X
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

বিদ্যুৎ বিতরণে শিল্প মালিকদের আস্থায় আনার নির্দেশ

আপডেট : ০৮ মে ২০২১, ২১:১৮

বিদ্যুৎ বিতরণের ক্ষেত্রে শিল্প মালিকদের আস্থায় আনার নির্দেশ দিয়েছেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ। আগামী অর্থ বছরের বাজেটকে সামনে রেখে শনিবার (৮ মে) বেসরকারি বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী কোম্পানিগুলোর সংগঠন বিপপা’র সহায়তায় ফোরাম ফর এনার্জি রিপোর্টাস (এফইআরবি) আয়োজিত ওয়েবিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের চাহিদার অতিরিক্ত বিদ্যুৎ উৎপাদন ক্ষমতা রয়েছে। কিন্তু এখনও শিল্প মালিকদের আস্থা অর্জন করা সম্ভব হয়নি। আমরা তাদের নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করতে পারছি না। এজন্য তারা নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ক্যাপটিভ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের মাধ্যমে নিজেদের বিদ্যুৎ উৎপাদন করছে। কীভাবে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ করা যায় সে বিষয়ে উদ্যোগ নিতে হবে। নাহলে ক্যাপটিভ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জ্বালানি অপচয় বন্ধ হবে না।

প্রতিমন্ত্রী আরও বলেন, গরম সামাল দিতে তেল চালিত বিদ্যুৎ কেন্দ্রও বেশি বেশি চালাতে হয়েছে। এতে ১৪ হাজার মেগাওয়াটের মতো উৎপাদন হয়েছে। পুরাতন কেন্দ্র বন্ধ করলে সামাল দেওয়া কঠিন হয়ে যাবে কিনা তা পর্যালোচনা করতে হবে।

তিনি বলেন, গ্যাস সংকটের কারণে অনেক ক্ষেত্রে কেন্দ্র বন্ধ রাখতে হয়েছে। দিনাজপুরে কয়লার অভাবে ১০০ থেকে ১৫০ মেগাওয়াট উৎপাদন করতে হচ্ছে। পায়রা কেন্দ্রটি চালু হলেও সঞ্চালন লাইনের অভাবে বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করা সম্ভব হচ্ছে না।

এফইআরবির চেয়ারম্যান অরুণ কর্মকারের সভাপতিত্বে ভার্চুয়াল এই সেমিনার সঞ্চালনা করেন ইডি শামীম জাহাঙ্গীর।

বিদ্যুৎ বিভাগের সচিব হাবিবুর রহমান উদ্যোক্তাদের দাবির বিষয়ে বলেন, যেসব দাবি বিদ্যুৎ বিভাগ মেনে নিতে পারবে সেগুলো আমরা বিবেচনা করবো। তবে অন্য মন্ত্রণালয় এবং বিভাগ যেগুলোতে সম্পৃক্ত আমরা তাদের সঙ্গেও যোগাযোগ করবো। যাতে এসব বিষয় সহজে সমাধান হয়।

পিডিবি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী বেলায়েত হোসেন বলেন, উদ্যোক্তাদের করোনার মধ্যেও আমরা বিদ্যুৎ কেনার অর্থ ঠিকঠাকভাবে দেওয়ার চেষ্টা করছি। এখন সরকার জ্বালানি তেলের ওপর ৩৪ ভাগ কর নিচ্ছে। এই টাকা একবার সরকারকে দিয়ে আবার সরকারের কাছ থেকে পেতে ২/৩ মাস সময় লেগে যায়। এতে করে একটু সমস্যা হলেও আমরা চেষ্টা করছি যাতে বিল বকেয়া না থাকে।

তিনি বলেন, সরকার পিডিবির কাছ থেকে দুই হাজার কোটি টাকা নিয়ে গেছে। এতে আমাদের কিছুটা সংকট সৃষ্টি হলেও আমরা তা কাটিয়ে উঠেছি।

পুরাতন কেন্দ্রগুলোকে চুক্তির মেয়াদ শেষ হলেও বন্ধ না করে নো ইলেক্ট্রিসিটি নো পেমেন্ট এর আওতায় চালু রাখতে উদ্যোক্তাদের দাবির বিষয়ে পিডিবি চেয়ারম্যান বলেন, সরকার স্বল্প মেয়াদী প্রকল্প বাস্তবায়নের আওতায় বেশি দামে রেন্টাল এবং কুইক রেন্টালের কাছ থেকে বিদ্যুৎ কিনেছে। সরকার দ্বিগুণ-তিনগুণ দামে কুইক রেন্টাল’র কাছ থেকে বিদ্যুৎ কিনেছে। তখনতো বেশি টাকা নিতে আপনারা আপত্তি করেননি। বেশি টাকা নিয়ে পে-ব্যাক করেছেন অর্ধেক, বাকি টাকা কী করেছেন আপনারা জানেন। স্বল্প সময়ের জন্য পরিকল্পনা করেছেন। এখন কেনো এই দাবি আসছে। বেসরকারি খাত সরকারের দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনার মধ্যেও রয়েছে।

পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসাইন বলেন, চাহিদার তুলনায় আমাদের সাত মেগাওয়াট উৎপাদন ক্ষমতা বেশি। এরপরও আমাদের শুনতে হচ্ছে লোডশেডিং হয়। কিন্তু কেন লোডশেডিং হয় তা খুঁজে বের করে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নিতে হবে।

তিনি বলেন, ২০২৪ সালে আমাদের চাহিদা হবে ১৮ হাজার ৫০০ মেগাওয়াট। তখন আমাদের বিতরণ ক্ষমতা থাকবে ৩৬ হাজার মেগাওয়াটের। তাহলে আমরা যে শুধু উৎপাদন করছি তাতো নয়। আমরাতো বিতরণ ব্যবস্থাও সম্প্রসারণ করছি।

বিপপা’র চেয়ারম্যান ইমরান করিম বলেন, ফার্নেস অয়েলের সিডি ভ্যাট শুধুমাত্র ট্যাক্স জিডিপির অংক বাড়ানোর প্রয়াস, অন্তর্বর্তীকালীন সময়ের জন্য এটি স্থগিত করা যায় কিনা। মালামাল আমদানি করার জন্য অগ্রিম আয়কর দিতে হয়। আমাদের আয়কর নেই তাহলে কোথায় সমন্বয় করবো? এটি মওকুফ করা যায় কিনা সেই বিবেচনার দাবি জানান তিনি।

ওয়েবিনারে মূল প্রবন্ধে বেসরকারি বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী কোম্পানিগুলোর সংগঠন বিপপা’র ভাইস চেয়ারম্যান প্রকৌশলী মোজাম্মেল হোসেন বলেন, আমাদের রেজিস্ট্রেশন ফি অনেক বেশি। অনেক ক্ষেত্রে কেন্দ্র উৎপাদনে চলে আসলেও পরিবেশগত ছাড়পত্র না পাওয়ার অভিযোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন, বিদ্যুৎ কেন্দ্রগুলো পুরাতন হলে সেগুলো আর বিক্রি করা যায় না। কাজেই দেশের সম্পদ হিসেবে বিবেচনা করে কেন্দ্রগুলোকে নো ইলেক্ট্রিসিটি নো পেমেন্ট’র আওতায় চালু রাখা উচিত। একই সঙ্গে কর ছাড়ের বিষয়ে এনবিআর’র কড়াকড়ির সমালোচনা করেন তিনি।

 

/এসএনএস/এনএইচ/

সর্বশেষ

পল্লবীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে লিফট মিস্ত্রীর মৃত্যু

পল্লবীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে লিফট মিস্ত্রীর মৃত্যু

পুলিশের সহায়তায় এসএসসি পরীক্ষার্থী’র ফরম ফিলাপ

পুলিশের সহায়তায় এসএসসি পরীক্ষার্থী’র ফরম ফিলাপ

টানা ৪ দিন ধরে খুলনা বিভাগে মৃতের সংখ্যা বেশি

টানা ৪ দিন ধরে খুলনা বিভাগে মৃতের সংখ্যা বেশি

তিব্বতে প্রথম বুলেট ট্রেন চালু করলো চীন

তিব্বতে প্রথম বুলেট ট্রেন চালু করলো চীন

২০ কোটি টাকার জাল স্ট্যাম্পসহ গ্রেফতার ৪ জন রিমান্ডে

২০ কোটি টাকার জাল স্ট্যাম্পসহ গ্রেফতার ৪ জন রিমান্ডে

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নকেই পাচ্ছে না উইম্বলডন

ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নকেই পাচ্ছে না উইম্বলডন

‌‘মা-বাবা বৃদ্ধাশ্রমে, রাস্তায় আপনার লাশ, এমন উন্নয়ন চাই না’

‌‘মা-বাবা বৃদ্ধাশ্রমে, রাস্তায় আপনার লাশ, এমন উন্নয়ন চাই না’

মানিকগঞ্জ থেকে ঢাকা: মোটরসাইকেলে ১০০০, কারে ৫০০ টাকা

মানিকগঞ্জ থেকে ঢাকা: মোটরসাইকেলে ১০০০, কারে ৫০০ টাকা

স্বচ্ছ যুব নেতৃত্ব তৈরিতে কাজ করছি: নিখিল

স্বচ্ছ যুব নেতৃত্ব তৈরিতে কাজ করছি: নিখিল

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

মাওলানা ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বিরুদ্ধে স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ

অ্যাপ থেকে ১৬ প্রেক্ষাগৃহে উঠলেন শাকিব খান

অ্যাপ থেকে ১৬ প্রেক্ষাগৃহে উঠলেন শাকিব খান

বাবা হওয়ার পর কতটা বদলেছেন এড শিরান?

বাবা হওয়ার পর কতটা বদলেছেন এড শিরান?

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

টানা ৪ দিন ধরে খুলনা বিভাগে মৃতের সংখ্যা বেশি

টানা ৪ দিন ধরে খুলনা বিভাগে মৃতের সংখ্যা বেশি

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ১০৮ জনের

স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ

স্থিতিশীল বঙ্গোপসাগর-ভারত মহাসাগর দেখতে চায় বাংলাদেশ

অর্থনৈতিক পরিবর্তনের ‘গিয়ার’ হলো বাজেট: পরিকল্পনামন্ত্রী

অর্থনৈতিক পরিবর্তনের ‘গিয়ার’ হলো বাজেট: পরিকল্পনামন্ত্রী

করোনা নিয়ন্ত্রণে গোঁজামিল

করোনা নিয়ন্ত্রণে গোঁজামিল

ঢাকায় চার দিনেই ১০৭ শতাংশ বেড়েছে করোনা শনাক্ত 

ঢাকায় চার দিনেই ১০৭ শতাংশ বেড়েছে করোনা শনাক্ত 

দেশে পাকিস্তানি সৈন্যের অস্তিত্ব নেই

দেশে পাকিস্তানি সৈন্যের অস্তিত্ব নেই

বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

চূড়ান্ত তালিকায় যুক্ত হলো আরও ২৯৭৩ বীর মুক্তিযোদ্ধার নাম

চূড়ান্ত তালিকায় যুক্ত হলো আরও ২৯৭৩ বীর মুক্তিযোদ্ধার নাম

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ১ লাখ ডোজ শেষ

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ১ লাখ ডোজ শেষ

© 2021 Bangla Tribune