সেকশনস

চাঁদাবাজির অভিযোগে এশিয়ানের শিক্ষার্থীর বিরুদ্ধে মামলা

আপডেট : ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ২৩:৩৭

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, বিভিন্ন মন্ত্রী ও এমপি’র নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজি, ফেসবুকে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে অপপ্রচারসহ বিভিন্ন অভিযোগে বহিষ্কৃত শিক্ষার্থী শামীম আহমেদের বিরুদ্ধে সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালে দু’টি আলাদা মামলা দায়ের করেছে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ। 

বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানায়, গত ১৭ জানুয়ারি প্রক্টর মোবারক হোসেন (পিটিশন নং- ৩৬/২১) এবং গত ২০ জানুয়ারি সরকার ও রাজনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. এম. আনিছুর রহমান (পিটিশন নং- ৪৭/২১) মামলা দুটি দায়ের করেন। 

এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের পক্ষে তাদের আইনজীবী ফয়সাল হাসান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘সাইবার ক্রাইম ট্রাইব্যুনালের বিচারক আ স সামছ জুগলুল হোসেন মামলা দুটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) এবং সিআইডিকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। শামীম আহমেদের বিরুদ্ধে ফেসবুকে বিশ্ববিদ্যালয় এবং উপাচার্যের নামে অপপ্রচার এবং মানহানিকর তথ্য প্রকাশের অভিযোগ আনা হয়েছে।’ 

জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়সহ বিভিন্ন রাজনীতিকের  নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অভিযোগে গত ১৫ জানুয়ারি এশিয়ান ইউনিভার্সিটির বিএসএস (অনার্স) ইন গভর্নমেন্ট অ্যান্ড পলিটিকস প্রোগ্রামের শিক্ষার্থী মো. শামীম আহমেদকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ফারুক আহমেদের সই করা চিঠিতে কেন তাকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হবে না, তা তিন কর্মদিবসের মধ্যে জানাতে বলা হয়।

প্রক্টরের দায়ের করা মামলার অভিযোগে বলা হয়,আসামি শামীম আহমেদ, এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশের একজন ছাত্র। পরবর্তীতে তার বিভিন্ন অপকর্মের কারণে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তাকে সতর্ক করে। এ কারণে ক্ষিপ্ত হয়ে শামীম আহমেদ বিশ্ববিদ্যালয় এবং উপাচার্যের চরিত্র হননের চেষ্টা করেন। তার নিজস্ব ফেসবুক অ্যাকাউন্ট ‘শামীম আহমেদ’ এবং বেনামে ফেক আইডি ব্যবহার করে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে ফেসবুক স্ট্যাটাস দেন। এতে এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশ এবং উপাচার্যের সুনামসহ বিভিন্ন রকম ক্ষতি হয়।

এজাহারে আরও বলা হয়, গত বছর ২৫ অক্টোবর শামীম তার ফেসবুক অ্যাকাউন্টে লিখেছেন— ‘জঙ্গিবাদ থেকে দূরে থাকুন।এশিয়ান ইউনিভার্সিটি অব বাংলাদেশে প্রশিক্ষণ নিন। ঠাকুর ঘরে কে রে, আমি কলা খাই না। হি হি হি হি।’   এরপর গত বছর ২৭ নভেম্বর শামীম তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে উল্লেখ করেন, ‘এশিয়ান বিশ্ববিদ্যালয়ের সাদেক ও মামুনুলকে গ্রেফতার করতে হবে।’

প্রক্টর মোবারক হোসেন মামলার অভিযোগে বলেন, ‘এতে তার এবং বিশ্ববিদ্যালয়ের সুনাম নষ্ট হয়েছে এবং আর্থিক ক্ষতি হয়েছে।’

সরকার ও রাজনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. এম. আনিছুর রহমানের দায়ের করা মামলার অভিযোগে বলা হয়, বহিষ্কৃত শিক্ষার্থী ক্লাস-পরীক্ষায় অংশ গ্রহণ না করেও এ প্লাস দেওয়ার জন্য বিভাগীয় শিক্ষকদের ওপর অব্যাহতভাবে চাপ প্রয়োগ করেন। এতে শিক্ষকরা সম্মত না হওয়ায় শামীম আহমেদ ক্ষুব্ধ হয়ে বিভাগীয় চেয়ারম্যানসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে অপপ্রচারে লিপ্ত হন।

ড. এম. আনিছুর রহমান জানান, মো. শামীম আহমেদের বাড়ি বরগুনা জেলার পাথরঘাটা থানার পশ্চিম জালিয়াঘাটায়। বর্তমানে তিনি রাজধানীর রামপুরার বনশ্রীর ৩ নম্বর রোডের বি ব্লকে থাকেন।  তিনি বরগুনার মাদ্রাসা থেকে দাখিল এবং কারিগরি বিভাগে এইচএসসি পাস করেন। এরপর ঢাকায় এসে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজিতে লিপ্ত হন। প্রকৃত অর্থে কোনও গণমাধ্যমের সঙ্গে তার সম্পৃক্ততা নেই। অন্যের লেখা ও সহায়তায় ‘শেখ হাসিনা ও ঘুরে দাঁড়ানোর বাংলাদেশ’ শীর্ষক একটি বইয়ের লেখক দাবি করে বিভিন্ন জায়গা থেকে চাঁদা বাজি করেন শামীম। ’

ড.  আনিছুর রহমান জানান বলেন, ‘ধারা ফাউন্ডেশন নামে একটি ভূঁইফোড় সংগঠন গড়ে তোলেন  শামীম । প্রতি বছর দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর দফতরের দোহাই দিয়ে ওই বইয়ের ওপর সেমিনার আয়োজনের নামে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করে থাকেন। সম্প্রতি এশিয়ান ইউনিভার্সিটির কাছ থেকে মোবাইল ফোনে ফান্ড দাবি করেছেন বইটির নতুন সংস্করণের জন্য।’

অভিযোগ ও মামলার বিষয়ে জানতে চাইলে এশিয়ানের বহিষ্কৃত শিক্ষার্থী শামীম আহমেদ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘বিভাগীয় প্রধানের সঙ্গে ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বের কারণে আমার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।  মামলার অভিযোগ সত্য নয়।’

তিনি বলেন, ‘আমি পত্রিকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্নীতি তুলে ধরেছি। সে কারণেই আমাকে বহিষ্কার করা হয়েছে।  প্রধানমন্ত্রীর দফতরের নাম ভাঙিয়ে চাঁদাবাজি করার কোনও প্রমাণ নেই। অথচ শুধুমাত্র ব্যক্তিগত আক্রোশের কারণে বিশ্ববিদ্যালয় এ ধরনের অভিযোগ করেছে।’  শামীম আহমেদ বলেন, ‘আমি কখনও ধূমপান করিনি, অথচ বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিযোগে বলা হয়েছে— আমি নাকি মাদকসেবী ও মাদক ব্যবসায়ী।  আমার বিরুদ্ধে যেসব মিথ্যা অভিযোগ আনা হয়েছে, আমি তার প্রতিবাদ জানাই।  আদালতে এই অভিযোগ প্রমাণ করা সম্ভব নয়। বিভাগীয় প্রধানের বিরুদ্ধে শিবিরের সঙ্গে তার সংশ্লিষ্টতার কথা ফেসবুকে লিখেছি বলেই ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বের সৃষ্টি হয়েছে। ’/এসএমএ/এপিএইচ/

/এসএমএ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

লেখক মুশতাক আহমেদের দাফন সম্পন্ন

লেখক মুশতাক আহমেদের দাফন সম্পন্ন

ইয়াবা পরিবহনের অভিযোগে বাসচালকসহ গ্রেফতার ২

ইয়াবা পরিবহনের অভিযোগে বাসচালকসহ গ্রেফতার ২

ভারতে ফেসবুক ইউটিউব টুইটারকে যেসব শর্ত মানতে হবে

ভারতে ফেসবুক ইউটিউব টুইটারকে যেসব শর্ত মানতে হবে

ধানমন্ডিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া তরুণীকে ছাদ থেকে ফেলে হত্যার অভিযোগ

ধানমন্ডিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া তরুণীকে ছাদ থেকে ফেলে হত্যার অভিযোগ

প্রেমের টানে সংসার ছাড়া স্বামীকে ঘরে ফেরালো পুলিশ!

