X
সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ৬ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

একযুগ পর ইজারা হলো গাবতলী ও মহাখালী বাস টার্মিনাল

আপডেট : ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:৩৬

দীর্ঘ একযুগের বেশি সময় ধরে ইজারা ছাড়া আদায় সহযোগিতাকারী নিয়োগের মাধ্যমে নামমাত্র রাজস্ব আদায় করা হলেও অবশেষে টার্মিনাল দুটির ইজারা সম্পন্ন করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)।

সংস্থাটি জানিয়েছে, নানা প্রতিকূলতা পেরিয়ে প্রথমবারের মতো উন্মুক্ত দরপত্র আহ্বানের মাধ্যমে বছরে ১২ কোটি এক লাখ ২০ হাজার টাকায় টার্মিনাল দুটির ইজারা সম্পন্ন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) বেলা ১২টায় গুলশানস্থ ডিএনসিসির নগর ভবনে মেয়র আতিকুল ইসলামের কাছে ইজারাদাররা চেক হস্তান্তর করেন।

ডিএনসিসি থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ইতোপূর্বে অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের আমলে নামমাত্র মূল্যে টার্মিনাল দুটি থেকে রাজস্ব আদায়ের জন্য আদায় সহযোগিতাকারী নিয়োগ দেওয়া হয়েছিল। দীর্ঘ এক যুগেও এই আদায়ের জন্য নির্ধারিত টাকার পরিমাণ বাড়ানো হয়নি। এছাড়া আদায় সহযোগিতাকারীরা নানা অজুহাত দেখিয়ে ৩১ আগস্ট ২০২০ পর্যন্ত প্রায় ৪ কোটি টাকা ডিএনসিসিকে জমা দেয়নি। এসকল অনিয়ম দূর করার জন্য ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম টার্মিনালগুলো উন্মুক্ত দরপত্রের মাধ্যমে ইজারা দেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করেন। শুরুতে নানা বাধা-বিপত্তি, হুমকি থাকলেও কোনও কিছুই তোয়াক্কা না করে ডিএনসিসি মেয়রের দৃঢ় নেতৃত্বে ইজারার কার্যক্রম সম্পন্ন হয়।

চেক হস্তান্তরের পরে আতিকুল ইসলাম বলেন, মহাখালী ও গাবতলী বাস টার্মিনাল দুটি থেকে সেভাবে কোনও রাজস্ব আদায় করা যায়নি। আমি এসে দেখেছি এখানে অনেক আগে থেকেই গলদ ছিল। একজনকে আদায়কারীর দায়িত্ব দেওয়া হয়েছিল। সেখানে একটা ক্লজ ছিল হরতাল বা বিভিন্ন কারণে যখন পরিবহন বন্ধ থাকবে, তখন ডিএনসিসিকে কোনও টাকা দিতে হবে না। এই সিদ্ধান্তগুলো ভুল ছিল। তারা তাদের পাওনা টাকা তো দেয়নি বরং সিটি করপোরেশনের কাছে উল্টো টাকা দাবি করেছে। একটি স্বার্থান্বেষী গোষ্ঠীকে সুবিধা দেওয়ার জন্য এই ধরনের অসম চুক্তি করা হয়েছিল। আমি বলেছি এ ধরনের অসম চুক্তি আমরা মেনে নিতে পারি না। এর ফলে সিটি করপোরেশন রাজস্ব হারাচ্ছে। তাই আমরা উন্মুক্ত দরপত্রের মাধ্যমে ইজারা দিয়েছি। আমরা যখন ইজারা দিতে গেলাম, আমাদের কর্মকর্তাদেরকে বিভিন্ন ধরনের হুমকি দেওয়া হয়েছিল। আমি বলেছি কারও কথা শোনার দরকার নাই। নিয়ম অনুযায়ী দরপত্রের মাধ্যমে ইজারা দেওয়া হবে।

আতিকুল ইসলাম আরও বলেন, গত ১২ বছরে কমপক্ষে ১৫০ কোটি টাকা আদায় করা যেত। এখন ইজারাদারদেরকে বাস টার্মিনালগুলোতে সুন্দর পরিবেশ বজায় রাখার জন্য শর্ত দেওয়া হয়েছে। অন্যথায় ইজারা বাতিল হবে। আগের বিশৃঙ্খল পরিবেশ বজায় রাখা যাবে না। এই যে নতুন সিস্টেম প্রচলন হতে যাচ্ছে, এভাবে আস্তে আস্তে রাজধানীতে পরিবর্তন আসবে।

গত ১২ জানুয়ারি থেকে আগামী বছরের ১১ জানুয়ারি পর্যন্ত এক বছরের জন্য লালমাটিয়াস্থ রাফি ট্রেডার্স লিমিটেডকে বাৎসরিক ৭ কোটি ৩৯ লক্ষ ২০ হাজার টাকায় গাবতলী টার্মিনাল ইজারা দেওয়া হয়। এছাড়া এই টার্মিনালের বিদ্যুৎ ও পানির বিল ইজারাদার কর্তৃক পরিশোধ করতে হবে।

গাবতলী বাস টার্মিনালে রাজস্ব আদায়ের উল্লেখযোগ্য খাতগুলো হচ্ছে যানবাহনের টার্মিনাল ফি। বাস ও মিনিবাস ৫০ টাকা; সিএনজি (ট্যাক্সি) ১০ টাকা; ঠ্যালা গাড়ি, ভ্যান ১০ টাকা; বাণিজ্যিক কাজে ব্যবহৃত পিক আপ ৩০ টাকা। মূল ভবনের স্থায়ী দোকান প্রতি বর্গফুট প্রতি মাসে ৫ টাকা; অস্থায়ী দোকান প্রতি বর্গফুট প্রতি মাসে ২৫ টাকা হারে। প্রতি ইউনিট বিদ্যুৎ বিল ১৫ টাকা ৩৬ পয়সা। ১৫ ও ৩৬ বর্গফুটের অস্থায়ী টোকেনের দোকান মাসিক যথাক্রমে ২২৫ ও ৩৬০ টাকা। মূল ভবনের বাইরে স্থায়ী চা ও ফলের স্টল মাসিক ৭৫০ টাকা; পানের স্টল মাসিক ৫০০টাকা; খাবারের স্টল মাসিক ১০০০ টাকা। গাড়ি ধোয়ার র‍্যাম্প মাসিক ৬ হাজার টাকা।

প্রসঙ্গত, গাবতলী আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালের আদায় সহযোগিতাকারী হিসেবে অবিভক্ত সিটি করপোরেশন থাকাকালে ২০০৯ সালের ৪ মে সর্বসাকুল্যে দৈনিক ১ লাখ ১৭ হাজার টাকা হিসেবে জনৈক জসিম উদ্দিনকে নিয়োগ দেওয়া হয়। সে সময় ভ্যাট, আয়কর, বিদ্যুৎ ও পানির বিল ডিএনসিসি থেকে পরিশোধ করা হতো। ৩১ আগস্ট ২০২০ তারিখে তার কাছে ডিএনসিসির বকেয়া পাওনা ছিল ২ কোটি ৭৭ লক্ষ ৯৭ কোটি ৮৭৩ টাকা।

মহাখালী আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালের রাজস্ব আদায়ের জন্য ইব্রাহিমপুরের গাজী রাইয়ান এন্টারপ্রাইজকে ২৬ জানুয়ারি ২০২১ সালের ২৫ জানুয়ারি থেকে ২০২২ সালের ২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত ৪ কোটি ৬২ লাখ টাকায় ইজারা দেওয়া হয়। এছাড়া এই টার্মিনালের বিদ্যুৎ ও পানির বিল ইজারাদারদের পরিশোধ করতে হবে।

মহাখালী আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালে রাজস্ব আদায়ের উল্লেখযোগ্য খাতগুলো হচ্ছে যানবাহনের টার্মিনাল ফি বাস ও মিনিবাস ৫০ টাকা; সিএনজি (ট্যাক্সি) ১০ টাকা; ঠেলা গাড়ি, ভ্যান ১০ টাকা; বাণিজ্যিক কাজে ব্যবহৃত পিক আপ ৩০ টাকা। টার্মিনাল ভবনের ভিতরে ১০৪ বর্গফুট থেকে ৮৭৫ বর্গফুটের ৬টি দোকান ও ক্যান্টিন প্রতি বর্গফুট মাসিক ২১ টাকা থেকে ৩৩ টাকা ভাড়া। অস্থায়ী টোকেনের দোকান প্রতি বর্গফুট প্রতি মাসে ১৬ টাকা। ১টি বড় টিকেট কাউন্টার মাসিক ৬৬৭৫ টাকা। ৩৯ টি ছোট টিকেট কাউন্টার মাসিক ৭৩৫ টাকা। প্রতি ইউনিট বিদ্যুৎ বিল ১৫ টাকা ৩৬ পয়সা।

উল্লেখ্য, মহাখালী আন্তঃজেলা বাস টার্মিনালের আদায় সহযোগিতাকারী হিসেবে অবিভক্ত সিটি করপোরেশন থাকাকালে ২০০৯ সালের ১০ মে তারিখে সর্বসাকুল্যে দৈনিক ৫০ হাজার ৫০০ টাকা হিসেবে মেসার্স সহিদুল্লাহ এন্টারপ্রাইজকে নিয়োগ দেওয়া হয়। ভ্যাট, আয়কর, বিদ্যুৎ ও পানির বিল ডিএনসিসি থেকে পরিশোধ করা হতো। গত বছরের ৩১ আগস্ট পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির কাছে ডিএনসিসির বকেয়া পাওনা ছিল ১ কোটি ২০ লাখ ৭৫ হাজার ৫০০ টাকা।

চেক হস্তান্তরকালে অন্যান্যের মধ্যে ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম রেজা, মহাব্যবস্থাপক (পরিবহন) মিজানুর রহমান, প্রধান ভাণ্ডার ও ক্রয় কর্মকর্তা সগীর হোসেন উপস্থিত ছিলেন।

/এসএস/এমআর/

সম্পর্কিত

হাইকোর্টের নজরে আনা হলো চিকিৎসক-পুলিশ বাগবিতণ্ডা

হাইকোর্টের নজরে আনা হলো চিকিৎসক-পুলিশ বাগবিতণ্ডা

বাস ছাড়া সবই চলে!

বাস ছাড়া সবই চলে!

আজ থেকে রোগী নেবে ডিএনসিসি’র করোনা হাসপাতাল

আজ থেকে রোগী নেবে ডিএনসিসি’র করোনা হাসপাতাল

লকডাউন নিয়ে দেওয়া নির্দেশনা ও বাস্তবতার মিল নেই

লকডাউন নিয়ে দেওয়া নির্দেশনা ও বাস্তবতার মিল নেই

ফায়ার সেফটি না থাকলে হোল্ডিং নম্বর ও ট্রেড লাইসেন্স দেবে না ডিএনসিসি

ফায়ার সেফটি না থাকলে হোল্ডিং নম্বর ও ট্রেড লাইসেন্স দেবে না ডিএনসিসি

পথেই ইফতার

পথেই ইফতার

পুলিশের গুলিতে নিহত শ্রমিকদের স্মরণে প্রদীপ প্রজ্বলন

পুলিশের গুলিতে নিহত শ্রমিকদের স্মরণে প্রদীপ প্রজ্বলন

কোথায় যাচ্ছেন, কেন যাচ্ছেন জানেন না নিজেই!

কোথায় যাচ্ছেন, কেন যাচ্ছেন জানেন না নিজেই!

আশা নিয়ে সৌদি এয়ারলাইনসের সামনে প্রবাসীদের ভিড়

আশা নিয়ে সৌদি এয়ারলাইনসের সামনে প্রবাসীদের ভিড়

উদ্বোধন হলো দেশের সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতাল 

উদ্বোধন হলো দেশের সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতাল 

করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ঢাবি শিক্ষক নজরুল ইসলাম

করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন ঢাবি শিক্ষক নজরুল ইসলাম

শ্রমিক হত্যাকাণ্ডের দায় মালিকপক্ষ এড়াতে পারে না: সুজন

শ্রমিক হত্যাকাণ্ডের দায় মালিকপক্ষ এড়াতে পারে না: সুজন

সর্বশেষ

বিয়ের কথা বলায় প্রেমিকাকে হত্যা করে পুলিশ কনস্টেবল!

