X
শনিবার, ১৫ মে ২০২১, ৩১ বৈশাখ ১৪২৮
Bangla Tribune Eid

সেকশনস

‘জরুরি প্রয়োজন’ ওড়না ডেলিভারি, ডাক্তারকে খেজুর গিফট

আপডেট : ১৫ এপ্রিল ২০২১, ১৬:৪৮

চলমান লকডাউনের দ্বিতীয় দিনে সরকারের নির্দেশনা উপেক্ষা করে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় জরুরি প্রয়োজনের অজুহাতে অপ্রয়োজনীয় কাজে রাস্তায় বের হয়েছেন অনেকে। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর নিরাপত্তা তল্লাশি ও ভ্রাম্যমাণ আদালতের জেরার মুখে কেউ কেউ স্বীকার করেছেন অপ্রাসঙ্গিক বিষয়াদির কথা।

বৃহস্পতিবার (১৫ এপ্রিল) দুপুরে শাহবাগ মোড়ে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় এমনই কিছু অপ্রাসঙ্গিক বিষয় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসুর নজরে আসে।

ওড়না ডেলিভারি দিতে একটি অনলাইন পেজ- এর মালিক আওলাদ হোসেন যাচ্ছিলেন নিউমার্কেট এলাকায়। শাহবাগে ভ্রম্যমাণ আদালতের জিজ্ঞাসাবাদে এমন তথ্য উঠে আসে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জানতে চাইলে আওলাদ হোসেন বলেন, ‘ওড়না ডেলিভারি দেওয়ার জন্য নিউমার্কেট এলাকায় যাচ্ছি। এটি একটি জরুরি কাজ। জরুরি ডেলিভারি। তাই বের হয়েছি।’ বিষয়টি ভ্রম্যমাণ আদালতের কাছে জরুরি না হওয়ায় এক হাজার টাকা জরিমানা করা হয় তাকে।

শাহবাগে র‌্যাবের জেরার মুখে এক মোটরসাইকেল আরোহী ভ্রাম্যমাণ আদালত চলাকালীন  ফার্মাসিটিক্যালস কোম্পানির একটি গাড়িকে থামানোর ইশারা দেন র‌্যাব সদস্যরা। পরবর্তীতে জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, ডাক্তারদের জন্য গিফট হিসেবে খেজুর নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। জরুরি ওষুধ সেবায় নিয়োজিত স্টিকার লাগিয়ে চলছিল ফার্মাসিটিক্যালস কোম্পানির এই গাড়িটি। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে বিষয়টি জরুরি কিংবা প্রয়োজনীয় কাজ বলে মনে না হওয়ায় হয় গাড়িচালককে জরিমানা করা হয়।

রিকশায় করে মুখে গামছা লাগিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের সামনে দিয়ে যাচ্ছিলেন ইউসুফ আলী। র‌্যাব সদস্যরা রিকশা থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই দেখা যায়, পকেটে মাস্ক থাকলেও মুখে গামছা পেঁচিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি। জিজ্ঞাসাবাদে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটকে ওই রিকশাআরোহী বলেন, ‘মাস্ক পড়লে গরম লাগে। তাই গামছা পেঁচিয়ে যাচ্ছিলাম।’ এই বক্তব্য যৌক্তিক না হওয়ায় জরিমানা গুনতে হয় তাকেও।

এ বিষয়ে র‌্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পলাশ কুমার বসু বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘জনসাধারণ আগের তুলনায় বেশি মাস্ক পরে বাইরে বের হচ্ছেন। তবে অনেকেই প্রয়োজনীয় কারণ ছাড়া রাস্তায় বের হয়েছেন। যারা অপ্রয়োজনে বের হয়েছেন এবং ভ্রাম্যমাণ আদালতের দৃষ্টিগোচর হয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থাসহ জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া জনগণকে সচেতন করতে বিভিন্ন ধরনের কর্মকাণ্ড পরিচালনা করা হচ্ছে।’ করোনার সংক্রমণ ঝুঁকি এড়াতে মাস্ক ব্যবহার এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কোনও বিকল্প নেই বলেও জানান তিনি।

 

/আরটি/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

আসামের হিমন্তকে অভিনন্দনে শেখ হাসিনার কুশলী কূটনীতি

আসামের হিমন্তকে অভিনন্দনে শেখ হাসিনার কুশলী কূটনীতি

গাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা (ফটো স্টোরি)

গাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা (ফটো স্টোরি)

নিখোঁজ, কারাবন্দি ও করোনায় মৃত নেতাকর্মীদের বাসায় বিএনপি নেতারা

নিখোঁজ, কারাবন্দি ও করোনায় মৃত নেতাকর্মীদের বাসায় বিএনপি নেতারা

আরও দুই ইসলামি বক্তাকে খুঁজছে পুলিশ

আরও দুই ইসলামি বক্তাকে খুঁজছে পুলিশ

ইউনিফর্মেই তাদের ঈদ আনন্দ

ইউনিফর্মেই তাদের ঈদ আনন্দ

মহীসোপান নিয়ে মিয়ানমার ও ভারতের বিরোধিতার ভিত্তি নেই

মহীসোপান নিয়ে মিয়ানমার ও ভারতের বিরোধিতার ভিত্তি নেই

‘জন্মগত কালো’কে সাদা করে দেওয়ার রমরমা ব্যবসা!

‘জন্মগত কালো’কে সাদা করে দেওয়ার রমরমা ব্যবসা!

ভারতে আরও তিন লাখ ৪৩ হাজার করোনা শনাক্ত

ভারতে আরও তিন লাখ ৪৩ হাজার করোনা শনাক্ত

ঈদে স্বজনদের সঙ্গে বাড়তি কথা বলার সুযোগ পেলেন বন্দিরা

ঈদে স্বজনদের সঙ্গে বাড়তি কথা বলার সুযোগ পেলেন বন্দিরা

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৬ কোটি ১৯ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ১৬ কোটি ১৯ লাখ ছাড়িয়েছে

২ মাস পর শনাক্ত হাজারের নিচে

২ মাস পর শনাক্ত হাজারের নিচে

সর্বশেষ

ঈদের দ্বিতীয় দিন: গান শোনাবেন তারা...

ঈদের দ্বিতীয় দিন: গান শোনাবেন তারা...

অক্সিজেন লাগবে, অক্সিজেন?

অক্সিজেন লাগবে, অক্সিজেন?

শনিবার সারপ্রাইজ: মুখোমুখি বসছেন তাহসান-মিথিলা!

শনিবার সারপ্রাইজ: মুখোমুখি বসছেন তাহসান-মিথিলা!

ইন্টারনেটের আওতায় মহেশখালীর ৫০ হাজার মানুষ

ডিজিটাল উপকূল-৫ইন্টারনেটের আওতায় মহেশখালীর ৫০ হাজার মানুষ

ঈদের দ্বিতীয় দিন: ভিন্ন আয়োজনে ‘ইত্যাদি’ ও অন্যান্য

ঈদের দ্বিতীয় দিন: ভিন্ন আয়োজনে ‘ইত্যাদি’ ও অন্যান্য

রংপুর মেডিক্যালে ঈদে রোগীদের চিকিৎসাসেবা না পাওয়ার অভিযোগ

রংপুর মেডিক্যালে ঈদে রোগীদের চিকিৎসাসেবা না পাওয়ার অভিযোগ

ঈদের দ্বিতীয় দিন: যত নাটক টেলিছবি ও স্বল্পদৈর্ঘ্য

ঈদের দ্বিতীয় দিন: যত নাটক টেলিছবি ও স্বল্পদৈর্ঘ্য

আসামের হিমন্তকে অভিনন্দনে শেখ হাসিনার কুশলী কূটনীতি

আসামের হিমন্তকে অভিনন্দনে শেখ হাসিনার কুশলী কূটনীতি

গাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা (ফটো স্টোরি)

গাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা (ফটো স্টোরি)

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

ঈদের দিনেও ঠায় দাঁড়িয়ে ডিউটিতে যারা

কর্মচারীদের গাফিলতিতে হাসপাতাল থেকে পালায় করোনা রোগীরা

কর্মচারীদের গাফিলতিতে হাসপাতাল থেকে পালায় করোনা রোগীরা

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

ঘরে গৃহবধূর মরদেহ ফেলে রেখে পালালো শ্বশুরবাড়ির লোকজন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আরও দুই ইসলামি বক্তাকে খুঁজছে পুলিশ

আরও দুই ইসলামি বক্তাকে খুঁজছে পুলিশ

ইউনিফর্মেই তাদের ঈদ আনন্দ

ইউনিফর্মেই তাদের ঈদ আনন্দ

‘জন্মগত কালো’কে সাদা করে দেওয়ার রমরমা ব্যবসা!

‘জন্মগত কালো’কে সাদা করে দেওয়ার রমরমা ব্যবসা!

ঈদে স্বজনদের সঙ্গে বাড়তি কথা বলার সুযোগ পেলেন বন্দিরা

ঈদে স্বজনদের সঙ্গে বাড়তি কথা বলার সুযোগ পেলেন বন্দিরা

নেতা চলে যাওয়ার পর ফাঁকা

নেতা চলে যাওয়ার পর ফাঁকা

পরিবহন খাত নিয়ে ভাবতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি শাজাহান খানের আহ্বান

পরিবহন খাত নিয়ে ভাবতে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি শাজাহান খানের আহ্বান

যাদের ঘরে ফেরা হয় না

যাদের ঘরে ফেরা হয় না

বায়তুল মোকাররমের ঈদ জামাতে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত

বায়তুল মোকাররমের ঈদ জামাতে স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষিত

বায়তুল মোকাররমে ঈদের জামাতে করোনা থেকে মুক্তির প্রার্থনা

বায়তুল মোকাররমে ঈদের জামাতে করোনা থেকে মুক্তির প্রার্থনা

ঈদে কত মানুষ ঢাকা ছেড়েছেন?

ঈদে কত মানুষ ঢাকা ছেড়েছেন?

© 2021 Bangla Tribune