X
মঙ্গলবার, ১১ মে ২০২১, ২৮ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

হেলে পড়া ভবনটির অনুমোদন নেই, ভেঙে ফেলতে চসিককে চিঠি

আপডেট : ১১ এপ্রিল ২০২১, ২৩:৫৩

গোয়ালপাড়ায় হেলে পড়া ভবনটি নির্মাণে ভবনের মালিক কোনও ধরনের ইমারত নির্মাণ প্রকৌশল বিধিমালা অনুসরণ করেননি বলে দাবি করেছেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (সিডিএ) প্রধান নগর পরিকল্পনাবিদ প্রকৌশলী শাহিনুল ইসলাম। এ কারণে নির্মাণের ১০ থেকে ১৫ বছরের মাথায় ভবনটি হেলে পড়েছে বলে তিনি জানান।

শাহিনুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ভবন নির্মাণের জন্য ভবন মালিক কোনও ইঞ্জিনিয়ারের কাছ থেকে ডিজাইন নেননি। ডিজাইন ছাড়াই উনি নিজের ডিজাইনে ভবন নির্মাণ করেছেন। এরপর নির্মাণ ত্রুটি পরিলক্ষিত হয়। তখনও তারা নিজেদের বুদ্ধিতে সেটি মেরামত করার চেষ্টা করছিলেন। গর্ত করে তারা গেটিস দেওয়ার চেষ্টা করছিলেন। এটা তো এক্সপার্টদের কাজ, এটা উনারা নিজেরা কেন করতে গেলেন? কোনও কাঠামোগত এক্সপার্টের সহযোগিতা না নিয়ে তারা ভবন মেরামত কাজ শুরু করায় ভবনটি হেলে পড়ে।’

রাতের বেলা ভবনটির সামনে পুলিশ পাহারা

এর আগে শনিবার (১০ এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে কার্তিক ঘোষের মালিকানাধীন ৫ তলা ভবনটি হেলে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে দ্রুত ভবনের বাসিন্দাদের সরিয়ে দেন।

স্থানীয়দের অভিযোগ, কোনও ধরনের অনুমোদন না নিয়েই ভবনটির সামনে দুটি পিলার বসানোর কাজ করছিলেন মালিকপক্ষ। সন্ধ্যার পর পাইলিং করতে গেলে ভবনটি সামনের দিকে হেলে পড়ে। খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস এসে ভবনের বাসিন্দাদের অন্যত্র সরে যেতে নির্দেশ দেন। রবিবার সকালে হেলে পড়া ভবনটি পরিদর্শন করেন সিডিএ’র ইঞ্জিনিয়ার শাহিনুল ইসলাম। এসময় তিনি ভবনটি ভেঙে ফেলার নির্দেশনা দেন।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে শাহিনুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘ভবনটি নির্মাণের জন্য ভবনের মালিক ১৯৯৬ সালে সিডিএ থেকে অনুমোদন নিয়েছিলেন। কিন্তু, তিনি ওই সময় ভবনটি নির্মাণ করেননি। অনুমোদনের সময় পার হওয়ার পর তিনি ভবনটি নির্মাণ করেন। ভবনটি নির্মাণ করেছেন ১০ থেকে ১৫ বছর হচ্ছে। এ হিসেবে ভবনটি নির্মাণে সিডিএ’র অনুমোদন নেই। এর বাইরে ভবনটি নির্মাণে ইমারত নির্মাণ প্রকৌশল বিধিমালাও অনুসরণ করা হয়নি। তাই ভবনটি হেলে পড়েছে।

যে কোনও মুহূর্তে ভবনটি ভেঙে পড়ে জন-জীবনের ক্ষয়ক্ষতির কারণ হতে পারে জানিয়ে শাহিনুল ইসলাম বলেন, ঝুঁকিপূর্ণ ভবনটি ভেঙে ফেলতে হবে। এর জন্য আমরা চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনকে চিঠি দিয়েছি। আমাদের (সিডিএ) কাজ হলো ঝুঁকিপূর্ণ ভবন চিহ্নিত করে সেগুলো সিটি করপোরেশনকে প্রদান করা। ভেঙে ফেলার কাজটি তারাই করবে।’

নিয়ম অনুযায়ী সিডিএ কোনও ভবনকে ঝুঁকিপূর্ণ ভবন হিসেবে ঘোষণা করে তা সিটি করপোরেশনকে চিঠির মাধ্যমে জানিয়ে ভাঙতে অনুরোধ করলে ভাঙার কাজটি করে সিটি করপোরেশনের রাজস্ব বিভাগ।

গোয়াল পাড়া ভবনটির ভেঙে ফেলার বিষয়ে জানতে সিটি করপোরেশনের প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা শাহেদা ফাতেমা চৌধুরীর মোবাইল ফোনে একাধিকবার মোবাইল করা হলে তিনি কল রিসিভ করেননি।

