X
বৃহস্পতিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২১, ২ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

তিন পার্বত্য জেলায় অনাকাঙ্ক্ষিত রক্তের বন্যা বইছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আপডেট : ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৭:৪২

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, শান্তিচুক্তি অনুযায়ী তিন পার্বত্য জেলা থেকে সেনাবাহিনীর সদস্যরা অনেক ক্যাম্প ছেড়ে চলে এসেছেন। সেসব স্থানে আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় আধুনিক পুলিশ সদস্যদের মোতায়েনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। কারণ, এরইমধ্যে তিন পার্বত্য জেলায় অনাকাঙ্ক্ষিতভাবে রক্তের বন্যা বয়ে চলেছে।

রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে জেএসএস চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা ওরফে সন্তু লারমার সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘তিন পার্বত্য চট্টগ্রামের সার্বিক পরিস্থিতি জানার জন্য একজন অতিরিক্ত সচিবের মাধ্যমে বিস্তারিত প্রতিবেদন এনেছি। তিনি সেখানকার সকল পক্ষের সঙ্গে কথা বলেছেন এবং সেখানকার আইনশৃঙ্খলাসহ সার্বিক বিষয়ে কিছু সুপারিশ করেছেন।’

তিনি বলেন, ‘পার্বত্য চট্টগ্রাম নিয়ে যে শান্তিচুক্তি হয়েছিল, সেগুলোর অনেকই বাস্তবায়িত হয়েছে। আবার কিছু কিছু বাস্তবায়িত হয়নি। সেসব বিষয় নিয়ে সন্তু লারমার সঙ্গে কথা বলেছি। তার সঙ্গে চাঁদাবাজি, অস্ত্রবাজি এবং খুন-খারাবিসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেছি। আমাদের দায়িত্ব হচ্ছে সেখানে শান্তি-শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনা। সেজন্য খালি সেনা ক্যাম্পগুলোসহ যেখানে প্রয়োজন, সেখানেই অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হবে।’

সন্তু লারমার সঙ্গে বৈঠক শেষে দুপুর আড়াইটার দিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তার সম্মেলন কক্ষে র‌্যাবের শহীদদের আত্মত্যাগ স্মরণে নির্মিত ‘মৃত্যুঞ্জয়ী সাহসে মানুষের পাশে’ বিজ্ঞাপনচিত্র এবং অনসাইট আইডেন্টিফিকেশন অ্যান্ড ভেরিফিকেশন সিস্টেম (ওআইভিএস) উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, স্বরাষ্ট্র সচিব মোস্তফা কামাল উদ্দীন, আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদ, র‌্যাবের ডিজি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল তোফায়েল মোস্তফা সরোয়ার।

র‌্যাবের এই সফটওয়্যার উদ্বোধন শেষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘র‌্যাব দক্ষতার সঙ্গে মানুষের আস্থার জায়গাটি দখল করে নিয়েছে। জলদস্যু, জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের দমনেও দক্ষতার পরিচয় দিয়েছে তারা।’ তিনি বলেন, ‘মানুষের মধ্যে একটি ভুল ধারণা আছে যে বিভিন্ন বন্দুকযুদ্ধে শুধু অপরাধীরা হতাহত হয়। এটা ঠিক নয়। অপরাধীরা যখন চলাচল করে তখন তারা অস্ত্র নিয়ে চলে। তাদের যখন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা চ্যালেঞ্জ করেন, তখন তারা ফায়ার করে। আত্মরক্ষার্থে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীও ফায়ার করে। এসব ঘটনায় র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অনেক  সদস্যও হতাহত হন। এ পর্যন্ত র‌্যাবের ২৮ জন নিহত হয়েছেন। পাঁচ শতাধিক সদস্য আহত ও পঙ্গু হয়েছেন।

 

 

/জেইউ/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

গাইবান্ধার কারারক্ষী গ্রেফতার

গাইবান্ধার কারারক্ষী গ্রেফতার

সিটি স্ক্যান করাতে হাসপাতালে খালেদা জিয়া

সিটি স্ক্যান করাতে হাসপাতালে খালেদা জিয়া

টেকনাফ সীমান্তে ৪ লাখ ইয়াবা উদ্ধার

টেকনাফ সীমান্তে ৪ লাখ ইয়াবা উদ্ধার

বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ আটক ২

বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ আটক ২

ডিএসসিসির ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ১১ মামলা

ডিএসসিসির ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ১১ মামলা

ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেলেন ২৩৬০ জন

ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেলেন ২৩৬০ জন

নগরবাসীর প্রতি ডিএমপি’র আহ্বান

নগরবাসীর প্রতি ডিএমপি’র আহ্বান

একবছরে পুলিশে আইজিপির যত উদ্যোগ

একবছরে পুলিশে আইজিপির যত উদ্যোগ

নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের বিরুদ্ধে ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগ

নারায়ণগঞ্জ ক্লাবের বিরুদ্ধে ভ্যাট ফাঁকির অভিযোগ

পুকুরে পাওয়া গেলো শুটারগান

পুকুরে পাওয়া গেলো শুটারগান

সর্বশেষ

লকডাউনে পুলিশের সামনেই গাদাগাদি করে যাত্রী তোলে অ্যাম্বুলেন্স!

লকডাউনে পুলিশের সামনেই গাদাগাদি করে যাত্রী তোলে অ্যাম্বুলেন্স!

বিনামূল্যে অক্সিজেন পাবেন বরিশালের করোনা রোগীরা

বিনামূল্যে অক্সিজেন পাবেন বরিশালের করোনা রোগীরা

গাইবান্ধার কারারক্ষী গ্রেফতার

গাইবান্ধার কারারক্ষী গ্রেফতার

ইরানে বাংলাদেশের দ্রুততম মানবের অন্যরকম অভিজ্ঞতা

ইরানে বাংলাদেশের দ্রুততম মানবের অন্যরকম অভিজ্ঞতা

কানাডায় স্থায়ী হওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন ৯০ হাজার বিদেশি

কানাডায় স্থায়ী হওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন ৯০ হাজার বিদেশি

সিটি স্ক্যান করাতে হাসপাতালে খালেদা জিয়া

সিটি স্ক্যান করাতে হাসপাতালে খালেদা জিয়া

টেকনাফ সীমান্তে ৪ লাখ ইয়াবা উদ্ধার

টেকনাফ সীমান্তে ৪ লাখ ইয়াবা উদ্ধার

চিকিৎসায় সহযোগিতার আহ্বান শাবির সাবেক শিক্ষার্থী সুব্রতর

চিকিৎসায় সহযোগিতার আহ্বান শাবির সাবেক শিক্ষার্থী সুব্রতর

বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ আটক ২

বিপুল পরিমাণ গাঁজাসহ আটক ২

ডিএসসিসির ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ১১ মামলা

ডিএসসিসির ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে ১১ মামলা

রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করলো যুক্তরাষ্ট্র

রাশিয়ার বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা জারি করলো যুক্তরাষ্ট্র

ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেলেন ২৩৬০ জন

ভার্চুয়াল কোর্টে জামিন পেলেন ২৩৬০ জন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

একদিনে দ্বিতীয় ডোজ নিলেন প্রায় ২ লাখ মানুষ

একদিনে দ্বিতীয় ডোজ নিলেন প্রায় ২ লাখ মানুষ

গত ১৫ দিনেই এক হাজার মৃত্যু

গত ১৫ দিনেই এক হাজার মৃত্যু

সরবরাহ কম, তাই চালের দাম বেশি: অর্থমন্ত্রী

সরবরাহ কম, তাই চালের দাম বেশি: অর্থমন্ত্রী

‘করোনা ম্যানেজমেন্ট গাইডলাইন তৈরি করা হবে’

‘করোনা ম্যানেজমেন্ট গাইডলাইন তৈরি করা হবে’

মৃত্যু ১০ হাজার ছাড়ালো, একদিনে ৯৪

মৃত্যু ১০ হাজার ছাড়ালো, একদিনে ৯৪

কঠোর বিধিনিষেধেও চলবে ওএমএস কার্যক্রম

কঠোর বিধিনিষেধেও চলবে ওএমএস কার্যক্রম

ভারতীয় ভিসা কার্যক্রম স্থগিত

ভারতীয় ভিসা কার্যক্রম স্থগিত

বাইরে বের হওয়ার আগে মুভমেন্ট পাস নিন

বাইরে বের হওয়ার আগে মুভমেন্ট পাস নিন

দ্বিতীয় দিনের মতো লকডাউন চলছে

দ্বিতীয় দিনের মতো লকডাউন চলছে

আল্লামা শফী হত্যার দৃষ্টান্তমূলক বিচার হোক: তথ্যমন্ত্রী

আল্লামা শফী হত্যার দৃষ্টান্তমূলক বিচার হোক: তথ্যমন্ত্রী

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune