X
বুধবার, ২১ এপ্রিল ২০২১, ৮ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

জান ও জবানের নিরাপত্তার দাবিতে শাহবাগে প্রতিবাদ সভা

আপডেট : ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২০:৫৪

‘সরকারের নিজের নিরাপত্তা এবং দেশের লুটেরা গোষ্ঠী ও দুর্নীতিবাজদের নিরাপত্তা দেওয়ার জন্য ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রণয়ন করা হয়েছে।’ রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল, জান ও জবানের স্বাধীনতা নিশ্চিতের দাবিতে শাহবাগের প্রতিবাদ সভায় বক্তারা এই দাবি করেন।

সমাবেশ থেকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন ও শাহবাগে মশাল মিছিলে গ্রেফতারকৃত ছাত্র নেতাদের মুক্তির দাবি জানানো হয়। গত ২৬ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় শাহবাগের মশাল মিছিল থেকে গ্রেফতার করা হয় নজির আমিন চৌধুরী জয়, তামজীদ হায়দার চঞ্চল, জয়ন্তী চক্রবর্তী, নাজিফা জান্নাত, তানজিম রাফি, আকিফ আহমেদ ও আরাফাত সাদকে। তাদের বিরুদ্ধে পুলিশ সদস্যদের হত্যার পরিকল্পনার অভিযোগ আনা হয়েছে। এছাড়া ২৭ ফেব্রুয়ারি ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে খুলনার পাটকল শ্রমিকনেতা রুহুল আমিনকে গ্রেফতার করা হয়।

সমাবেশে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের চেয়ারম্যান এম এম আকাশ বলেন, ‘সাতদিন আগেও মুশতাক সুস্থ ছিল, এটা তার স্ত্রী জানিয়েছেন কিন্তু হঠাৎ তার হৃদরোগে মৃত্যু হলো। এটা হৃদরোগে হলো নাকি অন্য কারণে হলো তা তদন্ত করে বের করা আবশ্যক।’

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এই ডিজিটাল আইনের দুটি দুর্বলতা আছে, প্রথম দুর্বলতা হচ্ছে এর বেশিরভাগ ধারাই হলো জামিনের অযোগ্য। নারী-শিশু নির্যাতনের আসামিকে আমরা জামিন নাও দিতে পারি বা চরম দুর্নীতি পরায়ণ যে ব্যক্তি পালিয়ে যেতে পারে তাকেও জামিন না দিতে পারি। কিন্তু এরাও জামিন পেয়ে যাচ্ছে শুধু জামিন দেওয়া হচ্ছে না সাইবার আইনের কয়েকটি বিশেষ ধরনের অপরাধকে। ডিজিটাল আইনের ধারাগুলো বিশেষ করে জামিনের অযোগ্য ধারাগুলো পর্যালোচনা করা উচিত।’

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে বাতিল চেয়ে গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেন, ‘দুর্বৃত্তরা রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে লেখকদের ধরে নিয়ে যাচ্ছে। তারা ব্যক্তিগত শত্রুতা হিসেব-নিকেশ করছেন ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন দিয়ে। সরকার জামিন চান না বলে মুশতাকের ছয় বার জামিন আটকে রাখা হয়েছে। এই ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনকে বাতিল করতেই হবে।’

সমাবেশে অন্যান্যদের মাঝে বক্তব্য রাখেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক রেহনুমা আহমেদ, রাষ্ট্রচিন্তার সদস্য ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হাসনাত কাইয়ুম, চলচ্চিত্র নির্মিতা কামার আহমাদ সাইমন, বাংলাদেশ বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর সভাপতি ইকবাল কবির, গণতান্ত্রিক ছাত্র কাউন্সিলের সভাপতি আরিফ মহিউদ্দিন, চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের অর্পি যোতি প্রমুখ।

/এসআইআর/এনএস/

সম্পর্কিত

সবচেয়ে বেশি করোনা রোগী, তবু বদলায়নি রূপনগর

সবচেয়ে বেশি করোনা রোগী, তবু বদলায়নি রূপনগর

পুলিশের সঙ্গে যেন ‘ইঁদুর-বিড়াল’ খেলছেন দোকানিরা

পুলিশের সঙ্গে যেন ‘ইঁদুর-বিড়াল’ খেলছেন দোকানিরা

ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

ছাঁটাই আতঙ্কে পোশাক শ্রমিকরা, সরকারকে শ্রমিক সংগঠনের চিঠি

ছাঁটাই আতঙ্কে পোশাক শ্রমিকরা, সরকারকে শ্রমিক সংগঠনের চিঠি

বের হওয়ার সুযোগ দিয়ে আটকে রাখা যায়?

