X
সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৬ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

সারা বছরই ধুলার রাজ্য

আপডেট : ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ২১:৩০

১৫ কিলোমিটার রাস্তা। সেখানে ধুলার ঝড় ওঠে দিনরাত, পুরো বছরজুড়ে। দ্রুতগতিতে ভারী যানবাহন চলাচল করার সময় এসব ধুলা বাতাসে মিশে যায়। ফলে এই রাস্তায় চলাচলকারী মানুষজনকে চরম ভোগান্তি পোহাতে হয়। ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ-পাগলা (পুরাতন) সড়কে রাজধানীর শ্যামপুর থেকে ফতুল্লা পুলিশ লাইন্স পর্যন্ত রাস্তায় এই পরিবেশ চোখে পড়ে। বালু ও সিমেন্টের ডাস্ট বাতাসে মিশে নাক-মুখ দিয়ে মানবদেহে প্রবেশ করে শ্বাসকষ্ট, ফুসফুসের সমস্যাসহ নানা রোগ বালাইয়ের কারণ হচ্ছে। শ্যামপুর থেকে ফতুল্লার পুলিশ লাইন্স পর্যন্ত ধুলায় ঢাকা সড়ক

রাজধানীর শ্যামপুর থেকে ফতুল্লার পুলিশ লাইন্স পর্যন্ত ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কের দুই পাশে পাঁচ শতাধিক ইট, বালি, সিমেন্ট, পাথর, কয়লার গদি ও পাথর ভাঙার মেশিন বসানো আছে। এছাড়া পুরাতন লোহা, ভাঙ্গারিসহ ধাবত পর্দাথের গদি রয়েছে এই রুটের দুই পাশে। এসব ইট, বালু, সিমেন্ট ও কয়লার গদি ও পাথর ভাঙানো মেশিন থেকে প্রতিনিয়ত হাজার হাজার ট্রাকে করে পণ্য পরিবহন করে বিভিন্ন জায়গায় নেওয়া হচ্ছে। বালু, সিমেন্ট ও ইটের স্তূপ থেকে সরাসরি খোলা ট্রাকে করে এসব পণ্য লোড-আনলোড করা হয়। অনেক সময় রাস্তার ওপর ট্রাকের একাংশ রেখে এবং বালু-সিমেন্টের স্তূপের ভেতরে একাংশ প্রবেশ করিয়ে লোড-আনলোড করা হয়। ফলে রাস্তায় তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয় প্রায় সময়ই। আর বিপুল পরিমাণ বালু, ইট, সিমেন্ট ও পাথরের ডাস্টের স্তূপ তো সাধারণ বিষয়ে পরিণত হয়েছে। শ্যামপুর থেকে ফতুল্লার পুলিশ লাইন্স পর্যন্ত ধুলায় ঢাকা সড়ক

দ্রুতগামী পরিবহনের চাকায় পিষ্ট হয়ে এই ডাস্ট পুরো রাস্তায় ছড়িয়ে পড়ে। ধুলোয় সাদা হয়ে যায় পুরো রাস্তা। আশপাশের ভবনগুলোতেও ঢুকে পড়ে ধুলা। আইন অনুযায়ী এসব পণ্য পরিবহনের করতে হলে ত্রিপল দিয়ে ঢেকে নেওয়ার কথা। কিন্তু কোনও ট্রাকমালিক বা শ্রমিক, গদির মালিক তা মানছেন না। যেকারণে ধুলার রাজ্যে পরিণত হয়েছে শ্যামপুর থেকে নারায়ণগঞ্জের পুলিশ লাইনসন্স পর্যন্ত রাস্তাটি। শ্যামপুর থেকে ফতুল্লার পুলিশ লাইন্স পর্যন্ত ধুলায় ঢাকা সড়ক

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এই রুট দিয়ে প্রতিদিন ১০ হাজারে বেশি ভারী যানবাহন চলাচল করে। পঞ্চবটি এলাকার বাসিন্দা সাব্বির আহমেদ জানান, এই রাস্তায় ১০ মিনিট দাঁড়িয়ে থাকলে ধুলায় কালো চুল সাদা হয়ে যায়। নাক মুখ দিয়ে ধুলাবালি  মানবদেহে প্রবেশ করে। এই সড়ক দিয়ে পায়ে হেঁটে, রিকশায়, বাসে বা অন্য যে কোনও পরিবহনে চলাফেরা করলে মাথা ব্যাথা, সর্দি-কাশি, চোখ-জ্বালাপোড়া, জ্বরসহ নানা রোগে আক্রান্ত হতে হচ্ছে। শ্যামপুর থেকে ফতুল্লার পুলিশ লাইন্স পর্যন্ত ধুলায় ঢাকা সড়ক

আলীগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী রুমানা ইয়াছমিন জানান, নারায়ণগঞ্জ-পাগলা-ঢাকা পুরাতন সড়কের পাগলা বা তার আশেপাশে যে কোনও এলাকায় থেকে এই সড়ক ধরে প্রতিদিন স্কুলে আসা-যাওয়া করতে হয়। করোনার কারণে এখন স্কুল না হয় বন্ধ। কিন্তু সারা বছরই এই সড়কে এতো ধুলাবালি উড়ে যা নারায়ণগঞ্জের অন্য কোনও সড়কে দেখা যায় না। আবার স্কুল শুরু হলে আমাদের এর মধ্য দিয়ে চলতে হবে। অনেক সময় ধুলোর কারণে রাস্তায় যানবাহন পর্যন্ত দেখা যায় না। ধুলাবালির কারণে স্কুলের অনেক শিক্ষার্থী সারাবছরই সর্দি, শ্বাসকষ্টসহ নানা রোগে আক্রান্ত থাকে। শ্যামপুর থেকে ফতুল্লার পুলিশ লাইন্স পর্যন্ত ধুলায় ঢাকা সড়ক

ভ্যানচালক মালেক মিয়া জানান, এই সড়কে মাথায় গামছা এবং মুখ ঢেকে ভ্যান চালাতে হয়। তিনি বলেন, ১০ মিনিট রাস্তায় থাকলে মুখ দিয়ে ধুলা প্রবেশ করে। কাশি দিলে কফের সঙ্গে কালো কালো ধুলা বের হয়। এই রাস্তাটি দেখভালের জন্য সরকারের কোনও উদ্যোগ নেই। শুধু যদি রাস্তার দুই পাশে গড়ে ওঠা ইট, বালু, সিমেন্ট, কয়লা, পাথর বহন করার সময় ত্রিপল দিয়ে ঢেকে যাতায়াত করলে এই এলাকার মানুষ ধুলাবালির ভোগান্তি থেকে রক্ষা পেতো।

স্থানীয় গৃহিনী আঞ্জুমান আরা জানান, ‘রাস্তায় পড়ে থাকা ধুলাবালি উড়ে আমাদের বাড়িঘরে প্রবেশ করছে। ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের নিয়ে রাস্তায় মুখ ঢেকেও চলাচল করা যায় না। ধুলোর কারণে বড়ই অশান্তিতে আছি আমার। এই সড়কের দুই পাশে যারা ইট, বালি, সিমেন্ট, পাথরের ব্যবসা করছেন, সেই ব্যবসায়ীদের মুনাফার লোভের শিকার হচ্ছে আগামী প্রজন্ম। তিনি মনে করেন, এসব সামগ্রী যদি ট্রাকে ঢেকে নেওয়ার ব্যবস্থা করা হতো, তবে এই অঞ্চলের মানুষ ভোগান্তি থেকে রেহাই পেতো। শ্যামপুর থেকে ফতুল্লার পুলিশ লাইন্স পর্যন্ত ধুলায় ঢাকা সড়ক

এ ব্যাপারে বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় শ্রমিক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাওছার আহমেদ পলাশ জানান, শ্যামপুর থেকে পাগলা পর্যন্ত রাস্তায় যে ধুলাবালি ওড়ে তার জন্য পুরো পাগলাবাসী ভোগান্তির শিকার হয়। তিনি বলেন, এই রাস্তার দুই পাশে বিপুল সংখ্যক ইট, বালু, সিমেন্ট, পাথর, কয়লা বেচাকেনার গদি থাকার কারণে প্রতিনিয়ত লোড আনলোড হয়। এই ধুলোবালি থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য আমরা আগে নিয়মিত পানি ছিটিয়ে দেখেছি। কিন্তু কোনও কাজ হয় না। আধা ঘণ্টার মধ্যেই ধুলোয় ভরে যায়। তিনি দাবি করেন, সরকার যদি কোনও প্রকল্প গ্রহণ করে সরু রাস্তাটি প্রশস্ত করে এবং ধুলোবালি উড়া বন্ধে উদ্যোগ নেয়, আর প্রশাসন যদি ব্যবসায়ীদের একটি নিয়মশৃঙ্খলার মধ্যে আনতে পারে, তবেই এই ধুলাবালি থেকে মানুষ পরিত্রাণ পেতে পারে।

নারায়ণগঞ্জ পরিবেশ অধিদফতরের উপ-পরিচালক সাইদ আনোয়ার বলেন, রাস্তায় বায়ু দুষণের বিষয়টি পরিবেশ আইনের ধারায় পড়ে না। কিন্তু হাইকোর্টের একটি রিটের ভিত্তিতে উচ্চ আদালতের একটি রায় আছে। স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে জনস্বাস্থ্যের হুমকি তৈরি করলে জরিমানাসহ শাস্তির ব্যবস্থা রয়েছে। ঢাকা- নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কের রাতাসে ধুলাবালির বিষয়টি আমলে নিয়ে অতি দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নারায়ণগঞ্জের নবাগত জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ জানান, আমি নারায়ণগঞ্জে নতুন এসেছি। ঢাকা নারায়ণগঞ্জ পুরাতন সড়কে একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পাঠিয়ে বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজখবর নেবো। পরিবেশ আইন লঙ্ঘন করে,  পরিবেশের ক্ষতি করে কেউ ব্যবসা করলে সেই প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

/এফএস/

সম্পর্কিত

ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেয়ে কারামুক্ত ১০ হাজার ৬৮১ হাজতি

ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেয়ে কারামুক্ত ১০ হাজার ৬৮১ হাজতি

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর স্নাতক ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর স্নাতক ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত

কোথায় লকডাউন?

কোথায় লকডাউন?

বিড়ম্বনা বাড়িয়েছে মুভমেন্ট পাস?

বিড়ম্বনা বাড়িয়েছে মুভমেন্ট পাস?

যুবদলের সাবেক সভাপতি মজনু রিমান্ড শেষে কারাগারে

যুবদলের সাবেক সভাপতি মজনু রিমান্ড শেষে কারাগারে

ইউপি ভবনে মামুনুল সমর্থকদের হামলা, গ্রেফতার ৩

ইউপি ভবনে মামুনুল সমর্থকদের হামলা, গ্রেফতার ৩

হাতিরঝিল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব চান মেয়র আতিক

হাতিরঝিল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব চান মেয়র আতিক

জেএমবির ভারপ্রাপ্ত আমির রেজাউল হক কারাগারে

জেএমবির ভারপ্রাপ্ত আমির রেজাউল হক কারাগারে

নুরের বিরুদ্ধে সিলেটে ডিজিটাল আইনে মামলা

নুরের বিরুদ্ধে সিলেটে ডিজিটাল আইনে মামলা

গরুর ফুসফুসে পানি ঢুকিয়ে বিক্রি করা হচ্ছিলো

গরুর ফুসফুসে পানি ঢুকিয়ে বিক্রি করা হচ্ছিলো

ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

তথ্যপ্রযুক্তি আইনে নুরের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

তথ্যপ্রযুক্তি আইনে নুরের বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

সর্বশেষ

ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেয়ে কারামুক্ত ১০ হাজার ৬৮১ হাজতি

ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেয়ে কারামুক্ত ১০ হাজার ৬৮১ হাজতি

