X
শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮
Bangla Tribune Eid

সেকশনস

প্রথমদিনে সারাদেশে লকডাউন মোটামুটি সফল

আপডেট : ১৫ এপ্রিল ২০২১, ০০:৪৩

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে দেশব্যাপী ডাকা লকডাউনের প্রথমদিন মোটামুটি সফল হয়েছে পুলিশ। সড়কে মুভমেন্ট পাস নিয়ে বের হওয়ার নিয়ম থাকায় পাস ছাড়া যাত্রীদের বিড়ম্বনার মধ্যে পড়তে হয়েছে। দোকানপাট ও মার্কেট বন্ধ ছিল, যারা খোলার চেষ্টা করছে তাদের জরিমানার মুখোমুখি হতে হয়েছে। মাস্ক ছাড়া ও অযথা ঘোরাফেরা করা লোকদেরও জরিমানার আওতায় এনেছে পুলিশ ও ভ্রাম্যমাণ আদলত। সড়কে যানবাহন ছিল না। পা চালিত রিকশা অনেক জায়গায় চললেও যন্ত্রচালিত বাহন একেবারেই নিষিদ্ধ ছিল। যেগুলো চলেছে তাদের জরিমানার মুখোমুখি হতে হয়েছে। এরপরেও পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে পাড়া মহল্লায় অটোরিকশা চালিয়েছে অনেকে। বাজারগুলোতেই কেবল স্বাস্থ্যবিধি মানানো যাচ্ছে না এখনও। এ ব্যাপারে প্রশাসনকে নতুন করে ভাবার পরামর্শ দিয়েছেন সচেতনমহল।

খুলনা প্রতিনিধি জানান, খুলনায় লকডাউনের প্রথম দিনে মহানগরীর ব্যস্ততম সড়কগুলোর মোড়ে মোড়ে পুলিশ ও প্রশাসনের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। অপ্রয়োজনে কেউ বের হলে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে জরিমানা হচ্ছে। প্রথম দিনে খুলনায় ৮৫ মামলা, ৫৪ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। প্রশাসনের কঠোর অবস্থানের কারণে রাস্তা -ঘাটে রিকশা, ইজিবাইক, মাহিন্দ্রা মোটর সাইকেল, মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকারসহ বিভিন্ন যানবাহন খুব কম দেখা গেছে। দোকানপাট, মার্কেট সব বন্ধ রয়েছে। তাছাড়া রূপসা ও জেলখানা ঘাটে নজরদারিতে প্রয়োজন ছাড়া কাউকে খেয়া পারাপার করতে দেওয়া হচ্ছে না।

সড়কে প্রশাসনের কর্মকর্তাদের দায়িত্ব পালনের সময় সাধারণ মানুষকে মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণের আহ্বান জানানো হয় এবং স্বাস্থ্যবিধি না মানলে যথাযথ আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের ব্যাপারে প্রচারণা চালানো হয়।

যশোর প্রতিনিধি জানান, কঠোর লকডাউনের প্রথমদিন যশোরের মণিরামপুরে বুধবার মাঠে ছিল উপজেলা প্রশাসন, এসিল্যান্ড, ওসিসহ থানা ও ফাঁড়ি পুলিশ।

লকডাউন অমান্য করে দোকান খোলা রাখার দায়ে পৃথক অভিযানে চার ব্যবসায়ীকে জরিমানা করেছেন ইউএনও সৈয়দ জাকির হাসান ও এসিল্যান্ড পলাশ দেবনাথ।

ইউএনও সৈয়দ জাকির হাসান অভিযান চালিয়ে রাজগঞ্জ বাজারের ইলেক্ট্রনিকসের দোকানি সুধাংশুকে দুই হাজার টাকা, রোহিতা বাজারের গার্মেন্টসের দোকানি নূর মোহম্মদকে ৫০০ টাকা ও বেলতলা বাজারের কাপড়ের দোকানি হযরত আলীকে ৫০০ টাকা জরিমানা করেছেন।

