X
রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ৫ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে প্রবাসীকে হত্যা, ৯ জনের মৃত্যুদণ্ড

আপডেট : ০৮ মার্চ ২০২১, ২২:৫৯

চট্টগ্রামে প্রবাসীকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে হত্যার ঘটনায় ৯ জনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত। সোমবার (৮ মার্চ) বিকালে চট্টগ্রামের চতুর্থ দায়রা জজ আদালতের বিচারক ফারজানা আকতার এই আদেশ দেন। একই রায়ে আদালত প্রত্যেক আসামিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। দণ্ডিত আসামিরা হলো- শাহীন, বাবুল, ল্যাডা নাছির, নুরুল ইসলাম, মো. জোবায়ের, দিদার, আবু বক্কর বাঁশি, ইসমাইল ও মো. জঙ্গু।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বলেন, ‘আসামিদের বিরুদ্ধে আনা হত্যার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আদালত তাদেরকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন। একই সঙ্গে আদালত তাদের প্রত্যেককে ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন। মামলার অভিযোগপত্রভুক্ত আসামি কপালকাটা নাছির বিচার কার্যক্রম চলাকালে মারা যাওয়ায় তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। অন্য আসামিদের মধ্যে শাহীন ছাড়া অন্যরা সবাই পলাতক রয়েছে।’

আদালত সূত্রে জানা যায়, ২০০৩ সালে দেশে ফিরেন ফটিকছড়ি উপজেলার দক্ষিণ রাঙামাটিয়া গ্রামের নেছার আহমেদ প্রকাশ তোতা। তবে প্রবাসে যাওয়ার আগ থেকে এলাকার সন্ত্রাসী ল্যাডা নাছির এবং তার সহযোগীদের সঙ্গে বিরোধে জড়ান তোতা। দেশে ফেরার পর একই গ্রামের জনৈক এজাহার মিয়াকে পাঁচ হাজার টাকা ধার দেন তোতা। সেই টাকা উদ্ধারের কথা বলে ল্যাডা নাছির কৌশলে তোতার ওপর প্রতিশোধ নেওয়ার পরিকল্পনা করেন। ২০০৩ সালের ১ নভেম্বর বিকালে এজাহারের কাছ থেকে টাকা উদ্ধারের কথা বলে তোতাকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে যায় আসামিরা। পরদিন সকালে দক্ষিণ রাঙামাটিয়া গ্রামে একটি পাহাড়ের পাদদেশে সড়কে তার মরদেহ পাওয়া যায়।

এই ঘটনায় ২০০৩ সালের ২ নভেম্বর তোতার স্ত্রী মোরশেদা আক্তার বাদী হয়ে ১০ জনকে আসামি করে ফটিকছড়ি থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। ২০০৪ সালের ১৪ মে ওই মামলায় অভিযোগপত্র জমা দেন তদন্ত কর্মকর্তা। ২০০৭ সালের ২০ মার্চ আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরু হয়। ১০ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত আজ এই রায় দেন।

/এনএস/

সম্পর্কিত

সোনারগাঁয়ে সহিংসতা: কাউন্সিলর ফারুক ২ দিনের রিমান্ডে

সোনারগাঁয়ে সহিংসতা: কাউন্সিলর ফারুক ২ দিনের রিমান্ডে

অপরাধ দমনে ২ শতাধিক সিসি ক্যামেরা

অপরাধ দমনে ২ শতাধিক সিসি ক্যামেরা

আগে জীবন পরে জীবিকা: প্রধান বিচারপতি

আগে জীবন পরে জীবিকা: প্রধান বিচারপতি

যে মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে মামুনুল হককে

যে মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে মামুনুল হককে

হেফাজত নেতা মাওলানা আজিজুল ৭ দিনের রিমান্ডে

হেফাজত নেতা মাওলানা আজিজুল ৭ দিনের রিমান্ডে

মামুনুল হকের মুক্তি চায় বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস

মামুনুল হকের মুক্তি চায় বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস

হেফাজতের ঢাকা মহানগর সভাপতি জুনায়েদ আল হাবিব রিমান্ডে

হেফাজতের ঢাকা মহানগর সভাপতি জুনায়েদ আল হাবিব রিমান্ডে

সব মামলায় জামিনের মেয়াদ বাড়ালেন সুপ্রিম কোর্ট

সব মামলায় জামিনের মেয়াদ বাড়ালেন সুপ্রিম কোর্ট

যেভাবে গ্রেফতার হলেন মামুনুল হক

যেভাবে গ্রেফতার হলেন মামুনুল হক

হেফাজত নেতা মাওলানা জালাল রিমান্ডে

হেফাজত নেতা মাওলানা জালাল রিমান্ডে

বাঁশখালীতে পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষের ঘটনায় দুই মামলা

বাঁশখালীতে পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষের ঘটনায় দুই মামলা

সর্বশেষ

সোনারগাঁয়ে সহিংসতা: কাউন্সিলর ফারুক ২ দিনের রিমান্ডে

সোনারগাঁয়ে সহিংসতা: কাউন্সিলর ফারুক ২ দিনের রিমান্ডে

রাষ্ট্রীয় সম্মানে শায়িত হলেন নাট্যজন মহসিন

রাষ্ট্রীয় সম্মানে শায়িত হলেন নাট্যজন মহসিন

মোবাইল থেকে কেটে নেওয়া টাকা কবে ফেরত আসবে?

মোবাইল থেকে কেটে নেওয়া টাকা কবে ফেরত আসবে?

‘রমজানে লকডাউন দিয়ে আলেমদের দমন গ্রহণযোগ্য নয়’

‘রমজানে লকডাউন দিয়ে আলেমদের দমন গ্রহণযোগ্য নয়’

ব্যবসায়ীদের সুযোগ-সুবিধা আরও বাড়ানো দরকার: অর্থমন্ত্রী

ব্যবসায়ীদের সুযোগ-সুবিধা আরও বাড়ানো দরকার: অর্থমন্ত্রী

‘মির্জা আব্বাসকে জিজ্ঞাসাবাদ করা দরকার’

‘মির্জা আব্বাসকে জিজ্ঞাসাবাদ করা দরকার’

আবারও দোকান খুলে দেওয়ার দাবি মালিক সমিতির 

আবারও দোকান খুলে দেওয়ার দাবি মালিক সমিতির 

করোনায় আক্রান্তরা দ্রুত মারা যাচ্ছেন: আইইডিসিআর

করোনায় আক্রান্তরা দ্রুত মারা যাচ্ছেন: আইইডিসিআর

আফগানিস্তানে এক পরিবারের ৮ জনকে মসজিদে গুলি করে হত্যা

আফগানিস্তানে এক পরিবারের ৮ জনকে মসজিদে গুলি করে হত্যা

অপরাধ দমনে ২ শতাধিক সিসি ক্যামেরা

অপরাধ দমনে ২ শতাধিক সিসি ক্যামেরা

‘মির্জা আব্বাস ইউটার্ন নিতে শেখে নাই’

‘মির্জা আব্বাস ইউটার্ন নিতে শেখে নাই’

করোনা চিকিৎসায় ভ্রাম্যমাণ মেডিক্যাল টিম গঠন করুন: জাফরুল্লাহ

করোনা চিকিৎসায় ভ্রাম্যমাণ মেডিক্যাল টিম গঠন করুন: জাফরুল্লাহ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

সোনারগাঁয়ে সহিংসতা: কাউন্সিলর ফারুক ২ দিনের রিমান্ডে

সোনারগাঁয়ে সহিংসতা: কাউন্সিলর ফারুক ২ দিনের রিমান্ডে

অপরাধ দমনে ২ শতাধিক সিসি ক্যামেরা

অপরাধ দমনে ২ শতাধিক সিসি ক্যামেরা

বাঁশখালীতে পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষের ঘটনায় দুই মামলা

বাঁশখালীতে পুলিশ-শ্রমিক সংঘর্ষের ঘটনায় দুই মামলা

পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুর গ্রেফতার

পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে শ্বশুর গ্রেফতার

মেনে নেওয়া হবে শ্রমিকদের দাবি

বাঁশখালী হত্যাকাণ্ডমেনে নেওয়া হবে শ্রমিকদের দাবি

মেক্সিকো থেকে কাদের মির্জার ছেলেকে হত্যার হুমকি!

মেক্সিকো থেকে কাদের মির্জার ছেলেকে হত্যার হুমকি!

করোনা থেকে মুক্তির জন্য মসজিদে মসজিদে দোয়ার আহ্বান আইনমন্ত্রীর

করোনা থেকে মুক্তির জন্য মসজিদে মসজিদে দোয়ার আহ্বান আইনমন্ত্রীর

‘গাড়িতে আগুন ধরিয়ে পুলিশ আমাদের গুলি করে’

বাঁশখালীতে শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষ‘গাড়িতে আগুন ধরিয়ে পুলিশ আমাদের গুলি করে’

পাহাড়ি পথে উল্টে গেলো পিকআপ, নিহত ২

পাহাড়ি পথে উল্টে গেলো পিকআপ, নিহত ২

Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.
© 2021 Bangla Tribune