X
রবিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

সাংবাদিককে ক্ষতিপূরণ দিতে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্টকে আদালতের নির্দেশ

আপডেট : ২৮ মার্চ ২০২১, ২১:৫১

প্যাট্রিসিয়া ক্যাম্পোস নামের এক নারী সাংবাদিককে নিয়ে অপমানজনক মন্তব্য করার দায়ে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারোকে ক্ষতিপূরণ প্রদানের নির্দেশ দিয়েছে দেশটির একটি আদালত। রবিবার আদালত এই রায় দেয়। ব্রিটি সংবাদমাধ্যম বিবিসি এখবর জানিয়েছে।

খবরে বলা হয়েছে, ২০২০ সালে বলসোনারো বলেছিলেন, প্যাট্রিসিয়া ক্যাম্পোস মেলে প্রেসিডেন্ট সম্পর্কে নেতিবাচক তথ্যের বিনিময়ে একটি সূত্রকে যৌনতায় লিপ্ত হওয়ার প্রস্তাব দিয়েছিলেন। এই ঘটনায় নিজের মানহানি হয়েছে উল্লেখ করে প্রতিকার চেয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন ওই সাংবাদিক।

রায়ে বিচারক বলেন, বলসোনারোর এমন মন্তব্যের কারণে ওই সাংবাদিকের সম্মানের হানি হয়েছে। এজন্য ওই সাংবাদিককে ক্ষতিপূরণ হিসেবে তিনি সাড়ে তিন হাজার মার্কিন ডলার দেবেন। তবে আদালতের এই নির্দেশের বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট।

জার্নালিস্ট অ্যাগেইনস্ট হ্যারাসমেন্ট গ্রুপ জানায়, আদালতের এই রায় ব্রাজিলের নারী সাংবাদিক ও সাংবাদিকতা পেশাজীবীদের জন্য একটি মহান দিন বয়ে এনেছে। ২০১৯ সালের জানুয়ারি থেকে ক্ষমতায় আছেন ব্রাজিলের ডানপন্থী প্রেসিডেন্ট বলসোনারো। সাংবাদিকদের নিয়ে বিভিন্ন সময়ে বিতর্কিত মন্তব্য করার ইতিহাস রয়েছে তার।

২০১৮ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ ব্যবহার করে প্রতিদ্বন্দ্বীদের নেতিবাচক প্রচারণা চালায় বলসোনারোর নির্বাচনি প্রচারণা শিবির। এমন প্রচারণা নিয়ে ধারাবাহিক অনুসন্ধানী প্রতিবেদন তৈরি করেছিলেন ক্যাম্পোস। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ব্রাজিলের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ কংগ্রেসের সদস্য ও প্রেসিডেন্ট বলসোনারোর ছেলে এদুয়ার্দোর একটি মামলা দায়ের করেন। গত জানুয়ারিতে এই মামলায় জয়ী হন সাংবাদিক ক্যাম্পোস। 

 

 

/এএ/

সম্পর্কিত

মঙ্গল গ্রহে ভূমিকম্প, কাঁপলো দেড় ঘণ্টা

মঙ্গল গ্রহে ভূমিকম্প, কাঁপলো দেড় ঘণ্টা

জাতিসংঘ সফর শেষে কোভিড আইসোলেশনে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

জাতিসংঘ সফর শেষে কোভিড আইসোলেশনে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

জাতিসংঘ অধিবেশনে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত ব্রাজিলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

জাতিসংঘ অধিবেশনে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত ব্রাজিলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

উন্নয়নশীল দেশগুলোকে আরও ৫০ কোটি ডোজ টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

উন্নয়নশীল দেশগুলোকে আরও ৫০ কোটি ডোজ টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

তালেবান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, পাকিস্তানের সঙ্গে কাজ করছে রাশিয়া

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৭:৩৪

আফগানিস্তানের নতুন শাসক তালেবান যাতে নিজেদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করে সেজন্য একসঙ্গে কাজ করছে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, পাকিস্তান ও রাশিয়া। বিশেষ করে প্রকৃত অর্থে একটি প্রতিনিধিত্বমূলক সরকার গঠন ও সন্ত্রাসবাদের ছড়িয়ে পড়া ঠেকানোর জন্য একসঙ্গে কাজ করছে চারটি দেশ। শনিবার (২৫ সেপ্টেম্বর) রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ল্যাভরভ একথা বলেছেন।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, রাশিয়া, চীন ও পাকিস্তানের প্রতিনিধিরা কাতারের রাজধানী দোহা সফর করেছেন। এরপর তারা আফগানিস্তানের কাবুলেও গেছেন। সেখানে তালেবান ও আফগানিস্তানের সেক্যুলার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। এদের মধ্যে ছিলেন সাবেক প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাই ও উৎখাত হওয়া সরকারের মধ্যস্থতা পরিষদের প্রধান আব্দুল্লাহ আব্দুল্লাহ।

ল্যাভরভ জানান, তালেবানের ঘোষিত অন্তর্বর্তী সরকার পুরো আফগান সমাজের প্রতিনিধিত্ব করে না। তাই আমরা যোগাযোগ করছি। এই কাজ চলমান রয়েছে।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ হলো প্রকাশ্যে তারা যেসব প্রতিশ্রুতি দিয়েছে সেগুলো বাস্তবায়ন করা। আর আমাদের জন্য এটিই সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পাচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে ল্যাভরভ বলেন, তালেবান সরকারকে স্বীকৃতি দেওয়ার বিষয়টি এখনও আমাদের বিবেচনায় নেই।

 

/এএ/

সম্পর্কিত

আফগানিস্তানের পাসপোর্ট, এনআইডি কার্ড পরিবর্তন করবে তালেবান

আফগানিস্তানের পাসপোর্ট, এনআইডি কার্ড পরিবর্তন করবে তালেবান

আফগানিস্তানের দরজায় দুর্ভিক্ষ: জাতিসংঘ

আফগানিস্তানের দরজায় দুর্ভিক্ষ: জাতিসংঘ

আফগানিস্তানের পাসপোর্ট, এনআইডি কার্ড পরিবর্তন করবে তালেবান

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৬:৪১

আফগানিস্তানের আগের সরকারগুলোর ইস্যু করা পাসপোর্ট ও জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি কার্ড) পরিবর্তনের ঘোষণঅ দিয়েছে তালেবান। স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, একটা নির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত আগের এসব নথি বৈধ থাকবে।

তালেবানের তথ্য ও সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী জবিউল্লাহ মুজাহিদ জানিয়েছেন, নতুন জারি করা পাসপোর্ট ও এনআইডিতে আফগানিস্তানের নতুন নাম হবে ইসলামি আমিরাত আফগানিস্তান।

তিনি আরও জানান, এখন পর্যন্ত আগের সরকারগুলোর জারি করা পাসপোর্ট ও এনআইডি বৈধ বলে বিবেচিত হবে।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমটির খবরে আরও বলা হয়েছে, আফগানিস্তানের পাসপোর্ট ও এনআইডি বিভাগ এখনও বন্ধ রয়েছে। শুধু যাদের বায়োমেট্রিক্স দেওয়া আছে তারা এসব নথি সংগ্রহ করতে পারবেন।

গত মাসে রক্তপাতহীনভাবে কাবুল দখলের পর আফগানিস্তানে ব্যাপক পরিবর্তন আনতে শুরু করেছে তালেবান। এরই মধ্যে তারা নারীবিষয়ক মন্ত্রণালয় বিলুপ্ত করে সেখানে পুণ্যের প্রচার ও পাপ দমন মন্ত্রণালয় স্থাপন করেছে। মাধ্যমিক পর্যায়ে মেয়েদের স্কুলে ফিরতে দেওয়া হয়নি, কর্মজীবী নারীদের ঘরে থাকতে বলা হয়েছে এবং অঙ্গ কর্তন ও মৃত্যুদণ্ড ফিরিয়ে আনার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস

/এএ/

সম্পর্কিত

তালেবান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, পাকিস্তানের সঙ্গে কাজ করছে রাশিয়া

তালেবান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, পাকিস্তানের সঙ্গে কাজ করছে রাশিয়া

আফগানিস্তানের দরজায় দুর্ভিক্ষ: জাতিসংঘ

আফগানিস্তানের দরজায় দুর্ভিক্ষ: জাতিসংঘ

ইসরায়েলি বাহিনীর গুলিতে ৫ ফিলিস্তিনি নিহত

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৩১

দখলকৃত পশ্চিম তীরে অভিযান চালিয়ে ৫ ফিলিস্তিনিকে গুলি করে হত্যা করেছে ইসরায়েলি বাহিনী। রবিবার রামাল্লাহ এবং জেনিন শহরের কাছে পাঁচটি আলাদা স্থানে অভিযান পরিচালনা করে ইসরায়েল।

ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর দাবি, ফিলিস্তিনি নিহতের জবাবে গাজা উপত্যকা থেকে রকেট হামলার পরিকল্পনা করছে ফিলিস্তিনের স্বাধীনতাকামী গোষ্ঠী হামাস।

খবরে বলা হয়েছে, তিন ফিলিস্তিনি নিহত হন কাফর বিদু এলাকায়। তাদের মরদেহ আটকে রেখেছে ইসরায়েলি বাহিনী। বাকিজনকে বুরকিনে হত্যা করা হলেও তাকে ইতোমধ্যে দাফন করা হয়েছে।

জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে যাওয়ার পথে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেন্নেট দাবি করেন, ইসরায়েলি বাহিনী পশ্চিম তীরে সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়েছে। তারা রকেট হামলা চালানোর চেষ্টা করছিল। এ বিষয়ে এখনও হামাসের প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

/এলকে/

সম্পর্কিত

ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড ছাড়তে ইসরায়েলকে আল্টিমেটাম আব্বাসের

ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড ছাড়তে ইসরায়েলকে আল্টিমেটাম আব্বাসের

ইয়েমেনে তুমুল লড়াইয়ে সরকারি বাহিনী ও হুথির ১৪০ যোদ্ধা নিহত

ইয়েমেনে তুমুল লড়াইয়ে সরকারি বাহিনী ও হুথির ১৪০ যোদ্ধা নিহত

বর্ণবাদবিরোধী সম্মেলনে জায়নবাদকে নিশ্চিহ্নের অঙ্গীকার ইরানের

বর্ণবাদবিরোধী সম্মেলনে জায়নবাদকে নিশ্চিহ্নের অঙ্গীকার ইরানের

আফগানিস্তানের দরজায় দুর্ভিক্ষ: জাতিসংঘ

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৫:৩৯

যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানিস্তানে দুর্ভিক্ষ ‘আসন্ন’ উল্লেখ করে সতর্ক করেছে জাতিসংঘ। করোনাভাইরাস এবং শীতকাল পরিস্থিতিকে আরও জটিল করে তুলবে বলে উদ্বেগ জানিয়েছে জাতিসংঘের জনসংখ্যা তহবিল (ইউএনএফপি)।

সংস্থাটির পরিচালক নাটালিয়া কানেম বলেন, তালেবান ক্ষমতায় আসায় পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যাচ্ছে। বিশেষ করে সামনের শীতে দুর্ভিক্ষ মাথা চাড়া দিয়ে উঠতে পারে। নিউ ইয়র্ক থেকে ফরাসি সংবাদমাধ্যম এএফপিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি আশঙ্কা করেন, আফগান জনগণের তিন ভাগের এক ভাগ লোক দুর্ভিক্ষের মুখে পড়বে। যার সংখ্যায় প্রায় ৩৩ লাখ মানুষ। 

