X
রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ৪ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

‘রাসেলের মধ্যে ছিল মেধা, মনন ও মানবিকতার অপূর্ব সমাহার’

আপডেট : ১৮ অক্টোবর ২০২০, ১২:৩৩




শেখ রাসেল (ছবি সংগৃহীত) শহীদ শেখ রাসেলের শিক্ষিকা গীতালি দাশগুপ্তা বলেছেন, মেধা ও মননের অপূর্ব সমাহার ছিল শিশু রাসেলের কচি মনে। তার শিশু মন ছিল মানবিকতায় ভরা।

শেখ রাসেলের ৫৭তম জন্মদিন উপলক্ষে শনিবার (১৭ অক্টোবর) রাতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ওয়েবটিম আয়োজিত ওয়েবিনারে তার গৃহশিক্ষিকা এভাবেই নিজের ছাত্রের মেধা ও কোমল মনের অকৃত্রিম প্রশংসা করেন ।

তিনি বলেন, ‘শেখ রাসেলকে একবার যেটা শিখিয়েছি, তা সে কোনোদিন ভোলে নাই।’

শেখ রাসেলকে পড়ানোর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘আমার সামনে পরীক্ষা থাকায় শেখ রাসেলকে পড়াবো না বলে আমি মানা করে দেই। এই কথা শুনে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বললেন ৩০ মিনিট? আমি বললাম, তাও সম্ভব না। তিনি আবার বললেন ২০ মিনিট? আমি চুপ করে রইলাম, মানে ২০ মিনিটও সম্ভব না। তারপর তিনি আবারও বললেন- ১৫ মিনিট? তখন আমার কাছে মনে হলো, একজন মা তার ছেলের জন্য মাত্র ১৫ মিনিট সময় চাইছেন, এই সময়টুকু তো আমার দেওয়া উচিত। আমি চেঞ্জ হয়ে গেলাম। তারপর আমি কাকিমার (বঙ্গমাতার) দিকে তাকিয়ে বললাম, এই রাস্তায় কি বাস চলে? নইলে আমি যাতায়াত করবো কীভাবে? আমার তখনো এই বোধটুকু নেই যে, আমি কাকে যাতায়াতের কথা বলছি। তখন বঙ্গমাতা বললেন- আপনি পড়াবেন? তাহলে যাতায়াতের ব্যবস্থাটুকু আমিই করবো।’

এর পরবর্তী অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে গীতালি দাশগুপ্তা বলেন, ‘শেখ রাসেলকে যেটা শিখিয়েছি সে তা কোনোদিন ভোলে নাই। শেখ রাসেল একবার বলে- আমি আর অঙ্ক করবো না। আমি প্রশ্ন করলে বলে- আমার ইচ্ছে করে না। এরপর আমি চিন্তা করলাম, কীভাবে শেখানো যায়। বললাম যে, তুমি স্কুলে চকলেট নিয়ে যাও? সে বললো- হ্যাঁ, আমি বললাম, একা একা খাও তাই না? রাসেল বললো- নাহ, একা খাই না, বন্ধুদের দিয়ে খাই। তখন বললাম, এই যে তুমি দুইটা অঙ্ক রেখে দিলে, তারা কষ্ট পাবে না? রাসেল বললো- কেন কষ্ট পাবে? ওরা কী কথা বলতে পারে? খুব অবাক ও! আমি বললাম, এই যে আমাদের বাংলাদেশ আছে, তেমনই একটা অঙ্কের দেশ আছে। তারা নিজেরা নিজেরা কথা বলতে পারে। কষ্ট পেয়ে যাবে। এরপর রাসেল টপ টপ করে দুটো অঙ্ক করে বলে- এখন তো আর ওরা রাগ করবে না। এখন তো আর অঙ্কের দুঃখ নাই।’

কথাসাহিত্যিক ও শিশু একাডেমির সাবেক চেয়ারম্যান সেলিনা হোসেন বলেন, ‘আমি তাকে স্বাধীনতার স্বপ্নের প্রতীকী শিশু হিসেবে দেখি। রাসেলের হাতে বাংলাদেশের পতাকা নিয়ে একটি ছবি আছে, তা দেখলে আমার কাছে প্রতীকী অর্থে সে বড় হয়ে যায়। ছোট বেলা থেকেই দেশাত্ববোধ ছিল তার মাঝে। একেবারে পরিবার থেকে পাওয়া।’