বের হওয়ার সুযোগ দিয়ে আটকে রাখা যায়?

কোথায় লকডাউন?

কোথায় লকডাউন?

হাতিরঝিল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব চান মেয়র আতিক

হাতিরঝিল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব চান মেয়র আতিক

ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

ফ্লাইট চলাচল বন্ধ আরও ৭ দিন

ফ্লাইট চলাচল বন্ধ আরও ৭ দিন

হাইকোর্টের নজরে আনা হলো চিকিৎসক-পুলিশ বাগবিতণ্ডা

হাইকোর্টের নজরে আনা হলো চিকিৎসক-পুলিশ বাগবিতণ্ডা

বাস ছাড়া সবই চলে!

বাস ছাড়া সবই চলে!

আজ থেকে রোগী নেবে ডিএনসিসি’র করোনা হাসপাতাল

আজ থেকে রোগী নেবে ডিএনসিসি’র করোনা হাসপাতাল

সর্বশেষ

নেটফ্লিক্সে নতুন: আসছে আলো-অন্ধকারের লড়াই

নেটফ্লিক্সে নতুন: আসছে আলো-অন্ধকারের লড়াই

লকডাউনে বাঙ্গি চাষিদের মাথায় হাত

লকডাউনে বাঙ্গি চাষিদের মাথায় হাত

তিন পেসার নিয়ে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

তিন পেসার নিয়ে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ

জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ড, পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক দোষী সাব্যস্ত

জর্জ ফ্লয়েড হত্যাকাণ্ড, পুলিশ কর্মকর্তা ডেরেক দোষী সাব্যস্ত

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

ধানে চিটা, কৃষকের মাথায় হাত

ধানে চিটা, কৃষকের মাথায় হাত

বুনো হাতির আতঙ্কে কাপ্তাই, চালু হবে সোলার ফেন্সিং

বুনো হাতির আতঙ্কে কাপ্তাই, চালু হবে সোলার ফেন্সিং

দানবাক্স খুললেই সোনা-দানা পাওয়া যায় যে মসজিদে

দানবাক্স খুললেই সোনা-দানা পাওয়া যায় যে মসজিদে

গাড়ি প্রতি চাঁদা দু'টি তরমুজ!

গাড়ি প্রতি চাঁদা দু'টি তরমুজ!

করোনায় ফরিদপুরে ৪ জনের মৃত্যু 

করোনায় ফরিদপুরে ৪ জনের মৃত্যু 

ট্রাক-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ১

ট্রাক-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ১

চালের দাম কে বাড়ায়, মিলার না আড়তদার?

চালের দাম কে বাড়ায়, মিলার না আড়তদার?

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সবচেয়ে বেশি করোনা রোগী, তবু বদলায়নি রূপনগর

সবচেয়ে বেশি করোনা রোগী, তবু বদলায়নি রূপনগর

পুলিশের সঙ্গে যেন ‘ইঁদুর-বিড়াল’ খেলছেন দোকানিরা

পুলিশের সঙ্গে যেন ‘ইঁদুর-বিড়াল’ খেলছেন দোকানিরা

ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

ছাঁটাই আতঙ্কে পোশাক শ্রমিকরা, সরকারকে শ্রমিক সংগঠনের চিঠি

ছাঁটাই আতঙ্কে পোশাক শ্রমিকরা, সরকারকে শ্রমিক সংগঠনের চিঠি

কোথায় লকডাউন?

কোথায় লকডাউন?

হাতিরঝিল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব চান মেয়র আতিক

হাতিরঝিল রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্ব চান মেয়র আতিক

ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

ঢিলেঢালা চেকপোস্ট

ফ্লাইট চলাচল বন্ধ আরও ৭ দিন

ফ্লাইট চলাচল বন্ধ আরও ৭ দিন

হাইকোর্টের নজরে আনা হলো চিকিৎসক-পুলিশ বাগবিতণ্ডা

হাইকোর্টের নজরে আনা হলো চিকিৎসক-পুলিশ বাগবিতণ্ডা

বাস ছাড়া সবই চলে!

বাস ছাড়া সবই চলে!

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune