X
শনিবার, ১৯ জুন ২০২১, ৫ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

হাটহাজারীতে সহিংসতার দায় স্বীকার নোমান ফয়েজির

আপডেট : ১১ মে ২০২১, ২০:১৭

হাটহাজারীতে হেফাজতের তাণ্ডবের ঘটনায় দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন সংগঠনটির বিলুপ্ত কমিটির প্রচার সম্পাদক জাকারিয়া নোমান ফয়েজি। মঙ্গলবার (১১ মে) দুপুরে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কৌশক আহম্মদ খন্দকারের আদালতে তিনি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। চট্টগ্রাম জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আব্দুল্লাহ আল মাসুম এ তথ্য জানিয়েছেন।

এর আগে ৫ মে বিকালে কক্সবাজারের চকরিয়া থেকে তাকে গ্রেফতার করে চট্টগ্রাম জেলা গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেফতারের পর ৬ মে তাকে হাটহাজারীতে সহিংসতার ঘটনায় দায়ের করা তিন মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে তুলে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে আদালত তাকে ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। রিমান্ড শেষে আজ তাকে আদালতে তোলা হলে তিনি আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

এ সম্পর্কে জানতে চাইলে আব্দুল্লাহ আল মাসুম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘৫ দিনের রিমান্ড শেষে গ্রেফতার হেফাজত নেতা নোমান ফয়েজিকে আদালতে তোলা হয়। এরপর আদালতে তিনি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। জবানবন্দিতে তিনি গত ২৬ মার্চ হাটহাজারীতে সহিংসতার দায় স্বীকার করেন। একাধিক নারীর সঙ্গে তার বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক আছে বলেও তিনি স্বীকার করেছেন।’

গত ২৬ মার্চ ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনের বিরোধিতা করে হাটহাজারীতে বিক্ষোভ করে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা। এ সময় হাটহাজারী বড় মাদ্রাসা নামে পরিচিত দারুল উলুম ময়নুল ইসলাম মাদ্রাসা থেকে মিছিল বের করে হাটহাজারী থানায় ভাঙচুর চালানো হয়। পাশাপাশি হেফাজতকর্মীরা হাটহাজারী উপজেলা ভূমি অফিস ও সদর ইউনিয়ন ভূমি অফিসে হামলা ও অগ্নিসংযোগ করে। দিনভর পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে চার জন নিহত হন। এ ঘটনার জের ধরে হাটহাজারীতে তাণ্ডব চালায় হেফাজত নেতাকর্মীরা। তারা চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি সড়ক অবরোধ করে। পাশাপাশি মাদ্রাসার সামনে ইটের দেয়াল তুলে ব্যারিকেডও দেয় হেফাজতের কর্মীরা।

এসব ঘটনায় শুরুতে হাটহাজারী থানায় মোট ছয়টি মামলা দায়ের করা হয়। পরে ২২ এপ্রিল হেফাজতের বিলুপ্ত কমিটির আমির জুনাইদ বাবুনগরীকে প্রধান আসামি করে আরও দুইটি মামলাসহ হাটহাজারী থানায় আরও তিনটি দায়ের করা হয়। গত ৫ মে ওই ঘটনায় দায়ের করা তিনটি মামলায় নোমান ফয়েজিকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে নোমান ফয়েজি হাটহাজারীতে সংঘঠিত সহিংসতায় তার সম্পৃক্ততা থাকার বিষয়টি স্বীকার করে। ওই সময় পুলিশ তার মোবাইল ফোন বিশ্লেষণ করে একাধিক নারীর সঙ্গে তার বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক থাকার প্রমাণ পায়। তাকে গ্রেফতারের দুই দিন পর গত ৭ মে ভুক্তভোগী এক নারী নোমান ফয়েজির বিরুদ্ধে হাটহাজারী থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

মামলার এজাহারে ওই নারী উল্লেখ করেন, ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম-ফেসবুকে এক নারীর সঙ্গে জাকারিয়া নোমান ফয়েজির পরিচয় হয়। এরপর সে মেয়েটির সঙ্গে যোগাযোগ করতে থাকে। একপর্যায়ে মেয়েটিকে বিয়ের কথা বলে হাটহাজারীর ভাড়া বাসায় নিয়ে আসে সে। মেয়েটিকে ওই ভাড়া বাসায় ফয়েজি একবছর ধরে ধর্ষণ করেছে। এরপর চট্টগ্রাম শহরের বিভিন্ন হোটেলেও ওই মেয়েকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে সে। ফয়েজির প্রতারণা বুঝতে পেরে ভুক্তভোগী নারী হাটহাজারী থানায় মামলাটি দায়ের করেন। গত শনিবার চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস (ওসিসি) সেন্টারে ভুক্তভোগীর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

/আইএ/

সম্পর্কিত

ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে স্ট্যাটাস, সেই সম্রাট কারাগারে

ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে স্ট্যাটাস, সেই সম্রাট কারাগারে

রোগীর কাছে টাকা চেয়ে তাৎক্ষণিক বদলি মেডিক্যাল কর্মকর্তা

রোগীর কাছে টাকা চেয়ে তাৎক্ষণিক বদলি মেডিক্যাল কর্মকর্তা

ভারত থেকে দেশে প্রবেশকালে ৩০ মামলার আসামি গ্রেফতার

ভারত থেকে দেশে প্রবেশকালে ৩০ মামলার আসামি গ্রেফতার

ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেওয়ায় নোবিপ্রবির কর্মকর্তা আটক

ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেওয়ায় নোবিপ্রবির কর্মকর্তা আটক

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন শুরু

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন শুরু

চট্টগ্রামের রাস্তায় হাঁটুপানি

চট্টগ্রামের রাস্তায় হাঁটুপানি

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ২ মৃত্যু, আক্রান্ত ১৫৭

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ২ মৃত্যু, আক্রান্ত ১৫৭

একে একে ৩ জনকে চাপা দিলো বাসটি

একে একে ৩ জনকে চাপা দিলো বাসটি

চট্টগ্রামে যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২

চট্টগ্রামে যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২

১৩১ জনের মৃত্যুর পরও দ্বিগুণ বসতি

১৩১ জনের মৃত্যুর পরও দ্বিগুণ বসতি

১ টাকার সালামিতে ঘর পাচ্ছে ১০৯ পরিবার

১ টাকার সালামিতে ঘর পাচ্ছে ১০৯ পরিবার

ইউটার্নের সময় বাসের ধাক্কায় প্রাইভেটকার চালকসহ নিহত ৩

ইউটার্নের সময় বাসের ধাক্কায় প্রাইভেটকার চালকসহ নিহত ৩

সর্বশেষ

ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে স্ট্যাটাস, সেই সম্রাট কারাগারে

ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে স্ট্যাটাস, সেই সম্রাট কারাগারে

রোগীর কাছে টাকা চেয়ে তাৎক্ষণিক বদলি মেডিক্যাল কর্মকর্তা

রোগীর কাছে টাকা চেয়ে তাৎক্ষণিক বদলি মেডিক্যাল কর্মকর্তা

ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা কিংবা রাজনৈতিক পরিচয়ে ফোন এলে যেভাবে যাচাই করবেন

ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা কিংবা রাজনৈতিক পরিচয়ে ফোন এলে যেভাবে যাচাই করবেন

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে যুক্তরাজ্যে করোনার ‘তৃতীয় ঢেউ’

ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টে যুক্তরাজ্যে করোনার ‘তৃতীয় ঢেউ’

নারী ও শিশু ধর্ষণ মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির আহ্বান প্রধান বিচারপতির

নারী ও শিশু ধর্ষণ মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির আহ্বান প্রধান বিচারপতির

বাঁশ বেঁধেও ঠেকানো যাচ্ছে না মানুষের চলাচল

বাঁশ বেঁধেও ঠেকানো যাচ্ছে না মানুষের চলাচল

গ্রিজমানের গোলে হার এড়ালো ফ্রান্স

গ্রিজমানের গোলে হার এড়ালো ফ্রান্স

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসিকে বিজয়ী ঘোষণা

ইরানের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ইব্রাহিম রায়িসিকে বিজয়ী ঘোষণা

ফতুল্লায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেলো রিকশার ২ যাত্রীর

ফতুল্লায় কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় প্রাণ গেলো রিকশার ২ যাত্রীর

ফিরোজায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

ফিরোজায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

শার্শায় ৪৩ নমুনা পরীক্ষায় ৩২ জনই আক্রান্ত

শার্শায় ৪৩ নমুনা পরীক্ষায় ৩২ জনই আক্রান্ত

কাবুলে মার্কিন দূতাবাসে করোনার তাণ্ডব: আক্রান্ত ১১৪

কাবুলে মার্কিন দূতাবাসে করোনার তাণ্ডব: আক্রান্ত ১১৪

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে স্ট্যাটাস, সেই সম্রাট কারাগারে

ওবায়দুল কাদেরকে নিয়ে স্ট্যাটাস, সেই সম্রাট কারাগারে

রোগীর কাছে টাকা চেয়ে তাৎক্ষণিক বদলি মেডিক্যাল কর্মকর্তা

রোগীর কাছে টাকা চেয়ে তাৎক্ষণিক বদলি মেডিক্যাল কর্মকর্তা

ভারত থেকে দেশে প্রবেশকালে ৩০ মামলার আসামি গ্রেফতার

ভারত থেকে দেশে প্রবেশকালে ৩০ মামলার আসামি গ্রেফতার

ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেওয়ায় নোবিপ্রবির কর্মকর্তা আটক

ওবায়দুল কাদেরের বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেওয়ায় নোবিপ্রবির কর্মকর্তা আটক

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন শুরু

চট্টগ্রাম মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্মেলন শুরু

চট্টগ্রামের রাস্তায় হাঁটুপানি

চট্টগ্রামের রাস্তায় হাঁটুপানি

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ২ মৃত্যু, আক্রান্ত ১৫৭

চট্টগ্রামে করোনায় আরও ২ মৃত্যু, আক্রান্ত ১৫৭

একে একে ৩ জনকে চাপা দিলো বাসটি

একে একে ৩ জনকে চাপা দিলো বাসটি

চট্টগ্রামে যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২

চট্টগ্রামে যাত্রীবাহী বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ২

১৩১ জনের মৃত্যুর পরও দ্বিগুণ বসতি

১৩১ জনের মৃত্যুর পরও দ্বিগুণ বসতি

© 2021 Bangla Tribune