X
বৃহস্পতিবার, ০৬ মে ২০২১, ২৩ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

পুলিশের সঙ্গে যেন ‘ইঁদুর-বিড়াল’ খেলছেন দোকানিরা

আপডেট : ২০ এপ্রিল ২০২১, ২১:৩৬

গত ১৪ এপ্রিল থেকে চলমান লকডাউনের সপ্তম দিনে এসে রাজধানীর বেশ কিছু এলাকায় গিয়ে দোকানপাট খোলা পাওয়া গেছে। সাটার অর্ধেক খোলা রেখে দেদার চলছে কেনাবেচা। শাড়ি, থান কাপড় থেকে শুরু করে জুতার দোকানে ক্রেতারা আসছে। পুলিশ এলে বা ফটোসাংবাদিকদের দেখলেই দোকানিরা যে যার মতো করে সটকে পড়ছেন।

এসব এলাকা দেখলে বোঝার উপায় নেই দেশে ‘কঠোর সর্বাত্মক লকডাউন’ চলছে। এসব এলাকার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা সাটার অর্ধেক খুলে রাখার কথা স্বীকার করে বলছেন, তারা চেষ্টা করছেন মানুষজনকে ঘরে রাখার। আর দোকানিরা বলছেন, স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান খোলা রাখছেন বলেই অর্ধেক সাটার খোলা, না হলে পুরো সাটার খুলে রাখতেন।

ব্রিজের ওপরে একটা লেগুনা চাকা খোলা অবস্থায় আড়াআড়ি রাখা যাতে কোনও টহলগাড়ি বা সাংবাদিকের গাড়ি না ঢুকতে পারে

সেকশন বাজারের উল্টো দিকে কামরাঙ্গীরচরের প্রবেশমুখে ছোট্ট একটা ব্রিজ। এলাকায় সেকশন বেড়িবাঁধ ব্রিজ নামে পরিচিত। ব্রিজ পার হলে রনি মার্কেট এলাকা। রাস্তার দুধারে সারি সারি দোকান। সবগুলোর শাটার অর্ধেক খোলা। ভেতরে ক্রেতারা কিনছেন। বাইরে একজন করে পাহারা দেওয়ার লোক বসানো। ব্রিজের ওপরে একটা লেগুনা চাকা খোলা অবস্থায় আড়াআড়ি রাখা, যাতে কোনও টহল গাড়ি বা সাংবাদিকের গাড়ি না ঢুকতে পারে। তারপরও কোনও ক্যামেরা দেখলে সঙ্গে সঙ্গে ভেতরে ক্রেতা রেখেই সাটার বন্ধ করে দেওয়া হচ্ছে। গত তিন দিন ধরে এই লুকোচুরি খেলার মধ্য দিয়েই চলছে কেনাবেচা। কারও মুখে মাস্ক নেই। কোনও দোকানে স্বাস্থ্যবিধির বালাই নেই।

কামরাঙ্গীরচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আমার থানাধীন এলাকায় রনি নামক যে মার্কেটটি রয়েছে তা সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে। আমাদের পুলিশি তৎপরতা জোরদার রয়েছে। তবে পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে অনেকেই মার্কেটে থাকা দোকান খোলার চেষ্টা করে। এককথায় পুলিশের সঙ্গে লুকোচুরি করে। তবে আমরা এসব বিষয় নজরদারিতে রাখছি। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক সব ধরনের শপিং মল, মার্কেট বন্ধ রাখতে আমার থানা এলাকায় পুলিশ সদস্যরা কাজ করে যাচ্ছেন।

লালবাগ কেল্লার পাশের রাস্তার সবকটি দোকানের শাটার অর্ধেক খুলে রেখে দোকানিরা বাইরে বসে আছেন। দোকানের কর্মচারীদের চোখ রাস্তায়। পুলিশের টহল গাড়ি বা ফটোসাংবাদিকের ক্যামেরা দেখলেই দোকান বন্ধ করে যে যার মতো সরে পড়ছেন।

এখানকার দোকানিরা বলছেন, প্রথম দুদিন তারা দোকান খোলেননি। এরপর রাস্তাঘাটে লোকজন যাতায়াত করছেন শুনে তারা দিনের একটা সময়ে দোকান খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেন। জরিমানা যাতে না হয় সে কারণে পুরো দোকান খোলা রাখছেন না। তাদের দাবি, পুলিশ জানে এখানে দোকান খোলা। করোনার প্রকোপ বাড়ছে, এ সময় নিজেদের জীবন রক্ষায় দোকান বন্ধ রাখা দরকার মনে করেন কিনা প্রশ্নে এক কর্মচারী বলেন, সামনে ঈদ। দোকান বন্ধ থাকলে আমাদের বেতন হবে না। আবার বেচাকেনার সময় এটা। সব মিলিয়ে চোরের মতো ব্যবসা করতে হচ্ছে।

চকবাজার থানার পরিদর্শক তদন্ত কবিরুল হাওলাদার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আমরা কাপড়ের মার্কেটগুলোতে নজরদারি রাখছি। প্রতিনিয়ত পেট্রোলিংয়ের মাধ্যমে নজরদারি রাখা হয়েছে। যারা দোকানপাট খোলার চিন্তাভাবনা করছে কিংবা করেছে তারা পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে এগুলো করছে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেলে তারা সাটার নামিয়ে চলে যায়। প্রধান সড়কগুলোতে দোকান খোলা রাখার কোনও সুযোগ নেই। গলির দিকে যেসব করেছে সেগুলো দু-একটা খোলা রাখতে চেষ্টা করা হয়। সেগুলোর বিষয়ে আমরা নজর রাখছি।

এদিকে লালবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কে এম আশরাফ উদ্দিন জানান, তার এখানে খাবার যেসব রেস্টুরেন্ট রয়েছে সেগুলো সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী খোলা রয়েছে। শুধু পার্সেল দেওয়া হচ্ছে। তার এলাকায় পাইকারি কোনও কাপড়ের দোকান নেই।

যদিও সরেজমিন দেখা গেছে এ তথ্য সঠিক নয়। পুরো এলাকার প্রায় প্রতিটি দোকান দিনের বড় অংশ ধরে খোলা রাখেন। চলাচলে কোনও বিধিনিষেধ নেই। কোনও স্বাস্থ্যবিধি না মেনে পাড়ার অলিতে গলিতে চলাচল করছে নির্বিঘ্নে।

ছবি : নাসিরুল ইসলাম

/ইউআই/এমআর/এমওএফ/

সম্পর্কিত

আড়ংকে লাখ টাকা জরিমানা

আড়ংকে লাখ টাকা জরিমানা

খিলক্ষেত ফ্লাইওভার থেকে প্রবাসীর লাশ উদ্ধার

খিলক্ষেত ফ্লাইওভার থেকে প্রবাসীর লাশ উদ্ধার

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছ কেটে উন্নয়ন বন্ধ করার দাবি

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছ কেটে উন্নয়ন বন্ধ করার দাবি

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছকাটা বন্ধে আইনি নোটিশ

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছকাটা বন্ধে আইনি নোটিশ

ঈদ মার্কেটে ভিড়, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

ঈদ মার্কেটে ভিড়, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

ঈদের আগে ব্যাংক খোলা কবে কবে

ঈদের আগে ব্যাংক খোলা কবে কবে

যে যেখানে আছেন সেখানেই ঈদ করুন: প্রধানমন্ত্রী

যে যেখানে আছেন সেখানেই ঈদ করুন: প্রধানমন্ত্রী

বেশিরভাগের নেই লাইসেন্স, স্থানান্তরে লাগবে আরও এক বছর

পুরান ঢাকায় অবৈধ কেমিক্যাল ব্যবসাবেশিরভাগের নেই লাইসেন্স, স্থানান্তরে লাগবে আরও এক বছর

বাসের ভেতর সেই একই চিত্র

বাসের ভেতর সেই একই চিত্র

২০ দিন পর রাজপথে নেমেছে গণপরিবহন

২০ দিন পর রাজপথে নেমেছে গণপরিবহন

সর্বশেষ

মিষ্টিমুখ করাতে গিয়ে ২০ কেজি রসগোল্লাসহ গ্রেফতার ২

উত্তরপ্রদেশমিষ্টিমুখ করাতে গিয়ে ২০ কেজি রসগোল্লাসহ গ্রেফতার ২

অসচ্ছল ও দুস্থ শ্রমিকদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করেছে র‌্যাব-৪

অসচ্ছল ও দুস্থ শ্রমিকদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করেছে র‌্যাব-৪

কর অব্যাহতি চায় ভেঞ্চার ক্যাপিটাল অ্যান্ড প্রাইভেট ইক্যুইটি অ্যাসোসিয়েশন

কর অব্যাহতি চায় ভেঞ্চার ক্যাপিটাল অ্যান্ড প্রাইভেট ইক্যুইটি অ্যাসোসিয়েশন

রেসিপি : ইফতারে স্বাস্থ্যকর মসলা কর্ন

রেসিপি : ইফতারে স্বাস্থ্যকর মসলা কর্ন

ফ্রান্সের সীমানা সাড়ে ৭ ফুট কমিয়ে দিলেন এক চাষী!

ফ্রান্সের সীমানা সাড়ে ৭ ফুট কমিয়ে দিলেন এক চাষী!

রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে রোজাদার কিশোরীকে ধর্ষণ

রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে রোজাদার কিশোরীকে ধর্ষণ

মানবপাচারকারী চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার

মানবপাচারকারী চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার

২০৩০ সালে শেষ হবে গ্যাস, বাংলাদেশ তৈরি তো?

২০৩০ সালে শেষ হবে গ্যাস, বাংলাদেশ তৈরি তো?

কৃষিতে বাংলাদেশের সহায়তা চায় জাম্বিয়া

কৃষিতে বাংলাদেশের সহায়তা চায় জাম্বিয়া

ধর্ষণের শিকার ৫১ বছরের প্রতিবন্ধী নারী, যুবক গ্রেফতার

ধর্ষণের শিকার ৫১ বছরের প্রতিবন্ধী নারী, যুবক গ্রেফতার

ভালোবেসে বিয়ে: ১৬ দিনেই লাশ হলো স্বর্ণা

ভালোবেসে বিয়ে: ১৬ দিনেই লাশ হলো স্বর্ণা

আইফোন জিতে নিতে পারেন ভিডিও গেম খেলে

আইফোন জিতে নিতে পারেন ভিডিও গেম খেলে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

আড়ংকে লাখ টাকা জরিমানা

আড়ংকে লাখ টাকা জরিমানা

খিলক্ষেত ফ্লাইওভার থেকে প্রবাসীর লাশ উদ্ধার

খিলক্ষেত ফ্লাইওভার থেকে প্রবাসীর লাশ উদ্ধার

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছ কেটে উন্নয়ন বন্ধ করার দাবি

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছ কেটে উন্নয়ন বন্ধ করার দাবি

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছকাটা বন্ধে আইনি নোটিশ

সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে গাছকাটা বন্ধে আইনি নোটিশ

বেশিরভাগের নেই লাইসেন্স, স্থানান্তরে লাগবে আরও এক বছর

পুরান ঢাকায় অবৈধ কেমিক্যাল ব্যবসাবেশিরভাগের নেই লাইসেন্স, স্থানান্তরে লাগবে আরও এক বছর

বাসের ভেতর সেই একই চিত্র

বাসের ভেতর সেই একই চিত্র

২০ দিন পর রাজপথে নেমেছে গণপরিবহন

২০ দিন পর রাজপথে নেমেছে গণপরিবহন

© 2021 Bangla Tribune