X
বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, ১ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

‘সবাই মিলে সুরক্ষিত থাকি’

আপডেট : ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২০:১০

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) কনভেনশন হল, হোটেল ইন্টারকন্টিনেটালের অপর দিকে। বিএসএমএমইউয়ের টিকাদান কর্মসূচি চলছে এখানেই। গত ৭ দিন ধরে দেশে চালু হওয়া করোনা টিকাদান কর্মসূচিতে এই কেন্দ্রেই সবচেয়ে বেশি মানুষ টিকা নিয়েছেন।

ভবনটি নতুন বলে এখনও চারিদিক ঝকঝকে। ব্যবস্থাপনাও ভালো, অন্তত যারা টিকা নিয়েছেন এখানে তারাই বলছেন এ কথা। এখানে রয়েছে টিকা দেবার জন্য ৮টি বুথ।

সেরকম একটি বুথেই টিকা নিলেন গোপীবাগ থেকে আসা নুরুন নাহার বেগম, বয়স ৭৩। হাড় ক্ষয়ের সমস্যার কারণে গত ১৬ বছর ধরেই হুইল চেয়ারে করে চলাফেরা তার। ডায়াবেটিস-উচ্চরক্তচাপ সবই রয়েছে। তবে সেসবই কন্ট্রোলে তার।

রেজিস্ট্রেশন করেছেন গত ১০ ফেব্রুয়ারি, এরপর ক্ষুদে বার্তা পেয়ে আজ ( ১৪ ফেব্রুয়ারি) এসেছেন টিকা নিতে।

মা নুরুন নাহার বেগমকে নিয়ে এসেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্জারি বিভাগের চিকিৎসক সৈয়দ মোহাম্মদ তৌহিদ। তিনি বলেন, মায়ের যে বয়স, রয়েছে অন্যান্য সমস্যাও। তাই অনেক বেশি ঝুঁকিপূর্ণ, সেজন্যই টিকা দিয়ে নিলাম। অনেকেই ভয় পাচ্ছেন, কিন্তু আমার পরিচিত কারও কোনও সিভিয়ার সমস্যার কথা শুনিনি, আসলে হয়নি। তাই মাকে টিকা দিতে নিয়ে এলাম।   

এত কষ্ট করে কেন টিকা দিতে এলেন জানতে চাইলে নুরুন নাহার বলেন, ছোটবেলায় ছেলেমেয়েদের টিকা দিয়েছিলাম তাদেরকে সুরক্ষিত রাখার জন্য, এবার আমি নিলাম-সেটাও সুরক্ষিত থাকার জন্য। কতদিন ধরেইতো টিকা নিয়ে কত কথা শুনছি। কিন্তু আমি সবাইকে বলতে চাই, আমি এই বয়সে হুইল চেয়ারে করে বসে টিকা নিতে এসেসি সবাই মিলে সুরক্ষিত থাকার জন্য।

কারও সুযোগ থাকলে কেউ যেন টিকা নিতে অবহেলা করবেন না, সবাই মিলে টিকা নিলে সবাই মিলেই সুরক্ষিত থাকবো-আর এটাই করোনা থেকে বাঁচার অন্যতম পথ। তবে সেই সঙ্গে মাস্ক পরা থেকে শুরু করে মানতে হবে অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি।

টিকা নেওয়ার সময় কোনও অসুবিধা হয়েছে কীনা জানতে চাইলে নুরুন নাহার বেগম বলেন, একদমই টের পাইনি, টিকা দেওয়া হয়েছে প্রায় ২০ মিনিট পার হয়ে গেল, কিন্তু সব স্বাভাবিক, কিছুই মনে হচ্ছে না।

৭৭ বছরের মোহাম্মদ আবুল হাসেম আর ৭৩ বছরের রোকেয়া বেগমকে নিয়ে এসেছেন ছেলে শিবলি নোমান।

তিনি বলেন, অনেক আলোচনা হয়েছে টিকা নিয়ে। এখন আর ভয় নেই, টিকা দেওয়াটাই এখন প্রধান কাজ। আর টিকা দেবার পর মানসিকভাবে বলিয়ান হবো-এটাই এখন মোদ্দা কথা।

এক হাতে লাঠি আরেক হাতে ধরা ছেলের হাত। ধীর পায়ে হেঁটে এখানে আসেন ৭৫ বছরের আয়েশা মজুমদার।

এই সেন্টারে টিকা নিতে এসেছেন আরও অনেকেই। তারা বলছেন, টিকা নিয়ে প্রথম দিকে একটু ভয় কাজ করছিল, কিন্তু যখন দেখছি সবাই নিচ্ছে, তখন আর ভয় রেখে কী হবে। এখন যত দ্রুত সম্ভব টিকা নিয়ে নিজেকে সুরক্ষিত থাকতে হবে। আর সবাই মিলে যদি সুরক্ষিত থাকি তাহলেই আমরা রক্ষা পাবো-বলছেন তারা।

 

/জেএ/এফএএন/

সম্পর্কিত

গণমাধ্যম ও জনস্বাস্থ্যবিদদের একহাত নিলেন স্বাস্থ্যের ডিজি

গণমাধ্যম ও জনস্বাস্থ্যবিদদের একহাত নিলেন স্বাস্থ্যের ডিজি

করোনা নেগেটিভ হওয়ার কতদিন পর টিকা, জানালো স্বাস্থ্য অধিদফতর

করোনা নেগেটিভ হওয়ার কতদিন পর টিকা, জানালো স্বাস্থ্য অধিদফতর

রোজা রেখে টিকা নেওয়াতে বাধা নেই: স্বাস্থ্য অধিদফতর

রোজা রেখে টিকা নেওয়াতে বাধা নেই: স্বাস্থ্য অধিদফতর

বর্জ্যের সাগরে ডুবে আছে হাসপাতাল!

বর্জ্যের সাগরে ডুবে আছে হাসপাতাল!

সারাদেশের জন্য অপেক্ষা করছে করোনার বিপদ

সারাদেশের জন্য অপেক্ষা করছে করোনার বিপদ

সব হাসপাতাল খোলা থাকবে

সব হাসপাতাল খোলা থাকবে

দুই ডোজ মিলিয়ে ৬৪ লাখ টিকা দেওয়া শেষ

দুই ডোজ মিলিয়ে ৬৪ লাখ টিকা দেওয়া শেষ

জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা ব্যবহার স্থগিত করলো যুক্তরাষ্ট্র

জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা ব্যবহার স্থগিত করলো যুক্তরাষ্ট্র

২৪ ঘণ্টায় আরও ৬৯ মৃত্যু, শনাক্ত ৬০২৮

২৪ ঘণ্টায় আরও ৬৯ মৃত্যু, শনাক্ত ৬০২৮

করোনা বিষয়ে সচেতনতা ও টিকাদানে সহায়তা করবে ফেসবুক

করোনা বিষয়ে সচেতনতা ও টিকাদানে সহায়তা করবে ফেসবুক

সর্বশেষ

ট্রাকচাপায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

ট্রাকচাপায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

কুম্ভ মেলায় অংশ নিয়ে ভারতে করোনায় আক্রান্ত হাজার হাজার মানুষ

কুম্ভ মেলায় অংশ নিয়ে ভারতে করোনায় আক্রান্ত হাজার হাজার মানুষ

করোনা মোকাবিলায় একশ’ কোটি ডলার দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

করোনা মোকাবিলায় একশ’ কোটি ডলার দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক

মতিন খসরুর দাফন হবে গ্রামের বাড়ি কুমিল্লায়

মতিন খসরুর দাফন হবে গ্রামের বাড়ি কুমিল্লায়

ফেরানো গেলো না ইফতার বেচাকেনা (ফটো স্টোরি)

ফেরানো গেলো না ইফতার বেচাকেনা (ফটো স্টোরি)

লকডাউনে দোকান খোলায় জরিমানা ৩২ হাজার টাকা

লকডাউনে দোকান খোলায় জরিমানা ৩২ হাজার টাকা

আবদুল মতিন খসরুর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

আবদুল মতিন খসরুর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক

করোনায় টাঙ্গাইল বিএনপি’র সাবেক সেক্রেটারি বুলবুলের মৃত্যু

করোনায় টাঙ্গাইল বিএনপি’র সাবেক সেক্রেটারি বুলবুলের মৃত্যু

আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় খসরুর অবদান উজ্জ্বল হয়ে থাকবে: রাষ্ট্রপতি

আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় খসরুর অবদান উজ্জ্বল হয়ে থাকবে: রাষ্ট্রপতি

ব্রহ্মপুত্রে গোসলে নেমে ৩ শিশুর মৃত্যু

ব্রহ্মপুত্রে গোসলে নেমে ৩ শিশুর মৃত্যু

সন্তানকে ব্রিজ থেকে ফেলে দিলেন মা!

সন্তানকে ব্রিজ থেকে ফেলে দিলেন মা!

আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় খসরুর অসামান্য অবদান রয়েছে: প্রধান বিচারপতি

আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় খসরুর অসামান্য অবদান রয়েছে: প্রধান বিচারপতি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘সর্বাত্মক বিধিনিষেধে’ সংক্রমণ কমবে না, দাবি বিশেষজ্ঞদের

‘সর্বাত্মক বিধিনিষেধে’ সংক্রমণ কমবে না, দাবি বিশেষজ্ঞদের

অক্সিজেন নিয়ে চলছে কাড়াকাড়ি!

অক্সিজেন নিয়ে চলছে কাড়াকাড়ি!

‘মহামারিকালে দেশে অত্যাবশ্যকীয় স্বাস্থ্যসেবায় ভোগান্তি’

‘মহামারিকালে দেশে অত্যাবশ্যকীয় স্বাস্থ্যসেবায় ভোগান্তি’

অ্যাম্বুলেন্সের লাইন আর স্বজনদের কান্না!

অ্যাম্বুলেন্সের লাইন আর স্বজনদের কান্না!

বয়স্কদের মৃত্যু বাড়ছে, তরুণরা গণহারে আক্রান্ত হচ্ছে

বয়স্কদের মৃত্যু বাড়ছে, তরুণরা গণহারে আক্রান্ত হচ্ছে

রাজধানীর দুই এলাকায় সর্বাধিক সংক্রমণ

রাজধানীর দুই এলাকায় সর্বাধিক সংক্রমণ

করোনামুক্ত মানেই ‘মুক্তি’ নয়

করোনামুক্ত মানেই ‘মুক্তি’ নয়

রিপোর্ট আসতেই সপ্তাহ পার!

রিপোর্ট আসতেই সপ্তাহ পার!

করোনা রোগীদের জন্য বিএসএমএমইউ’র ফিভার ক্লিনিকে ১০০ বেড চালু

করোনা রোগীদের জন্য বিএসএমএমইউ’র ফিভার ক্লিনিকে ১০০ বেড চালু

করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন ডা. জাফরুল্লাহ

করোনা টিকার দ্বিতীয় ডোজ নিলেন ডা. জাফরুল্লাহ

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune