X
শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ২৫ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

ভ্রাম্যমাণ আদালতকে সহায়তা করায় গ্রাম পুলিশকে মারধর!

আপডেট : ২২ এপ্রিল ২০২১, ১৭:৪৮

লালমনিরহাটে ভ্রাম্যমাণ আদালতকে সহায়তা করায় আব্দুর রাজ্জাক নামে একজন গ্রাম পুলিশকে মারধর ও গায়ে থাকা ইউনিফর্ম ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ উঠেছে। বুধবার (২১ এপ্রিল) সন্ধ্যায় জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার সির্ন্দুনা ইউনিয়নে এই ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় সির্ন্দুনা ইউনিয়নের সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান খতিব উদ্দিন ও তার ভাইসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে হাতীবান্ধা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন গ্রাম পুলিশ সদস্য আব্দুর রাজ্জাক।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) বিকালে হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এ ঘটনায় ইতোমধ্যে পুলিশি তদন্ত শুরু করা হয়েছে।

গ্রাম পুলিশ আব্দুর রাজ্জাকের দাবি, ‘বুধবার দুপুরে সির্ন্দুনা ইউনিয়নের উত্তর সির্ন্দুনা এলাকায় অবৈধভাবে ‘বোমা মেশিন’ দিয়ে বালু উত্তোলনের ঘটনায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সামিউল আমিন স্যার। আমি ওই ওয়ার্ডের গ্রাম পুলিশের দায়িত্বে থাকায় থানা পুলিশের সঙ্গে থেকে আদালতকে সহায়তা করেছি। এ ঘটনার জের ধরে সন্ধ্যায় ‘তমর চৌপতি’ নামক মোড়ে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান খতিব উদ্দিন ও তার ভাই মোশারফ হোসেনসহ কয়েকজন আমাকে গতিরোধ করে মারধর করে এবং গায়ে থাকা গ্রাম পুলিশের পোশাক ছিঁড়ে ফেলে। খবর পেয়ে অন্য গ্রাম পুলিশসহ কয়েকজন ব্যক্তি গিয়ে আমাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় আমি বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি।’

অভিযোগ অস্বীকার করে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান খতিব উদ্দিন বলেন, ‘ছোট একটা বিষয়ে নিয়ে তর্ক হয়েছে মাত্র। আমার ও আমার ভাইয়ের বিরুদ্ধে যে অভিযোগ করা হয়েছে তা সাজানো নাটক। এর আগেও আমাকে কয়েকবার নানাভাবে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানির চেষ্টা করা হয়েছিলো।’

সির্ন্দুনা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমিন সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘গ্রাম পুলিশকে মারধর ও তার গায়ের পোশাক ছিঁড়ে ফেলার ঘটনায় ওই গ্রাম পুলিশ বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। এ বিষয়টি জেলা প্রশাসককেও অবগত করা হয়েছে।’

হাতীবান্ধা থানার ওসি এরশাদুল আলম বলেন, গ্রাম পুলিশ আব্দুর রাজ্জাককে মারধরের ঘটনায় অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

হাতীবান্ধার ইউএনও সামিউল আমিন বলেন, ওই গ্রাম পুলিশকে মারধরের ঘটনা তদন্ত করে জড়িতদের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে ব্যবস্থা নিতে পুলিশকে বলা হয়েছে।

 

/এনএইচ/

সম্পর্কিত

দিনাজপুরে স্বস্তির বৃষ্টি

দিনাজপুরে স্বস্তির বৃষ্টি

রাতারাতি মাজার!

রাতারাতি মাজার!

‘তোমাকে ভালোবাসি’ লেখা গাছে ঝুলছিলো রাব্বির মরদেহ

‘তোমাকে ভালোবাসি’ লেখা গাছে ঝুলছিলো রাব্বির মরদেহ

রাতে যাত্রী পরিবহনের চেষ্টা

রাতে যাত্রী পরিবহনের চেষ্টা

কুড়িগ্রামে চাষ হচ্ছে সুপারফুড স্পিরুলিনা

কুড়িগ্রামে চাষ হচ্ছে সুপারফুড স্পিরুলিনা

বাস চলে জেলার, যাত্রী আন্তজেলার

বাস চলে জেলার, যাত্রী আন্তজেলার

ট্রাকের নিচে পড়ে মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

ট্রাকের নিচে পড়ে মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

সাংবাদিক নির্যাতনকারী ফৌজদারি মামলার আসামি ফের স্বপদে বহাল!

সাংবাদিক নির্যাতনকারী ফৌজদারি মামলার আসামি ফের স্বপদে বহাল!

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে সেমাই তৈরি: ৭ কারখানাকে জরিমানা 

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে সেমাই তৈরি: ৭ কারখানাকে জরিমানা 

চাকিরপশার খাল দখলমুক্ত ও পুনর্খনন কাজ শুরু

চাকিরপশার খাল দখলমুক্ত ও পুনর্খনন কাজ শুরু

ভারতীয় আমে বাজার সয়লাব, নাগালের বাইরে দাম

ভারতীয় আমে বাজার সয়লাব, নাগালের বাইরে দাম

প্রধানমন্ত্রীর নাতি পরিচয়ে প্রতারণা, আ.লীগ নেতার ভাই গ্রেফতার

প্রধানমন্ত্রীর নাতি পরিচয়ে প্রতারণা, আ.লীগ নেতার ভাই গ্রেফতার

সর্বশেষ

নারায়ণগ‌ঞ্জের মে‌রিনা লন্ড‌নের অ্যাসেম্বলি মেম্বার নির্বাচিত

নারায়ণগ‌ঞ্জের মে‌রিনা লন্ড‌নের অ্যাসেম্বলি মেম্বার নির্বাচিত

সকাল থেকে যাত্রীবাহী ফেরি বন্ধ

সকাল থেকে যাত্রীবাহী ফেরি বন্ধ

সুহিতা সুলতানা

সুহিতা সুলতানা

আপনার শুভেচ্ছা বার্তায় আমি আপ্লুত: প্রধানমন্ত্রীকে মমতা

আপনার শুভেচ্ছা বার্তায় আমি আপ্লুত: প্রধানমন্ত্রীকে মমতা

আজ বিশ্ব পরিযায়ী পাখি দিবস

আজ বিশ্ব পরিযায়ী পাখি দিবস

হাতিয়ায় ইউপি সদস্য প্রার্থীকে হত্যার ঘটনায় আটক ৭

হাতিয়ায় ইউপি সদস্য প্রার্থীকে হত্যার ঘটনায় আটক ৭

খাকদোনের দূষণে স্বাস্থ্যঝুঁকিতে স্থানীয়রা

খাকদোনের দূষণে স্বাস্থ্যঝুঁকিতে স্থানীয়রা

থ্যালাসেমিয়া রোগনিয়ন্ত্রণে প্রতিরোধের কোনও বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী

থ্যালাসেমিয়া রোগনিয়ন্ত্রণে প্রতিরোধের কোনও বিকল্প নেই: প্রধানমন্ত্রী

মালদ্বীপ যাওয়ার আগে উজ্জীবিত বসুন্ধরা

মালদ্বীপ যাওয়ার আগে উজ্জীবিত বসুন্ধরা

বাড়ি দখলে মালিকের বিরুদ্ধে শকুনের 'যুদ্ধ ঘোষণা'

বাড়ি দখলে মালিকের বিরুদ্ধে শকুনের 'যুদ্ধ ঘোষণা'

যানজট ঠেলে শপিং মলে ক্রেতাদের ভিড়,  উপেক্ষিত বিধিনিষেধ

যানজট ঠেলে শপিং মলে ক্রেতাদের ভিড়, উপেক্ষিত বিধিনিষেধ

কেন এত বজ্রপাত? সাবধানে থাকতে যা করতে হবে

কেন এত বজ্রপাত? সাবধানে থাকতে যা করতে হবে

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

দিনাজপুরে স্বস্তির বৃষ্টি

দিনাজপুরে স্বস্তির বৃষ্টি

রাতারাতি মাজার!

রাতারাতি মাজার!

‘তোমাকে ভালোবাসি’ লেখা গাছে ঝুলছিলো রাব্বির মরদেহ

‘তোমাকে ভালোবাসি’ লেখা গাছে ঝুলছিলো রাব্বির মরদেহ

রাতে যাত্রী পরিবহনের চেষ্টা

রাতে যাত্রী পরিবহনের চেষ্টা

কুড়িগ্রামে চাষ হচ্ছে সুপারফুড স্পিরুলিনা

কুড়িগ্রামে চাষ হচ্ছে সুপারফুড স্পিরুলিনা

বাস চলে জেলার, যাত্রী আন্তজেলার

বাস চলে জেলার, যাত্রী আন্তজেলার

ট্রাকের নিচে পড়ে মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

ট্রাকের নিচে পড়ে মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যু

সাংবাদিক নির্যাতনকারী ফৌজদারি মামলার আসামি ফের স্বপদে বহাল!

সাংবাদিক নির্যাতনকারী ফৌজদারি মামলার আসামি ফের স্বপদে বহাল!

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে সেমাই তৈরি: ৭ কারখানাকে জরিমানা 

অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে সেমাই তৈরি: ৭ কারখানাকে জরিমানা 

চাকিরপশার খাল দখলমুক্ত ও পুনর্খনন কাজ শুরু

চাকিরপশার খাল দখলমুক্ত ও পুনর্খনন কাজ শুরু

© 2021 Bangla Tribune