 ওয়েবিনারে অংশ নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক প্রো-ভিসি অধ্যাপক ড. নাসরিন আহমেদ বলেন, ‘রাসেলের কথা বলতে গেলে আমার ১৫ আগস্টের কথা মনে পড়ে যায়। সেদিন কী ভয়ঙ্কর রূপ ছিল, আমরা তো পাশেই ছিলাম। গোলাগুলির শব্দ শুনেছি। ছোট্ট শিশুর মনের অবস্থা সেদিন কী হয়েছিল! আর যেই পাষণ্ডরা এই বাচ্চার বুকের ওপর গুলি চালালো, তারা কীভাবে পারলো। তাদের কি একটুও মায়া হয়নি? একটুও হাত কাঁপেনি? একটুও বুক কাঁপেনি? আজকের দিনে এটুকু চাই ও যেখানে থাকে, যেন ভালো থাকে, ওর আত্মার শান্তি কামনা করছি।’

এতে আরও অংশ নেন আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি, বিশিষ্ট অভিনেতা ও সম্প্রীতি বাংলাদেশের আহবায়ক পীযুষ বন্দ্যোপাধ্যায়।

প্রসঙ্গত, ১৮ অক্টোবর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদরের ছোট ছেলে শেখ রাসেলের ৫৭তম জন্মদিন। ১৯৬৪ সালের এই দিনে ধানমন্ডির ঐতিহাসিক ৩২ নম্বর বাড়িতে জন্মগ্রহণ করেন শেখ রাসেল। ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট বর্বর ঘাতকদের বুলেটের আঘাতে প্রাণ হারাতে হয় ইউনিভার্সিটি ল্যাবরেটরি স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র শিশু রাসেলকে। 

/এমএইচবি/টিটি/

সম্পর্কিত

আলহামদুলিল্লাহ সব ঠিকঠাক আছে: খালেদা জিয়ার চিকিৎসক এফ এম সিদ্দিকী

আলহামদুলিল্লাহ সব ঠিকঠাক আছে: খালেদা জিয়ার চিকিৎসক এফ এম সিদ্দিকী

‘খালেদা জিয়া বলেছেন সবার প্রপারলি মাস্ক পরা উচিত’

‘খালেদা জিয়া বলেছেন সবার প্রপারলি মাস্ক পরা উচিত’

মেনে নেওয়া হবে শ্রমিকদের দাবি

বাঁশখালী হত্যাকাণ্ডমেনে নেওয়া হবে শ্রমিকদের দাবি

‘গাড়িতে আগুন ধরিয়ে পুলিশ আমাদের গুলি করে’

বাঁশখালীতে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ‘গাড়িতে আগুন ধরিয়ে পুলিশ আমাদের গুলি করে’

বিশ্বজুড়ে টুইটারে বিভ্রাট

বিশ্বজুড়ে টুইটারে বিভ্রাট

২৪ ঘণ্টায় আবারও ১০১ জনের মৃত্যু

২৪ ঘণ্টায় আবারও ১০১ জনের মৃত্যু

পদ্মা সেতু প্রকল্পের চীনা কর্মকর্তাদের জন্য ফ্লাইট চালুর দাবি

পদ্মা সেতু প্রকল্পের চীনা কর্মকর্তাদের জন্য ফ্লাইট চালুর দাবি

এস আলমের বিদ্যুৎকেন্দ্রে সংঘর্ষ, ৫ জন নিহত

এস আলমের বিদ্যুৎকেন্দ্রে সংঘর্ষ, ৫ জন নিহত

করোনায় পুলিশের বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগ: সদর দফতরের বক্তব্য

করোনায় পুলিশের বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগ: সদর দফতরের বক্তব্য

হেফাজত নেতাদের আটকে কৌশলী আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

হেফাজত নেতাদের আটকে কৌশলী আইনশৃঙ্খলা বাহিনী

লকডাউনের চতুর্থ দিনে সড়কে মানুষের উপস্থিতি বেড়েছে

লকডাউনের চতুর্থ দিনে সড়কে মানুষের উপস্থিতি বেড়েছে

সোনারগাঁও হোটেলের সামনে সৌদি আরবগামী যাত্রীদের বিক্ষোভ

সোনারগাঁও হোটেলের সামনে সৌদি আরবগামী যাত্রীদের বিক্ষোভ

সর্বশেষ

১৫২ ছবির নায়ক ওয়াসিম আর নেই

১৫২ ছবির নায়ক ওয়াসিম আর নেই

আলহামদুলিল্লাহ সব ঠিকঠাক আছে: খালেদা জিয়ার চিকিৎসক এফ এম সিদ্দিকী

আলহামদুলিল্লাহ সব ঠিকঠাক আছে: খালেদা জিয়ার চিকিৎসক এফ এম সিদ্দিকী

‘খালেদা জিয়া বলেছেন সবার প্রপারলি মাস্ক পরা উচিত’

