X
মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ২৮ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

‘লকডাউন মানে তালা খুলে নিচে পড়ে গেছে’

আপডেট : ১০ এপ্রিল ২০২১, ২০:১০

সম্প্রতি ‘লকডাউন’ শব্দটা নিয়ে ফেসবুকে হাসি-তামাশা হচ্ছে বেশ। একজন লিখেছেন, লক মানে তালা, আর ডাউন মানে নিচে। সুতরাং লকডাউন মানে তালা খুলে নিচে পড়ে গেছে। আর এমন রসের খোরাক যুগিয়েছে খোলা থাকা দোকানপাট ও সেখানে ভিড় জমানো ক্রেতারাই।

সরেজমিনে দেখা গেল, করোনার ঢেউ, জলোচ্ছ্বাস কিংবা সুনামি যেটাই বলা হোক না কেন, আগে চাই ঈদের জামা! খুব জরুরি জিনিসপত্র ছাড়া দোকানে না যাওয়ার নির্দেশনা থাকলেও, অনেকেই গা ঘেঁষাঘেষি করে কিনছেন লিপস্টিক, আইলাইনার কিংবা বডি স্প্রে।

শপিং মলে কেনাকাটা

অনেকে আবার ঈদের কেনাকাটার রেকি করতে বের হয়েছেন। নতুন কী বের হলো সেটা যাচাই করে পরে আবার কিনতে আসবেন। সামাজিক দূরত্ব কিংবা স্বাস্থ্যবিধি শব্দগুলো আদৌ অভিধানে আছে কিনা তা নিয়েও সন্দিহান তারা।

তরুণ-তরুণীদের পাশাপাশি দেখা গেছে প্রবীণদেরও, যারা কিনা করোনার ঝুঁকিতে আছেন সবচেয়ে বেশি। জরুরি পণ্যের চেয়ে শখের জিনিসের দোকানেই দেখা গেছে দারুণ ভিড়। রেডিমেড কাপড়ের দোকানগুলোতে তো পা রাখাই দায়।

সন্তানকে নিয়ে রাজধানীর মুক্তিযোদ্ধা মার্কেটে এসেছেন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত কামাল হোসেন। কেন এসেছেন জানতে চাইলে বলেন, ‘সামনে রমজান। দুদিন পর লকডাউন। সেটা আবার কতদিন চলে তার নাই ঠিক। এ জন্য আগেভাগে কেনাকাটা সারছি। কাপড় দেখে রাখছি। পছন্দ হলে পরে কিনবো।’

করোনা সংক্রমণে কথা বললে তিনি বলেন, যতো যাই হোক, নতুন জামা তো কিনতেই হবে।

কল্যাণপুর থেকে আসা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক তরুণী বললেন, একটা ড্রেস পছন্দ করে রাখবো। পরে সুযোগ হলে নিয়ে যাবো। বেশিক্ষণ মার্কেটে থাকবো না। এই সময়ে ড্রেস দেখা জরুরি ছিল কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি উত্তর না দিয়ে শুধুই হাসেন।

বাগদাদ শপিং সেন্টারের মিলি কসমেটিকসের স্বত্ত্বাধিকার সুমন বলেন, সকাল থেকে টুকটাক বেচাকেনা হচ্ছে। কাস্টমার তেমন না হলেও আসছেন কেউ কেউ। বেশি বিক্রি হচ্ছে লিপস্টিক, ক্রিম, আইলাইনার, বডি স্প্রে এসব।

কেনাকাটা

এ সময় কথা হয় বেশ কয়েকজনের সঙ্গে। সংক্রমণের এ ঊর্ধ্বগতিতে বের হয়েছেন কেন জানতে চাইলে সবার উত্তর একটাই-ছোটখাটো কিছু কেনাকাটা ছিল। জিনিসগুলো পরে হলেও চলতো কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তারা বলেন, করোনার ভয় আছে কিছুটা, তারপরও মার্কেটে নতুন কী এলো একটু দেখে নেওয়ার ইচ্ছে দমিয়ে রাখা যায় না। তাড়াতাড়ি চলে যাবো।

মোবাইলের দোকানে কথা হয় ষাটোর্ধ্ব আব্দুল হালিমের সঙ্গে। নাতনিকে নিয়ে এসেছেন মোবাইল সারাতে। তিনি জানালেন, ‘মোবাইলটা নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। সারাতে এসেছি। মোবাইল একটি জরুরি বস্তু। ওটা নষ্ট থাকলে সবকিছু থেকে বিচ্ছিন্ন থাকতে হয়।’

মিরপুর শপিং সেন্টারের একটি দোকানে কথা হয় কয়েকজন ক্রেতার সঙ্গে। তারা বলেন, ‘ঈদে নতুন পাঞ্জাবি লাগবে। আগেভাগেই কিনতে এসেছি। পরে আরও মারাত্মক লকডাউন হলে কিনতে পারবো কিনা তা তো বলা যাচ্ছে না।’

এখানেও পোশাকের দোকানে ক্রেতাদের ভিড় ছিল দেখার মতো। ভাইরাসকে বিশেষ পাত্তা না দিয়ে একই পোশাক নাড়াচাড়া করছেন অনেকেই। ছিল না সামাজিক দূরত্ব। ক্রেতাদের অনেকের মুখে অবশ্য মাস্ক দেখা গেলেও বিক্রেতারা সেটার ব্যাপারেও ছিলেন উদাসীন।

রাজধানীর উত্তরা রাজলক্ষী শপিং কমপ্লেক্সে দেখা গেলো বেশ স্বাস্থ্যবিধি মেনে কেনাকাটা করছেন অনেকে। টপ চয়েজ নামের এক দোকানের কর্মচারী জানান, ‘আমরা যতটুকু সম্ভব স্বাস্থ্যবিধি মানার চেষ্টা করছি।’

এখানে ষাটোর্ধ্ব কালাম মোল্লা এসেছেন পরিবারের সদস্যদের নিয়ে জুতা কিনতে। আগাম কেনাকাটার দোষ চাপালেন ঈদের ঘাড়েই। পাশ থেকে একজন টিপ্পনী কাটলেন, যেভাবে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে জুতা কিনতে এসেছেন, দোকানির উচিৎ ছিল ফিফটি পারসেন্ট ডিসকাউন্ট দেওয়া।

মাস্ক ছাড়াও ঢুকে পড়তে দেখা গেল কাউকে। একজনকে জিজ্ঞেস করতেই যুক্তি হাজির-শ্বাসকষ্ট হয়, গরম লাগে। তার কাছে নাকি মনে হয়, মাস্ক বেশিক্ষণ পরে থাকলে তাকে আইসিইউতে নিতে হবে।

এ ছাড়া উত্তরার কুশল সেন্টার, লন্ডন প্লাজা, আমির কমপ্লেক্স এসব মলেও ছিল ক্রেতাদের পদচারণা। অনেককে দেখা গেল ঘুরেফিরে এটাওটা দেখছেন, দরদাম করছেন, কিন্তু কিনছেন না। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতের জন্য মার্কেট কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে কাউকে দেখা গেলো না।

কোনও কোনও দোকানের সামনে জীবাণুনাশক টানেল দেখা গেলো। কিন্তু বিধি এখানেও বাম। ঠায় দাঁড়িয়ে থেকে দেখা গেলো মেশিনেও লেগেছে লকডাউন। কাজ করছে না একটুও!

/আরটি/এফএ/

সম্পর্কিত

ইমাম-মুয়াজ্জিনদের ঈদ উপহার দিলেন সাঈদ খোকন

ইমাম-মুয়াজ্জিনদের ঈদ উপহার দিলেন সাঈদ খোকন

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে জেনারেটর কর্মীর মৃত্যু

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে জেনারেটর কর্মীর মৃত্যু

খালেদা জিয়াকে জামিনের দাবি গণসংহতি আন্দোলনের

খালেদা জিয়াকে জামিনের দাবি গণসংহতি আন্দোলনের

আজও ২৮শ’ মানুষের মাঝে মেয়র আতিকের ইফতার বিতরণ

আজও ২৮শ’ মানুষের মাঝে মেয়র আতিকের ইফতার বিতরণ

ঈদযাত্রা যেন শবযাত্রা না হয়: শিক্ষামন্ত্রী

ঈদযাত্রা যেন শবযাত্রা না হয়: শিক্ষামন্ত্রী

অধিক লাভের জন্য স্পিডবোটে দেড়গুণ বেশি যাত্রী নিতো চান্দু

পদ্মায় ২৬ লাশঅধিক লাভের জন্য স্পিডবোটে দেড়গুণ বেশি যাত্রী নিতো চান্দু

‘পার্ক-উদ্যানের উন্নয়নে কংক্রিটের পরিমাণ উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে’

‘পার্ক-উদ্যানের উন্নয়নে কংক্রিটের পরিমাণ উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে’

উত্তরা রাজউক কমপ্লেক্স বন্ধ ঘোষণা মেয়রের

উত্তরা রাজউক কমপ্লেক্স বন্ধ ঘোষণা মেয়রের

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

বিআরটিসি’র বাসের এই হাল!

বিআরটিসি’র বাসের এই হাল!