একইসাথে এসিল্যান্ড পলাশ দেবনাথ বাসুদেবপুর বাজারে অভিযান চালিয়ে মিজানুর রহমান নামে এক কাপড়ের দোকানিকে ২০০ টাকা জরিমানা করেছেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের দুই বেঞ্চ সহকারী সাইফুল ইসলাম ও ফাহিম আল মোমিন জরিমানার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বরিশাল প্রতিনিধি জানান, বরিশালে প্রথম দিনের লকডাউন সকাল থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত সফলভাবে সম্পন্ন হলেও বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কিছুটা ঢিলেঢালাভাব লক্ষ্য করা গেছে। যারা ঘরের বাইরে বের হয়েছেন তারা নানা অজুহাত তুলে ধরেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাছে।

তবে ওষুধ, মুদি, কাঁচা পণ্য এবং কিছু খাবার দোকান ছাড়া নগরীর বেশিরভাগ দোকান বন্ধ রয়েছে। নগরীর মধ্যে দু-চারটি রিকশা এবং ব্যক্তিগত যান ছাড়া তেমন কোনও গণপরিবহন চলাচল চোখে পড়েনি। কিছু কিছু রাস্তাঘাট প্রায় জনশূন্য থাকলেও পাড়া মহল্লার এর ব্যতিক্রম লক্ষ্য করা গেছে।

জেলাসহ বিভিন্ন স্থান থেকে নগরীর মধ্যে মানুষজনের প্রবেশ ঠেকাতে নগরীর ৩টি প্রবশেদ্বার নথুল্লাবাদ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল, কালিজিরা ব্রিজ এবং দপদপিয়া ব্রিজ এলাকায় চেকপোস্ট স্থাপন করেছে পুলিশ। তারা অতিপ্রয়োজনীয় ছাড়া কাউকে নগরীতে প্রবেশ করতে দিচ্ছেন না।

এদিকে লকডাউন কার্যকর করতে আজ নগরীতে পৃথক দুটি ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেছে জেলা প্রশাসন। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. জাভেদ হোসেন চৌধুরী ও নিশাত ফারাবীর ভ্রাম্যমান আদালত নগরীর বিভিন্ন এলাকায় ঘুরে অপ্রয়োজনীয় দোকানপাট বন্ধ করে দেন।

এ সময় লকডাউন ও স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা করায় ৪ ব্যক্তিকে ১ হাজার টাকা জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জের মহাসড়কে আটক করা হয় প্রাইভেট কারসহ বিভিন্ন গাড়ি

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, শিল্প ও বন্দর নগরীর নারায়ণগঞ্জে কঠোরভাবে লকডাউন পালিত হচ্ছে। বুধবার সকাল থেকে নারায়ণগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড থেকে যাত্রীবাহী বাসসহ সকল প্রকার গণপরিবহন চলাচল বন্ধ রয়েছে। মার্কেট, শপিংমলসহ বিভিন্ন দোকানপাট খুলেনি। তবে সীমিত পরিসরে রিকশা চলাচল করছে। নগরীর গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট চাষাঢ়াতে বসানো হয়েছে পুলিশের চেকপোস্ট। কোন ব্যক্তি রিকশা বা অন্য কোনও যানবাহন নিয়ে এলেই পড়তে হয়েছে পুলিশের জেরার মুখে। সুনির্দিষ্ট কারণ বলতে না পারলে ঘুরিয়ে বাড়িতে ফেরত পাঠানো হচ্ছে। সারাদিনই ছিল এই চিত্র। 

লকডাউনের প্রথম দিনে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের শিমরাইলে ৮০টি প্রাইভেটকার আটক করা হয়েছে। বুধবার (১৪ এপ্রিল) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (সহকারী কমিশনার ভূমি)রেজা মাসুম প্রধানের নেতৃত্বে এ কার্যক্রম চালানো হয়।

এ বিষয়ে রেজা মাসুম প্রধান জানান, সর্বাত্মক লকডাউন বাস্তবায়নে ভোর ৬টায় শিমরাইল মোড়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়ে অবস্থান নেই। কিন্তু বেলা বাড়ার সাথে সাথে যানবাহনের চলাচলও বাড়ে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রাইভেটকার। কোনও কারণ ছাড়াই অনেকে গাড়ি নিয়ে বের হচ্ছেন। প্রায় ৮০টি প্রাইভেটকার আটক করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, শাস্তিস্বরূপ গাড়িগুলোকে ৩ ঘণ্টা করে আটকে রাখা হয়েছিল। পরে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তবে আজ কোনও জরিমানা করা হয়নি।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি ঠেকাতে ১৪ থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত সারাদেশে কঠোর লকডাউন আরোপ করা হয়েছে। লকডাউন কার্যকর করতে সরকারের ১৩ দফা বিধিনিষেধে বলা হয়েছে, অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া (ওষুধ ও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি কেনা, চিকিৎসা সেবা, মরদেহ দাফন বা সৎকার এবং টিকা কার্ড নিয়ে টিকার জন্য যাওয়া) কোনোভাবেই বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে না।

