X
সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ১০ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

চীন প্রশ্নে যে তিন ইস্যুকে প্রাধান্য দেবে বাইডেন প্রশাসন

আপডেট : ২৯ জানুয়ারি ২০২১, ২২:৪৫
image

মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিদায়ের পর যুক্তরাষ্ট্র-চীন উত্তেজনায় সাময়িক বিরতি আসবে বলে ধারণা করছিলেন অনেকে। তবে সেই সম্ভাবনা উড়িয়ে দিয়ে উত্তেজনা অব্যাহত রেখেছে দুই দেশই। যুক্তরাষ্ট্রে নতুন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শপথ নেওয়ার পরপরই তাইওয়ান দ্বীপের কাছে দুই ডজনেরও বেশি যুদ্ধবিমান উড়িয়েছে বেইজিং। নিজেদের সমুদ্রসীমায় বিদেশি নৌযান প্রবেশ করলে কোস্টগার্ডকে প্রয়োজনে গুলি চালানোর অনুমতি দিয়ে নতুন আইনও পাস করেছে তারা। অপরদিকে দক্ষিণ চীন সাগরে একটি এয়ারক্রাফট ক্যারিয়ার স্ট্রাইক গ্রুপ পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

এসব কর্মকাণ্ডকে বাইডেন প্রশাসন ও বেইজিংয়ের মধ্যে আসন্ন বিরোধের সূচনা পর্ব হিসেবে দেখছেন বিশ্লেষকরা। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন-এর এক বিশ্লেষণে বলা হয়েছে, দক্ষিণ চীন সাগর, তাইওয়ান সংকট ও জাপান-যুক্তরাষ্ট্রের মিত্রতা এ তিনটি ইস্যুকে কেন্দ্র করে সামনে যুক্তরাষ্ট্র-চীন বিরোধ আরও বাড়তে পারে।

দক্ষিণ চীন সাগর

দক্ষিণ চীন সাগরে প্রায় ১৩ লাখ বর্গমাইল অঞ্চল নিজেদের বলে দাবি করে আসছে চীন। ২০১৪ সাল থেকে ওই অঞ্চলে কৃত্রিম দ্বীপ তৈরি করে সেগুলোকে শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্রসহ অন্যান্য যুদ্ধাস্ত্র ব্যবহারের জন্য উপযোগী করেছে বেইজিং। ফিলিপাইন, ভিয়েতনাম, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ব্রুনেই ও তাইওয়ানসহ আরও অনেকেই অঞ্চলটির মালিকানা দাবি করে থাকে। যুক্তরাষ্ট্র সেখানে মালিকানা দাবি না করলেও দেশটির অবস্থান চীনের দাবির বিপক্ষে। ওই অঞ্চলটিতে মিত্রদের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে ওয়াশিংটন। নিয়মিত সেখানে মার্কিন যুদ্ধজাহাজ এবং সামরিক বিমান পাঠানো হয়। সম্প্রতি ওই অঞ্চলে দুই দেশেরই সামরিক মহড়া বেড়েছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, বাইডেন প্রশাসনের পক্ষে থেকে ওই অঞ্চলে মার্কিন সামরিক তৎপরতা কমানোর সম্ভাবনা কম। অবশ্য, গত বছর নির্বাচনি প্রচারণার সময় বাইডেন নিজেও তার ভাইস প্রেসিডেন্ট থাকা সময়ের কথা স্মরণ করিয়ে দেন। বলেন, সে সময় তিনি শি জিনপিংকে জানিয়েছিলেন যে মার্কিন সেনারা কীভাবে চীনের স্বঘোষিত অঞ্চলের পরিস্থিতি মোকাবিলা করবে। ‘আমি বলেছিলাম আমরা সেখান দিয়ে উড়ে যাবো, তবে মনোযোগ দিয়ে তাকাবো না’- বলেন বাইডেন।

তাইওয়ান ইস্যু

মার্কিন-চীন উত্তেজনার মধ্যে তাইওয়ান ইস্যু আবারও সামনে এসেছে। সম্প্রতি ওই অঞ্চলে সামরিক মহড়াও বেড়েছে। কয়েক দিন আগেও তাইওয়ানকে নিজের অংশ হিসেবে দাবি করে দ্বীপ অঞ্চলটির কাছে বেশ কয়েকটি যুদ্ধ ও বোমারু বিমান পাঠায় চীন। এর প্রতিক্রিয়ায় চীনকে তাইওয়ানের ওপর চাপ না দেওয়ার অনুরোধ করে ওয়াশিংটন। চীনের এ ধরনের কর্মকাণ্ডকে যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রশাসনের প্রতি বার্তা বলেই মনে করা হচ্ছে। কারণ, দশকের পর দশক ধরে তাইওয়ানের প্রতিই নিজেদের সমর্থন ব্যক্ত করে আসছে যুক্তরাষ্ট্র।

জো বাইডেন ক্ষমতায় আসার পরও মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা খাতে তারা সহযোগিতা দেবে।

তাছাড়া জো বাইডেন ক্ষমতা গ্রহণের তিন দিন পর মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র নেড প্রাইস তাইওয়ান ইস্যুতে বলেন, ‘আমরা বেইজিংকে তাইওয়ানের বিরুদ্ধে তার সামরিক, কূটনৈতিক ও অর্থনৈতিক চাপ বন্ধ করে অঞ্চলটিতে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে বসার আহ্বান জানিয়েছি।’

জাপান-যুক্তরাষ্ট্র মিত্রতা

জাপানের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের বন্ধুত্ব উল্লেখ করার মতো। টোকিওর কাছে ইয়োকোসুকা অঞ্চলে মার্কিন নৌবাহিনীর সপ্তম নৌবহরের সদর দফতর অবস্থিত। এটি ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চলে টহল দিয়ে থাকে। এছাড়া জাপান সেলফ ডিফেন্স ফোর্স বিশ্বের অন্যতম আধুনিক ও পেশাদার সেনাবাহিনীর প্রতিনিধিত্ব করে এবং জাপানি সেনারা নিয়মিত তাদের মার্কিন অংশীদারদের সঙ্গে প্রশিক্ষণে অংশ নেয়। অপরদিকে সেনকাকু দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে জাপানের সঙ্গে চীনের বিরোধ রয়েছে। ১৯৭২ সাল থেকে জাপান সেনকাকু দ্বীপপুঞ্জ পরিচালনা করে এলেও ওই অঞ্চলে নিজেদের সার্বভৌমত্ব দাবি করে থাকে বেইজিং। গত বছর চীন দ্বীপপুঞ্জের আশপাশে কোস্টগার্ড জাহাজ মোতায়েন করে।

আর ওই দ্বীপপুঞ্জ নিয়ে জাপানের দাবির পক্ষে বারবার সমর্থন দিয়ে আসছে ওয়াশিংটন। নতুন প্রশাসনও সে সমর্থন জোরালোভাবে ব্যক্ত করেছে। সম্প্রতি জাপানের প্রধানমন্ত্রী ইয়োশিহিদে সুগার সঙ্গে টেলিফোন আলাপে প্রেসিডেন্ট বাইডেন বলেছেন, পূর্ব চীন সাগরের বিতর্কিত সেনকাকু দ্বীপপুঞ্জসহ পুরো জাপানকে রক্ষার ব্যাপারে তার প্রশাসন প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। নতুন প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিনও জাপানি প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে জানান, পূর্ব চীন সাগরের এ দ্বীপপুঞ্জ রক্ষায় মার্কিন-জাপান নিরাপত্তা চুক্তি অনুসরণ করবে যুক্তরাষ্ট্র। ওই চুক্তি অনুসারে, সেনকাকু দ্বীপপুঞ্জকে কেন্দ্র করে যদি জাপান কারও সঙ্গে যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে, তবে ওয়াশিংটনও টোকিওর পক্ষে যুদ্ধ করবে।

/এফইউ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

তালেবান নেতা আখুন্দজাদাকে নিয়ে যা বললেন ট্রাম্প

তালেবান নেতা আখুন্দজাদাকে নিয়ে যা বললেন ট্রাম্প

টিকা নিয়ে উপহাস করা মার্কিনির করোনায় মৃত্যু

টিকা নিয়ে উপহাস করা মার্কিনির করোনায় মৃত্যু

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

চীনে আগুনে পুড়ে ১৪ জনের মৃত্যু

চীনে আগুনে পুড়ে ১৪ জনের মৃত্যু

পাথরের ধাক্কায় বিধ্বস্ত সেতু, ৯ পর্যটক নিহত

আপডেট : ২৬ জুলাই ২০২১, ০০:৪৯
image

ভারতের হিমাচল রাজ্যের সাংলা উপত্যকায় ব্যাপক এক ভূমিধস সেতুতে আঘাত হানার ঘটনায় নয় পর্যটক নিহত এবং আরও বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। ছড়িয়ে পড়া এক ভিডিওতে দেখা গেছে, পাহাড় থেকে গড়িয়ে পড়া পাথরে বিধ্বস্ত হয়ে গেছে সেতুর একটি অংশ নদীতে তলিয়ে যায়। স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছে, শুক্রবার এই ঘটনায় আক্রান্ত ১১ জনই পর্যটক। তাদের গাড়িতে গড়িয়ে পড়া পাথর আঘাত হানলে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

হিমাচলের কিন্নাউরের পুলিশ সুপার সাজু রাম রানা জানান, আহতদের দ্রুত হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া ঘটনাস্থলে গেছেন চিকিৎসকদের একটি দল।

ভিডিওতে দেখা গেছে, পাহাড় থেকে গড়িয়ে পড়া পাথর নিচে থাকা গাড়িতে আঘাত হানছে। আর ধূলার মেঘ ছড়িয়ে পড়ছে।

দুর্ঘটনায় প্রাণহানিতে শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং হিমাচলের মুখ্যমন্ত্রী জয়রাম ঠাকুর। এক টুইট বার্তায় প্রধানমন্ত্রী জানান, দুর্ঘটনায় আহতদের চিকিৎসায় সব ধরনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। নিহতদের প্রত্যেকের পরিবারকে দুই লাখ আর আহতদের ৫০ হাজার রুপি করে সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দেন তিনি।

ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে সম্প্রতি হিমাচল প্রদেশে ভূমিধসের সতর্কতা জারি করে আবহাওয়া দফতর। গত কয়েক বছর ধরেই ভারতের পার্বত্য রাজ্যটিতে নিয়মিত ভূমিধসের ঘটনা ঘটছে।

 

/জেজে/

সম্পর্কিত

তিন মাসে ২ বার করোনা আক্রান্ত, হতাশায় দম্পতির আত্মহত্যা

তিন মাসে ২ বার করোনা আক্রান্ত, হতাশায় দম্পতির আত্মহত্যা

মহারাষ্ট্রে টানা ভারী বৃষ্টিতে বন্যা-ভূমিধস, জীবিতদের খোঁজে অভিযান

মহারাষ্ট্রে টানা ভারী বৃষ্টিতে বন্যা-ভূমিধস, জীবিতদের খোঁজে অভিযান

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রবল বর্ষণে মহারাষ্ট্রে মৃত বেড়ে ১১০

প্রবল বর্ষণে মহারাষ্ট্রে মৃত বেড়ে ১১০

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে দুই রাজনৈতিক কর্মী নিহত

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২২:৩২

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত আজাদ কাশ্মিরে দুই পক্ষের গোলাগুলিতে দুজন রাজনৈতিক কর্মী নিহত হয়েছে। তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ আঞ্চলিক প্রাদেশিক নির্বাচনের দিন পাকিস্তানের দুটি প্রধান রাজনৈতিক কর্মীদের মধ্যে রবিবার এই সংঘর্ষ হয়। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এখবর জানিয়েছে।

পুলিশ কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাবির টেলিফোনে রয়টার্সকে জানান, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের রাজনৈতিক দল তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) ও বিরোধী দল পাকিস্তান পিপল’স পার্টি (পিপিপি) একটি আসনে সংঘাতে জড়িয়ে পড়ে। এতে ওই দুই রাজনৈতিক কর্মী নিহত হয়।

