সেকশনস

যুবলীগ নেতা জিল্লুর হত্যা

কাউন্সিলর সাত্তার কারাগারে, পিবিআই’র রিমান্ড আবেদন

আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ০৫:৩৭

কুমিল্লায় যুবলীগ নেতা জিল্লুর রহমান জিলানী হত্যা মামলায় গ্রেফতার হওয়া কাউন্সিলর ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা আবদুস সাত্তারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিমান্ড চেয়েছে পিবিআই। রিমান্ডের বিষয়ে শুনানি পরবর্তীতে অনুষ্ঠিত হবে। বুধবার আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

এর আগে মঙ্গলবার রাতে ঢাকা শাহবাগ এলাকা থেকে জিল্লুর হত্যা মামলার এজাহার নামীয় ২ নং আসামি কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের ২৬ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাত্তারকে গ্রেফতার করে পিবিআই। তাকে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন হত্যাকাণ্ডের অন্যতম পরিকল্পনাকারী হিসেবে উল্লেখ করে পূর্বে গ্রেফতার হওয়া আসামি আনোয়ার আদালতে যে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে তা যাচাই-বাছাই করে দেখছে পিবিআই।

বুধবার দুপুরে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই) কুমিল্লার কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে পিবিআই কুমিল্লার পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান জানান, পূর্ব শত্রুতা ও রাজনৈতিক দ্বন্দ্বের সূত্র ধরে গত ১১ নভেম্বর কাউন্সিলর আবদুস সাত্তার ও কাউন্সিলর আবুল হাসানের নেতৃত্বে মোটর সাইকেলযোগে সন্ত্রাসীরা জিল্লুর রহমান জিলানীকে কুপিয়ে হত্যা করে। মঙ্গলবার বিকালে মামলার ২ নং আসামি আবদুস সাত্তারকে ঢাকা শাহবাগ থানা এলাকা থেকে গ্রেফতারের পর কুমিল্লা কার্যালয়ে নিয়ে আসা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে কাউন্সিলর আবদুস ছাত্তার জিলানী হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে। তদন্তের স্বার্থে তা গোপন রাখা হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে পিবিআই কুমিল্লার পরিদর্শক মতিউর রহমান, পরিদর্শক বিপুল চন্দ্র দেবনাথসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান জানান, আসামি কাউন্সিলর আবদুস সাত্তার দীর্ঘদিন ধরে দেশের বিভিন্ন স্থানে পলাতক ছিলেন। একেক সময় তিনি একেক স্থানে অবস্থান করেন। কয়েক দিন ধরে তিনি ঢাকার শাহবাগ থানা এলাকায় অবস্থান করছেন গোপন সূত্রে খবর পেয়ে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় বিকালে তাকে গ্রেফতার করার পর রাতে কুমিল্লায় নিয়ে আসা হয়। হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে বুধবার (২৭ জানুয়ারি) আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এর আগে আব্দুল কাদের নামে এক আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গত ৩০ নভেম্বর থেকে মামলাটি তদন্ত করছে পিবিআই। দায়িত্ব পাওয়ার পর নুরুল ইসলাম নামের অপর একজনকে গ্রেফতার করে পিবিআই। এরই মধ্যে এ মামলায় এজাহার নামীয় ১৫ জন উচ্চ আদালত থেকে ৬ সপ্তাহের জন্য অন্তর্বর্তীকালীন জামিন লাভ করেছেন।



/এএ/

সম্পর্কিত

সোনা চুরি: নারী ইউপি সদস্যসহ ৩ জন জেল হাজতে

সোনা চুরি: নারী ইউপি সদস্যসহ ৩ জন জেল হাজতে

বাবা হত্যার বিচারের দাবিতে সড়কে দুই শিশু

বাবা হত্যার বিচারের দাবিতে সড়কে দুই শিশু

বাসের ধাক্কায় অটোরিকশাচালক নিহত

বাসের ধাক্কায় অটোরিকশাচালক নিহত

পেটে লাথি মেরে নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ: বাবা-ছেলে গ্রেফতার

পেটে লাথি মেরে নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ: বাবা-ছেলে গ্রেফতার

রাতের আঁধারে ভাঙলো বীর প্রতীকের নামে করা সড়কের নামফলক

রাতের আঁধারে ভাঙলো বীর প্রতীকের নামে করা সড়কের নামফলক

নিঃসঙ্গ বয়োজ্যেষ্ঠদের সঙ্গ দিলেন ফকির আলমগীর

নিঃসঙ্গ বয়োজ্যেষ্ঠদের সঙ্গ দিলেন ফকির আলমগীর

পেটে লাথি মেরে গর্ভের সন্তানকে হত্যার অভিযোগ

পেটে লাথি মেরে গর্ভের সন্তানকে হত্যার অভিযোগ

মুক্তিযোদ্ধা জাকির হোসেনের চিরবিদায়

মুক্তিযোদ্ধা জাকির হোসেনের চিরবিদায়

'রমজানে টিসিবির মাধ্যমে নিত্যপণ্যের বাজার সহনীয় রাখা হবে'

