্মীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে আইনি নোটিশ 

চাঁদাবাজির মামলায় ছাত্রলীগ নেতা রিমান্ডে

চাঁদাবাজির মামলায় ছাত্রলীগ নেতা রিমান্ডে

প্রাথমিকের ২০২২ শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যবইয়ের চাহিদা এন্ট্রির নির্দেশ

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৭:৫৬

‘প্রাথমিক বিদ্যালয় ই-ব্যবস্থাপনা’ সফটওয়ারে ২০২২ শিক্ষাবর্ষের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য পাঠ্যপুস্তকের বিদ্যালয়ভিত্তিক চাহিদা এন্ট্রির নির্দেশ দিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর। আগামী ২ আগস্টের মধ্যে শতভাগ এন্ট্রি সম্পন্ন করতে বলা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) স্বাক্ষরিত অফিস আদেশটি বুধবার (২৮ জুলাই) প্রকাশ করা হয়।

অফিস আদেশে বলা হয়, ‘প্রাথমিক বিদ্যালয় ই-ব্যবস্থাপনা’ সফটওয়ারে ২০২২ শিক্ষাবর্ষের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণি, প্রাথমিক স্তর এবং ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর পাঠ্যবইয়ের বিদ্যালয়ভিত্তিক চাহিদা আগামী ২১ জুনের মধ্যে এন্ট্রি করার অনুরোধ জানানো হয়েছিল। পরে যেসব উপজেলা/থানা নির্ধারিত তারিখের মধ্যে এন্ট্রি শতভাগ সম্পন্ন করতে পারেনি তাদের শতভাগ এন্ট্রি সম্পন্ন করার তাগিদ দেওয়া হয়।

আদেশে আরও জানানো হয়, অচিরেই ২০২২ শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যবই সরবরাহ কাজ শুরু হতে যাচ্ছে। পাঠ্যবই সরবরাহ কাজ শুরুর আগেই পাঠ্যবইয়ের চাহিদা সংক্রান্ত তথ্য শতভাগ এন্ট্রি সম্পন্ন করা আবশ্যক। এমতাবস্থায় এখন পর্যন্ত যেসব উপজেলা/থানা এন্ট্রি কাজ সম্পন্ন করেনি তাদের আগামী ২ আগস্টের মধ্যে শতভাগ সম্পন্ন করার জন্য আবারও অনুরোধ জানানো হলো।

 

 

/এসএমএ/আইএ/

সম্পর্কিত

ডেঙ্গুর বিস্তার রোধে প্রাথমিকের নির্দেশনা

ডেঙ্গুর বিস্তার রোধে প্রাথমিকের নির্দেশনা

শিক্ষার্থীদের টিকা দিয়ে দ্রুতই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে: শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষার্থীদের টিকা দিয়ে দ্রুতই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে: শিক্ষামন্ত্রী

ভিকারুননিসার অধ্যক্ষের ফোনালাপ ফাঁসের ঘটনায় তদন্ত কমিটি

ভিকারুননিসার অধ্যক্ষের ফোনালাপ ফাঁসের ঘটনায় তদন্ত কমিটি

‘ভর্তি বাণিজ্য বন্ধ করায় ফোনালাপ ফাঁস’

‘ভর্তি বাণিজ্য বন্ধ করায় ফোনালাপ ফাঁস’

ডেঙ্গুর লার্ভার তথ্য দেওয়ার আহ্বান তাপসের

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৭:৫৪

রোগী হয়ে হাসপাতাল থেকে নয়, ডেঙ্গু মশা লার্ভা পর্যায়ে থাকা অবস্থায় এর উৎপত্তিস্থল সম্পর্কে তথ্য দিতে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন- ডিএসসিসি এলাকার জনগণের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন মেয়র ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস।

বুধবার (২৮ জুলাই) ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ হাইওয়ে সংলগ্ন দক্ষিণ সিটির ৫৮ ও ৫৯ নম্বর ওয়ার্ডে ঢাকা ম্যাচ কলোনির আশপাশের  জলাবদ্ধ এলাকা পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে ডিএসসিসির মেয়র তাপস এ কথা বলেন।

ব্যারিস্টার শেখ তাপস বলেন, ‘আমরা তো মানুষের ছাদে গিয়ে উঠতে পারি না। আপনারা যদি লক্ষ্য করেন যে, ছাদে কোথাও পানি জমে আছে। আপনি যদি নিজে পরিষ্কার না করতে পারেন, আমাদেরকে জানান। আমরা এসে পরিষ্কার করে দেবো। আপনারা যদি লক্ষ্য করেন যে, কোনও প্রতিবেশীর আঙ্গিনায় পানি জমে আছে এবং তাকে দিয়ে পরিষ্কার না করাতে পারেন, তাহলে আমাদেরকে জানান। আমরা কাউন্সিলরসহ উপস্থিত হবো, আমাদের ভ্রাম্যমাণ আদালত উপস্থিত হবে।’

তিনি বলেন,  ‘শুধু আমাদেরকে তথ্য দিয়ে আপনারা সহযোগিতা করুন। কারণ, এত বিস্তীর্ণ এলাকা, এত বড় এলাকায় ঘরে ঘরে গিয়ে এটা সম্ভব না। তাই আমাদেরকে তথ্য দিন। রোগী হওয়ার আগেই তথ্য দিন। রোগী হওয়ার পর হাসপাতাল থেকে তথ্য নিয়ে লাভ হয় না। কারণ, তখন কিন্তু মশার প্রজনন হয়ে গেছে। প্রজননের আগে লার্ভা পর্যায়ে তথ্য দিন।’

তাপস আরও বলেন, ‘এডিস মশা বাড়ির আঙ্গিনায়, বাসাবাড়িতে হয়, ফুলের টবে হয়, ছোট-বড় যেকোনও পাত্রে হয়— অর্থাৎ যেখানেই বৃষ্টির পানি এসে জমে বা পানি জমা হওয়ার সুযোগ থাকে, সেখানেই কিন্তু এডিস মশার প্রজনন হয়ে থাকে।’  তিনি বলেন, ‘আপনাদের মেয়র হিসেবে, আপনাদের সেবক হিসেবে আমি ঢাকাবাসীর প্রতি এটুকু নিবেদন করবো— আপনারা আমাদেরকে তথ্য দিন।’

ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপস আরও বলেন, ‘আপনারা লক্ষ্য করবেন, ঢাকা শহরের যে প্রতিকূল অবস্থা, তার মধ্যে পূর্ণশক্তি আমরা প্রয়োগ করে রেখেছি। আমাদের কীটনাশক আছে, আমাদের জনবল আছে, আমাদের যন্ত্রপাতি আছে, আমাদের সদিচ্ছা আছে, আন্তরিকতা আছে, নিষ্ঠা আছে। সবমিলিয়ে আমরা কাজ করে চলেছি।’

পরে মেয়র নগরীর ৫৯, ৫৮ ও ৫৩  নম্বর ওয়ার্ডে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়— এমন আরও বেশ কয়েকটি স্থান পরিদর্শন করেন।

এরপর  দক্ষিণ সিটি করপোরেশন পরিচালিত ঢাকা মহানগর শিশু হাসপাতাল পরিদর্শন করেন তিনি। এ সময় মেয়র বলেন, ‘পুরান ঢাকায় মা ও শিশুর স্বাস্থ্য সেবায় এই হাসপাতালের প্রচুর চাহিদা রয়েছে। আমরা এই হাসপাতালের আধুনিকায়ন করবো। সে লক্ষ্যেই আজকের এই পরিদর্শন।’

এ সময় দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ফরিদ আহাম্মদ, প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা এয়ার কমোডর মো. বদরুল আমিন, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ডা. শরীফ আহমেদ, প্রধান প্রকৌশলী মো. রেজাউর রহমান, সচিব আকরামুজ্জামান, প্রধান সম্পত্তি কর্মকর্তা রাসেল সাবরিন, তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী  খায়রুল বাকের ও মুন্সি আবুল হাশেম এবং সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন।

 

/এসএস/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

মাদকের মামলায় ৪ নাইজেরিয়ান কারাগারে

মাদকের মামলায় ৪ নাইজেরিয়ান কারাগারে

এখনও ঢাকা ছাড়ছেন মানুষ

এখনও ঢাকা ছাড়ছেন মানুষ

লকডাউনে ঢাকায় ফেরার গল্প (ভিডিও স্টোরি)

লকডাউনে ঢাকায় ফেরার গল্প (ভিডিও স্টোরি)

দূরপাল্লার যাত্রায় নারীর ভোগান্তি বেশি

দূরপাল্লার যাত্রায় নারীর ভোগান্তি বেশি

ডেঙ্গুর বিস্তার রোধে প্রাথমিকের নির্দেশনা

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ১৭:৫৬

এডিস মশা ও ডেঙ্গু রোগের বিস্তার রোধে প্রাথমিক অধিদফতরের অধীন সংশ্লিষ্ট অফিস এবং সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের জন্য জরুরি নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। বুধবার (২৮ জুলাই) প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর এ সংক্রান্ত নির্দেশনা জারি করে।

অফিস আদেশে জানানো হয়, সংশ্লিষ্ট সব অফিস ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রধান, শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের অবহিত করা যাচ্ছে যে, বর্তমান সময়ে এডিস মশার বিস্তার ও এর মাধ্যমে ডেঙ্গু রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিতে পারে। ফলে অন্যান্য বছরের মতো এবারও আমাদের সচেতন থাকতে হবে। এই পরিস্থিতিতে সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্ধারিত নির্দেশনা প্রতিপালনের অনুরোধ জানানো হয়।

নির্দেশনাসমূহ:

১) অফিস, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও এর আশপাশে যেসব জায়গায় স্বচ্ছ পানি জমার সম্ভবনা থাকে সেসব জায়গা চিহ্নিত করে একদিন পর পর পরিষ্কার করতে হবে। যেমন: প্রতিষ্ঠানের ছাদ, নির্মাণাধীন ভবন, ফুলের টব, বাগান, নালা, পানির ট্যাপের আশপাশের এলাকা, পানির পাম্প, ফ্রিজ বা এসির পানি জমার স্থান, পানির বদনা, বালতি, হাইকমোড, আইসক্রিম বক্স, প্লাস্টিক বক্স, ডাবের খোসা, নারিকেল মালা, টায়ার ইত্যাদি।

২) অব্যবহৃত পানির পাত্র ধ্বংস বা উল্টে রাখতে হবে, যাতে পানি জমতে না পারে।

৩) হাই-কমোডে হারপিক ঢেলে ঢাকনা বন্ধ করে রাখতে হবে। লো-কমোডের প্যানে হারপিক ঢেলে বস্তা বা অন্য কিছু দিয়ে মুখ বন্ধ করে রাখতে হবে।

৪) কোনও জায়গায় জমা পানি থাকলে লার্ভিসাইড স্প্রে করতে হবে অথবা জমা পানি নিষ্কাশন করতে হবে।

৫) দিনে অথবা রাতে ঘুমানোর সময় অবশ্যই মশারি ব্যবহার করতে হবে।

৬) ডেঙ্গু প্রতিরোধ কার্যক্রমে সিটি করপোরেশন বা পৌরসভার সঙ্গে সমন্বিত অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে।

৭) ডেঙ্গু জ্বরে আতঙ্কিত না হয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

 

/এসএমএ/আইএ/

সম্পর্কিত

প্রাথমিকের ২০২২ শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যবইয়ের চাহিদা এন্ট্রির নির্দেশ

প্রাথমিকের ২০২২ শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যবইয়ের চাহিদা এন্ট্রির নির্দেশ

লকডাউনে ঢাকায় ফেরার গল্প (ভিডিও স্টোরি)

লকডাউনে ঢাকায় ফেরার গল্প (ভিডিও স্টোরি)

শিক্ষার্থীদের টিকা দিয়ে দ্রুতই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে: শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষার্থীদের টিকা দিয়ে দ্রুতই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে: শিক্ষামন্ত্রী

শফিকুল ইসলামের একক চিত্র প্রদর্শনী চলছে মৃন্ময় আর্ট গ্যালারিতে

শফিকুল ইসলামের একক চিত্র প্রদর্শনী চলছে মৃন্ময় আর্ট গ্যালারিতে

সর্বশেষ

উখিয়া-ঘুমধুমে বন্যার পানিতে ডুবে ৫ জনের মৃত্যু

উখিয়া-ঘুমধুমে বন্যার পানিতে ডুবে ৫ জনের মৃত্যু

কর্মহীনদের সহায়তায়  খাদ্যসামগ্রী অঙ্কুর ফাউন্ডেশনের

কর্মহীনদের সহায়তায় খাদ্যসামগ্রী অঙ্কুর ফাউন্ডেশনের

মাদকের মামলায় ৪ নাইজেরিয়ান কারাগারে

মাদকের মামলায় ৪ নাইজেরিয়ান কারাগারে

দক্ষিণখানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী কারাগারে

দক্ষিণখানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী কারাগারে

‘অপহরণের’ ৯ মাস পর স্কুলছাত্রী উদ্ধার, যুবক গ্রেফতার

‘অপহরণের’ ৯ মাস পর স্কুলছাত্রী উদ্ধার, যুবক গ্রেফতার

কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় সড়কে প্রাণ গেলো স্বামী-স্ত্রীর

কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় সড়কে প্রাণ গেলো স্বামী-স্ত্রীর

প্রাথমিকের ২০২২ শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যবইয়ের চাহিদা এন্ট্রির নির্দেশ

প্রাথমিকের ২০২২ শিক্ষাবর্ষের পাঠ্যবইয়ের চাহিদা এন্ট্রির নির্দেশ

বরগুনায় টানা বর্ষণে ডুবে গেছে ফসল ও মাছের ঘের

বরগুনায় টানা বর্ষণে ডুবে গেছে ফসল ও মাছের ঘের

ডেঙ্গুর লার্ভার তথ্য দেওয়ার আহ্বান তাপসের

ডেঙ্গুর লার্ভার তথ্য দেওয়ার আহ্বান তাপসের

সরকারের একাধিক শীর্ষ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করলেন তিউনিসিয়ার প্রেসিডেন্ট

সরকারের একাধিক শীর্ষ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করলেন তিউনিসিয়ার প্রেসিডেন্ট

শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের সমাধির ওপর হাসপাতাল নির্মাণ না করার আহ্বান

শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের সমাধির ওপর হাসপাতাল নির্মাণ না করার আহ্বান

ডেঙ্গুর বিস্তার রোধে প্রাথমিকের নির্দেশনা

ডেঙ্গুর বিস্তার রোধে প্রাথমিকের নির্দেশনা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

দক্ষিণখানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী কারাগারে

দক্ষিণখানে ইয়াবাসহ গ্রেফতার নারী কারাগারে

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ছাত্রলীগ নেতা তরিকুলের জামিন হয়নি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় ছাত্রলীগ নেতা তরিকুলের জামিন হয়নি

সৌদিতে ইয়াবা নেওয়ার চেষ্টা, ৮৯৫০ পিস ট্যাবলেটসহ যাত্রী ধরা

সৌদিতে ইয়াবা নেওয়ার চেষ্টা, ৮৯৫০ পিস ট্যাবলেটসহ যাত্রী ধরা

করোনায় মৃত চিকিৎসক–স্বাস্থ্যকর্মীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে আইনি নোটিশ 

করোনায় মৃত চিকিৎসক–স্বাস্থ্যকর্মীর পরিবারকে ক্ষতিপূরণ দিতে আইনি নোটিশ 

চাঁদাবাজির মামলায় ছাত্রলীগ নেতা রিমান্ডে

চাঁদাবাজির মামলায় ছাত্রলীগ নেতা রিমান্ডে

২০৯ জনকে জরিমানা করেছে র‌্যাব

২০৯ জনকে জরিমানা করেছে র‌্যাব

কক্সবাজারের এক হেফাজত নেতার জামিন

কক্সবাজারের এক হেফাজত নেতার জামিন

বিমানবন্দরে বিদেশি মুদ্রাসহ গ্রেফতার জাহাঙ্গীর রিমান্ডে

বিমানবন্দরে বিদেশি মুদ্রাসহ গ্রেফতার জাহাঙ্গীর রিমান্ডে

ক্ষতিপূরণ চেয়ে গ্রামীণফোনকে হু্মায়ূন পরিবারের আইনি নোটিশ

ক্ষতিপূরণ চেয়ে গ্রামীণফোনকে হু্মায়ূন পরিবারের আইনি নোটিশ

পুলিশের হস্তক্ষেপে শিশু সন্তানসহ শ্বশুরবাড়িতে গেলেন গৃহবধূ

পুলিশের হস্তক্ষেপে শিশু সন্তানসহ শ্বশুরবাড়িতে গেলেন গৃহবধূ

© 2021 Bangla Tribune