X
সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৬ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

বর্ষার আগেই প্রত্যাবাসন শুরু করতে চায় বাংলাদেশ

আপডেট : ১৫ জানুয়ারি ২০২১, ০৯:০০

বর্ষার আগেই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু করতে চায় বাংলাদেশ। আগামী সপ্তাহে অনুষ্ঠেয় বাংলাদেশ, চীন ও মিয়ানমারের মধ্যে পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ের ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে প্রত্যাবাসনে রোহিঙ্গাদের আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধির লক্ষ্যে মিয়ানমারকে পদক্ষেপ নেওয়ার বিষয়ে জোর দেবে ঢাকা। এছাড়া নিরাপত্তা, কোথায় ফিরে যাবে, জীবিকার ব্যবস্থা সম্পর্কে রোহিঙ্গাদেরকে জানানোর বিষয়েও আলোচনা হতে পারে ১৯ জানুয়ারি বৈঠকে। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বৃহস্পতিবার (১৪ জানুয়ারি) পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেন, ‘আমাদের মূল লক্ষ্য প্রত্যাবাসন এবং বাংলাদেশ বাস্তবসম্মত পন্থায় অগ্রসর হবে। বর্ষার আগেই প্রত্যাবাসন শুরু করা যায় কিনা সেটি নিয়ে আলোচনা করতে চাই।’

তিনি বলেন, ‘প্রত্যাবাসনের জন্য রোহিঙ্গাদের আত্নবিশ্বাস জরুরি। এজন্য আমরা এর আগে প্রস্তাব করেছিলাম, একদল রোহিঙ্গাকে রাখাইনে নিয়ে গিয়ে সেখানকার পরিস্থিতি দেখানো। যাতে করে তারা ফেরত এসে অন্যদের বলতে পারে।’

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘প্রত্যাবাসনের জন্য দ্বিপক্ষীয় ব্যবস্থা আছে। পরবর্তীতে চীনের আগ্রহের ফলে ত্রিপক্ষীয় একটি মেকানিজম তৈরি করা হয়েছে। উভয়ক্ষেত্রে কিছু অগ্রগতি আছে। আমরা এই অগ্রগতিকে কীভাবে বাস্তবায়ন করা যায়, সেটি নিয়েও কথা বলতে আগ্রহী।’

প্রাথমিকভাবে পরিবার ও গ্রামভিত্তিক প্রত্যাবাসনের ওপরে জোর দেওয়া হবে। কারণ, বিক্ষিপ্তভাবে অনেক রোহিঙ্গাই ফিরে যেতে চাইবে না বলে তিনি জানান।

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘আমরা একটি গ্রামে যতজন রোহিঙ্গা বাংলাদেশে এসেছেন, তাদের একসঙ্গে ফেরত পাঠাতে চাই। এর ফলে ওই গ্রামের প্রতিটি পরিবার যেতে আগ্রহী হবে।’

এর জন্য যাচাই-বাছাই পরিবার ও গ্রামভিত্তিক হলে সবচেয়ে সুবিধা হবে বলে তিনি জানান।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ গত তিন বছরে পরিবার ও গ্রামভিত্তিক আট লাখ ৩০ হাজার রোহিঙ্গার তালিকা মিয়ানমারকে সরবরাহ করেছে। এরমধ্যে মিয়ানমার মাত্র ৪২ হাজার যাচাই-বাছাই করেছে।

জাপান ও অন্যদের সম্পৃক্ততা

প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ার আলোচনায় চীন এরইমধ্যে যুক্ত হয়েছে। জাপান, ভারত এবং আসিয়ানভুক্ত অন্য রাষ্ট্রগুলোকেও  এই প্রক্রিয়ায় যুক্ত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে বাংলাদেশ।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বলেন, ‘রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের দায়িত্ব আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের। যে কেউ এই প্রক্রিয়ায় যুক্ত হলে আমরা স্বাগত জানাবো।’

তিনি বলেন, ‘কোনও দেশ প্রত্যাবাসনে সহায়তা করলো এবং অন্য কোনও দেশ রাখাইনে রোহিঙ্গাদের জীবিকা বা বাড়িঘর তৈরি করে দিলো— এভাবে প্রত্যাবাসনের বিভিন্ন ধাপে বিভিন্ন দেশ সহায়তা করলে সবচেয়ে ভালো হয়।’

প্রসঙ্গত, নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশ, চীন ও মিয়ানমারের মধ্যে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে প্রথম ত্রিপক্ষীয় বৈঠক হয় ২০১৮ সালে। মন্ত্রীপর্যায়ে দুই দফা বৈঠকের পর পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মিয়ানমার অনুবিভাগের মহাপরিচালক,বাংলাদেশে চীন ও মিয়ানমারের রাষ্ট্রদূতদের নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়। সেই কমিটির সর্বশেষ বৈঠক হয়েছিল এক বছর আগে।

/এপিএইচ/আপ-এনএস/

সম্পর্কিত

পুলিশকে ফাঁকি দিলেই যেন করোনা থেকে রক্ষা পাবে

পুলিশকে ফাঁকি দিলেই যেন করোনা থেকে রক্ষা পাবে

‘ওই চিকিৎসকের শব্দ প্রয়োগ অত্যন্ত অরুচিকর ও লজ্জাজনক’

‘ওই চিকিৎসকের শব্দ প্রয়োগ অত্যন্ত অরুচিকর ও লজ্জাজনক’

তথ্যপ্রযুক্তি আইনে নুরের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

তথ্যপ্রযুক্তি আইনে নুরের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

স্বাস্থ্যবিধি না মেনে লকডাউনে কেনাকাটা

স্বাস্থ্যবিধি না মেনে লকডাউনে কেনাকাটা

কৃষকদের ধান কাটতে দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

কৃষকদের ধান কাটতে দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

করোনা আক্রান্ত জি কে শামীম হাসপাতালে

করোনা আক্রান্ত জি কে শামীম হাসপাতালে

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ.লীগের সম্পাদকের দুই পায়ে সন্ত্রাসীদের গুলি (ভিডিও)

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ.লীগের সম্পাদকের দুই পায়ে সন্ত্রাসীদের গুলি (ভিডিও)

লকডাউন বাড়ানো হলো যে কারণে

লকডাউন বাড়ানো হলো যে কারণে

লকডাউন এক সপ্তাহ বাড়ানোর কথা ভাবা হচ্ছে: কাদের

লকডাউন এক সপ্তাহ বাড়ানোর কথা ভাবা হচ্ছে: কাদের

বাস ছাড়া সবই চলে!

বাস ছাড়া সবই চলে!

সৌদিতে ১৭ মে থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল শুরু

সৌদিতে ১৭ মে থেকে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট চলাচল শুরু

আরও এক সপ্তাহ ‘কঠোর লকডাউনের’ সুপারিশ

আরও এক সপ্তাহ ‘কঠোর লকডাউনের’ সুপারিশ

সর্বশেষ

ভৈরব নদে ডুবে গেছে কয়লাবোঝাই জাহাজ

ভৈরব নদে ডুবে গেছে কয়লাবোঝাই জাহাজ

সুপার লিগের তোলপাড়ের মধ্যেই চ্যাম্পিয়নস লিগের নতুন ঘোষণা

সুপার লিগের তোলপাড়ের মধ্যেই চ্যাম্পিয়নস লিগের নতুন ঘোষণা

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে দু’মাসের মধ্যে ফাটল!

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে দু’মাসের মধ্যে ফাটল!

বরাদ্দ ৫শ কোটি, যেভাবে ঋণ নিতে পারবেন নতুন উদ্যোক্তারা

বরাদ্দ ৫শ কোটি, যেভাবে ঋণ নিতে পারবেন নতুন উদ্যোক্তারা

পুলিশকে ফাঁকি দিলেই যেন করোনা থেকে রক্ষা পাবে

পুলিশকে ফাঁকি দিলেই যেন করোনা থেকে রক্ষা পাবে

সকালের যেসব অভ্যাস বাড়তি ওজনের জন্য দায়ী

সকালের যেসব অভ্যাস বাড়তি ওজনের জন্য দায়ী

যুবদলের সাবেক সভাপতি মজনু রিমান্ড শেষে কারাগারে

যুবদলের সাবেক সভাপতি মজনু রিমান্ড শেষে কারাগারে

সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের সময় বাড়লো

সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষার আবেদনের সময় বাড়লো

ইউপি ভবনে মামুনুল সমর্থকদের হামলা, গ্রেফতার ৩

ইউপি ভবনে মামুনুল সমর্থকদের হামলা, গ্রেফতার ৩

পানি ও বিদ্যুৎ সুবিধা নেই উপহারের ঘরে

পানি ও বিদ্যুৎ সুবিধা নেই উপহারের ঘরে

হাতিরঝিল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব চান মেয়র আতিক

হাতিরঝিল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব চান মেয়র আতিক

জেএমবির ভারপ্রাপ্ত আমির রেজাউল হক কারাগারে

জেএমবির ভারপ্রাপ্ত আমির রেজাউল হক কারাগারে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

পুলিশকে ফাঁকি দিলেই যেন করোনা থেকে রক্ষা পাবে

পুলিশকে ফাঁকি দিলেই যেন করোনা থেকে রক্ষা পাবে

কৃষকদের ধান কাটতে দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

কৃষকদের ধান কাটতে দলের নেতাকর্মীদের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

লকডাউন বাড়ানো হলো যে কারণে

লকডাউন বাড়ানো হলো যে কারণে

লকডাউন এক সপ্তাহ বাড়ানোর কথা ভাবা হচ্ছে: কাদের

লকডাউন এক সপ্তাহ বাড়ানোর কথা ভাবা হচ্ছে: কাদের

আরও এক সপ্তাহ ‘কঠোর লকডাউনের’ সুপারিশ

আরও এক সপ্তাহ ‘কঠোর লকডাউনের’ সুপারিশ

শেখ হাসিনা কূটনীতির ক্ষেত্রে দেশকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে গেছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

শেখ হাসিনা কূটনীতির ক্ষেত্রে দেশকে নতুন উচ্চতায় নিয়ে গেছেন: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

রাখাইনে অস্থিতিশীলতা দেশের নিরাপত্তার জন্য উদ্বেগের বিষয়: পররাষ্ট্র সচিব

রাখাইনে অস্থিতিশীলতা দেশের নিরাপত্তার জন্য উদ্বেগের বিষয়: পররাষ্ট্র সচিব

৩৬ লাখ পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

৩৬ লাখ পরিবারকে আর্থিক সহায়তা দেবেন প্রধানমন্ত্রী

প্রায় ৭১ লাখ টিকা দেওয়া শেষ

প্রায় ৭১ লাখ টিকা দেওয়া শেষ

করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের পাশে বিশ্বব্যাংক

করোনা মোকাবিলায় বাংলাদেশের পাশে বিশ্বব্যাংক

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune