সেকশনস

সাতক্ষীরায় অস্ত্র ও বিস্ফোরক মামলায় সাহেদের বিচার শুরু

আপডেট : ২৮ জানুয়ারি ২০২১, ১৭:১৪

রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদ ওরফে সাহেদ করিমের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও বিস্ফোরক মামলায় চার্জ গঠন করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৮ জানুয়ারি) দুপুর ১২টার দিকে তাকে সাতক্ষীরা আদালতে হাজির করা হয়। শুনানি শেষে জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি সাক্ষ্য গ্রহণের দিন ধার্য করেন।

এরপর সাহেদকে আবারও সাতক্ষীরা কারাগারে নেওয়া হয়। আলোচিত এই অস্ত্র ও বিস্ফোরক মামলার সে একমাত্র আসামি।

এর আগে বুধবার (২৭ জানুয়ারি) তাকে জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমানের আদালতে হাজির করলে আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আবু বক্কর সিদ্দিকী সময় প্রার্থনা করেন। এজন্য বৃহস্পতিবার ফের তাকে আদালতে হাজির করে অভিযোগ গঠনের জন্য শুনানির দিন ধার্য করা হয়। এরপর তাকে নেওয়া হয় সাতক্ষীরা কারাগারে।

সাতক্ষীরা জজ আদালতের পিপি অ্যাডভোকেট আব্দুল লতিফ বলেন, ‘বৃহস্পতিবার দুপুরে সাতক্ষীরা জজ আদালতে তাকে হাজির করা হলে আদালত দুটি মামলায় তাকে আসামি করে অভিযোগ গঠন করেন। আদালতে কথা বলার সময় নানা ঘটনার অবতারণা করলে আদালতের সরকারি কৌঁসুলিদের আপত্তির মুখে তা থেকে বিরত হয় সাহেদ।

এদিকে, অভিযোগ গঠনে আপত্তি তুললেও আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট আবু বক্কর সিদ্দিকীর কথা আদালতে খারিজ হয়ে যায় এবং আগামী ২৩ ফেব্রুয়ারি সাক্ষ্যের জন্য আদালত দিন ধার্য করেছেন বলে জানান পিপি।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১৫ জুলাই ভোরে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার শাখরা কোমরপুর এলাকা দিয়ে ভারতে পালানোর চেষ্টা করে সাহেদ করিম। বোরখা পরিহিত সাহেদকে কোমরপুর বেইলি ব্রিজের নিচ থেকে র‌্যাব-৬-এর সদস্যরা আটক করেন। এ সময় সাহেদের কাছে থাকা একটি অবৈধ পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি, ২৩৩০ ভারতীয় রুপি, তিনটি ব্যাংকের এটিএম কার্ড ও মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

এ ঘটনায় র‌্যাবের ডিএডি নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে অস্ত্র ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে দেবহাটা থানায় রাতে সাহেদ করিম ও জনৈক বাচ্চু মাঝিকে আসামি করে একটি মামলা করেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা হিসেবে প্রথমে দেবহাটা থানার ওসি উজ্জ্বল কুমার মৈত্র এবং দুই দিন পর র‌্যাবের এসআই রেজাউল করিম নিযুক্ত হয়ে আসমিকে ১০ দিনের রিমান্ডে নেন। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ওই বছরের ২৪ আগস্ট বাচ্চু মাঝির হদিস না পেয়ে শুধু সাহেদকে অভিযুক্ত করে অস্ত্র ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। এ মামলায় কয়েকটি দিন অতিবাহিত হওয়ার পর বুধবার তাকে অভিযোগ গঠনের জন্য আদালতে আনা হয় বলে পিপি জানান।

/এমএএ/

সম্পর্কিত

মিনুসহ বিএনপির চার নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদন

মিনুসহ বিএনপির চার নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদন

৩০ দিনের মধ্যে হাজী সেলিমকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

৩০ দিনের মধ্যে হাজী সেলিমকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

৩০ দিনের মধ্যে হাজী সেলিমকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

৩০ দিনের মধ্যে হাজী সেলিমকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির নকল আসামিকে কেন দেওয়া হবে না: হাইকোর্ট

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির নকল আসামিকে কেন দেওয়া হবে না: হাইকোর্ট

হাজী সেলিমের ১০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ বহাল

হাজী সেলিমের ১০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ বহাল

ডিআইজি মিজানসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে আরও ২ জনের সাক্ষ্য

ডিআইজি মিজানসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে আরও ২ জনের সাক্ষ্য

ছোটভাই খুনের একদিন পর আমগাছে বড়ভাইয়ের ঝুলন্ত লাশ

ছোটভাই খুনের একদিন পর আমগাছে বড়ভাইয়ের ঝুলন্ত লাশ

সাকিব আল হাসান কালীপূজায় নাকি মসজিদে যাবে, এটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার: হাইকোর্ট

সাকিব আল হাসান কালীপূজায় নাকি মসজিদে যাবে, এটা তার ব্যক্তিগত ব্যাপার: হাইকোর্ট

গাজীপুরের সাবেক মেয়র মান্নানের সাজা কেন বৃদ্ধি করা হবে না

গাজীপুরের সাবেক মেয়র মান্নানের সাজা কেন বৃদ্ধি করা হবে না

কুষ্টিয়ায় স্ত্রীসহ শিক্ষকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

কুষ্টিয়ায় স্ত্রীসহ শিক্ষকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

অন্যের নামে ফেসবুক আইডি খুলছে কারা?

অন্যের নামে ফেসবুক আইডি খুলছে কারা?

সর্বশেষ

মিনুসহ বিএনপির চার নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদন

মিনুসহ বিএনপির চার নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদন

তামিমরা করোনা নেগেটিভ, বুধবার কুইন্সটাউন যাচ্ছে পুরো দল

তামিমরা করোনা নেগেটিভ, বুধবার কুইন্সটাউন যাচ্ছে পুরো দল

খোলাবাজারে চুনাপাথর বিক্রি করছে লাফার্জ, ব্যবসায়ী-শ্রমিকদের প্রতিবাদ

খোলাবাজারে চুনাপাথর বিক্রি করছে লাফার্জ, ব্যবসায়ী-শ্রমিকদের প্রতিবাদ

৩০ দিনের মধ্যে হাজী সেলিমকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

৩০ দিনের মধ্যে হাজী সেলিমকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

তালেবানের অংশগ্রহণে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার চাইছে যুক্তরাষ্ট্র

তালেবানের অংশগ্রহণে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার চাইছে যুক্তরাষ্ট্র

৩০ দিনের মধ্যে হাজী সেলিমকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

৩০ দিনের মধ্যে হাজী সেলিমকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

জেলার দাবিতে ১ কিলোমিটার দীর্ঘ মানববন্ধন

জেলার দাবিতে ১ কিলোমিটার দীর্ঘ মানববন্ধন

কোভ্যাক্সিন নিরাপদ, কার্যকারিতা জানতে চূড়ান্ত পরীক্ষা প্রয়োজন: ল্যানসেট

কোভ্যাক্সিন নিরাপদ, কার্যকারিতা জানতে চূড়ান্ত পরীক্ষা প্রয়োজন: ল্যানসেট

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির নকল আসামিকে কেন দেওয়া হবে না: হাইকোর্ট

স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির নকল আসামিকে কেন দেওয়া হবে না: হাইকোর্ট

মার্কিন সংবাদমাধ্যমে হ্যারি-মেগানের সাক্ষাৎকার: জরুরি বৈঠকে ব্রিটিশ রাজপরিবার

মার্কিন সংবাদমাধ্যমে হ্যারি-মেগানের সাক্ষাৎকার: জরুরি বৈঠকে ব্রিটিশ রাজপরিবার

টমেটো নদীতে ফেলছেন কৃষক!

টমেটো নদীতে ফেলছেন কৃষক!

হাজী সেলিমের ১০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ বহাল

হাজী সেলিমের ১০ বছরের কারাদণ্ডাদেশ বহাল

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মিনুসহ বিএনপির চার নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদন

মিনুসহ বিএনপির চার নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদন

ছোটভাই খুনের একদিন পর আমগাছে বড়ভাইয়ের ঝুলন্ত লাশ

ছোটভাই খুনের একদিন পর আমগাছে বড়ভাইয়ের ঝুলন্ত লাশ

কুষ্টিয়ায় স্ত্রীসহ শিক্ষকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

কুষ্টিয়ায় স্ত্রীসহ শিক্ষকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

সন্তানকে হত্যা করায় মায়ের যাবজ্জীবন

সন্তানকে হত্যা করায় মায়ের যাবজ্জীবন

তৃতীয় উপকূলীয় পানি সম্মেলন ২ অক্টোবর

তৃতীয় উপকূলীয় পানি সম্মেলন ২ অক্টোবর

১৩০০ ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক

১৩০০ ইয়াবাসহ দুই মাদক ব্যবসায়ী আটক

ভুয়া নিয়োগপত্রে কোটি কোটি টাকা হাতানো: বেরোবির ৩ কর্মকর্তা বরখাস্ত

ভুয়া নিয়োগপত্রে কোটি কোটি টাকা হাতানো: বেরোবির ৩ কর্মকর্তা বরখাস্ত

ভারতে একবছর জেলে থাকার পর ফিরলেন এক নারী

ভারতে একবছর জেলে থাকার পর ফিরলেন এক নারী


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.