X
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

পোশাকের দোকানে ভিড়, স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই নেই

আপডেট : ১৩ এপ্রিল ২০২১, ১৭:১২

১৪ এপ্রিল থেকে কঠোর লকডাউন ঘোষণার পর ঝিনাইদহে পোশাকের দোকানে উপচেপড়া ভিড় লক্ষ্য করা গেছে। যেখানে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি। মাস্ক ছাড়া গাদাগাদি করে কেনা-বেচা করছেন ক্রেতা-বিক্রেতারা। মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) সকাল থেকেই শহরের মুন্সী মার্কেট, গীতাঞ্জলী সড়কসহ বিভিন্ন বিপনিবিতান ঘুরে দেখা গেছে পোশাকের দোকানে ভিড় করেছেন নানা শ্রেনি-পেশার মানুষ। মাস্ক ছাড়াই অভিভাবকদের সঙ্গে শপিংমলে ঘুরছে শিশুরা।

শহরের হামদহ এলাকা থেকে আসা এক নারী বলেন, কালকের দিন পরে তো মার্কেট আবার বন্ধ করে দেবে, তাই বাচ্চাগের কাপড় কিনতে আসছি। লকডাউন চলছে তো কি করবো বলেন, কেনাতো লাগবেই।

আরাপপুর থেকে আসা আরেক নারী বলেন, ‘ছেলে আর মেয়ের কাপুড় কিনবো বলে আইচি। দুডো কিনিচি, আরও দুডো কেনবো। দুকানে অনেক ভিড়। ফাঁকে ফাঁকে গিয়ে কিনচি। করোনার ভয় আচে, তারপরও কিনতি আসলাম। বাচ্চাদের দিকেতো তাকাতি হবি।’

এদিকে পোশাক ছাড়াও অন্যান্য ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেও বেড়েছে ভিড়। শহরের ভিড়ের কারণে সৃষ্টি হচ্ছে যানজটের। এদিকে বেপরোয়া কেনাকাটায় করোনার ঝুঁকি বাড়বে বলে আশঙ্কা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

ঝিনাইদহের সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম বলেন, আজও ঝিনাইদহে নতুন করে ২৭ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। সোমবার একজন মারা গেছেন। করোনার এই পরিস্থিতিতে মানুষ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, দোকান-পাটে ভিড় করছে। এতে করোনা সংক্রমণের ঝুঁকি বেড়েই চলেছে।

জেলা প্রশাসক মজিবর রহমান বলেন, মানুষের বাইরে আসা, স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়টি অনিয়ন্ত্রিত হয়ে পড়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মানতে ও মানুষকে সচেতন করতে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত কাজ করছে বলে জানান তিনি।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো চালকদের 

দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো চালকদের 

পুকুরে ভেসে উঠলো বাবা-মা-মেয়ের লাশ

পুকুরে ভেসে উঠলো বাবা-মা-মেয়ের লাশ

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

সিনহা হত্যা মামলা: ষষ্ঠ দফায় দ্বিতীয় দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু 

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৫

সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হত্যা মামলায় ষষ্ঠ দফায় দ্বিতীয় দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইলের আদালতে শুরু হয়।

এর আগে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মামলার আসামি টেকনাফ থানার বরখাস্তকৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাসসহ ১৫ জনকে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে আদালতে আনা হয়েছে। আজ সিনহার লাশ থেকে উদ্ধার গুলি ও জব্দ করা বিভিন্ন মালামালের রাসায়নিক পরীক্ষার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার সাক্ষ্যগ্রহণের মধ্য দিয়ে এই মামলার বিচারিক কার্যক্রম শুরু হবে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) ফরিদুল আলম জানান, মঙ্গলবার সকালে মামলার ৪৪ নম্বর সাক্ষী হিসেবে একটি মোবাইল ফোনের কর্মকর্তা আহসানুল হককে দিয়ে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু হয়েছে। লাশ থেকে উদ্ধার গুলি ও জব্দ করা বিভিন্ন মালামালের রাসায়নিক পরীক্ষা যারা করেছেন, তাদের মধ্যে সিআইডির রাসায়নিক পরীক্ষক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান, পিংকু পোদ্দারসহ সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা সাক্ষী দেবেন। এ ছাড়া মোবাইল অপারেটর কোম্পানির আরও একজন সৈকত সিপলু আজ আদালতে সাক্ষী দেবেন। আজ দ্বিতীয় দিন এই মামলায় মোট ১৭ জন সাক্ষীকে আদালতে উপস্থাপন করা হয়েছে।  

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ৩১ জুলাই রাতে কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিন ড্রাইভ সড়কের শামলাপুর চেকপোস্টে পুলিশের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) রাশেদ খান। তার সঙ্গে থাকা সাহেদুল ইসলাম সিফাতকে পুলিশ আটক করে। এরপর সিনহা যেখানে ছিলেন সেই নীলিমা রিসোর্টে ঢুকে তার ভিডিও দলের দুই সদস্য শিপ্রা দেবনাথ ও তাহসিন রিফাত নুরকে আটক করা হয়। পরে তাহসিনকে ছেড়ে দিলেও শিপ্রা ও সিফাতকে গ্রেফতার দেখিয়ে কারাগারে পাঠায় পুলিশ। এই দুজন পরে জামিনে মুক্তি পান।

সিনহা হত্যার ঘটনায় মোট চারটি মামলা হয়েছে। ঘটনার পরপরই পুলিশ বাদী হয়ে তিনটি মামলা করে। এর মধ্যে দুটি মামলা হয় টেকনাফ থানায়, একটি রামু থানায়। ঘটনার পাঁচ দিন পর অর্থাৎ ৫ আগস্ট কক্সবাজার আদালতে টেকনাফ থানার বরখাস্ত হওয়া ওসি প্রদীপ, বাহারছড়া তদন্ত কেন্দ্রের পরিদর্শক লিয়াকত আলীসহ নয় পুলিশের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা করেন সিনহার বড় বোন শারমিন শাহরিয়া ফেরদৌস। চারটি মামলা তদন্তের দায়িত্ব পায় র‍্যাব।

২০২০ সালের ১৩ ডিসেম্বর ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ১৫ জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা ও র‍্যাব-১৫ কক্সবাজারের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. খাইরুল ইসলাম।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

‘টাকা না দিলে জমি খারিজ করেন না ফারুক’

‘টাকা না দিলে জমি খারিজ করেন না ফারুক’

মাদক মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ড

মাদক মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ড

বাবার নির্বাচনি কার্যালয়ের ছাদ থেকে পড়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

বাবার নির্বাচনি কার্যালয়ের ছাদ থেকে পড়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো চালকদের 

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫২

হবিগঞ্জের মাধবপুরে দুটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই চালক নিহত হয়েছেন। তাৎক্ষণিকভাবে তাদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) ভোরে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার শাহজিবাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

পুলিশ জানায়, সিলেট থেকে ঢাকাগামী একটি ট্রাকের সঙ্গে বিপরীতে দিক থেকে আসা অপর একটি ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। ঢাকা সিলেট মহাসড়কের হবিগঞ্জের মাধবপুর উপজেলার শাহজিবাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনায় দুই ট্রাকের চালক নিহত হন। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে পাঠায়। 

শায়েস্তাগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি মাইনুল ইসলাম দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, নিহত ব্যক্তিদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। তাদের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে ভোরে কুয়াশার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

পুকুরে ভেসে উঠলো বাবা-মা-মেয়ের লাশ

পুকুরে ভেসে উঠলো বাবা-মা-মেয়ের লাশ

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

নিষেধাজ্ঞা শেষে ইলিশ ধরতে নদী ও সাগরে জেলেরা

নিষেধাজ্ঞা শেষে ইলিশ ধরতে নদী ও সাগরে জেলেরা

মাইক্রোর ধাক্কায় মহাসড়কে পড়া ছাত্রকে পিষে দিলো ট্রাক

মাইক্রোর ধাক্কায় মহাসড়কে পড়া ছাত্রকে পিষে দিলো ট্রাক

পুকুরে ভেসে উঠলো বাবা-মা-মেয়ের লাশ

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০:৩১

খুলনার কয়রা উপজেলার বাগালী ইউনিয়নের একটি পুকুর থেকে একই পরিবারের তিন সদস্যের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। খবর পেয়ে মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) সকালে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহতরা হলেন—বাগালী ইউনিয়ন পরিষদের পাশে বসবাসকারী হাবিবুল্লাহ গাজী (৩৩), তার স্ত্রী বিউটি বেগম (২৮) ও মেয়ে টুনি (১৩)।

স্থানীয়রা জানান, হাবিবুল্লাহ পেশায় দিনমজুর। তার মেয়ে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী। লাশ উদ্ধারের পর তিন জনের মাথা ও মুখে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন দেখা গেছে।

বাগালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুস সামাদ গাজী বলেন, তাদেরকে কেন বা কী কারণে হত্যা করা হয়েছে, এ সম্পর্কে এখনও কিছু জানা যায়নি।

কয়রা থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. শাহাদাৎ হোসেন বলেন, সকালে খবর পেয়ে তিন জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পরিকল্পিতভাবে হত্যার পর ঘটনা আড়াল করতে লাশ পুকুরে ফেলা হতে পারে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো চালকদের 

দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো চালকদের 

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

নিষেধাজ্ঞা শেষে ইলিশ ধরতে নদী ও সাগরে জেলেরা

নিষেধাজ্ঞা শেষে ইলিশ ধরতে নদী ও সাগরে জেলেরা

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০:৪১

চট্টগ্রাম নগরীর এম এ মান্নান ফ্লাইওভারের আরাকান সড়কমুখী র‌্যাম্পের একটি পিলারে ফাটল দেখা দিয়েছে। সোমবার (২৫ অক্টোবর) ওই পিলারে ফাটল দেখার পর রাত ১০টা থেকে ফ্লাইওভারের কালুরঘাটমুখী র‌্যাম্প দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে পুলিশ।

চান্দগাঁও থানার ওসি মো. মাঈনুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, র‌্যাম্পের পিলারে ফাটলের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর রাতেই আমরা ঘটনাস্থলে যাই। সেখানে গিয়ে দেখতে পাই বহদ্দারহাট মোড় থেকে আরাকান সড়কের দিকে যাওয়া র‌্যাম্পের একটি পিলারে ফাটল দেখা দিয়েছে। পরে আমরা তাৎক্ষণিকভাবে ওই র‌্যাম্প দিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দিয়েছি। পরবর্তী সিদ্ধান্ত না নেওয়া পর্যন্ত ওই র‌্যাম্প দিয়ে যান চলাচল বন্ধ থাকবে।

তিনি আরও বলেন, এ সম্পর্কে সিটি করপোরেশন ও চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষকে আমরা অবহিত করেছি।

প্রায় দেড়শ’ কোটি টাকা ব্যয়ে এক দশমিক চার কিলোমিটার দৈর্ঘ্য ও ১৪ মিটার প্রস্থ ফ্লাইওভারটি নির্মাণ শেষে ২০১৭ সালের ডিসেম্বরে যান চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়েছিল। এরপর ৩০ কোটি টাকা ব্যয়ে ৩০০ মিটারের কালুরঘাটমুখী এই র‌্যাম্প যুক্ত হয় ফ্লাইওভারে। ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে র‌্যাম্পটি নির্মাণের কাজ করেছিল সিডিএ। বর্তমানে ফ্লাইওভারটি রক্ষণাবেক্ষণের দায়িত্বে আছে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন।

স্থানীয় কাউন্সিলর এসরারুল হক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, বিষয়টি জানার পর আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। বিষয়টি মেয়রকে জানিয়েছি, আজ সিডিএ’র সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী করণীয় সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আপাতত নিরাপত্তার স্বার্থে উড়ালসড়কের র‌্যাম্পটি দিয়ে যান চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। ফ্লাইওভারের নিচে ভাসমান দোকানগুলো সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সিডিএ’র প্রধান প্রকৌশলী হাসান বিন শামস বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, র‌্যাম্পের পিলারে ফাটলের বিষয়টি শুনেছি। ওই প্রকল্পটির পরিচালক ছিলেন প্রকৌশলী মাহফুজুর রহমান। এ বিষয়ে আপনি তার সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

পরে এ বিষয়ে জানতে প্রকৌশলী মাহফুজুর রহমানকে একাধিকবার কল করা হলে তিনি তা রিসিভ করেননি।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

সিনহা হত্যা মামলা: ষষ্ঠ দফায় দ্বিতীয় দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু 

সিনহা হত্যা মামলা: ষষ্ঠ দফায় দ্বিতীয় দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু 

দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো চালকদের 

দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো চালকদের 

পুকুরে ভেসে উঠলো বাবা-মা-মেয়ের লাশ

পুকুরে ভেসে উঠলো বাবা-মা-মেয়ের লাশ

‘টাকা না দিলে জমি খারিজ করেন না ফারুক’

‘টাকা না দিলে জমি খারিজ করেন না ফারুক’

‘টাকা না দিলে জমি খারিজ করেন না ফারুক’

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৪২

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলার পাহাড়পুর ইউনিয়নের আউলিয়া বাজার অফিসের ভূমি সহকারী কর্মকর্তা মোহাম্মদ ফারুক মিয়ার বিরুদ্ধে ঘুষ দাবির অভিযোগ উঠেছে। এক ভুক্তভোগী অভিযোগ করেছেন ভূমির খারিজসহ ভূমি সংক্রান্ত যেকোনও কাজের জন্য তার কাছে গেলে তিনি উৎকোচ দাবি করেন। এ ঘটনায় সোমবার (২৫ অক্টোবর) বিকালে ফারুক মিয়ার বিরুদ্ধে উপজেলার পাহাড়পুর গ্রামের ভুক্তভোগী আলী হোসেন উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। 

অভিযোগে ভুক্তভোগী আলী হোসেন বলেন, তার ভাই আলী আহম্মদ গত ১৮ অক্টোবর পাহাড়পুর ও খাটিঙ্গা মৌজার ৫০.৪১ শতাংশ জায়গার খারিজ করাতে ভূািম অফিসে যান। তখন ফারুক মিয়া বিজয়নগর উপজেলা ভূমি অফিসের কথা বলে পাঁচ হাজার টাকা ঘুষ দাবি করেন। কিন্তু এ সময় আলী হোসেন শুধুমাত্র সরকারি ফি দিতে চাইলে অভিযুক্ত ফারুক মিয়া তার সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন।

অভিযোগে আলী হোসেন আরও বলেন, ‘ফারুক মিয়া শুধু আমার ভাই নয়, টাকা ছাড়া কারও কাজই করেন না। ঘুষ ছাড়া কারও জমির খারিজ করতে চান না তিনি।’ 

অভিযুক্ত ফারুক মিয়া সব অভিযোগ মিথ্যা বলে দাবি করেছেন। তিনি বলেন, একজন মানুষ অভিযোগ দিতেই পারে। অভিযোগ যেহেতু দিয়েছে, এখন আমি আর কী বলবো।

বিজয়নগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এ.এইচ ইরফান উদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি তদন্ত করতে এসিল্যান্ডকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তদন্ত প্রতিবেদন পেলে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন তিনি। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

সিনহা হত্যা মামলা: ষষ্ঠ দফায় দ্বিতীয় দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু 

সিনহা হত্যা মামলা: ষষ্ঠ দফায় দ্বিতীয় দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু 

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

মাদক মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ড

মাদক মামলায় ৫ বছরের কারাদণ্ড

বাবার নির্বাচনি কার্যালয়ের ছাদ থেকে পড়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

বাবার নির্বাচনি কার্যালয়ের ছাদ থেকে পড়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো চালকদের 

দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেলো চালকদের 

পুকুরে ভেসে উঠলো বাবা-মা-মেয়ের লাশ

পুকুরে ভেসে উঠলো বাবা-মা-মেয়ের লাশ

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

১৫০ কোটি টাকার ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পের পিলারে ফাটল

নিষেধাজ্ঞা শেষে ইলিশ ধরতে নদী ও সাগরে জেলেরা

নিষেধাজ্ঞা শেষে ইলিশ ধরতে নদী ও সাগরে জেলেরা

বিয়েতে রাজি না হওয়ায় তরুণীকে পিটিয়ে ও অ্যাসিড ঢেলে হত্যা

বিয়েতে রাজি না হওয়ায় তরুণীকে পিটিয়ে ও অ্যাসিড ঢেলে হত্যা

আ.লীগ প্রার্থীর নির্বাচনি সভায় বিএনপি নেতা প্রধান অতিথি

আ.লীগ প্রার্থীর নির্বাচনি সভায় বিএনপি নেতা প্রধান অতিথি

মাছ ও শুঁটকি আহরণ যাত্রা শুরু হচ্ছে জেলেদের

মাছ ও শুঁটকি আহরণ যাত্রা শুরু হচ্ছে জেলেদের

সর্বশেষ

আসছে অন-ডিমান্ড টিউটরিং প্ল্যাটফর্ম ‘পড়াই’

নতুন স্টার্টআপআসছে অন-ডিমান্ড টিউটরিং প্ল্যাটফর্ম ‘পড়াই’

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

আগের শর্তেই পরীমণিসহ তিন জনের জামিন

ছায়াপথের বাইরে প্রথম কোনও গ্রহের লক্ষণ দেখতে পেলেন বিজ্ঞানীরা

ছায়াপথের বাইরে প্রথম কোনও গ্রহের লক্ষণ দেখতে পেলেন বিজ্ঞানীরা

সিনহা হত্যা মামলা: ষষ্ঠ দফায় দ্বিতীয় দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু 

সিনহা হত্যা মামলা: ষষ্ঠ দফায় দ্বিতীয় দিনের সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু 

চিকিৎসা গ্রহণ শেষে দেশে ফিরলেন রাষ্ট্রপতি

চিকিৎসা গ্রহণ শেষে দেশে ফিরলেন রাষ্ট্রপতি

© 2021 Bangla Tribune