সেকশনস

দাম ও ফলন ভালো হওয়ায় দিন দিন বাড়ছে সরিষার চাষ

আপডেট : ১০ জানুয়ারি ২০২১, ১০:০৮

উৎপাদন খরচ কম ও ভালো দাম পাওয়ায় লাভজনক হওয়ায় দিনাজপুরের হিলিতে দিন দিন বাড়ছে সরিষার চাষাবাদ। চলতি মৌসুমে আবহাওয়া সরিষা চাষাবাদের অনুকূলে থাকায় ভালো ফলনের পাশাপাশি ভালো দাম পেলে লাভবানের আশাবাদ কৃষকদের। 

সরিষার ক্ষেত
উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে হাকিমপুর উপজেলায় সরিষা আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ৮২০ হেক্টর জমিতে। আবাদ হয়েছে ৮২৫ হেক্টর জমিতে। লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ৫ হেক্টর বেশি জমিতে সরিষার চাষাবাদ হয়েছে। উপজেলার ইসমাইলপুর, ডাঙ্গাপাড়া, জালালপুর, ছাতনি, বোয়ালদাড়সহ বিভিন্ন এলাকার বিস্তিন্ন এলাকা জুড়ে সরিষার চাষাবাদ হয়েছে। বর্তমানে উপজেলায় বারি-১৪, বারি-১৭. বারি-১৮ জাতের সরিষার চাষাবাদ করা হয়েছে। বর্তমানে সরিষার ফুলে ফুলে ছেয়ে গেছে পুরো ফসলের মাঠ, বর্তমানে আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় সরিষা বেশ ভালো রয়েছে। এমন অবস্থা থাকলে চলতি মৌসুমে ১১৯৬ টন সরিষা উৎপাদন হবে বলে আশা করছি।
হিলির চন্ডিপুর গ্রামের কৃষক পলাশ বসাক ও অনুপ বসাক বলেন, আমন ধান কাটার পর বোরো ধান লাগানোর আগ পর্যন্ত প্রায় আড়াই মাস জমি পতিত থাকে। আর সরিষা চাষাবাদ করলে ঠিক সময়ের মধ্যে ফসল তুলে নিয়ে তাতে ধান চাষ করা যায় তাতে কোনোরকম সমস্যা হয় না। দুফসলি জমিতে বাড়তি আর একটি ফসল চাষাবাদ করে কিছু অর্থনৈতিক সুবিধার জন্য আমরা সরিষা চাষাবাদ করে আসছি। আমি এবারে প্রায় ৯বিঘা জমিতে সরিষা রোপণ করেছি। বর্তমানে যে ধরনের আবহাওয়া রয়েছে তাতে করে সরিষা বেশ ভালো রয়েছে। এমন আবহাওয়া থাকলে তাতে করে এবারে আশা করছি সরিষার বেশ ভালো ফলন হবে। বেশ কয়েকবছর ধরেই সরিষা আবাদ করি কিন্তু এবারে আবহাওয়া ভালো থাকায় রোগ পোকা মাকড়ের তেমন কোনও সমস্যা না হওয়ায় ফলন ভালো হবে। 

সরিষার ক্ষেত
হিলির ইসমাইলপুরের কৃষক মহসিন আলী ও ইদ্রিস আলী বলেন, সরিষা চাষাবাদ থেকে শুরু করে সরিষা ক্ষেত থেকে উত্তোলন পর্যন্ত তেমন কোনও খরচ নেই। লাগানোর সময় সেচ ও সার দিয়ে রোপন করার পর সরিষা চাষে আর তেমন কোনও খরচ নেই। বাড়তি ফসল হিসেবে আমরা সরিষা পাই, প্রতি বিঘাতে সবমিলিয়ে ৩ হাজার টাকা খরচ হলেও যে পরিমাণ সরিষা পাওয়া যায় তাতে করে ৮/১০ হাজার টাকা পান কৃষকরা। এতে করে বিঘাতে ৫/৭ টাকা লাভ হয় কৃষকদের। সরিষা আবাদের ফলে পরিবারের যে তেলের চাহিদা সেটাও মিটছে। এছাড়া বাড়তি সরিষা বাজারে বিক্রি করে কৃষকরা লাভবান হচ্ছেন। বাড়তি হিসেবে পাওয়া সরিষার গাছগুলো পরিবারের জ্বালানি হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছে। গতবছর ১৭০০-১৮০০ টাকায় বিক্রি করলেও এবারে সবধরনের তেলের দাম বেশি হওয়ায় সরিষার দাম ২ হাজারের বেশি হবে বলে আশা করছি। 

সরিষার ক্ষেত
মনতাজ হোসেন নামের আরেক কৃষক বলেন, সরিষা হলো একেবারে ফ্রি আবাদ, সরিষা চাষে তেমন কোনও খরচা নেই। যা পাই সেটাই লক্ষ্মী। বিঘাতে ৫/৭ মণ করে সরিষা পাই। এর ওপর সরিষা তুলে সেই জমিতে ধানও বেশ ভালো হয় তেমন কোনও সার দিতে হয় না। 