প্রেমের টানে সংসার ছাড়া স্বামীকে ঘরে ফেরালো পুলিশ!

রংপুরের বিভিন্ন উপজেলায় এক কেজি ধান-চালও কেনা যায়নি!

রংপুরের বিভিন্ন উপজেলায় এক কেজি ধান-চালও কেনা যায়নি!

সর্বশেষ

লেখক মুশতাক আহমেদের দাফন সম্পন্ন

লেখক মুশতাক আহমেদের দাফন সম্পন্ন

ইয়াবা পরিবহনের অভিযোগে বাসচালকসহ গ্রেফতার ২

ইয়াবা পরিবহনের অভিযোগে বাসচালকসহ গ্রেফতার ২

ভারতে ফেসবুক ইউটিউব টুইটারকে যেসব শর্ত মানতে হবে

ভারতে ফেসবুক ইউটিউব টুইটারকে যেসব শর্ত মানতে হবে

ধানমন্ডিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া তরুণীকে ছাদ থেকে ফেলে হত্যার অভিযোগ

ধানমন্ডিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া তরুণীকে ছাদ থেকে ফেলে হত্যার অভিযোগ

প্রেমের টানে সংসার ছাড়া স্বামীকে ঘরে ফেরালো পুলিশ!

প্রেমের টানে সংসার ছাড়া স্বামীকে ঘরে ফেরালো পুলিশ!

রংপুরের বিভিন্ন উপজেলায় এক কেজি ধান-চালও কেনা যায়নি!

রংপুরের বিভিন্ন উপজেলায় এক কেজি ধান-চালও কেনা যায়নি!

করোনায় হিলি ইমিগ্রেশন দিয়ে যাত্রী পারাপার বন্ধ, রাজস্ব ঘাটতি ৫ কোটি

করোনায় হিলি ইমিগ্রেশন দিয়ে যাত্রী পারাপার বন্ধ, রাজস্ব ঘাটতি ৫ কোটি

দেবিদ্বারে গণসংযোগে হামলা, গুলিবিদ্ধসহ আহত ৫

দেবিদ্বারে গণসংযোগে হামলা, গুলিবিদ্ধসহ আহত ৫

কুমিল্লায় ওরশের মেলায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে ৩ জনকে ছুরিকাঘাত

কুমিল্লায় ওরশের মেলায় দুই পক্ষের সংঘর্ষে ৩ জনকে ছুরিকাঘাত

পঞ্চম ধাপে ২৯ পৌরসভায় ভোট রবিবার

পঞ্চম ধাপে ২৯ পৌরসভায় ভোট রবিবার

লেখক মুশতাকের মৃত্যুতে ১৩ রাষ্ট্রদূতের উদ্বেগ

লেখক মুশতাকের মৃত্যুতে ১৩ রাষ্ট্রদূতের উদ্বেগ

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১১ কোটি ৩৭ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১১ কোটি ৩৭ লাখ ছাড়িয়েছে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

লেখক মুশতাক আহমেদের দাফন সম্পন্ন

লেখক মুশতাক আহমেদের দাফন সম্পন্ন

ইয়াবা পরিবহনের অভিযোগে বাসচালকসহ গ্রেফতার ২

ইয়াবা পরিবহনের অভিযোগে বাসচালকসহ গ্রেফতার ২

ধানমন্ডিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া তরুণীকে ছাদ থেকে ফেলে হত্যার অভিযোগ

ধানমন্ডিতে বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া তরুণীকে ছাদ থেকে ফেলে হত্যার অভিযোগ

প্রেমের টানে সংসার ছাড়া স্বামীকে ঘরে ফেরালো পুলিশ!

প্রেমের টানে সংসার ছাড়া স্বামীকে ঘরে ফেরালো পুলিশ!


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.