X
বুধবার, ২৩ জুন ২০২১, ৮ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

১৪০ টাকা খরচে ৯০ মিনিটে করোনা শনাক্তের পদ্ধতি উদ্ভাবনের দাবি

আপডেট : ১০ মে ২০২১, ১৯:৫৬

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (যবিপ্রবি) একদল গবেষক কম খরচে করোনাভাইরাস শনাক্তে ‘সাইবারগ্রিন’ পদ্ধতি উদ্ভাবনের দাবি করেছেন। তাদের দাবি, এই পদ্ধতিতে করোনা শনাক্ত করতে প্রতি নমুনার জন্য বাংলাদেশি টাকায় মাত্র ১৪০ টাকার মতো খরচ হবে। এরমধ্যে আরএনএ এক্সট্রাকশন কিট ১০ টাকা, আরটি-পিসিআর কিট ১২০ টাকা, প্রাইমার ৩ টাকা ও অন্যান্য খরচ ৭ টাকা। এ পরীক্ষায় সময় লাগবে মাত্র ৯০ মিনিট। একটি মাত্র টিউবেই এ পদ্ধতিতে করোনার বর্তমান ধরনগুলো শনাক্ত করা সম্ভব হবে।

সোমবার (১০ মে) যবিপ্রবির প্রশাসনিক ভবনের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও জিনোম সেন্টারের পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ার হোসেন এ উদ্ভাবনের ঘোষণা দেন।

লিখিত বক্তব্যে অধ্যাপক ড. মোঃ আনোয়ার হোসেন বলেন, সাইবারগ্রিন পদ্ধতিতে করোনা শনাক্তের সেনসিটিভিটি প্রচলিত অন্যান্য কিটের সমপর্যায়ের। এই গবেষণাটি একটি পিয়ার রিভিউড জার্নালে প্রকাশের অপেক্ষায় রয়েছে। তিনি বলেন, সরকারের সহায়তা পেলে আমরা এই গবেষণাকে কাজে লাগিয়ে খুব সহজে এবং কম খরচে করোনা শনাক্তের কাজটি আমাদের দেশে করতে সক্ষম হবো।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ও জিনোম সেন্টারের সহযোগী পরিচালক অধ্যাপক ড. মো. ইকবাল কবীর জাহিদ বলেন, বায়ো-ইনফরমেটিক্স টুলের মাধ্যমে আমরা দেখেছি বর্তমানে সংক্রমণশীল করোনার বিভিন্ন ধরন শনাক্ত করা সম্ভব। শতাধিক নমুনা পরীক্ষা করে এর কার্যকারিতা যাচাই করা হয়েছে।

বাংলাদেশের ব্যাংক নোটে করোনাভাইরাসের আরএনএর উপস্থিতির বিষয়ে এক গবেষণাপত্রের সূত্র ধরে অধ্যাপক ড. আনোয়ার হোসেন বলেন, আমাদের গবেষক দল দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রাপ্ত ব্যাংক নোটে ভাইরাসের আরএনএর উপস্থিতি পেয়েছেন। গবেষক দল ব্যাংক নোটে ৭২ ঘণ্টা পর্যন্ত ভাইরাসের এন-জিনের উপস্থিতি এবং ৮-১০ ঘণ্টা পর্যন্ত ওআরএফ জিনের স্থায়িত্ব শনাক্ত করতে পেরেছেন। এই গবেষণাপত্রটি ইতোমধ্যেই একটি জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে।

ড. আনোয়ার হোসেন বলেন, যশোর জেনারেল হাসপাতাল থেকে ভারত থেকে আসা ১৬ জনের নমুনা যবিপ্রবির জিনোম সেন্টারে পাঠানো হয়, যার মধ্যে তিনজন করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়। পজিটিভ তিনজনের মধ্যে দুজনের শরীরে করোনা ভাইরাসের ভারতীয় ধরন শনাক্ত করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, আমাদের গবেষকরা গত মার্চ ও এপ্রিল মাসে এই অঞ্চলে সংক্রমণ সৃষ্টিকারী ১০০টির মতো ভাইরাসের নমুনার স্পাইক প্রোটিন সিকোয়েন্স করেছেন। বিগত দুই মাসের ভাইরাসগুলোর মধ্যে উচ্চ সংক্রমণ ক্ষমতা সম্পন্ন সাউথ আফ্রিকান ভ্যারিয়েন্টের সংখ্যা সবচাইতে বেশি। এছাড়া বিগত দুই মাসের নমুনায় আমরা সাউথ আফ্রিকান, মেক্সিকো, ক্যালিফোর্নিয়া, ইউকে এবং নিউইয়র্ক ভ্যারিয়েন্টের উপস্থিতি পেয়েছি। এ ছাড়াও আমরা স্পাইক প্রোটিনে কিছু বিরল মিউটেশন পেয়েছি যা এই অঞ্চলে এখনও দেখা যায়নি। সে মিউটেশনগুলোর প্রভাব নিয়ে আমরা কাজ করছি। এ ধরনের মিউটেশনগুলো সংক্রমণ ক্ষমতার ওপর কিংবা রোগের ভয়াবহতার ওপর কেমন প্রভাব ফেলতে পারে তা নিয়ে গবেষণা চলছে। শিগগিরই সে গবেষণার ফলাফল আমরা প্রকাশের জন্য উন্মুক্ত করব।

সাংবাদিক সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. সেলিনা আক্তার, পুষ্টি ও খাদ্য প্রযুক্তি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. শিরিন নিগার, বায়ো-মেডিকেল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের চেয়ারম্যান ড. হাসান মো. আল-ইমরান, অণুজীববিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শোভন লাল সরকার, গবেষক তনয় চক্রবর্তী প্রমুখ।

/এমআর/

সম্পর্কিত

রাজশাহী বিভাগের করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনা বিষয়ে সভা

রাজশাহী বিভাগের করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনা বিষয়ে সভা

করোনা কেড়ে নিয়েছে ৩৮ লাখ ৯১ হাজার মানুষের প্রাণ

করোনা কেড়ে নিয়েছে ৩৮ লাখ ৯১ হাজার মানুষের প্রাণ

নদীতে নিখোঁজের ৩০ ঘণ্টা পর সেই নাবিকের লাশ উদ্ধার

নদীতে নিখোঁজের ৩০ ঘণ্টা পর সেই নাবিকের লাশ উদ্ধার

পা পিছলে নদীতে পড়া সেই নাবিক এখনও উদ্ধার হয়নি

পা পিছলে নদীতে পড়া সেই নাবিক এখনও উদ্ধার হয়নি

বাবা-মা হারানো মারিয়ার নামে ফাউন্ডেশন করলেন সাতক্ষীরার ডিসি

বাবা-মা হারানো মারিয়ার নামে ফাউন্ডেশন করলেন সাতক্ষীরার ডিসি

করোনা প্রতিরোধে ‘কোভ্যাক্সিন’ টিকায় আশাবাদী ভারত

করোনা প্রতিরোধে ‘কোভ্যাক্সিন’ টিকায় আশাবাদী ভারত

৭ দিন পর বেনাপোল বন্দর দিয়ে পাথর এলো

৭ দিন পর বেনাপোল বন্দর দিয়ে পাথর এলো

ফটিকছড়িতে ৭ দিনের লকডাউন

ফটিকছড়িতে ৭ দিনের লকডাউন

বাগেরহাটে করোনায় আরও ৪ মৃত্যু

বাগেরহাটে করোনায় আরও ৪ মৃত্যু

সাতক্ষীরা মেডিক্যালে জায়গা নেই, একদিনে ৯ মৃত্যু

সাতক্ষীরা মেডিক্যালে জায়গা নেই, একদিনে ৯ মৃত্যু

যশোরে একদিনে ২৫৩ জনের করোনা শনাক্ত

যশোরে একদিনে ২৫৩ জনের করোনা শনাক্ত

সর্বশেষ

ভারতের লিড, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের ভাগ্যে কী আছে?

ভারতের লিড, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালের ভাগ্যে কী আছে?

ভাসানচর থেকে পালানো ১৪ রোহিঙ্গা আটক

ভাসানচর থেকে পালানো ১৪ রোহিঙ্গা আটক

অ্যাস্ট্রাজেনেকার পর মডার্নার টিকা নিলেন ম্যার্কেল

অ্যাস্ট্রাজেনেকার পর মডার্নার টিকা নিলেন ম্যার্কেল

এবার নাটোরের সব পৌর এলাকায় বিধিনিষেধ

এবার নাটোরের সব পৌর এলাকায় বিধিনিষেধ

হোয়াটসঅ্যাপে শপ ফিচার আনছে ফেসবুক

হোয়াটসঅ্যাপে শপ ফিচার আনছে ফেসবুক

ট্রাকচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

ট্রাকচাপায় ৩ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

উদ্বাস্তুদের জন্য ‘বঙ্গভূমি’ রাজ্যের দাবি তুললেন বিজেপি বিধায়ক

উদ্বাস্তুদের জন্য ‘বঙ্গভূমি’ রাজ্যের দাবি তুললেন বিজেপি বিধায়ক

রাজশাহী বিভাগের করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনা বিষয়ে সভা

রাজশাহী বিভাগের করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনা বিষয়ে সভা

নদীতে পড়ে নিখোঁজ পদ্মা সেতু প্রকল্পের চীনা প্রকৌশলী

নদীতে পড়ে নিখোঁজ পদ্মা সেতু প্রকল্পের চীনা প্রকৌশলী

আ.লীগের ৭৩তম জন্মদিন আজ

আ.লীগের ৭৩তম জন্মদিন আজ

রেস্তোরাঁয় স্মোকিং জোন না রাখার দাবি

রেস্তোরাঁয় স্মোকিং জোন না রাখার দাবি

করোনা কেড়ে নিয়েছে ৩৮ লাখ ৯১ হাজার মানুষের প্রাণ

করোনা কেড়ে নিয়েছে ৩৮ লাখ ৯১ হাজার মানুষের প্রাণ

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

রাজশাহী বিভাগের করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনা বিষয়ে সভা

রাজশাহী বিভাগের করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনা বিষয়ে সভা

নদীতে নিখোঁজের ৩০ ঘণ্টা পর সেই নাবিকের লাশ উদ্ধার

নদীতে নিখোঁজের ৩০ ঘণ্টা পর সেই নাবিকের লাশ উদ্ধার

পা পিছলে নদীতে পড়া সেই নাবিক এখনও উদ্ধার হয়নি

পা পিছলে নদীতে পড়া সেই নাবিক এখনও উদ্ধার হয়নি

বাবা-মা হারানো মারিয়ার নামে ফাউন্ডেশন করলেন সাতক্ষীরার ডিসি

বাবা-মা হারানো মারিয়ার নামে ফাউন্ডেশন করলেন সাতক্ষীরার ডিসি

৭ দিন পর বেনাপোল বন্দর দিয়ে পাথর এলো

৭ দিন পর বেনাপোল বন্দর দিয়ে পাথর এলো

ফটিকছড়িতে ৭ দিনের লকডাউন

ফটিকছড়িতে ৭ দিনের লকডাউন

বাগেরহাটে করোনায় আরও ৪ মৃত্যু

বাগেরহাটে করোনায় আরও ৪ মৃত্যু

সাতক্ষীরা মেডিক্যালে জায়গা নেই, একদিনে ৯ মৃত্যু

সাতক্ষীরা মেডিক্যালে জায়গা নেই, একদিনে ৯ মৃত্যু

যশোরে একদিনে ২৫৩ জনের করোনা শনাক্ত

যশোরে একদিনে ২৫৩ জনের করোনা শনাক্ত

© 2021 Bangla Tribune