X
শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ৪ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

ব্যারিস্টার রফিক উল হক লাইফ সাপোর্টে

আপডেট : ২২ অক্টোবর ২০২০, ০০:২২

ব্যারিস্টার রফিক উল হক, ছবি: সংগৃহীত ব্যারিস্টার রফিক উল হক রাজধানীর আদ-দ্বীন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) লাইফ সাপোর্টে রয়েছেন। মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) রাত ১২টার দিকে তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়। বর্তমানে তার অবস্থা সংকটাপন্ন। আদ-দ্বীন মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মহাসচিব ডা. নাহিদ ইয়াসমীন বুধবার (২১ অক্টোবর) রাতে বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ডা. নাহিদ ইয়াসমীন বলেন, ‘তার অক্সিজেন লেভেল ও উচ্চ রক্তচাপ কমে গিয়ে শকে চলে যায়। সঙ্গে সঙ্গে তাকে আইসিইউতে নেওয়া হয়েছে। তবে মঙ্গলবার রাতে ভেন্টিলেটরে দেওয়ার পর তার অবস্থার আর অবনতি হয়নি, তবে তার অবস্থা জটিল, তিনি সঙ্কটাপন্ন অবস্থায় আছেন।’

ব্যারিস্টার রফিক উল হক কবে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন জানতে চাইলে ডা. ইয়াসমীন বলেন, ‘গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাকে হাসপাতালে আনা হয়। তিনি আদ-দ্বীন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান। সেই হিসেবে বাসা থেকে তার অবস্থা খারাপ জানানো হলে হাসপাতাল থেকে তার বাসায় চিকিৎসক যান। তার জ্বর ছিল এবং খাচ্ছিলেন না। তারপর তাকে হাসপাতালে এনে ব্ল্যাড এবং ইউরিন পরীক্ষা করানো হয়। ইউরিন টেস্টে সংক্রমণ ধরা পড়ে। সংক্রমণের মাত্রা ছিল অনেক বেশি। তার রক্তশূন্যতা এবং বাম হাত দুর্বল ছিল। তখনই সিটি স্ক্যানে ধরা পড়ে ইতোমধ্যে তার স্ট্রোক হয়ে গিয়েছে। একইসঙ্গে বার্ধক্যজনিত অনেক জটিলতাও ছিল।’

তিনি বলেন, ‘সব চিকিৎসা শুরু করার পর একটু উন্নতি হচ্ছিল।কিন্তু মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে তার অবস্থার অবনতি হতে থাকে। শেষ পর্যন্ত তাকে লাইফ সাপোর্ট দিতেই হলো। তার করোনা টেস্ট নেগেটিভ এসেছে।’

ডা. ইয়াসমীন জানান, আদ-দ্বীন হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. রিচমন্ড রোনাল্ড গোমেজের অধীনে ভর্তি হন ব্যারিস্টার রফিক উল হক। পরে তার নেতৃত্বে কার্ডিওলজি, নেফ্রোলজি, নিউরো মেডিসিন, ক্রিটিক্যাল কেয়ার বিভাগের চিকিৎসকদের নিয়ে মেডিক্যাল বোর্ড গঠন করা হয়। মেডিক্যাল বোর্ডের পরামর্শ অনুযায়ী তার চিকিৎসা চলছে। যেহেতু তার স্ট্রোক হয়েছে তাই ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস অ্যান্ড হসপিটালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. কাজী দ্বীন মোহাম্মদ নিজে এসে দেখে তাকে গেছেন এবং তিনিও চিকিৎসার বিষয়ে গাইড করছেন, বলেন ডা. নাহিদ ইয়াসমীন।

/জেএ/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

এবার প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক ১০ শতাংশ, বিশ্বব্যাংক বলছে অর্ধেক

এবার প্রবৃদ্ধি ৬ দশমিক ১০ শতাংশ, বিশ্বব্যাংক বলছে অর্ধেক

আসামির বয়স নির্ধারণ যেন পুলিশের ‘ইচ্ছে মতো’ না হয়: হাইকোর্ট

আসামির বয়স নির্ধারণ যেন পুলিশের ‘ইচ্ছে মতো’ না হয়: হাইকোর্ট

সুনাগরিক তৈরিতে মন্দিরভিত্তিক গণশিক্ষা বিশেষ ভূমিকা রাখছে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

সুনাগরিক তৈরিতে মন্দিরভিত্তিক গণশিক্ষা বিশেষ ভূমিকা রাখছে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

সাইবার অপরাধ: সতর্কতার মাঝেই উপায় দেখছেন সংশ্লিষ্টরা

সাইবার অপরাধ: সতর্কতার মাঝেই উপায় দেখছেন সংশ্লিষ্টরা

বঙ্গবন্ধুর রচিত বই জাতির ঐতিহাসিক দলিল: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধুর রচিত বই জাতির ঐতিহাসিক দলিল: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার: হাতে তৈরি পণ্য রফতানিতে মিলবে নগদ সহায়তা

আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার: হাতে তৈরি পণ্য রফতানিতে মিলবে নগদ সহায়তা

কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরে পদায়ন নিয়ে অসন্তোষ

কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরে পদায়ন নিয়ে অসন্তোষ

তৈরি পোশাক খাতের বৈশ্বিক সম্মেলন ২২ জুন থেকে শুরু

তৈরি পোশাক খাতের বৈশ্বিক সম্মেলন ২২ জুন থেকে শুরু

বিদেশগামী কর্মীরা পাচ্ছেন সিনোফার্মের টিকা

বিদেশগামী কর্মীরা পাচ্ছেন সিনোফার্মের টিকা

সর্বশেষ

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহার রাশিয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ: পুতিন

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন বাহিনী প্রত্যাহার রাশিয়ার জন্য গুরুত্বপূর্ণ: পুতিন

অস্ট্রিয়াকে হারিয়ে নক আউট পর্বে নেদারল্যান্ডস

অস্ট্রিয়াকে হারিয়ে নক আউট পর্বে নেদারল্যান্ডস

নীল জল থেকে উঠে জড়ালেন অন্তর্জালে!

নীল জল থেকে উঠে জড়ালেন অন্তর্জালে!

ব্রাজিলের অলিম্পিক দলে নেই নেইমার!

ব্রাজিলের অলিম্পিক দলে নেই নেইমার!

নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর জয়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতে মমতা

নন্দীগ্রামে শুভেন্দুর জয়কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে আদালতে মমতা

যানবাহন উৎপাদন ও বিপণনে ট্রেডমার্ক সনদ পেলো ওয়ালটন

যানবাহন উৎপাদন ও বিপণনে ট্রেডমার্ক সনদ পেলো ওয়ালটন

প্রথম ব্যাচের তৃতীয় লিঙ্গের কর্মীদের প্রশিক্ষণ দিলো ফুডপ্যান্ডা

প্রথম ব্যাচের তৃতীয় লিঙ্গের কর্মীদের প্রশিক্ষণ দিলো ফুডপ্যান্ডা

সিলেটের নতুন কারাগারে প্রথম ফাঁসি কার্যকর

সিলেটের নতুন কারাগারে প্রথম ফাঁসি কার্যকর

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

মাঠে নেমেই বেলজিয়ামকে বদলে দিলেন ডি ব্রুইনে

মাঠে নেমেই বেলজিয়ামকে বদলে দিলেন ডি ব্রুইনে

কুড়িগ্রামে দ্রুত বাড়ছে সংক্রমণ

কুড়িগ্রামে দ্রুত বাড়ছে সংক্রমণ

হাজী দানেশে দ্রুত উপাচার্য নিয়োগের আহ্বান

হাজী দানেশে দ্রুত উপাচার্য নিয়োগের আহ্বান

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

ঢাকায় ৬০ নমুনার ৬৮ শতাংশ ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট!

আসামির বয়স নির্ধারণ যেন পুলিশের ‘ইচ্ছে মতো’ না হয়: হাইকোর্ট

আসামির বয়স নির্ধারণ যেন পুলিশের ‘ইচ্ছে মতো’ না হয়: হাইকোর্ট

সুনাগরিক তৈরিতে মন্দিরভিত্তিক গণশিক্ষা বিশেষ ভূমিকা রাখছে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

সুনাগরিক তৈরিতে মন্দিরভিত্তিক গণশিক্ষা বিশেষ ভূমিকা রাখছে: ধর্ম প্রতিমন্ত্রী

সাইবার অপরাধ: সতর্কতার মাঝেই উপায় দেখছেন সংশ্লিষ্টরা

সাইবার অপরাধ: সতর্কতার মাঝেই উপায় দেখছেন সংশ্লিষ্টরা

বঙ্গবন্ধুর রচিত বই জাতির ঐতিহাসিক দলিল: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

বঙ্গবন্ধুর রচিত বই জাতির ঐতিহাসিক দলিল: পর্যটন প্রতিমন্ত্রী

কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরে পদায়ন নিয়ে অসন্তোষ

কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরে পদায়ন নিয়ে অসন্তোষ

তৈরি পোশাক খাতের বৈশ্বিক সম্মেলন ২২ জুন থেকে শুরু

তৈরি পোশাক খাতের বৈশ্বিক সম্মেলন ২২ জুন থেকে শুরু

জিআই সনদ পেলো আরও ৬ পণ্য

জিআই সনদ পেলো আরও ৬ পণ্য

সাইবারে ভুক্তভোগীরা যে কারণে মামলা করতে চান না

সাইবারে ভুক্তভোগীরা যে কারণে মামলা করতে চান না

© 2021 Bangla Tribune