নিহত দুজনের রাজনৈতিক পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ভোটে নিরাপত্তা নিশ্চিত দায়িত্বে থাকা একটি টিমের চার সেনা নিহত হয়েছে। তাদের বহনকারী গাড়ি পাহাড়ি এলাকার খাদে পড়ে দুর্ঘটনায় তাদের মৃত্যু হয়। আরও তিনজন আহত হয়েছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, সাধারণত আজাদ কাশ্মিরে ক্ষমতাসীনরাই জয়ী হয়। তবে তবে এবার নির্বাচনের প্রতিদ্বন্দ্বিতা আগের চেয়ে বেশি।

পাকিস্তানের প্রধান তিনটি রাজনৈতিক দলের সাত শতাধিক প্রার্থী নির্বাচনে লড়ছেন। স্থানীয় দুটি দল ৪৫টি আসনে লড়াই করছে।  

 

/এএ/

সম্পর্কিত

বিমান হামলায় ২৬২ তালেবান যোদ্ধাকে হত্যার দাবি আফগানিস্তানের

বিমান হামলায় ২৬২ তালেবান যোদ্ধাকে হত্যার দাবি আফগানিস্তানের

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

তিন মাসে ২ বার করোনা আক্রান্ত, হতাশায় দম্পতির আত্মহত্যা

তিন মাসে ২ বার করোনা আক্রান্ত, হতাশায় দম্পতির আত্মহত্যা

মহারাষ্ট্রে টানা ভারী বৃষ্টিতে বন্যা-ভূমিধস, জীবিতদের খোঁজে অভিযান

মহারাষ্ট্রে টানা ভারী বৃষ্টিতে বন্যা-ভূমিধস, জীবিতদের খোঁজে অভিযান

সম্প্রচারের আগে কাদা মেখে বিতর্কে জার্মান সাংবাদিক

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২২:০১

জার্মানির এক টেলিভিশন সাংবাদিক বন্যা কবলিত এলাকা থেকে সরাসরি সম্প্রচারে যাওয়ার আগে কাদা মেখে বিতর্কের মুখে পড়েছেন। কাদা মাখার ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়ে পড়লে ক্ষমা চেয়েছেন তিনি। জার্মান সংবাদমাধ্যম আরটিএল ঘটনাটি জানতে পেরে তাকে বরখাস্ত করেছে।

ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা গেছে, ৩৯ বছর বয়সের সাংবাদিক সুসানা ওহলেন জার্মানির বন্যা বিধ্বস্ত একটি রয়েছেন। বন্যার উদ্ধার তৎপরতায় অংশগ্রহণের সত্যতা ফুটিয়ে তুলতে তাকে মুখ ও কাপড়ে কাদা মাখতে দেখা যায়।

;

আরটিএল-এর ওয়েবসাইটে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। প্রতিবেদনটির বিষয়বস্তু ছিল, আরটিএল উপস্থাপক উদ্ধার অভিযানে অংশগ্রহণ করেছেন। কাদা মাখার ঘটনা প্রকাশের পর প্রতিবেদনটি সরিয়ে ফেলা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ সুসানকে বরখাস্ত করেছে। ২০০৮ সাল থেকে তিনি এই টেলিভিশন চ্যানেলে কাজ করে আসছেন।

কাদা মেখে সুসান ওহলেনের প্রতিবেদন:

/এএ/

সম্পর্কিত

ঈদ বার্তায় এরদোয়ানের ‘ঘুমিয়ে পড়া’র ভিডিও ভাইরাল

ঈদ বার্তায় এরদোয়ানের ‘ঘুমিয়ে পড়া’র ভিডিও ভাইরাল

‘অপ্রতিরোধ্য হামলা’ চালানোর সক্ষমতা রয়েছে রাশিয়ার: পুতিন

‘অপ্রতিরোধ্য হামলা’ চালানোর সক্ষমতা রয়েছে রাশিয়ার: পুতিন

যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

শীতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট আসবে! আশঙ্কা ফরাসি বিশেষজ্ঞের

শীতে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট আসবে! আশঙ্কা ফরাসি বিশেষজ্ঞের

ঈদ বার্তায় এরদোয়ানের ‘ঘুমিয়ে পড়া’র ভিডিও ভাইরাল

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২১:২৬

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ানের পক্ষ থেকে ক্ষমতাসীন জাস্টিস অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টির সদস্যদের ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানানোর ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। তবে এই ভাইরাল হওয়ার পেছনে ঈদ বার্তার বক্তব্যের তেমন কোনও অবদান নেই। নেটিজেনদের আগ্রহের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে, শুভেচ্ছা বার্তার বক্তব্য দেওয়ার মাঝখানেই এরদোয়ানের ঝিমুনি।

টুইটারে ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে দেখা গেছে, শুভেচ্ছা বার্তা বক্তব্য দেওয়ার মাঝখানে কয়েক সেকেন্ড থেমে যান এবং তার চোখ বুজে যায়। পরে আবার দলের সদস্যদের প্রতি শুভেচ্ছা জানানো অব্যাহত রাখেন।

অনেকেই বলছেন, এরদোয়ানের এই ভিডিওটি লাইভ প্রচার হয়নি। পূর্ব রেকর্ডকৃত বক্তব্য। তাহলে কোনও সম্পাদনার পরও এরদোয়ানের ঝিমুনির অংশটুকু কীভাবে শুভেচ্ছা বার্তায় রয়ে গেলো।

/এএ/

সম্পর্কিত

সম্প্রচারের আগে কাদা মেখে বিতর্কে জার্মান সাংবাদিক

সম্প্রচারের আগে কাদা মেখে বিতর্কে জার্মান সাংবাদিক

‘অপ্রতিরোধ্য হামলা’ চালানোর সক্ষমতা রয়েছে রাশিয়ার: পুতিন

‘অপ্রতিরোধ্য হামলা’ চালানোর সক্ষমতা রয়েছে রাশিয়ার: পুতিন

যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

যুক্তরাজ্যে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট শনাক্ত

সিরিয়ায় হামলায় তুর্কি সেনা নিহত, আঙ্কারার হুঁশিয়ারি

সিরিয়ায় হামলায় তুর্কি সেনা নিহত, আঙ্কারার হুঁশিয়ারি

তালেবান নেতা আখুন্দজাদাকে নিয়ে যা বললেন ট্রাম্প

আপডেট : ২৫ জুলাই ২০২১, ২১:০৮

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট অ্যারিজোনা অঙ্গরাজ্যে আয়োজিত এক সমাবেশে কথা বলেছেন তালেবানের সর্বোচ্চ নেতা হিবাতুল্লাহ আখুন্দজাদাকে নিয়ে। ‘টার্নিং পয়েন্ট ইউএসএ গ্যাদারিং’ নামের এই সমাবেশে তালেবান নেতার সঙ্গে এক বৈঠকের স্মৃতিচারণ করেন তিনি।

ট্রাম্প বলেন, ‘আমি তালেবান নেতাকে বলি, আমি নেতাদের সঙ্গে কথা বলি’। এসময় আখুন্দজাদার নাম মনে করতে না পারায় থেমে যান ট্রাম্প। পরে বলেন, 'আসুন তাকে মোহাম্মদ নামেই ডাকি'।

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের বিষয়টি ইঙ্গিত করে ট্রাম্প বলেন, আমি মোহাম্মদকে বলি, আমরা চলে যাচ্ছি।

ভাষণের এক পর্যায়ে আখুন্দজাদাকে নকল করার চেষ্টা করেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট। ট্রাম্প ঘোঁৎ ঘোঁৎ করা শুরু করেন। বলেন, ‘তিনি কঠিন প্রকৃতির লোক’। এসময় উপস্থিত মানুষের মধ্যে হাসির রোল পড়ে যায়।

ট্রাম্প আরও বলেন, খুব একটা সামাজিক না... তারা শুধু যুদ্ধ করতে জানে।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরে আফগানিস্তানের বিভিন্ন এলাকার দখল নিয়েছে তালেবান। মার্কিন ও ন্যাটো ৯৫ শতাংশ সেনা দেশটি ছেড়ে যাওয়ার সুযোগে এই সামরিক অগ্রগতি অর্জন করেছে সশস্ত্র গোষ্ঠীটি। ৩১ আগস্ট মার্কিন সেনা প্রত্যাহার সম্পূর্ণ হবে। সূত্র: হারেৎজ

/এএ/

সম্পর্কিত

বিমান হামলায় ২৬২ তালেবান যোদ্ধাকে হত্যার দাবি আফগানিস্তানের

বিমান হামলায় ২৬২ তালেবান যোদ্ধাকে হত্যার দাবি আফগানিস্তানের

টিকা নিয়ে উপহাস করা মার্কিনির করোনায় মৃত্যু

টিকা নিয়ে উপহাস করা মার্কিনির করোনায় মৃত্যু

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

সর্বশেষ

২ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা

২ পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা

পাথরের ধাক্কায় বিধ্বস্ত সেতু, ৯ পর্যটক নিহত

পাথরের ধাক্কায় বিধ্বস্ত সেতু, ৯ পর্যটক নিহত

কবিরাজের পানিপড়া খেয়ে নিস্তেজ শিশুকে টয়লেটে ফেলে দেন মা

কবিরাজের পানিপড়া খেয়ে নিস্তেজ শিশুকে টয়লেটে ফেলে দেন মা

ভারতের কাছে টি-টোয়েন্টিতেও হারে শুরু শ্রীলঙ্কার

ভারতের কাছে টি-টোয়েন্টিতেও হারে শুরু শ্রীলঙ্কার

পুড়ে গেছে ৩৬টি বসতঘর, বেঁচে আছে কবুতরগুলো

পুড়ে গেছে ৩৬টি বসতঘর, বেঁচে আছে কবুতরগুলো

অক্সিজেন কারখানায় অভিযানে শ্রমিকদের মারধরের অভিযোগ

অক্সিজেন কারখানায় অভিযানে শ্রমিকদের মারধরের অভিযোগ

মেয়র আইভীর মায়ের মৃত্যু

মেয়র আইভীর মায়ের মৃত্যু

ভালো খেলতে পারাকেই বড় করে দেখছেন সৌম্য 

ভালো খেলতে পারাকেই বড় করে দেখছেন সৌম্য 

স্কুলশিক্ষার্থীকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ

স্কুলশিক্ষার্থীকে আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ

১ কোটি ১৮ লাখের বেশি ভ্যাকসিন দেওয়া শেষ

১ কোটি ১৮ লাখের বেশি ভ্যাকসিন দেওয়া শেষ

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে দুই রাজনৈতিক কর্মী নিহত

পাকিস্তান নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে দুই রাজনৈতিক কর্মী নিহত

কুমিল্লায় একদিনে রেকর্ড ৭০১ শনাক্ত, মৃত্যু ১৫

কুমিল্লায় একদিনে রেকর্ড ৭০১ শনাক্ত, মৃত্যু ১৫

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

তালেবান নেতা আখুন্দজাদাকে নিয়ে যা বললেন ট্রাম্প

তালেবান নেতা আখুন্দজাদাকে নিয়ে যা বললেন ট্রাম্প

টিকা নিয়ে উপহাস করা মার্কিনির করোনায় মৃত্যু

টিকা নিয়ে উপহাস করা মার্কিনির করোনায় মৃত্যু

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

ইরাকের মাটিতে মার্কিন সেনার প্রয়োজন নেই: প্রধানমন্ত্রী আল-খাদিমি

চীনে আগুনে পুড়ে ১৪ জনের মৃত্যু

চীনে আগুনে পুড়ে ১৪ জনের মৃত্যু

১৫৫ কিলোমিটার বেগে চীনে আঘাত হানছে টাইফুন 'ইন-ফা'

১৫৫ কিলোমিটার বেগে চীনে আঘাত হানছে টাইফুন 'ইন-ফা'

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

তালেবানের উত্থান, আফগানিস্তানে কারফিউ জারি

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন সংস্থার বিরুদ্ধে চীনের পাল্টা নিষেধাজ্ঞা

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

চীনকে মাথায় রেখে ভারত আসছেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী

© 2021 Bangla Tribune