লকডাউনে ঝালকাঠির একটি বাজারে মানুষের ভিড়। ছিল না স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা।

ঝালকাঠি প্রতিনিধি জানান, কঠোর লকডাউনের মধ্যেও প্রথম রমজানে ঝালকাঠিতে বাজার ও রাস্তাঘাটে জনসাধারণের ভিড় বেড়েছে। স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই ঘর থেকে বের হচ্ছে মানুষ। সকাল থেকে শহরের বাজারগুলোতে গণ জমায়েত করে কেনাকাটা করছে নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। অধিকাংশের মুখে ছিল না মাস্ক। সামাজিক দূরত্ব মানছেন না কেউই। যানবাহন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করলেও অটোরিকশায় যাতায়াত করছে মানুষ।

প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বের না হওয়ার নির্দেশনা মানছে না কেউ। প্রয়োজন ছাড়াই বের হওয়া মানুষ পুলিশ দেখলেই আড়ালে লুকিয়ে পড়ছিল। সমালোচকরা বলছেন এ যেন 'চোর পুলিশ খেলা'।

করোনা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। বুধবার ভ্রাম্যমাণ আদালত মাস্ক ব্যাবহার না করা, সরকারি বিধি-নিষেধ উপেক্ষা করে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার দায়ে ৫ টি মামলায় ৫ জনকে ২৯০০টাকা জরিমানা করেছে। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মো. আরিফুজ্জামান ও মিলন চাকমা মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেছেন।

টাঙ্গাইলে একটি প্রাইভেট কার আটক করে জিজ্ঞাসাবদ করছে পুলিশ।

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি জানান, প্রথমদিনের লকডাউনে টাঙ্গাইল জেলার ৫৪টি পয়েন্টে চেকপোস্ট বসিয়েছে পুলিশ। বুধবার (১৪ এপ্রিল) দুপুরে সরেজমিনে টাঙ্গাইল শহরের নিরালা মোড়, পুরাতন বাসস্ট্যান্ড, নতুন বাসস্ট্যান্ড, আশেকপুর বাইপাস, রাবনা বাইপাস ও ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কসহ বিভিন্ন পয়েন্টে গিয়ে দেখা যায়, অ্যাম্বুলেন্স, পণ্যবাহী যানবাহন ছাড়া অন্য কোনও যানবাহন চলাচল করতে দিচ্ছে না পুলিশ। মহাসড়কসহ শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। লকডাউনে নির্ধারিত যানবাহন ছাড়া অন্য কোনও যানবাহন চলাচল করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

এদিকে জরুরি প্রয়োজনে বের হওয়া মানুষগুলোকে পায়ে হেঁটে যাতায়াত করতে দেখা গেছে। মাঝে মধ্যে শহরের বিভিন্নস্থানে দু’একটি করে প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস, মোটরসাইকেল, রিকশা ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা চলাচল করছে। ওষুধ ও অতি জরুরি পণ্যের দোকান ছাড়া অন্য কোনও দোকান খোলা দেখা যায়নি।

লকডাউনের সার্বিক পরিস্থিতি দেখতে পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় শহরের গুরত্বপূর্ণ সড়ক, রাবনা ও আশেকপুর বাইপাসসহ মহাসড়কের বিভিন্ন স্থান পরিদর্শন করেন।

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, হবিগঞ্জে কঠোরভাবে চলছে লকডাউন। বুধবার (১৪ এপ্রিল) সকাল থেকে জেলার কোথাও কোন যানবাহন চলাচল করতে দেখা যায়নি।

তবে শহরের অলিগলিতে ছোটখাট যান চলাচল করলেও আইন শৃঙ্খলা বাহিনী তাদের আটক করছে। পাশাপাশি নির্বাহী ম্যাজিট্রেট ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আর্থিক জরিমানা করছেন।

লকডাউন পালনে পুলিশ ও আনসারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর রয়েছে। জেলা শহর থেকে দূরপাল্লার কোনও যানবাহন চলাচল করেনি। এছাড়া শহরের কোথাও কোথাও দোকানপাঠ খোলা থাকলেও মানুষ তেমনটা নেই বললেই চলে।

রংপুরে একটি বাজারে মানুষের ভিড়।

রংপুর প্রতিনিধি জানান, লকডাউনের প্রথম দিনে বুধবার বিভাগীয় নগরী রংপুরে শপিং মল মার্কেটসহ দোকানপাট বন্ধ রয়েছে। নগরীতে যান চলাচল করছে খুবই সামান্য। তবে বৃহৎ কাঁচাবাজার সিটি বাজারে চলছে লকডাউনের নামে প্রহসন। স্বাস্থ্যবিধি মানার বালাই নেই, সামাজিক দূরত্বও একেবারেই মানা হচ্ছে না। দোকানদারদের বেশির ভাগই মাস্ক ব্যবহার করছেন না। মাছ বাজারে আরও ভয়াবহ অবস্থা। মাস্ক না পড়ার কারণ জানতে চাইলে নানান অজুহাত দেখান ব্যবসায়ীরা।

দুপুর ১২টা পর্যন্ত আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর কোনও কর্মকাণ্ড লক্ষ্য করা যায়নি। উন্মুক্ত স্থানে বাজার বসার কথা থাকলেও তা মানা হয়নি। গাদাগাদি করছে চলছে দোকানদারি। খদ্দেররাও সামাজিক দূরত্ব মানছেন না।

অন্যদিকে, নগরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে চেকপোস্ট বসিয়ে যান চলাচল নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছে পুলিশ।

বোয়ালমারী(ফরিদপুর) সংবাদদাতা জানান, ফরিদপুরে কঠোরভাবে পালন হচ্ছে লকডাউন। সকাল থেকে বিভিন্ন পয়েন্টে আইন শৃঙ্খলারক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতা ছিল চোখে পড়ার মতো। লকডাউনের কারণে অফিস-আদালতসহ বন্ধ রয়েছে সকল মার্কেট ও দোকানপাট। বাস-ট্রেনসহ বেশির ভাগ যানবাহনও বন্ধ রয়েছে।

তবে সীমিত আকারে শহরের বিভিন্ন স্থানে রিকশা ও ইজিবাইক চলাচল করতে দেখা গেছে। রোজার প্রথম দিন এবং লকডাউন কড়াকড়ি থাকায় রাস্তায় মানুষজন তেমন একটা বের হয়নি। শহরের বিভিন্ন পাড়া-মহল্লার সড়কগুলোতে ব্যারিকেড দিয়ে যানবাহন ও মানুষের চলাচল বন্ধ করা হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে কিছু স্থানে কাঁচাবাজারে বেচাকেনা চলছে।

এদিকে শহরে লকডাউন কঠোরভাবে পালন করা হলেও একেবারেই ভিন্নচিত্র গ্রামগুলোতে। সেখানে লকডাউনের কোন প্রভাব পড়েনি। নেই কোনও স্বাস্থ্যবিধির বালাই। জেলার ৯টি উপজেলার গ্রামগুলোতেই এমন চিত্র লক্ষ্য করা গেছে।

ফরিদপুরের পুলিশ সুপার আলিমুজ্জামান জানান, লকডাউনে যাতে কেউ অপ্রয়োজনে ঘর থেকে বের না হন সেজন্য পুলিশ কঠোর নজরদারি করছে।

পটুয়াখালী প্রতিনিধি জানান, পটুয়াখালীতে আজ কঠোর লকডাউন শুরু হয়েছে। জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের কঠোর নজরদারিতে যানবাহনসহ গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও রাস্তায় মানুষের সীমিত চলাচল রয়েছে।

বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে পুলিশ চেক পোস্ট বসিয়ে বাজারমুখী মানুষ এবং যানবাহনের গতিরোধ করে তাদের বাড়ি ফিরে যেতে বাধ্য করেছে। উপযুক্ত কারণ দেখাতে না পারলে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানা করা হচ্ছে। তবে এখনও বেশিরভাগ কাঁচাবাজারসহ মাছ বাজার উন্মুক্তস্থানে স্থানান্তরিত না করায় এসব বাজারে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত হচ্ছে চরমভাবে।

কাঁচাবাজার ও মাছবাজার উন্মুক্তস্থানে স্থানান্তর না করার বিষয়ে জেলা প্রশাসক মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরী বলেন, গতবছর লকডাউনের সময় কাঁচাবাজার উন্মুক্তস্থানে স্থানান্তরিত করে তেমন পরিবর্তন হয়নি। এ কারণে এই লকডাউনে এখনও উন্মুক্ত স্থানে স্থানান্তর করা হয়নি।

রাঙামাটি প্রতিনিধি জানান, রাঙামাটিতে কঠোরভাবে লকডাউন চলছে। বুধবার সকাল থেকে শহরের একমাত্র গণপরিবহন অটোরিকশা বন্ধ ছিল। সব জায়গায় মার্কেটগুলোও ছিল বন্ধ।

রাঙামাটি জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রুম্পা ঘোষের নেতৃত্বে আরও একটি মোবাইল কোর্ট মাঠে কাজ করে। এসময় দোকানে মূল্য তালিকা না থাকা, পণ্যের বাড়তি দাম আদায় ও মাস্ক পরিধান না করায় ৮ জনকে ৭ হাজার ২০০ টাকা জরিমানা করা হয়। এই অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

সকালে লকডাউন ও রমজান উপলক্ষে নিত্যপণ্যের বাজার মনিটরিং করেন রাঙামাটি জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান। এ সময় জেলা প্রশাসক তেল, চিনি, পেঁয়াজ, ছোলা, খেজুরসহ নিত্যপণ্যের মূল্য স্বাভাবিক রাখার বিষয়ে ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলেন।

পাবনা প্রতিনিধি জানান, সর্বাত্মক লকডাউনের প্রথম দিনে পাবনায় প্রশাসনের কঠোর অবস্থানে রয়েছে প্রশাসন। শহরের গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে চেকপোস্ট বসিয়ে জনগণের চলাচল সীমিত করা হয়েছে। সকালে কিছু অটোবাইক ও রিক্সা চলাচল করলেও বেলা বাড়ার সাথে সাথে প্রশাসনের নজরদারিতে তা কমে এসেছে। বিভিন্ন রাস্তায় বাঁশ দিয়ে যান চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করা হয়েছে।

প্রধান সড়কে জনসমাগম কম থাকলেও বড় বাজার, দই বাজার, সোনাপট্টি ও নিউমার্কেট এলাকায় প্রশাসনের নজর এড়িয়ে দোকান খোলার চেষ্টা করছেন ব্যবসায়ীরা। নিজ নিজ দোকানের সামনে ভিড় করে, কর্মচারীদের নিয়ে অবস্থান নিয়েছেন তারা। কেউ কেউ লুকিয়ে বেচাকেনাও করেন। লকডাউন দেখতে বের হয়েছে উৎসুক জনতাও। বাজার পরিদর্শনে এসে তাদের সতর্ক করেছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে প্রশাসনের দল। তবে, প্রশাসন চলে যাওয়ার পর আবারও দোকান খোলার চেষ্টা করেছেন তারা।

পাবনা জেলা প্রশাসক কবীর মাহমুদ জানান, লকডাউন কার্যকর করতে তৎপর রয়েছে প্রশাসন। প্রাথমিকভাবে নিষেধাজ্ঞা অমান্যকারীদের সতর্ক করা হচ্ছে। প্রয়োজনে ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানাসহ কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/টিএন/

সম্পর্কিত

রংপুর মেডিক্যালে ঈদে রোগীদের চিকিৎসাসেবা না পাওয়ার অভিযোগ

রংপুর মেডিক্যালে ঈদে রোগীদের চিকিৎসাসেবা না পাওয়ার অভিযোগ

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

কর্মচারীদের গাফিলতিতে হাসপাতাল থেকে পালায় করোনা রোগীরা

কর্মচারীদের গাফিলতিতে হাসপাতাল থেকে পালায় করোনা রোগীরা

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

হাসপাতাল থেকে করোনা রোগী কীভাবে পালায়, কেন পালায়?

হাসপাতাল থেকে করোনা রোগী কীভাবে পালায়, কেন পালায়?

বেনাপোল দিয়ে ভারতফেরত যাত্রী কমেছে

বেনাপোল দিয়ে ভারতফেরত যাত্রী কমেছে

পাঁচ দফা দাবিতে বগুড়ায় পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি

পাঁচ দফা দাবিতে বগুড়ায় পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি

ফাঁকা রাস্তায় দ্রুতগতিতে বাইক চালাতে গিয়ে গেলো প্রাণ

ফাঁকা রাস্তায় দ্রুতগতিতে বাইক চালাতে গিয়ে গেলো প্রাণ

বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়ে প্রাণ গেলো কিশোরের

বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়ে প্রাণ গেলো কিশোরের

ঈদের দিনেও বাড়ি ফেরা

ঈদের দিনেও বাড়ি ফেরা

হাতের ছুরি বিঁধলো বুকে

হাতের ছুরি বিঁধলো বুকে

সর্বশেষ

ঈদের দ্বিতীয় দিন: গান শোনাবেন তারা...

ঈদের দ্বিতীয় দিন: গান শোনাবেন তারা...

অক্সিজেন লাগবে, অক্সিজেন?

অক্সিজেন লাগবে, অক্সিজেন?

শনিবার সারপ্রাইজ: মুখোমুখি বসছেন তাহসান-মিথিলা!

শনিবার সারপ্রাইজ: মুখোমুখি বসছেন তাহসান-মিথিলা!

ইন্টারনেটের আওতায় মহেশখালীর ৫০ হাজার মানুষ

ডিজিটাল উপকূল-৫ইন্টারনেটের আওতায় মহেশখালীর ৫০ হাজার মানুষ

ঈদের দ্বিতীয় দিন: ভিন্ন আয়োজনে ‘ইত্যাদি’ ও অন্যান্য

ঈদের দ্বিতীয় দিন: ভিন্ন আয়োজনে ‘ইত্যাদি’ ও অন্যান্য

রংপুর মেডিক্যালে ঈদে রোগীদের চিকিৎসাসেবা না পাওয়ার অভিযোগ

রংপুর মেডিক্যালে ঈদে রোগীদের চিকিৎসাসেবা না পাওয়ার অভিযোগ

ঈদের দ্বিতীয় দিন: যত নাটক টেলিছবি ও স্বল্পদৈর্ঘ্য

ঈদের দ্বিতীয় দিন: যত নাটক টেলিছবি ও স্বল্পদৈর্ঘ্য

আসামের হিমন্তকে অভিনন্দনে শেখ হাসিনার কুশলী কূটনীতি

আসামের হিমন্তকে অভিনন্দনে শেখ হাসিনার কুশলী কূটনীতি

গাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা (ফটো স্টোরি)

গাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা (ফটো স্টোরি)

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

কর্মচারীদের গাফিলতিতে হাসপাতাল থেকে পালায় করোনা রোগীরা

কর্মচারীদের গাফিলতিতে হাসপাতাল থেকে পালায় করোনা রোগীরা

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

রংপুর মেডিক্যালে ঈদে রোগীদের চিকিৎসাসেবা না পাওয়ার অভিযোগ

রংপুর মেডিক্যালে ঈদে রোগীদের চিকিৎসাসেবা না পাওয়ার অভিযোগ

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

কর্মচারীদের গাফিলতিতে হাসপাতাল থেকে পালায় করোনা রোগীরা

কর্মচারীদের গাফিলতিতে হাসপাতাল থেকে পালায় করোনা রোগীরা

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

বেনাপোল দিয়ে ভারতফেরত যাত্রী কমেছে

বেনাপোল দিয়ে ভারতফেরত যাত্রী কমেছে

পাঁচ দফা দাবিতে বগুড়ায় পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি

পাঁচ দফা দাবিতে বগুড়ায় পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের অবস্থান কর্মসূচি

ফাঁকা রাস্তায় দ্রুতগতিতে বাইক চালাতে গিয়ে গেলো প্রাণ

ফাঁকা রাস্তায় দ্রুতগতিতে বাইক চালাতে গিয়ে গেলো প্রাণ

বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়ে প্রাণ গেলো কিশোরের

বন্ধুদের সঙ্গে ঘুরতে বেরিয়ে প্রাণ গেলো কিশোরের

ঈদের দিনেও বাড়ি ফেরা

ঈদের দিনেও বাড়ি ফেরা

© 2021 Bangla Tribune