ভারতে খোলা বাজারে পাওয়া যাবে করোনা ভ্যাকসিন

ভারতে খোলা বাজারে পাওয়া যাবে করোনা ভ্যাকসিন

নেতাকর্মীদের ধৈর্য ধরতে বললেন বাবুনগরী

নেতাকর্মীদের ধৈর্য ধরতে বললেন বাবুনগরী

ঈদ আয়োজন নিয়ে এসেছে ফেইসরঙ

ঈদ আয়োজন নিয়ে এসেছে ফেইসরঙ

সরকারের সঙ্গে সমঝোতার চেষ্টায় হেফাজত

সরকারের সঙ্গে সমঝোতার চেষ্টায় হেফাজত

‘চিকিৎসককে হয়রানি করায় চিকিৎসাসেবা ব্যাহতের শঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে’

‘চিকিৎসককে হয়রানি করায় চিকিৎসাসেবা ব্যাহতের শঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে’

‘চিকিৎসকের সঙ্গে পুলিশের এমন আচরণ কাম্য নয়’

‘চিকিৎসকের সঙ্গে পুলিশের এমন আচরণ কাম্য নয়’

৩৬ দল, গ্রুপ পর্ব নেই, বৃহস্পতিবারে ম্যাচ... আর কী পাল্টালো চ্যাম্পিয়নস লিগে?

৩৬ দল, গ্রুপ পর্ব নেই, বৃহস্পতিবারে ম্যাচ... আর কী পাল্টালো চ্যাম্পিয়নস লিগে?

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর স্নাতক ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর স্নাতক ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত

কোথায় লকডাউন?

কোথায় লকডাউন?

২ ডোজ টিকা নিয়েও করোনায় আক্রান্ত ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং

২ ডোজ টিকা নিয়েও করোনায় আক্রান্ত ভারতের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং

খাদ্য উৎপাদন দ্বিগুণ করতে কৃষকদের সহায়তা দিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

খাদ্য উৎপাদন দ্বিগুণ করতে কৃষকদের সহায়তা দিচ্ছে সরকার: প্রধানমন্ত্রী

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর স্নাতক ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত

কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর স্নাতক ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত

ইউপি ভবনে মামুনুল সমর্থকদের হামলা, গ্রেফতার ৩

ইউপি ভবনে মামুনুল সমর্থকদের হামলা, গ্রেফতার ৩

নুরের বিরুদ্ধে সিলেটে ডিজিটাল আইনে মামলা

নুরের বিরুদ্ধে সিলেটে ডিজিটাল আইনে মামলা

গরুর ফুসফুসে পানি ঢুকিয়ে বিক্রি করা হচ্ছিলো

গরুর ফুসফুসে পানি ঢুকিয়ে বিক্রি করা হচ্ছিলো

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব: আরও ১২ হেফাজত কর্মী-সমর্থক গ্রেফতার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় তাণ্ডব: আরও ১২ হেফাজত কর্মী-সমর্থক গ্রেফতার

হেফাজতের মামলায় এবার উপজেলা জাপা সভাপতি গ্রেফতার

হেফাজতের মামলায় এবার উপজেলা জাপা সভাপতি গ্রেফতার

বাংলা ট্রিবিউনকে সেই চিকিৎসকের বাবা, ‘ঘটনাটি অনাকাঙ্ক্ষিত’

বাংলা ট্রিবিউনকে সেই চিকিৎসকের বাবা, ‘ঘটনাটি অনাকাঙ্ক্ষিত’

কোয়ারেন্টিন সেন্টার থেকে পালিয়েছেন বিদেশফেরত ৪ করোনা রোগী

কোয়ারেন্টিন সেন্টার থেকে পালিয়েছেন বিদেশফেরত ৪ করোনা রোগী

না.গঞ্জ মহানগর জামায়াতের আমিরসহ গ্রেফতার ৩

না.গঞ্জ মহানগর জামায়াতের আমিরসহ গ্রেফতার ৩

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune