X
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

মোটরসাইকেলে আগ্রহ বেড়েছে নগরবাসীর

আপডেট : ০৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৪:০৫

শায়লা জামাল কানাডার ওন্টারিওতে অবস্থিত ম্যাকমাস্টার ইউনিভার্সিটির একজন পিএইচডি গবেষক। তার গবেষণায় করোনা মহামারিতে মোটরসাইকেল ভ্রমণের ক্ষেত্রে স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়ানোর বিষয়টি উঠে এসেছে।

তিনি তার গবেষণায় করোনার কারণে ভ্রমণের অভ্যাসে মানুষের যে পছন্দের পরিবর্তন এসেছে সেটি বিশ্লেষণ করেন। বিশেষ করে ঢাকার মতো জনবহুল একটি শহরে, যেখানে গণপরিবহনের ব্যাপক সংকট রয়েছে, সেখানে মোটরসাইকেল অন্যতম নিরাপদ মাধ্যমে হিসেবে বিশ্লেষণে প্রতীয়মান হয়েছে। প্রায় তিনশোর বেশি নমুনা বিশ্লেষণের মাধ্যমে এটি উঠে এসেছে যে, করোনা মহামারিতে স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়ানোর ক্ষেত্রে মোটরসাইকেল অন্যান্য গণপরিবহনের চাইতে অধিক নিরাপদ।

বাংলাদেশসহ বিশ্বের প্রায় অনেক দেশ লকডাউন পর্ব থেকে বেরিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসতে শুরু করেছে। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ব্যতীত প্রায় সব ধরনের ব্যবসা-বাণিজ্য, অফিসসহ সব কিছুই ফিরে এসেছে তাদের পুরনো স্বাভাবিক গতিতে। এতে করে কর্মরত প্রায় প্রতিটি মানুষই আবার তাদের পুরনো রুটিনে ফেরত এসেছেন। যাতায়াতে ফিরেছে গতি। প্রথমদিকে গনপরিবহনগুলোতে দুই সিটে একজন করে বসার নিয়ম থাকলেও বাড়তি চাপে এখন তা আবার আগের অবস্থায় ফিরে এসেছে। এজন্য করোনার কমিউনিটি ট্রান্সমিশনের ঝুঁকি আবার আগের জায়গাতে ফিরে এসেছে। যারা সচেতন, তারা পায়ে হেঁটে কিংবা ব্যক্তিগত বাহনে চড়ে যাতায়াত করছেন। এক কথায় গণপরিবহন এড়িয়ে চলছেন। কিন্তু যারা নিরুপায়, তাদের জন্য পাবলিক বাসই একমাত্র ভরসা।

তবে জরিপ বলছে ভিন্নকথা। শত সমস্যার মাঝেও জনগণের মাঝে সচেতনতা এখনো ফুরিয়ে যায়নি। আর তাই গুগলের কমিউনিটি মবিলিটি রিপোর্ট অনুযায়ী, করোনা মহামারিতে বাংলাদেশে বাস এবং ট্রেনসহ সকল গণপরিবহনে যাত্রীর সংখ্যা ৩৬ শতাংশ কমে গেছে।

ঢাকার প্রায় ৭৫ শতাংশ নাগরিক মনে করেন, গণপরিবহনে সামাজিক দূরত্ব মেনে স্বাস্থ্যঝুঁকি এড়িয়ে চলাফেরা এককথায় অসম্ভব। কিন্তু জনবহুল শহর হওয়ার কারণে বাস, অটোরিকশা, রাইড শেয়ারিং বা রিকশা ছাড়া উপায়ও নেই। সাশ্রয়ী বাহনের মাঝে অন্যতম হচ্ছে সাইকেল, যার বেশ কিছু সমস্যাও রয়েছে। ঢাকার রাস্তায় নেই কোনও আলাদা সাইকেল লেন। আবার খানাখন্দে ভরা, ধুলাবালির শহরে রোদবৃষ্টির ঝামেলা তো আছেই। এসবের মাঝে প্যাডেল চালিয়ে কর্মস্থলে যাওয়া বেশ কষ্টসাধ্য। তাই সাইকেল থেকে মোটরসাইকেল অনেক বেশি আরামদায়ক এবং সময় সাশ্রয়ী।

মোটরসাইকেলে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা সম্ভব এমন মনে করেন জরিপে অংশ নেওয়া ৮০ শতাংশ মানুষ। এর মাঝে ৭৯ শতাংশ নাগরিক মনে করেন করোনা মহামারির সময়ে অন্যান্য বাহনের চেয়ে মোটরসাইকেল তুলনামূলক নিরাপদ ও ঝুঁকিমুক্ত। ট্রাফিক জ্যামের এই শহরে প্রায় ৮৪ ভাগ মানুষের কাছে মোটরসাইকেল একটি সহজ যাতায়াত মাধ্যমে। আবার প্রায় ৬৯ ভাগ মানুষই মনে করেন মোটরসাইকেলে যাতায়াত অপেক্ষাকৃত সাশ্রয়ী।

ব্যক্তিগত মোটরসাইকেলের প্রতি ঝোঁক দিন দিন বাড়ছে, বিশেষ করে ঢাকা শহরে। আগে গণপরিবহনে চড়তেন এখন মোটরসাইকেলে যাতায়াত করতে চাইছেন এমন মানুষের সংখ্যা ঊর্ধ্বগামী। প্রায় ৩৩ শতাংশ মানুষ চাইছেন ২০২১ সালে নিজেদের জন্য একটি মোটরসাইকেল কিনে ফেলতে। সংখ্যার বিচারে এটি ব্যাপক। পরিবহনবিদ, স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ এবং অন্যান্য গবেষকদের মতে, স্বাস্থ্যঝুকি এড়াতে মোটরসাইকেলের কোনও বিকল্প নেই। 

যাত্রাপথে গন্তব্যস্থলে যাওয়ার উদ্দেশ্যে ঘণ্টার পর ঘণ্টা রাস্তায় জ্যামে আটকে থাকার যন্ত্রণা থেকে মুক্তির পাশাপাশি এখন নিরাপত্তার দিক থেকেও মোটরসাইকেল পরিবহণ হিসেবে শীর্ষে অবস্থান করছে। জরিপে দেখা যাচ্ছে, মানুষের আস্থা মোটরসাইকেলের প্রতি দিন দিন বাড়ছে। সেই সাথে এর চাহিদা এবং বিক্রি বাড়ছে পাল্লা দিয়ে।

/এনএ/

সম্পর্কিত

কলার মোচার যত গুণ

কলার মোচার যত গুণ

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

নিজেই বানান নারিকেল তেল

নিজেই বানান নারিকেল তেল

কলার মোচার যত গুণ

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৯:২০

বাঙালি রসনায় বৈচিত্র্যের অভাব নেই। আর এ তালিকায় আছে কলার মোচা। শুধু অনন্য স্বাদ নয়, এর আছে দারুণ কিছু স্বাস্থ্য উপকারও। দক্ষিণ এশিয়ার অনেক দেশেই কলার মোচা জনপ্রিয় একটি খাবার। ইংরেজিতে বলে ব্যানানা ফ্লাওয়ার তথা কলার ফুল। এতে আছে ফসফরাস, ক্যালসিয়াম, পটাসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম।

 

ডায়েটারি ফাইবার

দ্রবণীয় ও অদ্রবণীয় দুই ধরনের ফাইবার সমৃদ্ধ এটি। দ্রবণীয় ফাইবার পানিতে মিশে এক ধরনের জেল তৈরি করে যা আমাদের হজমের পথ দিয়ে সহজে যেতে পারে। যাদের আইবিএস (ইরিটেবল বাওয়েল সিনড্রোম) সমস্যা আছে তাদের দ্রবণীয় ফাইবার খেতে হয় বেশি। ডায়েটে নিয়মিত এই কলার মোচা রাখলে তারা বেশ উপকার পাবেন। আবার এতে থাকা অদ্রবণীয় ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্যের সমাধানও করতে পারে।

 

ডায়াবেটিসেও উপকার

ডায়াবেটিসের সঙ্গে খাবারের পরীক্ষায় বাদ যায়নি কলার ফুল। সায়েন্স অব ফুড অ্যান্ড অ্যাগ্রিকালচার জার্নালে প্রকাশিত গবেষণা প্রতিবেদনে দেখা গেছে এটি রক্তে চিনির পরিমাণ কমায়। কলার মোচায় থাকা ফেনোলিক অ্যাসিড ও অন্যান্য বায়োঅ্যাকটিভ পদার্থের কারণেই এমন উপকার পাওয়া যাচ্ছে। ইঁদুরের ওপর গবেষণাতেও প্রমাণ হয়েছে বিষয়টি।

 

পিএমএস লক্ষণ

প্রি-মেনস্ট্রল এর লক্ষণগুলো কমাতেও খেতে পারেন কলার মোচা। পিএমএস সিম্পটমের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- পেট ফাঁপা, হজমে সমস্যা, মুড সুইং ও বিষণ্নতা।

 

অ্যান্টি-ডিপ্রেশেন্ট

কলার মোচায় থাকা ম্যাগনেসিয়াম প্রাকৃতিক অ্যান্টি-ডিপ্রেশেন্টের কাজ করে।

 

ক্যান্সার, হৃদরোগ ও নিউরাল ডিজঅর্ডার

কলার মোচায় থাকা ফেনোলিক অ্যাসিড, ট্যানিন, ফ্লেভানয়েড ও নানা ধরনের অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট শরীরের ফ্রি-র‌্যাডিকেল ধ্বংস করে। এতে ক্যান্সার প্রতিরোধের পাশাপাশি হৃৎপিণ্ডও থাকে ঝুঁকিমুক্ত। পাশাপাশি আলঝেইমার্স ও পারকিনসনসের মতো রোগের আশঙ্কাও কমে।

 

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

নিজেই বানান নারিকেল তেল

নিজেই বানান নারিকেল তেল

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

আপডেট : ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৪৪

ফ্যাশনপ্রেমীরা এখন ঝুঁকছেন ট্রেন্ডি ফ্যাশনের দিকে। আইকনিক ফ্যাশন গ্যারেজ তা দিচ্ছে পোশাকের ক্যানভাসে। ট্রেন্ডি, ক্যাজুয়াল, এক্সোটিক, ভাইব্রেন্ট, স্ট্রিট ও এলিগ্যান্ট রেডি টু ওয়্যার নতুন উইমেন কালেকশন এবারও আইকনিকের ঘরে। স্টোরে তাই চলতি ফ্যাশনের সবই থাকছে রঙ এবং প্যাটার্ন ভিন্নতায়। তবে এবার থাকছে ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। এফ কমার্স উদ্যোক্তা ও ডিজাইনারদের নিয়ে চালু করতে যাচ্ছে আন্তর্জাতিক প্ল্যাটফর্ম ‘এম গার্লস’। ইন্টার‌অ্যাকটিভ এই সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপে থাকবে ১০০ নারী উদ্যোক্তার সর্বশেষ ফ্যাশন ট্রেন্ডের সঙ্গে যোগসূত্র তৈরির প্রয়াস।

আইকনিকের উদ্যোক্তা তাসলিমা মলি জানান, ‘ট্র্যাডিশনাল ও পাশ্চাত্য পোশাকে নিজেদের অভিজাত লুকটাকে তুলে ধরতে উজ্জ্বল রঙের পোশাকের নতুন সংগ্রহ প্রতিমাসেই থাকছে আইকনিক ফ্যাশন গ্যারেজ-এ। মূলত পণ্যের ডিজিটাল উপস্থাপনা, প্রতি মাসে ফটোশ্যুট- এসব করা হবে।

নতুন নারী উদ্যোক্তাদের পণ্য নিয়ে আন্তর্জাতিক বাজারে বিপণনের সুবিধাও থাকবে। উল্লেখ্য, আগামী ১ ও ২ অক্টোবর থেকে আইকনিক ফ্যাশন গ্যারেজ-এর যমুনা ফিউচার পার্ক স্টোরে চালু হবে এই আয়োজনের প্রথম কার্যক্রম। ডিজাইনার শোকেসিং, বিক্রির পাশাপাশি থাকবে বিউটি টিপস, স্টাইল গাইডলাইনসহ ফ্যাশন সংশ্লিষ্ট আয়োজন।

 

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

কলার মোচার যত গুণ

কলার মোচার যত গুণ

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

নিজেই বানান নারিকেল তেল

নিজেই বানান নারিকেল তেল

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:০০

একটি প্রাণবন্ত হাসিখুশি ত্বক আত্মবিশ্বাস বাড়িয়ে দেয়। তবে প্রায়ই অযত্নের কারণে ত্বক হারিয়ে ফেলে সজীবতা। ব্যস্ত জীবন থেকে কিছুটা সময় বের করে ত্বকের যত্ন নিতে গেলে নিচের কাজগুলো আপনাকে করতেই হবে।

 

ত্বক পরিষ্কার রাখুন

সঠিক পিএইচ-যুক্ত সাবান দিয়ে ত্বক প্রতিদিন পরিষ্কার করুন ও ত্বকে ময়েশ্চরাইজার ব্যবহার করুন। এতে ত্বক যথেষ্ট পুষ্টি পাবে এবং স্বাভাবিক আর্দ্রতা ও তৈলাক্ততা বজায় থাকবে। ত্বক থাকবে কোমল ও সুস্থ।

 

পরিমিত ও পুষ্টিকর খাবার

বলা হয়, আপনি যা খাবেন, সেটারই ছাপ দেখা যাবে ত্বকে। অর্থাৎ যতবেশি পুষ্টিকর খাবার খাবেন ত্বকও তত উজ্জ্বলতা ছড়াবে। দৈনন্দিন রুটিনে ফল এবং শাকসবজি বেশি রাখুন। ত্বকের স্বার্থে হলেও এড়িয়ে চলুন তেলজাতীয় খাবার।

 

পর্যাপ্ত পানি

ত্বকের সুস্থতার জন্য ত্বকের কোষে পানি থাকা চাই। আর এ জন্য পানি পানের বিকল্প নেই। পর্যাপ্ত পানি আমাদের শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর করে। যা ত্বকেও ইতিবাচক প্রভাব ফেলে। এতে ব্রণ বা ত্বকে সংক্রমণও কম হয়।

 

হাসিখুশি থাকুন

আমাদের মানসিক অবস্থা সরাসরি শরীরের ওপর প্রভাব ফেলে। স্বাভাবিক হাসি ত্বকের রক্তচলাচল বাড়ায়। এতে ত্বক আরও বেশি অক্সিজেন ও পুষ্টি পায়। তাই ত্বকের সৌন্দর্যে হাসুন কারণে-অকারণে।

 

হালকা ব্যায়াম না করলেই নয়

যখন আমরা নড়াচড়া একটু বেশি করি তখন আমাদের শরীরে এনডোরফিন হরমোন উৎপন্ন হয় বেশি। এটি সুখের অনুভূতি দেয়। যার ছাপ পড়ে ত্বকেও। ত্বকের যত্ন নিতে চাইলে তাই হালকা ব্যায়াম চালিয়ে যান।

 

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

কলার মোচার যত গুণ

কলার মোচার যত গুণ

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

নিজেই বানান নারিকেল তেল

নিজেই বানান নারিকেল তেল

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

নিজেই বানান নারিকেল তেল

আপডেট : ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২০:০১

উপমহাদেশের কিছু রেসিপিতে নারিকেল তেল না হলে চলেই না। আমাদের দেশেও অনেক অঞ্চলে নারিকেলের মালাইকারির কদর অনেক। যদি নিজেই নারিকেল থেকে তেলটা বের করে নিতে পারেন, তবে তো কথাই নেই। আর রান্নায় যেহেতু চুলে মাখার তেল ব্যবহার করা যাচ্ছে না, তাই নিরাপত্তার খাতিরে নিজেই বানিয়ে ফেলুন।

 

যেভাবে বানাবেন নারিকেল তেল

  • নারিকেল কোরানো ঝামেলার কাজ মনে হলে আছে বিকল্প। দুভাগ করা নারিকেলটাকে ওভেনে মিনিট পাঁচেক মাইক্রোওয়েভ করুন। এতে খোল থেকে নারিকেল আলাদা করাটা সহজ হয়ে যাবে।
  • নারিকেলগুলোকে ছোট টুকরো করে কাটুন। তারপর সামান্য পানি মিশিয়ে কয়েক ব্যাচে ব্লেন্ড করুন। প্রতিবারে অন্তত ২ মিনিট করে ব্লেন্ড করুন। এতে নারিকেল দুধ তৈরি হবে।
  • পাল্পটা ছেঁকে তরল অংশটুকু একটি পাত্রে নিন। অল্প আঁচে জ্বাল দিতে থাকুন।
  • কিছুক্ষণ পর তরলের মধ্যে নারিকেলগুলো দলা পাকানো শুরু করবে। এটা স্বাভাবিক। ধীরে ধীরে আরও দলা পাকিয়ে আসবে। অল্প আঁচে জ্বলতে থাকুক চুলা।
  • এক পর্যায়ে দেখবেন নারিকেল থেকে তেল আলাদা হতে শুরু করেছে। প্রায় এক ঘণ্টা পর সম্পূর্ণ তেলটাই আলাদা হবে। এরপর চুলা বন্ধ করে ঠান্ডা হতে দিন। ঠান্ডা হওয়ার পর সহজেই তেলটা ছেঁকে নিতে পারবেন।