তবে এর আগে রবিবার দুপুরে হেলে পড়া ভবনটি পরিদর্শনে গিয়ে সিটি করপোশেনের মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী ভবনের মালিক কার্তিক ঘোষের পরিবারকে অচিরেই ভবনটি ভেঙে ফেলে নিরাপদে অপসারণ করে এলাকাকে ঝুঁকিমুক্ত করার আহ্বান জানান।

ওই সময় রেজাউল করিম চৌধুরী বলেন, ‘নগরীতে যে সকল ভবন হেলে পড়েছে বা ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে তার একটি সুনির্দিষ্ট তালিকা নিশ্চয়ই সিডিএ’র কাছে আছে। আমি মনে করি কোনও ধরনের বিপর্যয়ের আগেই কেবল কার্তিক ঘোষের বাড়িটি নয়, নগরীর সব ঝুঁকিপূর্ণ ভবন ভেঙে অপসারণে এসব ভবন মালিককে বাধ্য করতে হবে।’

এদিকে সিটি করপোরেশন থেকে ভবনটি ভেঙে ফেলতে কার্যকর কোনও পদক্ষেপ না না নেওয়া হলেও রবিবার ভবনের মালিক পক্ষ নিজেরাই ভবনটি ভেঙে ফেলার কাজ শুরু করেছে। প্রথম দিন তারা ভবনটির দরজা, জানালাগুলো খুলে অন্যত্র নিয়ে যান। এরপর পর্যায়ক্রমে ভবনটি ভেঙে ফেলা হবে বলে জানিয়েছেন ভবনের মালিক।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে কার্তিক ঘোষের মেজো ছেলে রূপা ঘোষ জানান, রাস্তার পাশে ভবনটির একটি পিলারে ফাটল ধরায় সেটি সংস্কার করতে গেলে ভবনটি হেলে পড়ে। এরপর রবিবার সিডিএ, সিটি করপোরেশন থেকে লোকজন এসেছে। তারা ভবনটি ভেঙে ফেলার নির্দেশনা দিয়েছেন। তাদের নির্দেশনা মেনেই আমরা ভবনটি ভাঙার উদ্যোগ নিয়েছি। আজ থেকেই ভাঙার কাজ শুরু করেছি।

/টিএন/

সম্পর্কিত

স্বাস্থ্যবিধি না মানায় বিপণিবিতান ও সড়কে জরিমানা

স্বাস্থ্যবিধি না মানায় বিপণিবিতান ও সড়কে জরিমানা

বৃদ্ধ দম্পতিকে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল, হামলাকারী গ্রেফতার

বৃদ্ধ দম্পতিকে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল, হামলাকারী গ্রেফতার

সিএনজির যাত্রী সেজে ছিনতাইয়ের অভিযোগে আটক ৩

সিএনজির যাত্রী সেজে ছিনতাইয়ের অভিযোগে আটক ৩

কোম্পানীগঞ্জে ওবায়দুল কাদেরের বাড়িতে আগুন দেওয়ার হুমকিতে জিডি

কোম্পানীগঞ্জে ওবায়দুল কাদেরের বাড়িতে আগুন দেওয়ার হুমকিতে জিডি

মসজিদে ঢুকে নোবিপ্রবির সহকারী রেজিস্ট্রারকে ছুরিকাঘাত

মসজিদে ঢুকে নোবিপ্রবির সহকারী রেজিস্ট্রারকে ছুরিকাঘাত

ভারত থেকে ফেরার একমাত্র পথ আখাউড়ায় বেড়েছে যাত্রীর চাপ

ভারত থেকে ফেরার একমাত্র পথ আখাউড়ায় বেড়েছে যাত্রীর চাপ

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর বিক্রি: ভূমি অফিসের দুই কর্মকর্তাকে বদলি

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর বিক্রি: ভূমি অফিসের দুই কর্মকর্তাকে বদলি

ট্রাকের সঙ্গে অটোরিকশার সংঘর্ষ, নিহত ৩

ট্রাকের সঙ্গে অটোরিকশার সংঘর্ষ, নিহত ৩

রাজনীতি ছাড়লেন কাদের মির্জার দেওয়া কমিটির সভাপতি!

রাজনীতি ছাড়লেন কাদের মির্জার দেওয়া কমিটির সভাপতি!

গভীর রাতে যে মসজিদ থেকে শোনা যেতো জিনের জিকির

বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ মসজিদগভীর রাতে যে মসজিদ থেকে শোনা যেতো জিনের জিকির

বাসচাপায়  দুই মোটরবাইক আরোহী নিহত

বাসচাপায় দুই মোটরবাইক আরোহী নিহত

ভাইরাল হওয়ার আশায় গাঁজা সেবনের ভিডিও ফেসবুকে, যুবক কারাগারে

ভাইরাল হওয়ার আশায় গাঁজা সেবনের ভিডিও ফেসবুকে, যুবক কারাগারে

সর্বশেষ

সারাদিন চলবে বৃষ্টিরও গান...

সারাদিন চলবে বৃষ্টিরও গান...

ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টকে উদ্বেগজনক ঘোষণা দিলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

ভারতীয় ভ্যারিয়েন্টকে উদ্বেগজনক ঘোষণা দিলো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

নেশাগ্রস্ত ব্যক্তিকে কি জাকাত দেওয়া যাবে?

নেশাগ্রস্ত ব্যক্তিকে কি জাকাত দেওয়া যাবে?

অক্সিজেন সংকটে ভারতের এক হাসপাতালে ১১ করোনা রোগীর মৃত্যু

অক্সিজেন সংকটে ভারতের এক হাসপাতালে ১১ করোনা রোগীর মৃত্যু

কাপ্তাই হ্রদে পানি কম, বিদ্যুৎকেন্দ্রে মাত্র একটি ইউনিট সচল

কাপ্তাই হ্রদে পানি কম, বিদ্যুৎকেন্দ্রে মাত্র একটি ইউনিট সচল

যুক্তরাষ্ট্রে কিশোরদের জন্য ফাইজারের টিকা অনুমোদন

যুক্তরাষ্ট্রে কিশোরদের জন্য ফাইজারের টিকা অনুমোদন

পাঁচ বছরের টার্গেট, তিন বছরেই বাস্তবায়ন

পাঁচ বছরের টার্গেট, তিন বছরেই বাস্তবায়ন

শায়েস্তা খাঁর সাত গম্বুজ মসজিদ

বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ মসজিদশায়েস্তা খাঁর সাত গম্বুজ মসজিদ

গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলা, নিহত অন্তত ২১

গাজায় ইসরায়েলি বিমান হামলা, নিহত অন্তত ২১

একটি উপায়েই বিদেশে যাওয়ার অনুমতি পেতে পারেন খালেদা জিয়া

একটি উপায়েই বিদেশে যাওয়ার অনুমতি পেতে পারেন খালেদা জিয়া

দুর্গত এলাকায় সফরে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধু

দুর্গত এলাকায় সফরে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধু

আহত গার্মেন্টস শ্রমিককে হাসপাতালে দেখতে গেলেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী

আহত গার্মেন্টস শ্রমিককে হাসপাতালে দেখতে গেলেন শ্রম প্রতিমন্ত্রী

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

স্বাস্থ্যবিধি না মানায় বিপণিবিতান ও সড়কে জরিমানা

স্বাস্থ্যবিধি না মানায় বিপণিবিতান ও সড়কে জরিমানা

বৃদ্ধ দম্পতিকে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল, হামলাকারী গ্রেফতার

বৃদ্ধ দম্পতিকে নির্যাতনের ভিডিও ভাইরাল, হামলাকারী গ্রেফতার

সিএনজির যাত্রী সেজে ছিনতাইয়ের অভিযোগে আটক ৩

সিএনজির যাত্রী সেজে ছিনতাইয়ের অভিযোগে আটক ৩

কোম্পানীগঞ্জে ওবায়দুল কাদেরের বাড়িতে আগুন দেওয়ার হুমকিতে জিডি

কোম্পানীগঞ্জে ওবায়দুল কাদেরের বাড়িতে আগুন দেওয়ার হুমকিতে জিডি

মসজিদে ঢুকে নোবিপ্রবির সহকারী রেজিস্ট্রারকে ছুরিকাঘাত

মসজিদে ঢুকে নোবিপ্রবির সহকারী রেজিস্ট্রারকে ছুরিকাঘাত

ভারত থেকে ফেরার একমাত্র পথ আখাউড়ায় বেড়েছে যাত্রীর চাপ

ভারত থেকে ফেরার একমাত্র পথ আখাউড়ায় বেড়েছে যাত্রীর চাপ

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর বিক্রি: ভূমি অফিসের দুই কর্মকর্তাকে বদলি

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর বিক্রি: ভূমি অফিসের দুই কর্মকর্তাকে বদলি

ট্রাকের সঙ্গে অটোরিকশার সংঘর্ষ, নিহত ৩

ট্রাকের সঙ্গে অটোরিকশার সংঘর্ষ, নিহত ৩

রাজনীতি ছাড়লেন কাদের মির্জার দেওয়া কমিটির সভাপতি!

রাজনীতি ছাড়লেন কাদের মির্জার দেওয়া কমিটির সভাপতি!

গভীর রাতে যে মসজিদ থেকে শোনা যেতো জিনের জিকির

বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ মসজিদগভীর রাতে যে মসজিদ থেকে শোনা যেতো জিনের জিকির

© 2021 Bangla Tribune