X
শনিবার, ০৮ মে ২০২১, ২৫ বৈশাখ ১৪২৮

সেকশনস

‘মানুষ মরার সংখ্যা যেন বাইড়া গেছে’

আপডেট : ২৩ এপ্রিল ২০২১, ১৩:০০

‘কী এক রোগ আইলো, খালি মানুষ মরতেছে। ধনী-গরিব কেউই এই মরার রোগ থেকে রেহাই পাইতেছে না। গেল কয়েক মাসে মানুষ মরার সংখ্যা যেন বাইড়া গেছে। তবে এইখানে করোনায় মইরা যাওয়া রোগীদের তেমন একটা কবর দেওয়া হয় না।’ করোনায় মৃত্যু নিয়ে এমন অভিব্যক্তি জানালেন মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে ২৪ বছর ধরে কবর খোঁড়া ও দাফনের কাজ করা মো. দুলাল মিয়া।

দুলাল এই কবরস্থানে পেশা শুরু করেন ১৯৯৭ সালে। তবে তার পরিবার দুই পুরুষ ধরে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে কাজ করে আসছে। এখন পর্যন্ত প্রায় দুই হাজারের বেশি মানুষকে দাফন করেছেন তিনি। নিজের অভিজ্ঞতা জানাতে গিয়ে দুলাল বলেন, ‘মানুষ মইরা গেলে এবং এখানে কবর দিতে আসলে আমাদের আয়-ইনকাম হয়। কবর খোঁড়া থেকে শুরু করে দাফন পর্যন্ত আমরা এই কবরস্থানে প্রায় ১০০ জনের মতো কাম করতাসি। কবর খোঁড়া আর দাফন নিয়া আমাদের কোনও চাহিদা নাই। মানুষ খুশি হইয়া যে যা দেয়, দিনশেষে তা লইয়া আমাদের খুশি থাকতে হয়। মানুষ খুশি হইয়া হাজার-পনেরশো’ টাকা কবর প্রতি দিয়ে যায়।’

তিনি বলেন, ‘করোনার কারণে বর্তমানে দাফনের সংখ্যা বাইড়্যা যাওয়ায়, আমাদের ইনকাম একটু বেড়েছে।’

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন-ডিএনসিসি জানিয়েছে, ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন এলাকায় পাঁচটি কবরস্থান রয়েছে। মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে বুদ্ধিজীবীদের দাফনের পাশাপাশি মুক্তিযোদ্ধা ও সাধারণ মানুষদের দাফন করা হয়। বর্তমানে করোনার কারণে তাদের বিভিন্ন কবরস্থানে বেড়েছে দাফনের চাপ। সাধারণত করোনার মৃত কাউকে মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হয় না। তবে করোনায় মারা গেছেন এমন কারও আত্মীয়স্বজনের পুরনো কবর থাকলে কেবল সেই কবরে তাকে দাফন করা হয়।

ডিএনসিসি সূত্রে জানা গেছে, এই কবরস্থানে চলতি বছরের জানুয়ারিতে দাফন হয়েছে ১৬৭ জনের। ফেব্রুয়ারিতে এই সংখ্যা ছিল ১৪৯টি। মার্চে এসে সংখ্যা দাঁড়ায় ১৭৬ জনে। আর এপ্রিলের ১৯ তারিখ পর্যন্ত কবর হয়েছে ১৬৯ জনের।

মিরপুর বুদ্ধিজীবী কবরস্থানের সিনিয়র মহোরার সানোয়ার হোসেন বলেন, ‘বর্তমানে করোনা পরিস্থিতিতে বেড়ে গেছে লাশ দাফনের সংখ্যা। আগে যেখানে প্রতিদিন ৪ থেকে ৫ জনকে দাফন করা হতো, বর্তমানে দাফনের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রতিদিন গড়ে ১১ থেকে ১২ জনের মতো।’ তিনি বলেন, ‘এখানে করোনা আক্রান্ত রোগীদের তেমন একটা দাফন করা হয় না। তবে মেয়র মহোদয়ের নির্দেশনা থাকলে এখানে কবর দেওয়া হয়।’ দাফন করতে হলে প্রয়োজন হয় মৃত্যু সনদ, যাতে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যায় বলে জানান তিনি।

ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে যাদের বাবা-মা কিংবা পরিবারের সদস্যরা সমাহিত রয়েছেন, বর্তমানে তাদের পরিবারের কোনও সদস্য করোনায় মারা গেলে, তাদেরকে ওই সব কবরে দাফন করা হচ্ছে।’

তিনি জানান, বর্তমানে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় রায়েরবাজার কবরস্থানে ১০০ একর জায়গা কবর দেওয়ার জন্য নির্ধারণ করা হয়েছে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে কেউ মারা গেলে তাদেরকে সেখানে কবর দেওয়া হবে। সে অনুযায়ী সিটি করপোরেশন কার্যকর ব্যবস্থা নিচ্ছে।’

/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

অটোচালকের টাকা ছিনতাই: তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

অটোচালকের টাকা ছিনতাই: তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

মাস্ক পরতে অনীহা, গুনছেন জরিমানা

মাস্ক পরতে অনীহা, গুনছেন জরিমানা

ছিনতাই করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা

ছিনতাই করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা

বেতন-বোনাস ও ছুটি বাড়ানোর দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

বেতন-বোনাস ও ছুটি বাড়ানোর দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

জানা গেলো গায়েবি কান্নার কারণ

জানা গেলো গায়েবি কান্নার কারণ

‘আমরা বিশেষজ্ঞ, আমাদের মতামত নিন’ 

‘আমরা বিশেষজ্ঞ, আমাদের মতামত নিন’ 

সকাল থেকে যাত্রীবাহী ফেরি বন্ধ

সকাল থেকে যাত্রীবাহী ফেরি বন্ধ

যানজট ঠেলে শপিং মলে ক্রেতাদের ভিড়,  উপেক্ষিত বিধিনিষেধ

যানজট ঠেলে শপিং মলে ক্রেতাদের ভিড়, উপেক্ষিত বিধিনিষেধ

গাছ লাগিয়ে গাছ কাটার প্রতিবাদ

গাছ লাগিয়ে গাছ কাটার প্রতিবাদ

ডিএনসিসির অভিযানে অনিয়মের খেসারত দিলেন ব্যবসায়ীরা

ডিএনসিসির অভিযানে অনিয়মের খেসারত দিলেন ব্যবসায়ীরা

প্রধান বিচারপতিকে চিঠি দেবে নাগরিক সমাজ

প্রধান বিচারপতিকে চিঠি দেবে নাগরিক সমাজ

মাস্ক না পরায় ১৫ জনকে জরিমানা

মাস্ক না পরায় ১৫ জনকে জরিমানা

সর্বশেষ

কাবুলে স্কুলের কাছে বোমা হামলায় নিহত অন্তত ২৫

কাবুলে স্কুলের কাছে বোমা হামলায় নিহত অন্তত ২৫

বার্সেলোনাকে এগিয়ে যেতে দিলো না আতলেতিকো

বার্সেলোনাকে এগিয়ে যেতে দিলো না আতলেতিকো

ঘুরে দাঁড়াতে সহায়তা চায় দেশি এয়ারলাইন্স, আশ্বাস প্রতিমন্ত্রীর

ঘুরে দাঁড়াতে সহায়তা চায় দেশি এয়ারলাইন্স, আশ্বাস প্রতিমন্ত্রীর

‘মানবিক কারণে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের চাকরি দিয়েছি’

রাবির সদ্য বিদায়ী উপাচার্যের দাবি‘মানবিক কারণে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের চাকরি দিয়েছি’

বিশ্বায়ন প্রসঙ্গে অর্থনীতি সমিতির ওয়েবিনার

বিশ্বায়ন প্রসঙ্গে অর্থনীতি সমিতির ওয়েবিনার

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর আরেকটি ঘাঁটি দখল করলো কারেন বিদ্রোহীরা

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর আরেকটি ঘাঁটি দখল করলো কারেন বিদ্রোহীরা

একচেটিয়া বাজার ভাঙতে পেরেছে ‘নগদ’: বিটিআরসি চেয়ারম্যান

একচেটিয়া বাজার ভাঙতে পেরেছে ‘নগদ’: বিটিআরসি চেয়ারম্যান

ঈদযাত্রা রোধে দুই ফেরিঘাটে বিজিবি’র পাহারা

ঈদযাত্রা রোধে দুই ফেরিঘাটে বিজিবি’র পাহারা

‘গ্যাস ঘাটতি মেটাতে পার্বত্য চট্টগ্রামে অনুসন্ধান শুরু করতে হবে’

‘গ্যাস ঘাটতি মেটাতে পার্বত্য চট্টগ্রামে অনুসন্ধান শুরু করতে হবে’

ভারত থেকে ফিরলেন আড়াই হাজার বাংলাদেশি, পজিটিভ ১৪ জন

ভারত থেকে ফিরলেন আড়াই হাজার বাংলাদেশি, পজিটিভ ১৪ জন

বিদ্যুৎ বিতরণে শিল্প মালিকদের আস্থায় আনার নির্দেশ

বিদ্যুৎ বিতরণে শিল্প মালিকদের আস্থায় আনার নির্দেশ

অবৈধভাবে যাত্রী পারাপার করায় পদ্মায় ৬ ট্রলার জব্দ

অবৈধভাবে যাত্রী পারাপার করায় পদ্মায় ৬ ট্রলার জব্দ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

অটোচালকের টাকা ছিনতাই: তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

অটোচালকের টাকা ছিনতাই: তিন পুলিশ সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা

মাস্ক পরতে অনীহা, গুনছেন জরিমানা

মাস্ক পরতে অনীহা, গুনছেন জরিমানা

ছিনতাই করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা

ছিনতাই করতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা

বেতন-বোনাস ও ছুটি বাড়ানোর দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

বেতন-বোনাস ও ছুটি বাড়ানোর দাবিতে শ্রমিকদের বিক্ষোভ

জানা গেলো গায়েবি কান্নার কারণ

জানা গেলো গায়েবি কান্নার কারণ

‘আমরা বিশেষজ্ঞ, আমাদের মতামত নিন’ 

‘আমরা বিশেষজ্ঞ, আমাদের মতামত নিন’ 

সকাল থেকে যাত্রীবাহী ফেরি বন্ধ

সকাল থেকে যাত্রীবাহী ফেরি বন্ধ

যানজট ঠেলে শপিং মলে ক্রেতাদের ভিড়,  উপেক্ষিত বিধিনিষেধ

যানজট ঠেলে শপিং মলে ক্রেতাদের ভিড়, উপেক্ষিত বিধিনিষেধ

গাছ লাগিয়ে গাছ কাটার প্রতিবাদ

গাছ লাগিয়ে গাছ কাটার প্রতিবাদ

ডিএনসিসির অভিযানে অনিয়মের খেসারত দিলেন ব্যবসায়ীরা

ডিএনসিসির অভিযানে অনিয়মের খেসারত দিলেন ব্যবসায়ীরা

© 2021 Bangla Tribune