X
শুক্রবার, ২৫ জুন ২০২১, ১১ আষাঢ় ১৪২৮

সেকশনস

টিকাদানের হার বিশ্বের সর্বোচ্চ, তারপরও দ্বিগুণ সংক্রমণ!

আপডেট : ১১ মে ২০২১, ২০:২২

ভারত মহাসাগরের বুকে ছোট্ট দ্বীপ রাষ্ট্র সেশেলস। ১১৫টি দ্বীপ নিয়ে গঠিত পূর্ব আফ্রিকার এই দেশটির জনসংখ্যা সব মিলিয়ে এক লাখেরও কম। আফ্রিকার বাকি দেশগুলোর মতো এখানেও থাবা বসিয়েছে করোনা। জনসংখ্যা কম থাকায় প্রথমে লকডাউন এবং তারপর গণহারে টিকাদান কর্মসূচি পরিচালনায় খুব একটা বেগও পেতে হয়নি। খাতা-কলমে এই দেশটিতে এখনও পর্যন্ত টিকাদানের হার বিশ্বের সর্বোচ্চ। তবে কোভিডের দ্বিতীয় ঝাপটা আসতেই দেখা দিয়েছে নতুন দুর্যোগ।

ভ্যাকসিন নেওয়া সত্ত্বেও সেশেলসে আক্রান্তের সংখ্যা হু হু করে বাড়তে শুরু করেছে। পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে, এ সপ্তাহে সংক্রমণ এক ধাক্কায় দ্বিগুণ ছুঁয়েছে। পুরো ঘটনায় সিঁদুরে মেঘ দেখছে সেশেলস সরকার। যদিও পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট হাতে না আসা পর্যন্ত মুখ খুলতে নারাজ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

টিকা কোনও চিরস্থায়ী রক্ষাকবচ নয়। চেহারা বদলানো ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়তে অন্য উপায় ভাবতে হবে। ভ্যাকসিনকেই করোনা-যুদ্ধের একমাত্র ঢাল করা নিয়ে ইতিমধ্যে সুর চড়িয়েছেন অনেকে। সেশেলসের ঘটনায় সেই দাবি আরও জোরালো হতে শুরু করেছে।

অন্যদিকে এই দুর্যোগে ভারতের কপালেও চিন্তার ভাঁজ বাড়তে বাধ্য। কারণ, সেশেলসের প্রশাসন সূত্রে খবর, তারা প্রধানত দুইটি টিকার ওপর আস্থা রেখেছিলেন। তার মধ্যে একটি ভারতে তৈরি কোভিশিল্ড। অন্যটি চীনা প্রতিষ্ঠান সিনোফার্মের তৈরি ভ্যাকসিন।

সেশেলসের জনসংখ্যার ৫৭ শতাংশ সিনোফার্ম ভ্যাকসিন নিলেও বাকিদের কোভিশিল্ডের ডোজ দেওয়া হয়।

টিকাদান কর্মসূচির শুরুতে অবশ্য আতঙ্ক বাড়েনি। কিন্তু ৭ মে থেকেই চেহারা বদলাতে থাকে। ধীরে ধীরে চড়তে থাকে শনাক্তের গ্রাফ। এমনকি সোমবার তা দ্বিগুণেরও বেশি ছুঁয়েছে বলে দাবি স্বাস্থ্য দফতরের। তাদের পরিসংখ্যান বলছে, এখনও পর্যন্ত দেশটিতে সক্রিয় আক্রান্তের সংখ্যা দুই হাজার ৪৮৬। তাদের মধ্যে ৩৭ শতাংশই ভ্যাকসিনের উভয় ডোজ নিয়েছেন। বিপদ বুঝে ইতোমধ্যে দেশজুড়ে ফের লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জিম, স্কুল, কলেজ, শপিং মল— সবই আপাতত অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ রাখা হয়েছে।

সেশেলস-এর এমন পরিস্থিতি নিয়ে এখনই বিশদ মন্তব্য করতে নারাজ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সংস্থার টিকাদান সম্পর্কিত দফতরের প্রধান কেট ও’ব্রায়ান জানান, সেশেলসের স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা এখনও বাকি আছে। তাছাড়া ভাইরাসের স্ট্রেইন এবং সংক্রমণের ভয়াবহতা বিশ্লেষণ করতে হবে। তারপরই ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা নিয়ে কিছু বলা সম্ভব।

যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার প্রযুক্তিতে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে তৈরি কোভিশিল্ড নামের ভ্যাকসিনটির কার্যকারিতা নিয়ে আফ্রিকাজুড়ে গত ফেব্রুয়ারি মাসেই বিতর্ক দানা বেঁধেছিল। বি.১.৩৫১ নামে কোভিডের যে ভ্যারিয়েন্ট আফ্রিকায় ছড়িয়ে পড়ে, সেটি মোকাবিলায় এই টিকা খুব একটা সফলতা দেখাতে পারেনি। ফলে এক পর্যায়ে অঞ্চলটির অনেক দেশ নাগরিকদের কোভিশিল্ড ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ বন্ধ করে দেয়। সূত্র: দ্য ওয়াল।

/এমপি/

সম্পর্কিত

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে আরও ১৪ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে আরও ১৪ মৃত্যু

খুলনা মেডিক্যালে ৬ মৃত্যু, ৫ জনই পজিটিভ

খুলনা মেডিক্যালে ৬ মৃত্যু, ৫ জনই পজিটিভ

চট্টগ্রামে মৃত্যু বাড়ছে

চট্টগ্রামে মৃত্যু বাড়ছে

মৃত্যুর পর করোনা ইউনিটের মেঝেতেই লাশ পড়েছিলো ১৪ ঘণ্টা

মৃত্যুর পর করোনা ইউনিটের মেঝেতেই লাশ পড়েছিলো ১৪ ঘণ্টা

করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিকে আমবাগান থেকে স্ত্রীসহ উদ্ধার করলো পুলিশ

করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিকে আমবাগান থেকে স্ত্রীসহ উদ্ধার করলো পুলিশ

পানি বাড়তেই গঙ্গার তীরে বেরিয়ে আসছে গণকবর

পানি বাড়তেই গঙ্গার তীরে বেরিয়ে আসছে গণকবর

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ১ লাখ ডোজ শেষ

কোভিশিল্ডের টিকা এক কোটি ১ লাখ ডোজ শেষ

বেসামরিক মানুষ নয়, বিদ্রোহীদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে: ইথিওপিয়া

বেসামরিক মানুষ নয়, বিদ্রোহীদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে: ইথিওপিয়া

১ জুলাই পর্যন্ত সাতক্ষীরায় লকডাউন

১ জুলাই পর্যন্ত সাতক্ষীরায় লকডাউন

লকডাউন নয়, এবার শাটডাউন  চায় জাতীয় কমিটি

লকডাউন নয়, এবার শাটডাউন  চায় জাতীয় কমিটি

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ফ্রি চিকিৎসা পাচ্ছেন করোনা রোগীরা

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে ফ্রি চিকিৎসা পাচ্ছেন করোনা রোগীরা

খুলনায় টানা ৩ দিন সর্বাধিক মৃত্যু

খুলনায় টানা ৩ দিন সর্বাধিক মৃত্যু

সর্বশেষ

মনপুরায় জাতীয় গ্রিড থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহের দাবি

মনপুরায় জাতীয় গ্রিড থেকে বিদ্যুৎ সরবরাহের দাবি

রেস্টুরেন্টে ৩৭ ডলারের বিল, টিপস ১৬ হাজার

রেস্টুরেন্টে ৩৭ ডলারের বিল, টিপস ১৬ হাজার

ইউএনও থেকে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

ইউএনও থেকে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক

টি-টোয়েন্টিতে শ্রীলঙ্কার দুই ব্যাটসম্যান মারতে পারলেন বাউন্ডারি!

টি-টোয়েন্টিতে শ্রীলঙ্কার দুই ব্যাটসম্যান মারতে পারলেন বাউন্ডারি!

রাজধানীতে মানুষ ঢুকছে, বেরও হচ্ছে

রাজধানীতে মানুষ ঢুকছে, বেরও হচ্ছে

লকডাউন হচ্ছে পিরোজপুরের ৪ পৌর এলাকা

লকডাউন হচ্ছে পিরোজপুরের ৪ পৌর এলাকা

প্রযুক্তি পণ্যের সংকটকালে নকল পণ্যে বাজার সয়লাব

প্রযুক্তি পণ্যের সংকটকালে নকল পণ্যে বাজার সয়লাব

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে আরও ১৪ মৃত্যু

রাজশাহী মেডিক্যালে একদিনে আরও ১৪ মৃত্যু

খুলনা মেডিক্যালে ৬ মৃত্যু, ৫ জনই পজিটিভ

খুলনা মেডিক্যালে ৬ মৃত্যু, ৫ জনই পজিটিভ

চট্টগ্রামে মৃত্যু বাড়ছে

চট্টগ্রামে মৃত্যু বাড়ছে

ময়মনসিংহে লকডাউনেও চলছে গণপরিবহন, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

ময়মনসিংহে লকডাউনেও চলছে গণপরিবহন, মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

পানি বাড়তেই গঙ্গার তীরে বেরিয়ে আসছে গণকবর

পানি বাড়তেই গঙ্গার তীরে বেরিয়ে আসছে গণকবর

বেসামরিক মানুষ নয়, বিদ্রোহীদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে: ইথিওপিয়া

বেসামরিক মানুষ নয়, বিদ্রোহীদের ওপর হামলা চালানো হয়েছে: ইথিওপিয়া

মস্তিষ্কে কতটা প্রভাব ফেলে করোনা?

মস্তিষ্কে কতটা প্রভাব ফেলে করোনা?

লিবিয়া সংকট নিয়ে বার্লিনে বিশ্ব শক্তিগুলোর বৈঠক

লিবিয়া সংকট নিয়ে বার্লিনে বিশ্ব শক্তিগুলোর বৈঠক

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ ৯টি দেশে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্ট

যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্রসহ ৯টি দেশে ডেল্টা প্লাস ভ্যারিয়েন্ট

যুক্তরাষ্ট্রের মহামারি মোকাবিলায় বড় হুমকি ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: ফাউচি

যুক্তরাষ্ট্রের মহামারি মোকাবিলায় বড় হুমকি ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট: ফাউচি

করোনা কেড়ে নিয়েছে ৩৮ লাখ ৯১ হাজার মানুষের প্রাণ

করোনা কেড়ে নিয়েছে ৩৮ লাখ ৯১ হাজার মানুষের প্রাণ

মাস্ক পরায় বাধ্যবাধকতা থাকছে না ইতালিতে

মাস্ক পরায় বাধ্যবাধকতা থাকছে না ইতালিতে

© 2021 Bangla Tribune