X
শুক্রবার, ২৩ জুলাই ২০২১, ৮ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

এক জীবনে আলী যাকের

‘কবর’ দিয়ে শুরু করোনায় শেষ...

আপডেট : ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১৬:১৭


‘গ্যালিলিও’ নাটকের মঞ্চে আলী যাকের

অভিনেতা আলী যাকের। অভিনয়ে যার শুরু হয়েছিল বিখ্যাত ‘কবর’ নাটক দিয়ে, মঞ্চে। আজ (২৭ নভেম্বর) ভোর ৬টা ৪০ মিনিটে শুরুর ঠিকানাতেই ফিরে গেলেন এই বহুমাত্রিক অভিনেতা। হেরে গেলেন করোনাভাইরাসের কাছে। রেখে গেছেন তার অসংখ্য কর্ম ও সৃষ্টি।
১৯৪৪ সালের ৬ নভেম্বর ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নবীনগর উপজেলার রতনপুর গ্রামে জন্ম হয় স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের এই শব্দসৈনিকের। বয়স হলো ৭৬ বছর।
১৯৭২ সালে তিনি আরণ্যক নাট্যদলের হয়ে মামুনুর রশীদের নির্দেশনায় মুনীর চৌধুরীর ‘কবর’ নাটকটিতে প্রথম অভিনয় করেন। যার প্রথম প্রদর্শনী হয়েছিল ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউশনে। ১৯৭২ সালের জুন মাসের দিকে আতাউর রহমান ও জিয়া হায়দারের আহ্বানে নাগরিক নাট্যসম্প্রদায়ে যোগ দেন। ওই দলে তিনি আতাউর রহমানের নির্দেশনায় ‘বুড়ো শালিকের ঘাড়ে রোঁ’ নাটকে প্রথম অভিনয় করেন, যার প্রথম মঞ্চায়ন হয়েছিল ওয়াপদা মিলনায়তনে।
‘গ্যালিলিও’ নাটকের মঞ্চে আলী যাকের ১৯৭৩ সালে নাগরিক নাট্যসম্প্রদায়ে তিনি প্রথম নির্দেশনা দেন বাদল সরকারের ‘বাকি ইতিহাস’ নাটকে, যা ছিল বাংলাদেশে প্রথম দর্শনীর বিনিময়ে নাট্য প্রদর্শনীর যাত্রা।
আলী যাকের এরপর টিভি নাটকে ব্যস্ত হন। পান অসীম জনপ্রিয়তা। বিশেষ করে হুমায়ূন আহমেদের বেশিরভাগ নাটকে তার চরিত্রগুলো জনপ্রিয়তা পেয়েছে আকাশছোঁয়া। অভিনয় করেছেন চলচ্চিত্রেও। তবে মঞ্চের সঙ্গে তার সংযুক্তি ছিল আমৃত্যু। ছিলেন দারুণ সঞ্চালকও। দীর্ঘ সময় তিনি এই কাজটি সফলতার সঙ্গে করেছেন চ্যানেল আই ও বাংলাভিশনের পর্দায়।
আলী যাকের অভিনয়ের পাশাপাশি দেশীয় বিজ্ঞাপনশিল্পের একজন পুরোধা ব্যক্তিত্বও বটে। বাংলাদেশের শীর্ষ বিজ্ঞাপনী সংস্থা এশিয়াটিক থ্রিসিক্সটি-এর কর্ণধার ছিলেন তিনি।
শিল্পকলায় অবদানের জন্য ১৯৯৯ সালে বাংলাদেশ সরকার তাকে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মান একুশে পদকে ভূষিত করে। এছাড়া তিনি বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি পুরস্কার, বঙ্গবন্ধু পুরস্কার, মুনীর চৌধুরী পদক, নরেন বিশ্বাস পদক এবং মেরিল-প্রথম আলো আজীবন সম্মাননা পুরস্কার লাভ করেছেন।
‘গ্যালিলিও’ নাটকের মঞ্চে আলী যাকের ও আসাদুজ্জামান নূর (ডানে) এক সাক্ষাৎকারে আলী যাকের জানিয়েছেন, নাগরিক নাট্য সম্প্রদায়ের জন্য বিশ্বখ্যাত বিদেশি নাটকের বাংলা রূপান্তর আর নাটক নির্দেশনা এসব কাজে তিনি ব্যস্ত ছিলেন। ১৯৭৩ সালে ওই দলে যোগ দেন সারা যাকের, যাকে শুরুতে চোখেই পড়েনি আলী যাকেরের! একটি নাটকের প্রদর্শনীর আগের দিন একজন অভিনেত্রী হঠাৎ অসুস্থ হয়ে গেলে সারা যাকেরকে দেওয়া হয় চরিত্রটিতে অভিনয় করতে। আলী যাকেরের ওপর দায়িত্ব পড়ে চরিত্রটার জন্য তাকে তৈরি করার এবং খুব দ্রুত চরিত্রটির সঙ্গে নিজেকে মানিয়ে নেন সারা যাকের। এই প্রতিভায় মুগ্ধ হয়ে যান আলী যাকের।
১৯৭৭ সালের এই ঘটনার রেশ ধরেই আলী যাকের আর সারা যাকেরের বিয়ে হয়। এই দম্পতির দুই সন্তান, পুত্র অভিনেতা ইরেশ যাকের ও কন্যা শ্রিয়া সর্বজয়া। দুই সন্তানের সঙ্গে যৌবনে আলী যাকের ও সারা দম্পতি
আলী যাকের অভিনীত উল্লেখযোগ্য কাজের তালিকা:

  • চলচ্চিত্র

আগামী
নদীর নাম মধুমতী
লালসালু
রাবেয়া
টেলিভিশন

  • ধারাবাহিক নাটক

বহুব্রীহি
আজ রবিবার

  • একক নাটক

একদিন হঠাৎ
নীতু তোমাকে ভালোবাসি
পাথর সময়
অচিনবৃক্ষ
আইসক্রিম
পাণ্ডুলিপি
গণি মিয়ার পাথর

  • মঞ্চ নাটক

কবর
বুড়ো সালিকের ঘাড়ে রোঁ
বাকি ইতিহাস
বিদগ্ধ রমণীকুল
তৈল সংকট
এই নিষিদ্ধ পল্লীতে
দেওয়ান গাজীর কিস্‌সা
সৎ মানুষের খোঁজে
অচলায়তন
কোপেনিকের ক্যাপ্টেন
ম্যাকবেথ
টেমপেস্ট
নূরলদীনের সারাজীবন
কবর দিয়ে দাও
গ্যালিলিও
কাঁঠাল বাগান ‘গ্যালিলিও’ নাটকের মঞ্চে আলী যাকের আরও:
নন্দিত অভিনেতা আলী যাকের আর নেই


আলী যাকেরের অবদান স্মরণীয় হয়ে থাকবে: প্রধানমন্ত্রী

 

/এমএম/এমওএফ/

সম্পর্কিত

পর্নোগ্রাফিতে অভিযুক্ত স্বামী প্রসঙ্গে যা বললেন শিল্পা শেঠি

পর্নোগ্রাফিতে অভিযুক্ত স্বামী প্রসঙ্গে যা বললেন শিল্পা শেঠি

মারা গেলেন ‘মুখ ও মুখোশ’ সিনেমার জহরত আরা

মারা গেলেন ‘মুখ ও মুখোশ’ সিনেমার জহরত আরা

হাইতিতে বাংলাদেশি সিনেমার শুটিং!

হাইতিতে বাংলাদেশি সিনেমার শুটিং!

ফকির আলমগীরের অক্সিজেনে উন্নতি, রক্তে ইনফেকশন

ফকির আলমগীরের অক্সিজেনে উন্নতি, রক্তে ইনফেকশন

পর্নোগ্রাফিতে অভিযুক্ত স্বামী প্রসঙ্গে যা বললেন শিল্পা শেঠি

আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২১, ১৮:৫৬

গত ১৯ জুলাই পর্নোগ্রাফিক ফিল্ম বানিয়ে সেটা ওটিটি প্ল্যাটফর্মে প্রকাশ করার অভিযোগে গ্রেফতার হন বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেঠির স্বামীর রাজ কুন্দ্র। 

এতদিন এ নিয়ে কিছু্ই বলেননি শিল্পা। ধারণা করা হচ্ছিল, রাজ কুন্দ্রের কেসে পুলিশ শিল্পাকেও ডাকতে পারে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য। কিন্তু মুম্বাই পুলিশের এক সূত্র টাইমস অব ইন্ডিয়াকে জানিয়েছে এ ঘটনায় শিল্পাকে কোনও প্রশ্ন করা নাও হতে পারে।

অন্যদিকে স্বামী গ্রেফতারের পর অবশেষে স্যোশাল মিডিয়ায় একটি পোস্ট করেন শিল্পা। সেখানে তিনি একটি বইয়ের পাতার ছবি শেয়ার করেন। তাতে একটি উক্তি লেখা- ‘অতীতের দিকে রাগ করে কিংবা ভবিষ্যতের দিকে ভয়ে ভয়ে তাকিও না। নিজের চারপাশে সতর্কতার সঙ্গেই চোখ বোলাও। আমরা পেছন পানে যখন রাগ করে তাকাই তখন সেই লোকগুলোকে দেখি যারা আমাদের আঘাত করেছিল। তখন আমরা আবার সেই হতাশায় ডুবে যাই ও দুর্ভাগ্যটা অনুভব করি। ভয়ে ভয়ে ভবিষ্যতের দিকে তাকাই কারণ আমরা হয়তো ভয় পাই যে চাকরিটা হারাবো বা রোগে আক্রান্ত হবো কিংবা প্রিয় কাউকে হারাবো। আমাদের বাঁচতে হবে ঠিক এই মুহূর্তটা, যেখানে আমরা এই মুহূর্তে আছি।’

শিল্পা অফিসিয়ালি এখনও কোনও বিবৃতি না দিলেও এই একটি পোস্ট অনেক কথাই বলেছে। আবার ইনস্টাগ্রামেও লিখেছেন, ‘আমি এসব চ্যালেঞ্জ ঠিকই সামলে নিতে পারবো।’

এদিকে রাজ কুন্দ্র এখনও নানা ধরনের মামলার বোঝা কাঁধে নিয়ে আটক আছেন থানায়। মুম্বাই পুলিশ জানিয়েছে, ব্রিটিশ কেনরিন কোম্পানির পর্নোগ্রাফিক কনটেন্ট তৈরির পেছনে মূল পরিকল্পনাকারী ছিলেন রাজ কুন্দ্র। এর বিপরীতে যথেষ্ট তথ্যপ্রমাণও আছে তাদের হাতে।

/এফএ/এমএম/

মারা গেলেন ‘মুখ ও মুখোশ’ সিনেমার জহরত আরা

আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২১, ১৭:১৬

ঐতিহাসিক পূর্ণদৈর্ঘ্য ‘মুখ ও মুখোশ’ সিনেমার অভিনেত্রী জহরত আরা মারা গেছেন।

১৯ জুলাই লন্ডনের একটি হোম কেয়ারে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন এই অভিনেত্রী। আজ, ২৩ জুলাই তথ্যটি দেশের গণমাধ্যমে প্রকাশ করেছেন জহরত-এর পারিবারিক বন্ধু ফেরদৌস রহমান।

তিনি জানান, জহরত আরার বয়স হয়েছিল প্রায় ৮০ বছর। তিনি দীর্ঘদিন বার্ধক্যজনিত নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন।

১৯৫৪ সালের ৬ আগস্ট হোটেল শাহবাগে ‘মুখ ও মুখোশ’ ছবির মহরত অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ তথা তৎকালীন পাকিস্তানের প্রথম সবাক পূর্ণদৈর্ঘ্য বাংলা সিনেমা এটি। আবদুল জব্বার খান পরিচালিত এ চলচ্চিত্র ১৯৫৬ সালের ৩ আগস্ট মুক্তি পায়। মূলত এই ছবিটির পথ ধরেই এগিয়ে যায় বাংলাদেশের চলচ্চিত্রশিল্পী।

অভিনেত্রী জহরত আরার জন্ম ঢাকায়। পঞ্চাশের দশকে বেতার ও মঞ্চে অভিনয় করতেন তিনি। অভিনয় ছেড়ে অনেক আগেই তিনি পাড়ি জমিয়েছেন যুক্তরাজ্যে।

/এমএম/

সম্পর্কিত

পর্নোগ্রাফিতে অভিযুক্ত স্বামী প্রসঙ্গে যা বললেন শিল্পা শেঠি

পর্নোগ্রাফিতে অভিযুক্ত স্বামী প্রসঙ্গে যা বললেন শিল্পা শেঠি

হাইতিতে বাংলাদেশি সিনেমার শুটিং!

হাইতিতে বাংলাদেশি সিনেমার শুটিং!

ফকির আলমগীরের অক্সিজেনে উন্নতি, রক্তে ইনফেকশন

ফকির আলমগীরের অক্সিজেনে উন্নতি, রক্তে ইনফেকশন

তাদের বিয়ে নিয়ে জটিলতা!

তাদের বিয়ে নিয়ে জটিলতা!

হাইতিতে বাংলাদেশি সিনেমার শুটিং!

আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২১, ১৯:৫২

লাতিন আমেরিকার স্বাধীন দ্বীপরাষ্ট্র হাইতিতে গেলো দেশের প্রথম কোনও শুটিং ইউনিট! হলো মুক্তি প্রতীক্ষিত ‘নীল মুকুট’ সিনেমার শুটিং।
 
ঈদের আগেই খবর মিলেছে, কামার আহমাদ সাইমনের ছবিটি মুক্তি পাচ্ছে আসছে আগস্টে দেশের একটি ওটিটি প্ল্যাটফর্মে। এবার সেই ছবির শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা জানালেন এই নির্মাতা- প্রায় ১০০ মিনিট দৈর্ঘ্যের এই ছবির ৬৫ মিনিটই ধারণ করা হয়েছে অর্ধেক পৃথিবী দূরের দেশ হাইতিতে। আর সেই শুটিং করতে গিয়ে একেবারে শেষ মুহূর্ত ইউনিটের কেউ ভিসা না পাওয়ায় তৈরি হয়েছিল দারুণ জটিল পরিস্থিতি!

সম্প্রতি নয়, ঘটনাটি ঘটেছিল করোনায় পৃথিবী রুদ্ধ হওয়ার আগেই।

কামারের ভাষায়, ‘বাংলাদেশ থেকে হাইতি যেতে হলে নিউ ইয়র্ক হয়ে যেতে হবে, সেক্ষেত্রে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা থাকাটা জরুরি। আমার আর প্রযোজক সারার সেই ভিসা থাকলেও বাকি ক্রুদের কারও মার্কিন ভিসা ছিল না। এরমধ্যে আবার যাদের নিয়ে শুটিং তারা অনেক আগেই পৌঁছে গেছে হাইতি। আমি যদিও খুব ছোট ইউনিটে কাজ করে অভ্যস্ত, তবু একদম কোনও ক্রু ছাড়া হাইতির মতো এত দূরদেশে গিয়ে শুটিং করার সাহস করাটাই একটা বিরাট যুদ্ধ ছিল।’ 

আর সেই যুদ্ধে কামারের সঙ্গে ছিলেন প্রযোজক সারা আফরীন। সেই অভিজ্ঞতা জানিয়ে সারা বললেন, ‘প্রায় দুই বছরের অনুমতি জটিলতা কাটিয়ে যখন হাইতিতে শুটিংয়ের সব ঠিক হলো, শেষ মুহূর্তে হলো ভিসা জটিলতা। এর আগে কখনও আমাকে ইকুইপমেন্ট নিয়ে সরাসরি প্রোডাকশনে কাজ করতে হয়নি। কিন্তু হাইতিতে যেহেতু আর কোনও উপায় ছিল না, তখন যা যা করার আমরাই করলাম।’ 

হাইতিতে পরিচালক ও প্রযোজক, বামে ছবির পোস্টার তবে ঢাকা ছেড়ে হাইতি যাওয়ার আগে মাসখানেক লাইভ সাউন্ড রেকর্ডিং শিখলেন সারা, আর কামার তো সেই ‘শুনতে কি পাও!’ থেকে নিজেই ক্যামেরা চালান। মুম্বাই আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব থেকে শ্রেষ্ঠ চিত্রগ্রাহকের একটা আন্তর্জাতিক পুরস্কারও আছে তার ঝুলিতে। তারপর প্রস্তুতি নিয়ে কয়েকটা পেলিক্যান সুটকেস ভর্তি শুটিং গিয়ার নিয়ে দু’জন রওনা দিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, তারপর সেখান থেকে হাইতি। কিন্তু ‘নীল মুকুট’-এর বিষয় নিয়ে মুখ খুলতে একদম নারাজ কামার। তার মতে, ‘আমি আসলে ছবি বানাই একটা ঘোরের মধ্যে, আমি চাই আমার দর্শকেরাও সেই ঘোরের সাথী হোক- তারাও আবিষ্কার করুক আমার ছবির চরিত্র আর তাদের জীবনের একটা অধ্যায়।’ 

আগেই কামার জানিয়েছিলেন, বিমানে একটা কান্না অনুসরণ করতে গিয়েই একরকম অপরিকল্পিত সন্তান ‘নীল মুকুট’-এর জন্ম হয়েছে। কোনও উৎসবে পাঠানোর আগে দেশে মুক্তি দেওয়ার ঘোষণা দিয়েও করোনা পরিস্থিতির কারণে বাতিল করা হয়। এরপর কয়েকবার চেষ্টা করেও ছবিটি মুক্তি দেওয়া সম্ভব হয়নি। অবশেষে ওটিটি প্ল্যাটফর্মেই ভরসা খুঁজলেন নির্মাতা কামার।

/এমএম/এমওএফ/

কোভিড পজিটিভ

ফকির আলমগীরের অক্সিজেনে উন্নতি, রক্তে ইনফেকশন

আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২১, ১৯:৩৭

কোভিড পজিটিভ হয়ে সবকিছু দ্রুত ঘটলো গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীরের জীবনে। এক সপ্তাহের মধ্যে বাসা থেকে আইসিইউ, এরপর ভেন্টিলেশন সাপোর্ট।

তবে ২৩ জুলাই দুপুরে এই নন্দিত শিল্পীর পুত্র মাশুক আলমগীর রাজীব বাংলা ট্রিবিউনকে জানান খানিক স্বস্তি বার্তা। বলেন, ‘বাবার অবস্থা এখন আগের চেয়ে ভালো। অক্সিজেন স্যাচুরেশন শতভাগ। বিশেষ করে ডান ফুসফুস সংক্রমণমুক্ত। তবে বাম ফুসফুস এখনও ভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধ করছে। ফলে ডানপাশে কাত হলেও অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৭৫-এ নেমে আসে। তবে চিকিৎসকরা প্রতিনিয়ত দৃষ্টি রাখছেন বাবার ওপর।’
  
মাশুক চিকিৎসকের আলাপ থেকে একটি শঙ্কার কথাও জানালেন। বললেন, ‘বাবার শরীরে ডি-ডাইমার ক্রমশ বাড়তে থাকলেও শুক্রবার সকাল থেকে সেটি কমতির দিকে। এটা একটা পজিটিভ। তবে নতুন করে রক্তে ইনফেকশন পাওয়া গেছে। ব্লাড প্রেসার লো। আজ থেকে নতুন অ্যান্টিবায়োটিক দেওয়া শুরু হচ্ছে। এটি না কাজ করলে খুবই বিপদ হয়ে যাবে।’

এদিকে প্রথম দিন থেকে হাসপাতালে থেকে ফকির আলমগীরের শরীরের সব আপডেট মিডিয়াকে দিয়ে আসছিলেন মাশুক। তবে শুক্রবার দুপুরে জানালেন নতুন দুশ্চিন্তার কথা। কারণ, এদিন সকাল থেকে তার গলাব্যথা ও কাশি দেখা দিয়েছে! বললেন, ‘চিন্তা তো আমার জন্য নয়। প্রথম চিন্তা ছিল বাবার জন্য। এখন চিন্তা করছি আমার ৫ মাসের বাচ্চাটার জন্য। সবার দোয়া চাই।’  

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১৫ জুলাই মধ্যরাত থেকে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন আছেন ফকির আলমগীর। ১৮ জুলাই চিকিৎসকেরা তাকে ভেন্টিলেশন সাপোর্টে নিয়েছেন। 

জানা গেছে, ১৪ জুলাই ফকির আলমগীরের করোনাভাইরাস পজিটিভ ফল আসে। এরপর চিকিৎসকের পরামর্শে বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি।

ফকির আলমগীর স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অন্যতম শিল্পী। তারও আগে থেকে তিনি শ্রমজীবী মানুষের জন্য গণসংগীত করে আসছিলেন। স্বাধীনতার পর পাশ্চাত্য সংগীতের সঙ্গে দেশজ সুরের মেলবন্ধন ঘটিয়ে বাংলা পপ গানের বিকাশে ভূমিকা রেখেছেন ফকির আলমগীর। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে তার কণ্ঠের বেশ কয়েকটি গান দারুণ জনপ্রিয়তা পায়। এরমধ্যে ‘ও সখিনা’ গানটি এখনও মানুষের মুখে মুখে ফেরে। 

১৯৮২ সালের বিটিভির ‘আনন্দমেলা’ অনুষ্ঠানে গানটি প্রচারের পর দর্শকের মধ্যে সাড়া ফেলে। কণ্ঠ দেওয়ার পাশাপাশি গানটির সুরও করেছেন ফকির আলমগীর। তিনি সাংস্কৃতিক সংগঠন ঋষিজ শিল্পীগোষ্ঠীর প্রতিষ্ঠাতা, গণসংগীত চর্চার আরেক সংগঠন গণসংগীতশিল্পী পরিষদের সাবেক সভাপতি। 

সংগীতে অসামান্য অবদানের জন্য ১৯৯৯ সালে সরকার তাকে একুশে পদক দিয়ে সম্মানিত করে।

/এমএম/এমওএফ/

তাদের বিয়ে নিয়ে জটিলতা!

আপডেট : ২৩ জুলাই ২০২১, ১৫:৫৯

টিভি নাটকের সু-অভিনেত্রী সালহা খানম নাদিয়া আর সাম্প্রতিক সময়ে ওয়েব সিরিজ দিয়ে আলোচিত খায়রুল বাশারের বিয়ের বিষয়টি চূড়ান্ত। যা আনুষ্ঠানিকতায় গড়াচ্ছে ঈদের চতুর্থ দিন (২৪ জুলাই) রাতে।

তবে এই পর্যন্ত তাদের দু’জনকে আসতে পোড়াতে হয়েছে প্রচুর কাঠখড়। বিশেষ করে বাশারের মা তার ছেলের বৌ নির্বাচনের ব্যাপারে ভীষণ খুঁতখুঁতে। এ পর্যন্ত প্রায় ২ ডজন মেয়ে দেখে ফেলেছেন। কাউকেই তার পছন্দ হয়নি। কারণ হিসেবে তিনি কারও দাঁত বাঁকা, কারও আবার চুল ছোট, চোখ ভালো নয়—এমন হাজারো সমস্যা দাঁড় করাতেন। 

অবশেষে সবদিক দিয়েই পুত্রবধূর হিসেবে পছন্দ হলো নাদিয়াকে। চূড়ান্ত হলো বিয়ের দিনক্ষণ। যদিও একটি বড় বিষয় এখনও ঝুলে আছে, সেটি হলো দেনমোহর। বিয়ে নিয়ে এমনই এক জটিল অথচ ট্র্যাডিশনাল গল্প নিয়ে ঈদের নাটক নির্মাণ করলেন দীপু হাজরা। নাম ‘মেনু কার্ড’।

নির্মাতা বলেন, ‘বিয়ে নিয়ে এমন টুকটাক জটিলতা প্রায় সবখানেই হয়। যদিও এই জটিলতা আমাদের গ্রামবাংলার একটা ঐতিহ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে। তেমনিই এক জটিল ও মজার বিয়ের গল্প বলার চেষ্টা করেছি এবার।’

‘মেনু কার্ড’ নাটকটি প্রচার হচ্ছে ঈদের চতুর্থ দিন রাত ৯টায়, গাজী টিভিতে। নাটকটি রচনা করেছেন গোলাম সারোয়ার অনিক। এতে বিভিন্ন চরিত্রে আরও অভিনয় করেছেন ইলোরা গহর, পারভেজ আক্তার, সুজিত বিশ্বাস, মান্নাত সৃষ্টি, তানসেন আলম দ্বীপ, আল্পনা ফারিয়া, কেয়া মনি, সুমাইয়া সিনহা, শশী আফরোজ, এশা প্রমুখ।

/এমএম/এমওএফ/

সম্পর্কিত

পর্নোগ্রাফিতে অভিযুক্ত স্বামী প্রসঙ্গে যা বললেন শিল্পা শেঠি

পর্নোগ্রাফিতে অভিযুক্ত স্বামী প্রসঙ্গে যা বললেন শিল্পা শেঠি

মারা গেলেন ‘মুখ ও মুখোশ’ সিনেমার জহরত আরা

মারা গেলেন ‘মুখ ও মুখোশ’ সিনেমার জহরত আরা

হাইতিতে বাংলাদেশি সিনেমার শুটিং!

হাইতিতে বাংলাদেশি সিনেমার শুটিং!

ফকির আলমগীরের অক্সিজেনে উন্নতি, রক্তে ইনফেকশন

ফকির আলমগীরের অক্সিজেনে উন্নতি, রক্তে ইনফেকশন

সর্বশেষ

অলিম্পিক গেমস উপলক্ষে গুগলের ডুডল

অলিম্পিক গেমস উপলক্ষে গুগলের ডুডল

দ্বিতীয় ঢেউয়েও বাংলাদেশের অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানো অব্যাহত: এডিবি

দ্বিতীয় ঢেউয়েও বাংলাদেশের অর্থনীতির ঘুরে দাঁড়ানো অব্যাহত: এডিবি

কোরবানির মাংস সংগ্রহ করেন প্রকৌশলী রিমন, কিন্তু কেন?

কোরবানির মাংস সংগ্রহ করেন প্রকৌশলী রিমন, কিন্তু কেন?

মদপানে ২ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৫

মদপানে ২ জনের মৃত্যু, হাসপাতালে ৫

ক্লাউড উইন্ডোজ আনলো মাইক্রোসফট

ক্লাউড উইন্ডোজ আনলো মাইক্রোসফট

চাকরির প্রলোভনে টঙ্গীতে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ

চাকরির প্রলোভনে টঙ্গীতে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগ

বাংলাদেশকে হারিয়ে সমতায় ফিরলো জিম্বাবুয়ে

বাংলাদেশকে হারিয়ে সমতায় ফিরলো জিম্বাবুয়ে

একদিনে ঢাকায় ফিরলো ৮ লাখ সিম কার্ড

একদিনে ঢাকায় ফিরলো ৮ লাখ সিম কার্ড

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে আম পাঠালেন শেখ হাসিনা

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে আম পাঠালেন শেখ হাসিনা

বেতন ৩০ হাজার, ব্যাংকে লেনদেন শত কোটি টাকা!

বেতন ৩০ হাজার, ব্যাংকে লেনদেন শত কোটি টাকা!

বিয়ের রাত কাটলো লঞ্চের ডেকে

বিয়ের রাত কাটলো লঞ্চের ডেকে

কোলের সন্তানকে বাঁচিয়ে চলে গেলেন মা

কোলের সন্তানকে বাঁচিয়ে চলে গেলেন মা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

পর্নোগ্রাফিতে অভিযুক্ত স্বামী প্রসঙ্গে যা বললেন শিল্পা শেঠি

পর্নোগ্রাফিতে অভিযুক্ত স্বামী প্রসঙ্গে যা বললেন শিল্পা শেঠি

মারা গেলেন ‘মুখ ও মুখোশ’ সিনেমার জহরত আরা

মারা গেলেন ‘মুখ ও মুখোশ’ সিনেমার জহরত আরা

হাইতিতে বাংলাদেশি সিনেমার শুটিং!

হাইতিতে বাংলাদেশি সিনেমার শুটিং!

ফকির আলমগীরের অক্সিজেনে উন্নতি, রক্তে ইনফেকশন

কোভিড পজিটিভফকির আলমগীরের অক্সিজেনে উন্নতি, রক্তে ইনফেকশন

তাদের বিয়ে নিয়ে জটিলতা!

তাদের বিয়ে নিয়ে জটিলতা!

‘আমার জীবনে শুধু কোরবান আর কোরবান...’

ঈদ বিশেষ‘আমার জীবনে শুধু কোরবান আর কোরবান...’

আলোচিত সব নাটক-টেলিছবি-স্বল্পদৈর্ঘ্য...

ঈদের তৃতীয় দিনআলোচিত সব নাটক-টেলিছবি-স্বল্পদৈর্ঘ্য...

অ্যাটলির ছবিতে শাহরুখের সঙ্গে নয়নতারা

অ্যাটলির ছবিতে শাহরুখের সঙ্গে নয়নতারা

‘প্রাইভেসি হারানোটাই আমার বড় কোরবান’

ঈদ বিশেষ‘প্রাইভেসি হারানোটাই আমার বড় কোরবান’

একজন বাড়ালেন তো আরেকজন কমালেন

একজন বাড়ালেন তো আরেকজন কমালেন

© 2021 Bangla Tribune