X
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক

খণ্ড খণ্ড জটে ধীরগতি, চেকপোস্টে ভোগান্তি

আপডেট : ১১ মে ২০২১, ১৪:০৪


কুমিল্লার ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে দূরপাল্লার বাস বন্ধ থাকলেও যানবাহনের অতিরিক্ত চাপ বেড়েছে। ঈদকে সামনে রেখে বাড়ি ফেরা শুরু হওয়ায় যানবাহনের চাপে মহাসড়কের কোথাও ধীরগতি, আবার কোথাও খণ্ড খণ্ড যানজট সৃষ্টি হচ্ছে। এতে করে যাত্রী ও চালকদের দুর্ভোগ বেড়েছে। ঢাকা থেকে কুমিল্লামুখী দূরপাল্লার বাস প্রবেশ করতে না দেওয়ায় দাউদকান্দির টোলপ্লাজা এলাকায় পুলিশের চেকপোস্ট থেকে হেঁটে যাত্রীরা গন্তব্যে যাচ্ছেন। আবার অনেকে বিকল্প বাহন হিসেবে পণ্য পরিবহনের ট্রাকে করে গন্তব্যে ফিরছেন। তবে মহাসড়কের কোনও অংশে দীর্ঘ যানজট নেই।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, মঙ্গলবার (১১ মে) ভোর থেকে কুমিল্লার দাউদকান্দির শহীদনগর থেকে পুটিয়া পর্যন্ত ১০ কিলোমিটার সড়কে যানবাহনের ধীরগতির সঙ্গে খণ্ড খণ্ড যানজট সৃষ্টি হচ্ছে।

মহাসড়কের গৌরিপুর এলাকার বাসিন্দা ও স্থানীয় সংবাদকর্মী কামরুল হোসেন জানান, ঈদকে ঘিরে মহাসড়কের যানবাহনের চাপ বেড়ে যাওয়ায় খণ্ড খণ্ড যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে। এ কারণে মহাসড়কের গাড়ির ধীরগতি রয়েছে। তবে কোথাও যানজট স্থায়ী হয়ে দীর্ঘ হচ্ছে না।

লাকসাম উপজেলার সিরিয়াল গ্রামের বাসিন্দা চাকরিজীবী কাউসার আলম সকাল ৯টার দিকে দাউদকান্দির গৌরিপুর বাসস্ট্যান্ডে যানজটে আটকে আছেন জানিয়ে বলেন, স্ত্রী নিঝুম আক্তার ও ছয় মাসের মেয়ে ফাতিহাকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে রওনা হই ভোর পাঁচটায়। ঢাকার সায়েদাবাদ থেকে বাসে উঠেছি। পথে যানজটে আটকে থেকে দাউদকান্দির গৌরিপুর পর্যন্ত এক ঘণ্টার পথ পার হয়েছি চার ঘণ্টায়। বাকি পথের ভোগান্তি মাথায় রেখেই আপনজনের সঙ্গে ঈদ করতে যাচ্ছেন বলে জানান তিনি।

ঢাকা থেকে কুমিল্লাগামী প্রাইভেটকারের চালক জাহিদ হাসান বলেন, ভোর পৌনে পাঁচটায় ঢাকার সায়েদাবাদ থেকে কুমিল্লার মুরাদনগরের দিকে রওনা দিয়েছি। তিনি জানান, ঈদ সামনে রেখে যানবাহনের সংখ্যা বাড়ায়, উল্টো পথে যানবাহন চলাচল, মহাসড়কের বিভিন্ন বাসস্ট্যান্ডে লোকাল বাসের স্ট্যান্ড গড়ে তোলায়, পণ্যবাহী যানবাহন ছোট যানবাহনকে যথাসময়ে সাইট না দেওয়ায় অহেতুক যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।

দাউদকান্দি হাইওয়ে থানার ওসি জহরুল ইসলাম বলেন, মহাসড়কের বিভিন্ন ধরনের গাড়ির চাপ বেড়েছে। দূরপাল্লার কোনও বাস যাতায়াত করতে দেওয়া হচ্ছে না। চেকপোস্টে ঢাকা থেকে কুমিল্লামুখী যাত্রী পরিবহন করা বাস আটকে দেওয়া হচ্ছে। তবে ব্যক্তিগত গাড়ি বেড়েছে মহাসড়কে। সেই সঙ্গে পণ্য পরিবহনের গাড়িতে করে বাড়ি ফিরছেন ঘরমুখী মানুষ। মহাসড়কের গাড়ির চাপ বাড়ায় ধীরগতি তৈরি হচ্ছে। তবে যানজট নেই বলে দাবি করেন তিনি।

/টিটি/

সম্পর্কিত

ডিএনএ টেস্টে প্রমাণ হয়নি কন্যাশিশুর বাবা কনস্টেবল শাওন

ডিএনএ টেস্টে প্রমাণ হয়নি কন্যাশিশুর বাবা কনস্টেবল শাওন

হাসপাতাল থেকে যেমন এসেছেন ‌‘তেমনই’ আছেন খালেদা জিয়া

হাসপাতাল থেকে যেমন এসেছেন ‌‘তেমনই’ আছেন খালেদা জিয়া

বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

বিদেশ থেকে আনা মোবাইল ফোন নিবন্ধন করতে হবে যেভাবে

বিদেশ থেকে আনা মোবাইল ফোন নিবন্ধন করতে হবে যেভাবে

ইউজিসির সাবেক সদস্য মোহাম্মদ আলীর মৃত্যুতে শোক

ইউজিসির সাবেক সদস্য মোহাম্মদ আলীর মৃত্যুতে শোক

পোশাক শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় ২ জনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

পোশাক শ্রমিককে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের ঘটনায় ২ জনের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি

‘২০২৫ সালের মধ্যে সরকারের সব সেবা ডিজিটাল হচ্ছে’

‘২০২৫ সালের মধ্যে সরকারের সব সেবা ডিজিটাল হচ্ছে’

আইনজীবীদের টিকা দেওয়া নিয়ে রুলের শুনানি ২৭ জুন

আইনজীবীদের টিকা দেওয়া নিয়ে রুলের শুনানি ২৭ জুন

নাশকতার মামলায় বৈমানিককে জামিন দেননি হাইকোর্ট

নাশকতার মামলায় বৈমানিককে জামিন দেননি হাইকোর্ট

চূড়ান্ত তালিকায় যুক্ত হলো আরও ২৯৭৩ বীর মুক্তিযোদ্ধার নাম

চূড়ান্ত তালিকায় যুক্ত হলো আরও ২৯৭৩ বীর মুক্তিযোদ্ধার নাম

দলে ‘ছারপোকা’ ঢোকানো যাবে না: হাছান মাহমুদ

দলে ‘ছারপোকা’ ঢোকানো যাবে না: হাছান মাহমুদ

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ১ লাখ ডোজ শেষ

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ১ লাখ ডোজ শেষ

সর্বশেষ

ডিএনএ টেস্টে প্রমাণ হয়নি কন্যাশিশুর বাবা কনস্টেবল শাওন

ডিএনএ টেস্টে প্রমাণ হয়নি কন্যাশিশুর বাবা কনস্টেবল শাওন

মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়ায় লালমনিরহাট পৌরসভায় কঠোর বিধিনিষেধ

মৃত্যু ও সংক্রমণ বাড়ায় লালমনিরহাট পৌরসভায় কঠোর বিধিনিষেধ

মডেল মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিনের বেতন কত?

মডেল মসজিদের ইমাম-মুয়াজ্জিনের বেতন কত?

দেশে পাকিস্তানি সৈন্যের অস্তিত্ব নেই

দেশে পাকিস্তানি সৈন্যের অস্তিত্ব নেই

বার্ধক্য রুখবে কোলাজেন স্মুদি

বার্ধক্য রুখবে কোলাজেন স্মুদি

বিজেপিতেই আস্থা রাখছেন ভারতের ব্যবসায়ীরা

বিজেপিতেই আস্থা রাখছেন ভারতের ব্যবসায়ীরা

বোমাবর্ষণের হুঁশিয়ারি রাশিয়ার

বোমাবর্ষণের হুঁশিয়ারি রাশিয়ার

টিশার্টে নকশি কাঁথা

টিশার্টে নকশি কাঁথা

মোদিকে চিঠি মমতার

মোদিকে চিঠি মমতার

হাসপাতাল থেকে যেমন এসেছেন ‌‘তেমনই’ আছেন খালেদা জিয়া

হাসপাতাল থেকে যেমন এসেছেন ‌‘তেমনই’ আছেন খালেদা জিয়া

কোন দিকে মোড় নিচ্ছে রাশিয়া ও যুক্তরাজ্যের বিবাদ?

কোন দিকে মোড় নিচ্ছে রাশিয়া ও যুক্তরাজ্যের বিবাদ?

বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

বেসরকারি পর্যায়ে অ্যান্টিজেন পরীক্ষার অনুমোদন দিচ্ছে সরকার

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ডিএনএ টেস্টে প্রমাণ হয়নি কন্যাশিশুর বাবা কনস্টেবল শাওন

ডিএনএ টেস্টে প্রমাণ হয়নি কন্যাশিশুর বাবা কনস্টেবল শাওন

দলে ‘ছারপোকা’ ঢোকানো যাবে না: হাছান মাহমুদ

দলে ‘ছারপোকা’ ঢোকানো যাবে না: হাছান মাহমুদ

বিশ্বে বাংলাদেশকে বঙ্গবন্ধু এবং শেখ হাসিনার নামেই চেনে: হানিফ

বিশ্বে বাংলাদেশকে বঙ্গবন্ধু এবং শেখ হাসিনার নামেই চেনে: হানিফ

নোয়াখালীতে নতুন করে লকডাউনের আওতায় এলো যেসব এলাকা

নোয়াখালীতে নতুন করে লকডাউনের আওতায় এলো যেসব এলাকা

চাঁদপুরে ফ্ল্যাটে ঢুকে ব্যবসায়ীকে হত্যা

চাঁদপুরে ফ্ল্যাটে ঢুকে ব্যবসায়ীকে হত্যা

কোম্পানীগঞ্জে ঘরে ঢুকে মা-ছেলেসহ সাংবাদিককে কুপিয়ে আহতের অভিযোগ

কোম্পানীগঞ্জে ঘরে ঢুকে মা-ছেলেসহ সাংবাদিককে কুপিয়ে আহতের অভিযোগ

মেজর সিনহা হত্যা মামলার আরেক আসামির আত্মসমর্পণ

মেজর সিনহা হত্যা মামলার আরেক আসামির আত্মসমর্পণ

উত্তপ্ত বসুরহাট পৌরসভায় ১৪৪ ধারা জারি

উত্তপ্ত বসুরহাট পৌরসভায় ১৪৪ ধারা জারি

সাতক্ষীরায় হাসপাতালে আরও ৯ মৃত্যু, বাড়ছে লকডাউনের মেয়াদ

সাতক্ষীরায় হাসপাতালে আরও ৯ মৃত্যু, বাড়ছে লকডাউনের মেয়াদ

গাঁজাসহ আটক ছাত্রলীগ নেতা দল থেকে বহিষ্কার

গাঁজাসহ আটক ছাত্রলীগ নেতা দল থেকে বহিষ্কার

© 2021 Bangla Tribune