‘খালেদা জিয়া বলেছেন সবার প্রপারলি মাস্ক পরা উচিত’

অন্যমনস্কতার ভেতর বয়ে যাওয়া নিঃশব্দ মর্মর

অন্যমনস্কতার ভেতর বয়ে যাওয়া নিঃশব্দ মর্মর

পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুর গ্রেফতার

পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুর গ্রেফতার

মেনে নেওয়া হবে শ্রমিকদের দাবি

বাঁশখালী হত্যাকাণ্ডমেনে নেওয়া হবে শ্রমিকদের দাবি

মেক্সিকো থেকে কাদের মির্জার ছেলেকে হত্যার হুমকি!

মেক্সিকো থেকে কাদের মির্জার ছেলেকে হত্যার হুমকি!

রোহিতের ৪ হাজার, মুম্বাইয়ের সঙ্গেও পারলো না হায়দরাবাদ

রোহিতের ৪ হাজার, মুম্বাইয়ের সঙ্গেও পারলো না হায়দরাবাদ

করোনা থেকে মুক্তির জন্য মসজিদে মসজিদে দোয়ার আহ্বান আইনমন্ত্রীর

করোনা থেকে মুক্তির জন্য মসজিদে মসজিদে দোয়ার আহ্বান আইনমন্ত্রীর

‘গাড়িতে আগুন ধরিয়ে পুলিশ আমাদের গুলি করে’

বাঁশখালীতে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ‘গাড়িতে আগুন ধরিয়ে পুলিশ আমাদের গুলি করে’

করোনায় মৃত্যুর সঙ্গে সূর্যের আলোর যোগসূত্র পেলেন গবেষকরা

করোনায় মৃত্যুর সঙ্গে সূর্যের আলোর যোগসূত্র পেলেন গবেষকরা

নারীকে মারধরের ভিডিও ভাইরাল, আটক ৯

নারীকে মারধরের ভিডিও ভাইরাল, আটক ৯

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

২৪ ঘণ্টায় আবারও ১০১ জনের মৃত্যু

২৪ ঘণ্টায় আবারও ১০১ জনের মৃত্যু

পদ্মা সেতু প্রকল্পের চীনা কর্মকর্তাদের জন্য ফ্লাইট চালুর দাবি

পদ্মা সেতু প্রকল্পের চীনা কর্মকর্তাদের জন্য ফ্লাইট চালুর দাবি

কানেকটিভিটির সুফল পেতে যা করতে হবে

কানেকটিভিটির সুফল পেতে যা করতে হবে

সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে পরাজিত করা হবে: ওবায়দুল কাদের

সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে পরাজিত করা হবে: ওবায়দুল কাদের

১৯৫ জন যুদ্ধাপরাধীর বিচারের সিদ্ধান্ত

১৯৫ জন যুদ্ধাপরাধীর বিচারের সিদ্ধান্ত

কবরীর মৃত্যুতে রাজনীতিকদের শোক

কবরীর মৃত্যুতে রাজনীতিকদের শোক

কবরীর মৃত্যু চলচ্চিত্র অঙ্গনের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি: রাষ্ট্রপতি

কবরীর মৃত্যু চলচ্চিত্র অঙ্গনের জন্য অপূরণীয় ক্ষতি: রাষ্ট্রপতি

রাজনীতি ও সংস্কৃতি অঙ্গনে কবরীর অবদান অবিস্মরণীয়: প্রধানমন্ত্রী

রাজনীতি ও সংস্কৃতি অঙ্গনে কবরীর অবদান অবিস্মরণীয়: প্রধানমন্ত্রী

‘সর্বোচ্চ আত্মত্যাগের বিনিময়ে স্বাধীনতাকে সমুন্নত রাখতে হবে’

‘সর্বোচ্চ আত্মত্যাগের বিনিময়ে স্বাধীনতাকে সমুন্নত রাখতে হবে’

মুজিবনগর সরকারের কার্যক্রম অনন্য গৌরবগাঁথা: রাষ্ট্রপতি

মুজিবনগর সরকারের কার্যক্রম অনন্য গৌরবগাঁথা: রাষ্ট্রপতি

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune