X
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

‘গ্রামে বাসা-বাড়ি করতেও অনুমতি নিতে হবে’

আপডেট : ০৫ মে ২০২১, ২০:২৫

গ্রামগঞ্জে বাসাবাড়ি, দোকানপাট, মসজিদ, মাদ্রাসা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, ক্লাব কিংবা অফিস-আদালতসহ যেকোনও অবকাঠামো নির্মাণ করতে একটি যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে। এক্ষেত্রে ইউনিয়ন পরিষদকে দায়িত্ব দেওয়া যেতে পারে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম।

বুধবার (৫ মে) মিন্টো রোডের সরকারি বাসভবন থেকে সেভ দ্য চিলড্রেন ও বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্স আয়োজিত ‘মেয়র সংলাপ: নিরাপদ, টেকসই ও অন্তর্ভুক্তিমূলক নগর’ বিষয়ক ভার্চুয়াল সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা জানান তিনি।

স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ‘আমার গ্রাম আমার শহর’ দর্শনের ফলে শহরের সকল সুযোগ-সুবিধা প্রত্যন্ত গ্রাম অঞ্চলে পৌঁছে দিচ্ছে সরকার। তাই এখন থেকেই গ্রামকে পরিকল্পিতভাবে গড়ে তুলতে হবে। গ্রামগঞ্জে কোথাও কেউ যদি বাসাবাড়ি, দোকানপাট, মসজিদ-মাদ্রাসা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, ক্লাব কিংবা অফিস-আদালতসহ যেকোনও অবকাঠামো নির্মাণ করতে চায় তাহলে অবশ্যই একটি যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে। এক্ষেত্রে  ইউনিয়ন পরিষদকে দায়িত্ব দেওয়া যেতে পারে।

তাজুল ইসলাম বলেন, ইউনিয়ন পরিষদের সক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন আসতেই পারে। কিন্তু একটি নির্দিষ্ট কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে গ্রামে অপরিকল্পিতভাবে অবকাঠামো নির্মাণ ঠেকানো যাবে না। ইউনিয়ন পরিষদকে এ বিষয়ে ক্ষমতায়ন করার পর তারা যাতে ক্ষমতার অপব্যবহার করতে না পারে সেজন্য উপজেলা পরিষদকে সংযুক্ত করা হবে। কেউ যদি ক্ষমতার অপব্যবহার করে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। কোনও অবস্থায় অনুমতি ব্যতীত কৃষি জমিতে বাড়িঘর বা অন্য কোনও প্রতিষ্ঠান/স্থাপনা নির্মাণ করতে দেওয়া যাবে না।

রাজধানীতে জোনভিত্তিক বিদ্যুৎ, পানি এবং গ্যাসসহ অন্যান্য ইউটিলিটি সার্ভিসের বিল নির্ধারণ করার ওপর পুনরায় গুরুত্বারোপ করে মন্ত্রী বলেন, গুলশান, বনানী-বারিধারা এলাকার মতো যাত্রাবাড়ী বা স্বল্প আয়ের মানুষ বসবাসরত এলাকার ইউটিলিটি বিল সমান হতে পারে না এবং এটা নির্ধারণ করা যুক্তিসঙ্গতও হবে না।

মন্ত্রী ঢাকা শহরের ৩৯টি খালসহ সকল বড় বড় শহরের আওতাধীন খালগুলো অবৈধ দখলমুক্ত করে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন এবং ওয়াটার ট্রান্সপোর্ট চালু করে সৌন্দর্যবর্ধন ও নাগরিকবান্ধব করতে সকল সিটি করপোরেশন মেয়রদের পরামর্শ দেন ।

বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্ল্যানার্সের সাধারণ সম্পাদক ড. আদিল মোহাম্মদ খানের সঞ্চালনায় সংলাপে ঢাকা উত্তর সিটি, খুলনা, রাজশাহী, চট্টগ্রাম, নারায়ণগঞ্জ, গাজীপুর এবং ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়ররা অংশগ্রহণ করেন।

 

/এসএস/এমআর/এমওএফ/

সর্বশেষ

অ্যাপ থেকে ১৬ প্রেক্ষাগৃহে উঠলেন শাকিব খান

অ্যাপ থেকে ১৬ প্রেক্ষাগৃহে উঠলেন শাকিব খান

বাবা হওয়ার পর কতটা বদলেছেন এড শিরান?

বাবা হওয়ার পর কতটা বদলেছেন এড শিরান?

বেলারুশের সেই সাংবাদিক এখন গৃহবন্দি

বেলারুশের সেই সাংবাদিক এখন গৃহবন্দি

দাঁড়ানো ট্রাকের পেছনে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় ২ আনসার সদস্য নিহত

দাঁড়ানো ট্রাকের পেছনে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় ২ আনসার সদস্য নিহত

টিকা নেওয়া মানুষেরা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত হচ্ছেন: ইসরায়েল

টিকা নেওয়া মানুষেরা ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে আক্রান্ত হচ্ছেন: ইসরায়েল

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

এইচএসসির ফরম পূরণ ২৯ জুন থেকে শুরু

এইচএসসির ফরম পূরণ ২৯ জুন থেকে শুরু

বাক-বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে বাড়িতে ডেকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১

বাক-বুদ্ধি প্রতিবন্ধীকে বাড়িতে ডেকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার ১

চীনের মার্শাল আর্ট স্কুলে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৮, বেশিরভাগই শিশু

চীনের মার্শাল আর্ট স্কুলে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৮, বেশিরভাগই শিশু

বাংলাদেশে ভালো খেললে জায়গা মিলবে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ দলে

বাংলাদেশে ভালো খেললে জায়গা মিলবে অস্ট্রেলিয়ার বিশ্বকাপ দলে

জাসদের নেতা-কর্মীরা দুর্নীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াচ্ছে: শিরিন আখতার

জাসদের নেতা-কর্মীরা দুর্নীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াচ্ছে: শিরিন আখতার

স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ

স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ

স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ

অর্থনৈতিক পরিবর্তনের ‘গিয়ার’ হলো বাজেট: পরিকল্পনামন্ত্রী

অর্থনৈতিক পরিবর্তনের ‘গিয়ার’ হলো বাজেট: পরিকল্পনামন্ত্রী

করোনা নিয়ন্ত্রণে গোঁজামিল

করোনা নিয়ন্ত্রণে গোঁজামিল

ঢাকায় চার দিনেই ১০৭ শতাংশ বেড়েছে করোনা শনাক্ত 

ঢাকায় চার দিনেই ১০৭ শতাংশ বেড়েছে করোনা শনাক্ত 

দেশে পাকিস্তানি সৈন্যের অস্তিত্ব নেই

দেশে পাকিস্তানি সৈন্যের অস্তিত্ব নেই

বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

চূড়ান্ত তালিকায় যুক্ত হলো আরও ২৯৭৩ বীর মুক্তিযোদ্ধার নাম

চূড়ান্ত তালিকায় যুক্ত হলো আরও ২৯৭৩ বীর মুক্তিযোদ্ধার নাম

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ১ লাখ ডোজ শেষ

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ১ লাখ ডোজ শেষ

যেকোনও সময় শাটডাউনের ঘোষণা: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

যেকোনও সময় শাটডাউনের ঘোষণা: জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী

© 2021 Bangla Tribune