১০ হাজার টাকার থ্রি-পিসের অর্ডার নিয়ে পাঠানো হতো ছেঁড়া কাপড়

অনলাইন ব্যবসায় প্রতারণা১০ হাজার টাকার থ্রি-পিসের অর্ডার নিয়ে পাঠানো হতো ছেঁড়া কাপড়

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

সর্বশেষ

অক্সিজেন সংকটে ভারতের এক হাসপাতালে ১১ করোনা রোগীর মৃত্যু

অক্সিজেন সংকটে ভারতের এক হাসপাতালে ১১ করোনা রোগীর মৃত্যু

কাপ্তাই হ্রদে পানি কম, বিদ্যুৎকেন্দ্রে মাত্র একটি ইউনিট সচল

কাপ্তাই হ্রদে পানি কম, বিদ্যুৎকেন্দ্রে মাত্র একটি ইউনিট সচল

যুক্তরাষ্ট্রে কিশোরদের জন্য ফাইজারের টিকা অনুমোদন

যুক্তরাষ্ট্রে কিশোরদের জন্য ফাইজারের টিকা অনুমোদন

পাঁচ বছরের টার্গেট, তিন বছরেই বাস্তবায়ন

পাঁচ বছরের টার্গেট, তিন বছরেই বাস্তবায়ন

শায়েস্তা খাঁর সাত গম্বুজ মসজিদ

বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ মসজিদশায়েস্তা খাঁর সাত গম্বুজ মসজিদ

গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলা, নিহত অন্তত ২১

গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলা, নিহত অন্তত ২১

একটি উপায়েই বিদেশে যাওয়ার অনুমতি পেতে পারেন খালেদা জিয়া

একটি উপায়েই বিদেশে যাওয়ার অনুমতি পেতে পারেন খালেদা জিয়া

দুর্গত এলাকায় সফরে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধু

দুর্গত এলাকায় সফরে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধু

আহত গার্মেন্টস শ্রমিককে হাসপাতালে দেখতে গেলেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী

আহত গার্মেন্টস শ্রমিককে হাসপাতালে দেখতে গেলেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী

ভ্যাকসিন ছাড়া সৌদি আরব গেলে নিজ খরচে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন

ভ্যাকসিন ছাড়া সৌদি আরব গেলে নিজ খরচে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন

নিজের স্বপ্নপুরুষের সঙ্গে কয়েক জন্মের তফাতে জুলেখার মিলন

নিজের স্বপ্নপুরুষের সঙ্গে কয়েক জন্মের তফাতে জুলেখার মিলন

অবিশ্বাস্য গল্প বলেছি বিশ্বাসযোগ্য ভঙ্গিতে : রাশিদা সুলতানা

অবিশ্বাস্য গল্প বলেছি বিশ্বাসযোগ্য ভঙ্গিতে : রাশিদা সুলতানা

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ইমাম-মুয়াজ্জিনদের ঈদ উপহার দিলেন সাঈদ খোকন

ইমাম-মুয়াজ্জিনদের ঈদ উপহার দিলেন সাঈদ খোকন

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে জেনারেটর কর্মীর মৃত্যু

বিদ্যুৎস্পৃষ্টে জেনারেটর কর্মীর মৃত্যু

আজও ২৮শ’ মানুষের মাঝে মেয়র আতিকের ইফতার বিতরণ

আজও ২৮শ’ মানুষের মাঝে মেয়র আতিকের ইফতার বিতরণ

ঈদযাত্রা যেন শবযাত্রা না হয়: শিক্ষামন্ত্রী

ঈদযাত্রা যেন শবযাত্রা না হয়: শিক্ষামন্ত্রী

অধিক লাভের জন্য স্পিডবোটে দেড়গুণ বেশি যাত্রী নিতো চান্দু

পদ্মায় ২৬ লাশঅধিক লাভের জন্য স্পিডবোটে দেড়গুণ বেশি যাত্রী নিতো চান্দু

‘পার্ক-উদ্যানের উন্নয়নে কংক্রিটের পরিমাণ উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে’

‘পার্ক-উদ্যানের উন্নয়নে কংক্রিটের পরিমাণ উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে’

উত্তরা রাজউক কমপ্লেক্স বন্ধ ঘোষণা মেয়রের

উত্তরা রাজউক কমপ্লেক্স বন্ধ ঘোষণা মেয়রের

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

রাজধানীতে স্বস্তির বৃষ্টি

বিআরটিসি’র বাসের এই হাল!

বিআরটিসি’র বাসের এই হাল!

১০ হাজার টাকার থ্রি-পিসের অর্ডার নিয়ে পাঠানো হতো ছেঁড়া কাপড়

অনলাইন ব্যবসায় প্রতারণা১০ হাজার টাকার থ্রি-পিসের অর্ডার নিয়ে পাঠানো হতো ছেঁড়া কাপড়

© 2021 Bangla Tribune