আফগানিস্তানের বর্তমান স্বাস্থ্য সেবা নিয়েও বেশ উদ্বেগ প্রকাশ কানেম। বলেন, 'সামনের দিনগুলোতে দেশটিতে কীভাবে খাদ্যের যোগান আসবে তার নিশ্চিয়তা নেই। ইতোমধ্যে নারী ও কিশোরীরা নানা সমস্যা ভুগছেন। আফগানিস্তানে প্রসবের সময় এবং গর্ভাবস্থায় মৃত্যুর হার অনেক বেড়ে গেছে’। এ অবস্থায় আফগান জনগণের জরুরিভিত্তিতে সাহায্যের প্রয়োজন মনে করেন জাতিসংঘের জনসংখ্যা তহবিলের এই পরিচালক।

গত ১৫ আগস্ট আশরাফ গণি সরকারের পতন ঘটিয়ে ক্ষমতা দখল করে তালেবান গোষ্ঠী। এরপর থেকেই আফগানিস্তানে সংকট বাড়ছে।

/এলকে/
টাইমলাইন: আফগানিস্তান সংকট
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:৫০
আফগানিস্তানের দরজায় দুর্ভিক্ষ: জাতিসংঘ
২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:২৫
২০ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২১:২৯
১৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, ২২:১৮

সম্পর্কিত

তালেবান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, পাকিস্তানের সঙ্গে কাজ করছে রাশিয়া

তালেবান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, পাকিস্তানের সঙ্গে কাজ করছে রাশিয়া

আফগানিস্তানের পাসপোর্ট, এনআইডি কার্ড পরিবর্তন করবে তালেবান

আফগানিস্তানের পাসপোর্ট, এনআইডি কার্ড পরিবর্তন করবে তালেবান

সম্পত্তি হাতিয়ে নিতে ২০ বছরে পাঁচ খুন

আপডেট : ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:৫১

সম্পত্তি হাতিয়ে নিতে গত ২০ বছরে পরিবারের পাঁচ সদস্যকে খুন করার অভিযোগ উঠেছে লীলু ত্যাগী নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে। ভারতের উত্তর প্রদেশের গাজিয়াবাদে এমন নৃশংস ঘটনায় তাকে আটক করেছে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদে সে নিজের অপরাধের কথা স্বীকার করেন তিনি।

পুলিশ জানিয়েছে, গত ১৫ আগস্ট ব্রিজেশ ত্যাগী নামের এক ব্যক্তি থানায় অভিযোগ করেন, এক সপ্তাহ ধরে তার ছেলে রেশুর খোঁজ মিলছে না। ঘটনার তদন্ত করতে গিয়ে পুলিশ জানতে পারে সম্পত্তি নিয়ে ব্রিজেশের সঙ্গে বিবাদ চলছে তার ছোট ভাই লীলুর। পরে মুরাদনগর থেকে গত বুধবার আটক করা হয় লীলুকে।

পুলিশের তথ্যমতে, জিজ্ঞাসাবাদে নিজের অপরাধের কথা স্বীকার করেছে অভিযুক্ত লীলু। সে জানায়, ভাইপোকে অপহরণ করে তার পর তাকে বিষ খাইয়ে খুন করে খালে ফেলে দেয়।

পুলিশের সামনে এছাড়াও চাঞ্চল্যকর স্বীকারোক্তি দেয় লীলু। সে জানায় ২০ বছর আগে ২০০১ সালে প্রথমে দাদা সুধীর ত্যাগীকে বিষ খাইয়ে খুন করে। তার কয়েক মাস পরে সুধীরের আট বছর বয়সী মেয়ে পায়েলকেও একই ভাবে খুন করে সে। জোড়া খুনের তিন বছর বাদে সুধীরের বড় মেয়ে ১৬ বছর বয়সি পারুলকে খুন করে লীলু। এখানেই সে থামেনি। ২০১২ সালে ব্রিজেশের আর এক ছেলে নিশুকেও সে খুন করে।

জানা গেছে, গাজিয়াবাদের একটি জমি রয়েছে যার মূল্য পাঁচ কোটি টাকা। সেই জমি হাতিয়ে নেওয়ার জন্যই একের পর এক খুন করেছে লীলু। লীলুর বিরুদ্ধে বেশ কয়েকটি ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই ঘটনায় লীলুকে সাহায্য করার অভিযোগে আরও চার জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সূত্র: দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, আনন্দবাজার

/এলকে/

সম্পর্কিত

সন্ধ্যায় ভারতীয় উপকূলে তাণ্ডব চালাবে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’

সন্ধ্যায় ভারতীয় উপকূলে তাণ্ডব চালাবে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’

জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে পাকিস্তানকে এক হাত নিলেন মোদি

জাতিসংঘ সাধারণ অধিবেশনে পাকিস্তানকে এক হাত নিলেন মোদি

প্রতিশোধ নিতে বানরের ২২ কিলোমিটার ভ্রমণ

প্রতিশোধ নিতে বানরের ২২ কিলোমিটার ভ্রমণ

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’

ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘গুলাব’

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মঙ্গল গ্রহে ভূমিকম্প, কাঁপলো দেড় ঘণ্টা

মঙ্গল গ্রহে ভূমিকম্প, কাঁপলো দেড় ঘণ্টা

জাতিসংঘ সফর শেষে কোভিড আইসোলেশনে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

জাতিসংঘ সফর শেষে কোভিড আইসোলেশনে ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট

জাতিসংঘ অধিবেশনে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত ব্রাজিলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

জাতিসংঘ অধিবেশনে গিয়ে করোনায় আক্রান্ত ব্রাজিলের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

উন্নয়নশীল দেশগুলোকে আরও ৫০ কোটি ডোজ টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

উন্নয়নশীল দেশগুলোকে আরও ৫০ কোটি ডোজ টিকা দেবে যুক্তরাষ্ট্র

নষ্ট হওয়ার পথে ২৪ কোটি ডোজ টিকা

নষ্ট হওয়ার পথে ২৪ কোটি ডোজ টিকা

২-৬ মাসের ব্যবধানে বুস্টার ডোজে বাড়ে কার্যকারিতা: জনসন অ্যান্ড জনসন

২-৬ মাসের ব্যবধানে বুস্টার ডোজে বাড়ে কার্যকারিতা: জনসন অ্যান্ড জনসন

যুক্তরাষ্ট্র ‘নতুন শীতল যুদ্ধ’ চায় না: চীনকে ইঙ্গিত করে বাইডেন

যুক্তরাষ্ট্র ‘নতুন শীতল যুদ্ধ’ চায় না: চীনকে ইঙ্গিত করে বাইডেন

‘ধন্যবাদ, কানাডা’: তৃতীয়বার জিতে ট্রুডো

‘ধন্যবাদ, কানাডা’: তৃতীয়বার জিতে ট্রুডো

কানাডার পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শুরু

কানাডার পার্লামেন্ট নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শুরু

পাকিস্তানের কাছ থেকে ১২টি জঙ্গিবিমান কিনছে আর্জেন্টিনা

পাকিস্তানের কাছ থেকে ১২টি জঙ্গিবিমান কিনছে আর্জেন্টিনা

সর্বশেষ

সাবেক গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী মান্নান ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

সাবেক গণপূর্ত প্রতিমন্ত্রী মান্নান ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন

সড়ক বিভাগে সাত হাজারের বেশি শূন্যপদ 

সড়ক বিভাগে সাত হাজারের বেশি শূন্যপদ 

সাংবাদিকদের স্বাধীনতা রক্ষায় ঐক্য দরকার: সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী

সাংবাদিকদের স্বাধীনতা রক্ষায় ঐক্য দরকার: সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী

তালেবান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, পাকিস্তানের সঙ্গে কাজ করছে রাশিয়া

তালেবান ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, পাকিস্তানের সঙ্গে কাজ করছে রাশিয়া

পুলিশের পরিবর্তে নিজস্ব জনবলে সড়ক-মহাসড়কের নিরাপত্তা চায় সংসদীয় কমিটি

পুলিশের পরিবর্তে নিজস্ব জনবলে সড়ক-মহাসড়কের নিরাপত্তা চায় সংসদীয় কমিটি

© 2021 Bangla Tribune