 

নারিকেল তেলের স্বাস্থ্য উপকার

পরিমিত মাত্রায় নারিকেল তেল খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে। শরীরে ভালো কোলেস্টেরলও বাড়ায় এটি। নারিকেল তেল হজমেও সহায়ক। আবার মুখগহ্বরের যত্নে নারিকেল মাউথওয়াশের কাজও করে।

 

 

/এফএ/

সম্পর্কিত

কলার মোচার যত গুণ

কলার মোচার যত গুণ

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

আপডেট : ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৮:১৭

আসছে মটরশুঁটির মৌসুম। শীতের শস্য হিসেবে এর তুলনাই হয় না। আছে ভিটামিন এ, বি, সি, ই ও জিংক। ডায়াবেটিসসহ আরও অনেক রোগের জন্যই এটি উপকারী। এসব কারণে মৌসুম এলে মটরশুঁটি চলেও বেশ। আর সেটার সুযোগ নেয় অসাধুরা। তাই কারও কাছ থেকে বেশি পরিমাণে কেনার আগে কিংবা কেনার পর খাওয়ার আগে পরীক্ষা করে দেখে নিন, চকচকে সবুজ রঙটা প্রাকৃতিক নাকি রাসায়নিক?

 

যেভাবে পরীক্ষা করবেন

একটি স্বচ্ছ গ্লাসে পরিষ্কার পানি নিন। তাতে কিছু মটরশুঁটি রাখুন। অনেক নকল রঙ সঙ্গে সঙ্গে ঘষলেই কিন্তু বের হবে না। তাই অপেক্ষা করুন অন্তত আধা ঘণ্টা। রঙ নকল হলে দেখবেন পানি সবুজাভ হয়ে গেছে। আসল মটরশুঁটি হলে এমনটা কখনই হবে না।মটর

/এফএ/

সম্পর্কিত

কলার মোচার যত গুণ

কলার মোচার যত গুণ

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

নিজেই বানান নারিকেল তেল

নিজেই বানান নারিকেল তেল

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

কলার মোচার যত গুণ

কলার মোচার যত গুণ

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

নারী উদ্যোক্তাদের জন্য ‘এম গার্লস’

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

ত্বকটাকে খুশি রাখতে চান?

নিজেই বানান নারিকেল তেল

নিজেই বানান নারিকেল তেল

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

মটরশুঁটি রঙ করা কিনা বুঝবেন কী করে?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

তেল-চর্বি বেশি খেয়ে ফেললে কী করবেন?

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

খাবার দীর্ঘদিন ভালো রাখার ৫ উপায়

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

ঢাকা রিজেন্সিতে পর্যটন উৎসবে যত অফার

দুশ্চিন্তা কতভাবে শরীরের ক্ষতি করে?

দুশ্চিন্তা কতভাবে শরীরের ক্ষতি করে?

ভাতে আছে বিপদ, বিষমুক্ত করবেন যেভাবে

ভাতে আছে বিপদ, বিষমুক্ত করবেন যেভাবে

সর্বশেষ

পরিবহন ফি নিয়ে বিভ্রান্তি, ভোগান্তিতে কুবি শিক্ষার্থীরা

পরিবহন ফি নিয়ে বিভ্রান্তি, ভোগান্তিতে কুবি শিক্ষার্থীরা

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকে অফিসার পদে ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ

শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকে অফিসার পদে ক্যারিয়ার গড়ার সুযোগ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৫৮০ মণ্ডপে হবে দুর্গাপূজা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৫৮০ মণ্ডপে হবে দুর্গাপূজা

আরও মতবিনিময় ও সভার দিনক্ষণ জানালো বিএনপি

আরও মতবিনিময় ও সভার দিনক্ষণ জানালো বিএনপি

গণমানুষের সমর্থনের প্রতি বিশ্বাসই প্রধানমন্ত্রীর চালিকাশক্তি: স্পিকার

গণমানুষের সমর্থনের প্রতি বিশ্বাসই প্রধানমন্ত্রীর চালিকাশক্তি: স্পিকার

© 2021 Bangla Tribune