সরিষার ক্ষেত
হাকিমপুর উপজেলা কৃষি অফিসার ড. মমতাজ সুলতানা বলেন, কৃষকরা সরিষা চাষ করে আশানুরূপ দাম পাওয়ায় ও লাভজনক হওয়ায় কৃষকরা সরিষা চাষে আগ্রহী হয়ে উঠছে। ফলে দিন দিন এই উপজেলায় সরিষার চাষাবাদ বাড়ছে। কৃষি অফিসের পক্ষ থেকে সবধরনের সহযোগিতা করা হচ্ছে যাতে করে কৃষকরা আরও আশানুরূপ ফল পেতে পারে। এবারের আবহাওয়া সরিষা চাষের জন্য বেশ ভালো রয়েছে, রোগ পোকা মাকড়ের আক্রমণ না থাকায় ফসল ভালো রয়েছে। তাতে করে ভালো ফলনের আশা করছি। 

 

/এসটি/

সম্পর্কিত

ক্ষেতে পানি দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

ক্ষেতে পানি দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

ভারতীয় জাতের ধান গাছে ‘অদ্ভুত’ রোগ

ভারতীয় জাতের ধান গাছে ‘অদ্ভুত’ রোগ

আপেল কুলে সব কূল জয়!

আপেল কুলে সব কূল জয়!

ডিমলায় গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার

ডিমলায় গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার

হিলি বন্দর দিয়ে ৩৬ দিন পর পেঁয়াজ আমদানি

হিলি বন্দর দিয়ে ৩৬ দিন পর পেঁয়াজ আমদানি

বিপন্ন গন্ধগোকুল উদ্ধার, বনবিভাগে হস্তান্তর

বিপন্ন গন্ধগোকুল উদ্ধার, বনবিভাগে হস্তান্তর

উপাচার্য কলিমউল্লাহর কুশপুত্তলিকা দাহ

উপাচার্য কলিমউল্লাহর কুশপুত্তলিকা দাহ

প্রাইভেট কারের চাকা ফেটে যাত্রী নিহত

প্রাইভেট কারের চাকা ফেটে যাত্রী নিহত

চিলমারীতে প্রতিমা ভাঙচুরের খবর পেয়ে মন্দিরে ডিসি-এসপি

চিলমারীতে প্রতিমা ভাঙচুরের খবর পেয়ে মন্দিরে ডিসি-এসপি

দিনাজপুর আইনজীবী সমিতির ২ গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত কমপক্ষে ১৫

দিনাজপুর আইনজীবী সমিতির ২ গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত কমপক্ষে ১৫

সর্বশেষ

নারী নির্মাতাদের চলচ্চিত্র নিয়ে উৎসব

নারী নির্মাতাদের চলচ্চিত্র নিয়ে উৎসব

ইউটিউব থেকে বাদ পড়লো মিয়ানমারের ৫ টিভি চ্যানেল

ইউটিউব থেকে বাদ পড়লো মিয়ানমারের ৫ টিভি চ্যানেল

কোহলির ‘শূন্য’ রেকর্ড

কোহলির ‘শূন্য’ রেকর্ড

দেশ কোনও ভাষণে স্বাধীন হয়নি, হয়েছে যুদ্ধে: গয়েশ্বর

দেশ কোনও ভাষণে স্বাধীন হয়নি, হয়েছে যুদ্ধে: গয়েশ্বর

মোটরসাইকেলে জেলার গণ্ডি পেরোতে পারবে না পুলিশ

মোটরসাইকেলে জেলার গণ্ডি পেরোতে পারবে না পুলিশ

ক্ষেতে পানি দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

ক্ষেতে পানি দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

ভাইয়ের কুড়ালের আঘাতে মৃত্যু

ভাইয়ের কুড়ালের আঘাতে মৃত্যু

করোনা মহামারির মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে জন্মহার কমেছে

করোনা মহামারির মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে জন্মহার কমেছে

আইনমন্ত্রীর সামনেই দুই পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ১০

আইনমন্ত্রীর সামনেই দুই পক্ষের সংঘর্ষ, আহত ১০

প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি: কাদের

প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার ষড়যন্ত্র করছে বিএনপি: কাদের

ডিজনির ‘ড্রাগন’ এলো ঢাকায়

ডিজনির ‘ড্রাগন’ এলো ঢাকায়

শামীম রেজার ‘পাথরচিত্রে নদীকথা’

শামীম রেজার ‘পাথরচিত্রে নদীকথা’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ক্ষেতে পানি দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

ক্ষেতে পানি দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু

ভারতীয় জাতের ধান গাছে ‘অদ্ভুত’ রোগ

ভারতীয় জাতের ধান গাছে ‘অদ্ভুত’ রোগ

আপেল কুলে সব কূল জয়!

আপেল কুলে সব কূল জয়!

ডিমলায় গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার

ডিমলায় গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার

হিলি বন্দর দিয়ে ৩৬ দিন পর পেঁয়াজ আমদানি

হিলি বন্দর দিয়ে ৩৬ দিন পর পেঁয়াজ আমদানি

বিপন্ন গন্ধগোকুল উদ্ধার, বনবিভাগে হস্তান্তর

বিপন্ন গন্ধগোকুল উদ্ধার, বনবিভাগে হস্তান্তর

উপাচার্য কলিমউল্লাহর কুশপুত্তলিকা দাহ

উপাচার্য কলিমউল্লাহর কুশপুত্তলিকা দাহ

প্রাইভেট কারের চাকা ফেটে যাত্রী নিহত

প্রাইভেট কারের চাকা ফেটে যাত্রী নিহত


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.