'রমজানে টিসিবির মাধ্যমে নিত্যপণ্যের বাজার সহনীয় রাখা হবে'

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

‘পানি পড়া’ আনতে গিয়ে কলেজছাত্রী ধর্ষণের শিকার

‘পানি পড়া’ আনতে গিয়ে কলেজছাত্রী ধর্ষণের শিকার

মোংলায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ৩ দিনব্যাপী বইমেলা শুরু

মোংলায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ৩ দিনব্যাপী বইমেলা শুরু

সর্বশেষ

বেগমগঞ্জে অস্ত্র ঠেকিয়ে গুলি: আটক দুজন জেল হাজতে 

বেগমগঞ্জে অস্ত্র ঠেকিয়ে গুলি: আটক দুজন জেল হাজতে 

চবি ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ের দায়ে যুবক আটক

চবি ছাত্রীকে ইভটিজিংয়ের দায়ে যুবক আটক

ভিকারুননিসাকে সতর্কতামূলক ৭ নির্দেশনা প্রতিযোগিতা কমিশনের

ভিকারুননিসাকে সতর্কতামূলক ৭ নির্দেশনা প্রতিযোগিতা কমিশনের

‘আহমদ শরীফের মাঝে সত্য বলার ক্ষমতা ছিল প্রবল’

জন্মশত বার্ষিকী অনুষ্ঠানে বক্তারা‘আহমদ শরীফের মাঝে সত্য বলার ক্ষমতা ছিল প্রবল’

রাবির স্টিয়ারিং কমিটির নির্বাচনে ভিসি বিরোধীদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা

রাবির স্টিয়ারিং কমিটির নির্বাচনে ভিসি বিরোধীদের সংখ্যাগরিষ্ঠতা

নদী সংলাপে পরিবেশের সুরক্ষা নিশ্চিতের আহ্বান

নদী সংলাপে পরিবেশের সুরক্ষা নিশ্চিতের আহ্বান

হাফিজের প্রত্যাখ্যান, পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে কারা?

হাফিজের প্রত্যাখ্যান, পাকিস্তানের কেন্দ্রীয় চুক্তিতে কারা?

১০ এপ্রিলকে ‘প্রজাতন্ত্র দিবস’ ঘোষণার দাবি রবের

১০ এপ্রিলকে ‘প্রজাতন্ত্র দিবস’ ঘোষণার দাবি রবের

মোজাম্বিক উপকূলে শতাধিক ডলফিনের মৃত্যু

মোজাম্বিক উপকূলে শতাধিক ডলফিনের মৃত্যু

রাজধানীতে নিজ বাসায় কিশোরীর ঝুলন্ত লাশ

রাজধানীতে নিজ বাসায় কিশোরীর ঝুলন্ত লাশ

দিনাজপুরের হত্যা মামলার আসামি ঢাকায় গ্রেফতার

দিনাজপুরের হত্যা মামলার আসামি ঢাকায় গ্রেফতার

শ্যামপুরে পানির ট্যাংক থেকে উদ্ধার শিশুর পরিচয় মিলেছে

শ্যামপুরে পানির ট্যাংক থেকে উদ্ধার শিশুর পরিচয় মিলেছে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সোনা চুরি: নারী ইউপি সদস্যসহ ৩ জন জেল হাজতে

সোনা চুরি: নারী ইউপি সদস্যসহ ৩ জন জেল হাজতে

বাবা হত্যার বিচারের দাবিতে সড়কে দুই শিশু

বাবা হত্যার বিচারের দাবিতে সড়কে দুই শিশু

বাসের ধাক্কায় অটোরিকশাচালক নিহত

বাসের ধাক্কায় অটোরিকশাচালক নিহত

পেটে লাথি মেরে নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ: বাবা-ছেলে গ্রেফতার

পেটে লাথি মেরে নবজাতকের মৃত্যুর অভিযোগ: বাবা-ছেলে গ্রেফতার

রাতের আঁধারে ভাঙলো বীর প্রতীকের নামে করা সড়কের নামফলক

রাতের আঁধারে ভাঙলো বীর প্রতীকের নামে করা সড়কের নামফলক

পেটে লাথি মেরে গর্ভের সন্তানকে হত্যার অভিযোগ

পেটে লাথি মেরে গর্ভের সন্তানকে হত্যার অভিযোগ

মুক্তিযোদ্ধা জাকির হোসেনের চিরবিদায়

মুক্তিযোদ্ধা জাকির হোসেনের চিরবিদায়

'রমজানে টিসিবির মাধ্যমে নিত্যপণ্যের বাজার সহনীয় রাখা হবে'

'রমজানে টিসিবির মাধ্যমে নিত্যপণ্যের বাজার সহনীয় রাখা হবে'

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

‘পানি পড়া’ আনতে গিয়ে কলেজছাত্রী ধর্ষণের শিকার

‘পানি পড়া’ আনতে গিয়ে কলেজছাত্রী ধর্ষণের শিকার


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.