X
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ৫ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

ঝড়ো হাওয়ায় উড়ে গেলো উপহারের ঘরের টিন, ভেঙে পড়লো পিলার!

আপডেট : ১১ মে ২০২১, ১৭:৩৫

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে প্রধানমন্ত্রীর উপহারের আশ্রয়ণ প্রকল্প-২ এর নবনির্মিত ছয়টি ঘরের টিনের চালা উড়ে গেছে। একইসঙ্গে ভেঙে পড়েছে ঘরের পিলার, ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বেশ কয়েকটি ঘর। নবনির্মিত এসব ঘরের এমন অবস্থায় প্রশ্ন উঠেছে নির্মিত ঘরের মান নিয়ে। অভিযোগ উঠেছে- পিলারে রড না দেওয়া এবং দায়সারাভাবে কাজ করায় ঘরগুলোর এ অবস্থা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, সোমবার (১০ মে) দিবাগত রাতে ফুলবাড়ী উপজেলার আলাদীপুর ইউনিয়নের বাসুদেবপুর জয়বাংলা পল্লীর আশ্রয়ণ প্রকল্পে এই ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘরে বসবাসরতরা জানিয়েছেন, অল্পের জন্য প্রাণে রক্ষা পেয়েছেন তারা।

জানা যায়, রাতে বৃষ্টির সঙ্গে ঝড়ো হাওয়া বয়ে যায়। ঝড়ো বাতাসে ওই এলাকার আশপাশের কোথাও কোনও ক্ষয়ক্ষতি না হলেও নবনির্মিত আশ্রয়ণ প্রকল্পের পাঁচটি ঘরের বারান্দাসহ ঘরের চালার টিন ও বর্গা উড়ে যায়। ভেঙে পড়ে বারান্দার পিলার। বসবাসের শুরুতেই ঘর ভেঙে পড়ায় আতঙ্ক বিরাজ করছে প্রাণে বেঁচে যাওয়া ওই পাঁচ পরিবারসহ সেখানে বসবাসকারী অন্যদের মধ্যে।

প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পাওয়া বিউটি বেগম (৪৫) বলেন, ‘মোক সরকার ঘর দিলো, কিন্তু এটা কেংকা ঘর? এনা বাতাসোত মোর ঘরের চালা উঁড়ি গিয়া পুখুরোত পড়লো। ছোলপোল নিয়া আল্লাহকে ডাকিছুনু। আল্লাহ রহম করো, প্রাণে বাঁচি গেলে মুই আর ওই ঘরোত থাকিম না। মোর ছোলপোলকে রক্ষা করো। মুই মনোত নিসো, মাঠোতে থাকিম তাও এঙ্কা ঘরোত যামু না আর। মুই মোর ছোলপোলকে হারাতে চাও না। এগলা মানসোক মারার জন্য করসে।’

ভেঙে পড়েছে উপহারের ঘরের পিলার চাল উড়ে যাওয়া অন্য ঘরের মালিক আর্জিনা বেগম, মতিয়ার রহমান, জাকির হোসেন বলেন, সামান্য ঝড়ে ঘরের চাল উড়িয়ে নিয়ে গেছে। এই ঘরগুলোতে থাকা ঝুঁকিপূর্ণ। রড, কাঠ উড়ে গেছে, কাজ হয়েছে নিম্নমানের। আশপাশের সব ঘরের চাল নড়বড়ে।

সুফলভোগী ও স্থানীয়রা অভিযোগ করেন, নিম্নমানের নির্মাণ সামগ্রী দিয়ে দায়সারাভাবে উপহারের ঘরের কাজ শেষ করা হয়েছে। ঘরগুলোর পিলারে কোনও রড না থাকায় একটু বাতাসেই ঘরগুলো দুলে ওঠে। ঘরের অনেক স্থানেই ফাঁটল দেখা দিয়েছে। এছাড়া ঘরে নেই পানি ও বিদ্যুতের ব্যবস্থা। রাস্তা থেকে বহুদূর জমির মাঝখানে এসব ঘর নির্মাণ করা হলেও চলাচলের সড়কও করা হয়নি। শুরু থেকেই ভালো মানের কাজের দাবি করে এলেও সুফলভোগীদের সেই দাবি রাখা হয়নি বলে অভিযোগ উঠেছে।

এদিকে এ অবস্থায় দুর্বিষহ জীবনযাপন করছেন ঘর পাওয়া ১০০টি পরিবারের সদস্যরা। এই বাড়িগুলো নির্মাণ প্রক্রিয়া সম্পর্কে জানা গেছে, প্রথমে খাস জমি শনাক্ত করে ভূমি অফিস। পরে ওই খাস জমিতে আধাপাকা বাড়ি নির্মাণ কাজ বাস্তবায়ন করেন উপজেলা প্রশাসন। উপজেলার ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবারের জন্য মোট ৭৬৯ টি আধাপাকা বাড়ি নির্মাণ করা হয়।

ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রিয়াজ উদ্দিন বলেন, মুজিববর্ষে উপহার পাওয়া ঘরগুলো ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্ত হলে সেগুলো সরকারি খরচেই মেরামত করে দেওয়া হবে। যারা ঘরগুলো পেয়েছে তারা ঘরগুলোতে উঠছে না। আমরা যে ছোট ছোট তালা লাগিয়ে দিয়েছি তা তারা খুলে দরজা-জানালা খুলে রাখে। এতে ঝড়ের সময় চালা উড়ে গেছে। আমরা মেরামত শুরু করেছি। আজ কালের মধ্যে ঠিক হয়ে যাবে বলে জানান তিনি।

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

বাঁশ বেঁধেও ঠেকানো যাচ্ছে না মানুষের চলাচল

বাঁশ বেঁধেও ঠেকানো যাচ্ছে না মানুষের চলাচল

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসিকে বিজয়ী ঘোষণা

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসিকে বিজয়ী ঘোষণা

ভারতে আসছে করোনার তৃতীয় ঢেউ

ভারতে আসছে করোনার তৃতীয় ঢেউ

মিটলো ভারতীয়দের দ্বন্দ্ব, আধাবেলা বন্ধের পর সচল হিলি স্থলবন্দর

মিটলো ভারতীয়দের দ্বন্দ্ব, আধাবেলা বন্ধের পর সচল হিলি স্থলবন্দর

‘পুঁজিবাজারে আস্থা ফিরেছে বিনিয়োগকারীদের’

‘পুঁজিবাজারে আস্থা ফিরেছে বিনিয়োগকারীদের’

এবার চাকরি হারানোর আতঙ্কে বেসরকারি কলেজের অনার্স-মাস্টার্সের শিক্ষকরা

এবার চাকরি হারানোর আতঙ্কে বেসরকারি কলেজের অনার্স-মাস্টার্সের শিক্ষকরা

আমরা এখন অন্যদের ঋণ দিচ্ছি: তথ্যমন্ত্রী

আমরা এখন অন্যদের ঋণ দিচ্ছি: তথ্যমন্ত্রী

দেশের উন্নয়ন-অর্জনই বিএনপির গাত্রদাহের কারণ: ওবায়দুল কাদের

দেশের উন্নয়ন-অর্জনই বিএনপির গাত্রদাহের কারণ: ওবায়দুল কাদের

সিনোফার্মের টিকা প্রয়োগ শুরু

সিনোফার্মের টিকা প্রয়োগ শুরু

দেড় বছর পর লালমনিরহাটে আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

দেড় বছর পর লালমনিরহাটে আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

সর্বশেষ

‘মা-বাবা-বোনকে হত্যা করেছি, দেরি হলে স্বামী সন্তানকেও করবো’

৯৯৯ নম্বরে মেহজাবিন‘মা-বাবা-বোনকে হত্যা করেছি, দেরি হলে স্বামী সন্তানকেও করবো’

ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে স্ট্যাটাস, সেই সম্রাট কারাগারে

ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে স্ট্যাটাস, সেই সম্রাট কারাগারে

রোগীর কাছে টাকা চেয়ে তাৎক্ষণিক বদলি মেডিক্যাল কর্মকর্তা

রোগীর কাছে টাকা চেয়ে তাৎক্ষণিক বদলি মেডিক্যাল কর্মকর্তা

ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা কিংবা রাজনৈতিক পরিচয়ে ফোন এলে যেভাবে যাচাই করবেন

ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা কিংবা রাজনৈতিক পরিচয়ে ফোন এলে যেভাবে যাচাই করবেন

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে যুক্তরাজ্যে করোনার ‘তৃতীয় ঢেউ’

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে যুক্তরাজ্যে করোনার ‘তৃতীয় ঢেউ’

নারী ও শিশু ধর্ষণ মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির আহ্বান প্রধান বিচারপতির

নারী ও শিশু ধর্ষণ মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির আহ্বান প্রধান বিচারপতির

বাঁশ বেঁধেও ঠেকানো যাচ্ছে না মানুষের চলাচল

বাঁশ বেঁধেও ঠেকানো যাচ্ছে না মানুষের চলাচল

গ্রিজমানের গোলে হার এড়ালো ফ্রান্স

গ্রিজমানের গোলে হার এড়ালো ফ্রান্স

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসিকে বিজয়ী ঘোষণা

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসিকে বিজয়ী ঘোষণা

ফতুল্লায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেলো রিকশার ২ যাত্রীর

ফতুল্লায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেলো রিকশার ২ যাত্রীর

ফিরোজায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

ফিরোজায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

শার্শায় ৪৩ নমুনা পরীক্ষায় ৩২ জনই আক্রান্ত

শার্শায় ৪৩ নমুনা পরীক্ষায় ৩২ জনই আক্রান্ত

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

বাঁশ বেঁধেও ঠেকানো যাচ্ছে না মানুষের চলাচল

বাঁশ বেঁধেও ঠেকানো যাচ্ছে না মানুষের চলাচল

মিটলো ভারতীয়দের দ্বন্দ্ব, আধাবেলা বন্ধের পর সচল হিলি স্থলবন্দর

মিটলো ভারতীয়দের দ্বন্দ্ব, আধাবেলা বন্ধের পর সচল হিলি স্থলবন্দর

দেড় বছর পর লালমনিরহাটে আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

দেড় বছর পর লালমনিরহাটে আ.লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা

আদালতের নির্দেশে মায়ের কাছে আবু ত্ব-হা

আদালতের নির্দেশে মায়ের কাছে আবু ত্ব-হা

আবু ত্ব-হার ‘আত্মগোপনের’ কথা বিশ্বাস হচ্ছে না মায়ের

আবু ত্ব-হার ‘আত্মগোপনের’ কথা বিশ্বাস হচ্ছে না মায়ের

বন্ধুর বাড়িতে আত্মগোপনে ছিলেন আবু ত্ব-হা: পুলিশ

বন্ধুর বাড়িতে আত্মগোপনে ছিলেন আবু ত্ব-হা: পুলিশ

যশোরে একদিনে শনাক্তের রেকর্ড

যশোরে একদিনে শনাক্তের রেকর্ড

হিলি দিয়ে ভারতফেরত ৯ জন করোনা পজিটিভ

হিলি দিয়ে ভারতফেরত ৯ জন করোনা পজিটিভ

© 2021 Bangla Tribune