বিয়ের কথা বলায় প্রেমিকাকে হত্যা করে পুলিশ কনস্টেবল!

দিল্লিতে লকডাউন জারি

দিল্লিতে লকডাউন জারি

ময়মনসিংহের করোনা ইউনিটে বেড়েছে ৩ আইসিইউ বেড

ময়মনসিংহের করোনা ইউনিটে বেড়েছে ৩ আইসিইউ বেড

ঈদের আগে লকডাউন শিথিল হবে

ঈদের আগে লকডাউন শিথিল হবে

জান্তা সরকারের বন্দি নির্যাতনের ছবি প্রকাশ, মিয়ানমারে বাড়ছে ক্ষোভ

জান্তা সরকারের বন্দি নির্যাতনের ছবি প্রকাশ, মিয়ানমারে বাড়ছে ক্ষোভ

ফেসবুক অ্যাকাউন্টের জেরে পান্থ কানাইয়ের জিডি

ফেসবুক অ্যাকাউন্টের জেরে পান্থ কানাইয়ের জিডি

ব্যাংকে ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফার হচ্ছে না

ব্যাংকে ইলেকট্রনিক ফান্ড ট্রান্সফার হচ্ছে না

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ.লীগের সম্পাদকের দুই পায়ে সন্ত্রাসীদের গুলি (ভিডিও)

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা আ.লীগের সম্পাদকের দুই পায়ে সন্ত্রাসীদের গুলি (ভিডিও)

নাভালনির মৃত্যু হলে রাশিয়াকে ভুগতে হবে: যুক্তরাষ্ট্র

নাভালনির মৃত্যু হলে রাশিয়াকে ভুগতে হবে: যুক্তরাষ্ট্র

বার্সেলোনায় মেসির বাবা, ভবিষ্যৎ এখনও অনিশ্চিত!

বার্সেলোনায় মেসির বাবা, ভবিষ্যৎ এখনও অনিশ্চিত!

প্রধানমন্ত্রীর কাছে জাফরুল্লাহ চৌধুরীর খোলা চিঠি

প্রধানমন্ত্রীর কাছে জাফরুল্লাহ চৌধুরীর খোলা চিঠি

লকডাউন বাড়ানো হলো যে কারণে

লকডাউন বাড়ানো হলো যে কারণে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

হাইকোর্টের নজরে আনা হলো চিকিৎসক-পুলিশ বাগবিতণ্ডা

হাইকোর্টের নজরে আনা হলো চিকিৎসক-পুলিশ বাগবিতণ্ডা

বাস ছাড়া সবই চলে!

বাস ছাড়া সবই চলে!

আজ থেকে রোগী নেবে ডিএনসিসি’র করোনা হাসপাতাল

আজ থেকে রোগী নেবে ডিএনসিসি’র করোনা হাসপাতাল

লকডাউন নিয়ে দেওয়া নির্দেশনা ও বাস্তবতার মিল নেই

লকডাউন নিয়ে দেওয়া নির্দেশনা ও বাস্তবতার মিল নেই

ফায়ার সেফটি না থাকলে হোল্ডিং নম্বর ও ট্রেড লাইসেন্স দেবে না ডিএনসিসি

ফায়ার সেফটি না থাকলে হোল্ডিং নম্বর ও ট্রেড লাইসেন্স দেবে না ডিএনসিসি

পথেই ইফতার

পথেই ইফতার

পুলিশের গুলিতে নিহত শ্রমিকদের স্মরণে প্রদীপ প্রজ্বলন

পুলিশের গুলিতে নিহত শ্রমিকদের স্মরণে প্রদীপ প্রজ্বলন

কোথায় যাচ্ছেন, কেন যাচ্ছেন জানেন না নিজেই!

কোথায় যাচ্ছেন, কেন যাচ্ছেন জানেন না নিজেই!

আশা নিয়ে সৌদি এয়ারলাইনসের সামনে প্রবাসীদের ভিড়

আশা নিয়ে সৌদি এয়ারলাইনসের সামনে প্রবাসীদের ভিড়

উদ্বোধন হলো দেশের সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতাল 

উদ্বোধন হলো দেশের সবচেয়ে বড় করোনা হাসপাতাল 

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune