X
শুক্রবার, ৩০ জুলাই ২০২১, ১৫ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

এক বছরে বাজার হারিয়েছে ৪০ শতাংশ

প্রযুক্তি পণ্যের বাজার স্বাভাবিক হতে লাগবে এক থেকে দুই বছর!

আপডেট : ২১ মে ২০২১, ০০:০৬

করোনাভাইরাস প্রযুক্তি পণ্যের বাজারে যে থাবা বিস্তার করেছে তা গুটিয়ে নিতে আরও এক থেকে দুই বছর লেগে যেতে পারে।  মূলত পণ্য সংকট নিয়েই এ বছর পার করতে হবে প্রযুক্তি পণ্যের ব্যবসায়ী, প্রযুক্তি পণ্যপ্রেমীদের।  বাজারে গেলে অন্তত ‘নেই নেই’, আর ‘বিশ্ববাজারে দাম বেড়েছে’ এমন শব্দ শুনতেই হবে বলে মনে করছেন খাত সংশ্লিষ্টরা।

প্রযুক্তি বাজার সূত্র বলছে, গত এক বছরে ৩০-৪০ শতাংশ বাজার হারিয়েছে এই খাত।  যদি করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে চলে আসে তবে, বিশ্ববাজারে উৎপাদন বাড়িয়ে পণ্যের সরবরাহ স্বাভাবিক করে আগের অবস্থায় ফিরতে এক থেকে দুই বছর লেগে যাবে। চিপ সংকট এখনও দূর হয়নি। নতুন করে প্রসেসর, মনিটরের প্যানেল, র‌্যাম ও মাদারবোর্ডের সংকট দেখা দিয়েছে।  যার প্রভাব পড়েছে ডেস্কটপের বাজারে।  আর ল্যাপটপের সংকট দেশের বাজার গত এক বছরের বেশি সময় ধরে দেখছে।

এদিকে বাজারে যন্ত্রাংশের অভাবে ডেস্কটপ কম্পিউটার বিশেষ করে ক্লোন পিসির দাম বেড়েছে।  স্বাভাবিক সময়ে যে ক্লোন পিসি বিক্রি হতো ৪০ হাজার টাকায়, এখন তা বিক্রি হচ্ছে ৪৫ থেকে ৪৭ হাজার টাকায়।  ক্ষেত্র বিশেষে ৫০ হাজার টাকায়ও।  কেন দাম বেড়েছে— এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে জানা গেলো, বিদেশে থেকে পণ্য আনার খরচ বেড়েছে।  কন্টেইনার ভাড়া বেড়েছে দ্বিগুণ।  আগে একটি কন্টেইনারে যে পরিমাণ পণ্য দেশে আসতো, এখন আসে তার অর্ধেক।  ওদিকে ভাড়াও দ্বিগুণ।  সংশ্লিষ্টরা জানালেন, চীন সরকার পণ্য রফতানিতে ১৫ শতাংশ চার্জ আরোপের ঘোষণা দিয়েছে।  এটার ফলেও দাম বাড়ছে। অন্যদিকে উৎপাদক প্রতিষ্ঠানগুলোও যন্ত্রাংশের দাম বাড়িয়েছে।  ফলে সব মিলিয়ে দাম বেড়েছে, বেশি প্রভাব পড়েছ ক্লোন পিসির বেলায়।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির (বিসিএস) যুগ্ম সম্পাদক মুজাহিদ আল বেরুনী সুজন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, বাজারে এখন প্রসেসর (ইনটেল, এএমডি), মনিটরের প্যানেল, র‌্যাম, মাদারবোর্ডের সংকট রয়েছে।  ফলে কম্পিউটারের দাম বাড়ছে।  আর চিপ সংকট তো মারাত্মক আকার ধারণ করেছে।  ২০২২ সালের আগে চিপ সংকট দূর হবে না বলে তিনি মনে করেন।

দেখা যেত আগে কন্টেইনারে ১০ হাজার ইউনিট কোনও পণ্য দেশে এলো, এখন তা কমে ৫ হাজার ইউনিটে নেমে গেছে।  যে মনিটর এই কিছু আগেও বিক্রি হতো ৬ হাজার ৫০০ টাকায়, প্যানেল সংকটের কারণে এখন তা বিক্রি হচ্ছে ৭ হাজার ৮০০ টাকায়।  উৎপাদকরাই মনিটর প্রতি ১০ থেকে ১৫ ডলার দাম বাড়িয়ে দিয়েছে বলে তিনি জানান।   

ব্র্যান্ডভেদে ল্যাপটপের সংকট এখনও

ব্র্যান্ডভেদে দেশে এখনও ল্যাপটপের সংকট রয়েছে।  তবে গত বছর করোনা শুরু পরে লকডাউন থেকে এ বছরের লকডাউনেও ডেল ব্র্যান্ড বাজারে তাদের ল্যাপটপ সংকট হতে দেয়নি।  বরং স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় বেশি সরবরাহ করে প্রযুক্তি বাজার ল্যাপটপ শূন্য হতে দেয়নি।  এরপর পরই ছিল এসার ব্র্যান্ড।  এই ব্র্যান্ডটিও বাজারে ল্যাপটপের চাহিদার কাছাকাছি সরবরাহ করতে পেরেছে বলে বাজার সূত্রে জানা গেছে।  ভয়াবহ সংকটে ছিল এইচপি ও লেনেভো।  বর্তমানে ব্র্যান্ড দুটি সংকট কিছুটা কাটিয়ে উঠতে পেরেছে।  কিছু কিছু ল্যাপটপ বাজারে ঢুকছে বলে বাজার সহনীয় মাত্রায় আছে এখনও।

খুচরা যন্ত্রাংশেরও সংকট রয়েছে বাজারে এদিকে আসুস ব্র্যান্ডের কান্ট্রি অফিস থেকে পূর্বাভাস পাওয়া গেলো, এ বছরটা সংকটের মধ্য দিয়েই কাটবে। আসুস বাংলাদেশের বিপণন ব্যবস্থাপক (ডিজিটাল ও পাবলিক রিলেশন্স) নাফিজ ইমতিয়াজ বলেন, আমরা যেটা বুঝতে পারছি, বছরটা সংকটের মধ্য দিয়েই শেষ হবে।  আসুস থেকে আমাদের সরাসরি না বললেও ল্যাপটপের স্বাভাবিক সরবরাহ না থাকায় তেমনটাই মনে হচ্ছে।  তিনি জানালেন, বিশ্বজুড়ে চিপ সংকট প্রকট  আকার ধারণ করেছে।  এর প্রভাব সব খাতেই পড়বে।

ব্যাংক ঋণে ব্যবসা টিকে আছে

করোনাকালে প্রযুক্তি পণ্যের ব্যবসায়ীদের যাতে ব্যবসা গোটাতে না হয়, প্রতিষ্ঠান বন্ধ না হয় সেজন্য দেশের প্রযুক্তি পণ্য ব্যবসায়ীদের সংগঠন বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস) সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য ব্যাংক ঋণের ব্যবস্থা করে।  এগিয়ে আসে ব্র্যাক ও প্রাইম ব্যাংক।  সদস্যদের প্রতিষ্ঠান ও আর্থিক সংগতির ওপর নির্ভর করে ব্যাংক দুটি স্বল্প সুদে বিনা জামানতে ঋণ দেয়।  ঢাকা ও চট্টগ্রামের সমিতির সদস্যরা ব্যাংক থেকে ঋণ নিয়ে নতুন করে ব্যবসা দাঁড় করান।  অফিস ভাড়া, কর্মচারীর বেতনই ছিল ব্যবসায়ীদের প্রধানতম চাহিদা।  ব্যাংক ঋণে সেসব পরিশোধ করে ক্রেডিট স্কিমে পণ্য নিয়ে প্রতিষ্ঠানগুলো ব্যবসা করে টেক আছে।  নাম ও পরিচয় প্রকাশ না করার শর্তে এক কম্পিউটার ব্যবসায়ী বললেন, ব্যাংক ঋণ না পেলে এতদিনে প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দিতে হতো। কিছুটা বাকিতে, আর কিছু পণ্য নগদে এনে ব্যবসা করে টিকে আছি।  অফিস ভাড়া ও কর্মচারীর বেতন আপাতত ঋণের টাকা থেকে দিচ্ছি।  খরচ তুলতেই কষ্ট হয়ে যাচ্ছে।  পূর্ণাঙ্গ সেল শুরু হলে সংকট দূর হবে বলে তিনি আশাবাদী।

কতগুলো সদস্য প্রতিষ্ঠান ব্যাংক ঋণ পেয়েছে তা জানতে চাইলে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি সেই তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করে।  ঋণ গ্রহণকারী সদস্যদের আপত্তির কারণে তথ্য প্রকাশ করা না হলেও জানা গেছে, ঢাকা ও চট্টগ্রামের বেশির ভাগ ব্যবসায়ী (আবেদন যারা করেছেন) ব্যাংক ঋণ পেয়েছেন।

/এমআর/

সম্পর্কিত

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

শিশুদের প্রোগ্রামিং ও গণিত শিক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: মোস্তাফা জব্বার

শিশুদের প্রোগ্রামিং ও গণিত শিক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: মোস্তাফা জব্বার

চুরি-ছিনতাই হওয়া স্মার্টফোনের তথ্য ও ছবি মুছবেন যেভাবে

চুরি-ছিনতাই হওয়া স্মার্টফোনের তথ্য ও ছবি মুছবেন যেভাবে

এক সেকেন্ডেই ৫০ হাজার মুভি ডাউনলোড

এক সেকেন্ডেই ৫০ হাজার মুভি ডাউনলোড

লেনোভো বাজারে নিয়ে এলো দুটি নতুন ট্যাব

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২৩:৫১

করোনা মহামারির সময়ে হোম অফিস, অনলাইন ক্লাস, মিটিং, ওয়ার্কশপ এখন সব ডিজিটাল ডিভাইসনির্ভর। সন্তানের স্কুল থেকে শুরু করে পরিবারের জ্যেষ্ঠ সদস্যের দিন কাটছে ডিজিটাল দুনিয়ায়৷ আর এমন পরিবর্তনকে স্বাগত জানাতে বিশ্বখ্যাত ব্র্যান্ড  লেনেভো নিয়ে এসেছে ট্যাব।  যারা ভালো মানের ট্যাব খুঁজছেন, তাদের জন্য বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে চারটি ট্যাব।  লেনোভো ট্যাব এম৮ এবং লেনোভো ট্যাব এম১০ এই দুটি মডেলের চারটি ভ্যারিয়েন্টের ডিভাইস এখন পাওয়া যাচ্ছে বাজারে। 

লেনোভো ট্যাব এম ৮:  এতে আছে আট ইঞ্চি এইচডি ডিসপ্লে, কোয়াড কোর ২.০ গিগাহার্টজ প্রসেসর, ডলবি অডিও স্পিকার, ৫১০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি, পেছনে ৮ মেগা পিক্সেলের অটোফোকাস ক্যামেরা, সামনের ক্যামেরা ২ মেগা পিক্সেলের।  এটি ২ জিবি র‌্যাম, ৩২ জিবি রম এবং এবং ৩ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি রমের দুটি ধরনে পাওয়া যাচ্ছে৷  

লেনোভো ট্যাব এম১০: প্রিমিয়াম গ্যাজেটে যা থাকা উচিত, তার সবই পাওয়া যাবে এই ট্যাবে- ১০.১ ইঞ্চি আইপিএস এইচডি স্ক্রিন, ডলবি অ্যাটমোস ডুয়াল স্পিকার, অ্যান্ড্রয়েড ১০ আপডেট। ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারিতে রয়েছে টানা ১০ ঘণ্টা ব্রাউজিং ও ৮ ঘণ্টা ভিডিও প্লেব্যাক সুবিধা।  পেছনে ৮ মেগা পিক্সেলের অটো ফোকাস ক্যামেরা, রয়েছে ৫ মেগা পিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা।  এর র‌্যাম ৪ জিবি আর রম ৬৪ জিবি, যা ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।  

দুই মডেলের ট্যাবে রয়েছে মেটাল ফিনিশ, বক্সের ভেতরে ইউএসবি টাইপ সি চার্জার।  ১৪ হাজার ৯৯৯ থেকে ২৮ হাজার ৯৯৯ টাকার মধ্যে বেছে নিতে পারবেন আপনার পছন্দের ট্যাব। লেনোভো ট্যাব পাওয়া যাচ্ছে www.salextra.com.bd ও অন্যান্য অনলাইন মার্কেট প্লেসগুলোতে। ঘরে বসে সেলেক্সট্রা শপে অর্ডার করলে ঢাকার ভেতরে ডেলিভারি পৌঁছে যাবে ৪৮ ঘণ্টায়।  ক্রেডিট কার্ড ছাড়া ইএমআইতে পণ্য কেনার সুযোগও থাকছে।  বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন ফেসবুকের www.facebook.com/salextraonline এই লিংকে।

/এইচএএইচ/এমআর/

সম্পর্কিত

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সম্প্রচার সেবা নেবে স্পাইস টিভি

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সম্প্রচার সেবা নেবে স্পাইস টিভি

শিশুদের প্রোগ্রামিং ও গণিত শিক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: মোস্তাফা জব্বার

শিশুদের প্রোগ্রামিং ও গণিত শিক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: মোস্তাফা জব্বার

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৩:৪২

বর্তমানে অ্যাপলের অল্প কিছু পণ্যে ফেস আইডি সুবিধা রয়েছে।  এর মধ্যে রয়েছে আইপ্যাড এবং আইফোন। এছাড়া অ্যাপলের অন্যান্য পণ্যে শুধু টাচ আইডি ব্যবহার করা হয়। তবে সম্প্রতি মার্ক গুরম্যানের পাওয়ার অন নিউজলেটারের বক্তব্য অনুসারে হয়তো এর একটি আমূল পরিবর্তন আসবে।

গুরম্যান দাবি করছেন, অ্যাপল তার আগামীর সব পণ্যে অথবা বেশিরভাগ পণ্যে ফেস আইডি আনার পরিকল্পনা করছে। তিনি আরও দাবি করেন, অ্যাপল পরিকল্পনা করছে আগামী প্রযুক্তির বাজারে তাদের ম্যাক, আইপ্যাড, আইফোন- এসব পণ্যে ফেস আইডি নিয়ে আসবে। সম্ভবত অ্যাপল তাদের আগামী পণ্যে টাচ আইডি বাদ দিয়েও দিতে পারে বলে তিনি মন্তব্য করেন।  কেননা এর চেয়ে ফেস আইডি তুলনামূলক সস্তা এবং নিরাপত্তার মানেও টাচ আইডির চেয়ে উন্নত।

গুরম্যান আরও জানান, বর্তমানের ম্যাকে ফেস আইডি নেই। তার একটি কারণ হতে পারে এর ডিসপ্লে অনেক পাতলা এবং এটাতে ডেপথ সেন্সর কাজ করবে না। 

সংবাদ মাধ্যম উবার গিজমো জানায়, সব মিলিয়ে অ্যাপল যদি তাদের ভবিষ্যতের সব পণ্যে ফেস আইডি নিয়ে আসে তাতে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

/এইচএএইচ/এমএস/

সম্পর্কিত

কিস্তিতে মূল্য পরিশোধের সুযোগ আনছে অ্যাপল

কিস্তিতে মূল্য পরিশোধের সুযোগ আনছে অ্যাপল

অ্যাপলের স্মার্ট ঘড়িতে ইসিজি ফিচার ব্যবহার করবেন যেভাবে

অ্যাপলের স্মার্ট ঘড়িতে ইসিজি ফিচার ব্যবহার করবেন যেভাবে

বাজারে অ্যাপল পণ্যের ঘাটতির বিষয়ে সতর্ক করলেন টিম কুক

বাজারে অ্যাপল পণ্যের ঘাটতির বিষয়ে সতর্ক করলেন টিম কুক

যে কারণে আইফোনের সঙ্গে চার্জার দেওয়া বন্ধ করেছে অ্যাপল

যে কারণে আইফোনের সঙ্গে চার্জার দেওয়া বন্ধ করেছে অ্যাপল

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ২৩:২৫

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’-এর নিবন্ধন শুরু হয়েছে। আগ্রহীরা http://bsf.basis.org.bd/NASA-Registration-Form লিংকে গিয়ে নিবন্ধন করতে পারবেন। নিবন্ধনের শেষ তারিখ আগামী ১৫ আগস্ট। চলতি বছরের ২ ও ৩ অক্টোবর বিশ্বব্যাপী এই প্রতিযোগিতা ভার্চুয়ালি ২৫১টি শহরে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানা গেছে। 

বুধবার (২৮ জুলাই) ভার্চুয়াল মাধ্যমে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানিয়েছে বেসিস।

বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস-বেসিস’র তত্ত্বাবধানে ও বেসিস স্টুডেন্টস ফোরামের সহায়তায় শুরু হচ্ছে ‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ ২০২১’। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় মহাকাশ সংস্থা নাসার উদ্যোগে আয়োজিত হয় নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ। এবারের প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন বেসিসকে সহযোগিতা করবে।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জে এবার ৫০ লাখ শিক্ষার্থীকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যুক্ত করার পাশাপাশি এক লাখ শিক্ষার্থীকে অনলাইনে প্রতিযোগিতায় যুক্ত করার পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ‘আমরা শিক্ষার্থীদের জন্য নতুন নতুন সুযোগ তৈরিতে কাজ করছি।  ‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’ এর মতো আর যেসব কর্মসূচি বেসিস  হাতে নেবে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন বেসিসকে সবধরনের সহযোগিতা দেবে।’

বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর বলেন, ‘বাংলাদেশ থেকে আমাদের সৃজনশীল শিক্ষার্থীরা সফলতার সঙ্গে নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ সমাধান করছে এবং উল্লেখযোগ্য স্থান দখল করে নিচ্ছে। আমরা এবার সপ্তমবারের মতো এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছি।’

বেসিসের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ফারহানা এ রহমান বলেন, ‘একটা প্রতিযোগিতা থেকে আমরা নতুন নতুন অনেক বিষয় শিখি, নতুন নতুন অনেক উদ্ভাবন বের হয়ে আসে।  আমি বিশেষ করে, মেয়েদের এই প্রতিযোগিতায় আরও বেশি করে অংশগ্রহণের আহ্বান জানাবো।’ 

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র উপদেষ্টা আরিফুল হাসান অপু বলেন, ‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে বড় হ্যাকাথন।  অংশগ্রহণকারীদের নিয়ে বেশ কয়েকটি ভার্চুয়াল বুটক্যাম্প করা হবে। আশা করছি, আমাদের দলগুলো এবারও ভালো করবে।’

/এইচএএইচ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

শিশুদের প্রোগ্রামিং ও গণিত শিক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: মোস্তাফা জব্বার

শিশুদের প্রোগ্রামিং ও গণিত শিক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: মোস্তাফা জব্বার

চুরি-ছিনতাই হওয়া স্মার্টফোনের তথ্য ও ছবি মুছবেন যেভাবে

চুরি-ছিনতাই হওয়া স্মার্টফোনের তথ্য ও ছবি মুছবেন যেভাবে

এক সেকেন্ডেই ৫০ হাজার মুভি ডাউনলোড

এক সেকেন্ডেই ৫০ হাজার মুভি ডাউনলোড

একদিনে ঢাকায় ফিরলো ৮ লাখ সিম কার্ড

একদিনে ঢাকায় ফিরলো ৮ লাখ সিম কার্ড

বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের সম্প্রচার সেবা নেবে স্পাইস টিভি

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ২১:৫৫

বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট স্পাইস টিভিকে সম্প্রচার সংক্রান্ত সেবাদান করবে। বাংলাদেশ স্যাটেলাইট কোম্পানি লিমিটেড (বিএসসিএল) ও স্পাইস টেলিভিশন লিমিটেডের (স্পাইস টিভি) মধ্যে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের সম্প্রচার সেবা সংক্রান্ত একটি বাণিজ্যিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছে। বুধবার (২৮ জুলাই) ঢাকায় বিএসসিএল’র প্রধান কার্যালয়ে চুক্তিটি সই হয়।  

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিএসসিএল’র চেয়ারম্যান ড. শাহ্জাহান মাহমুদ। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব মো. আফজাল হোসেন। বিএসসিএল’র পক্ষ থেকে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম ও স্পাইস টিভি’র পক্ষ থেকে স্বাক্ষর করেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ হাসান। এ সময় সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর পক্ষ থেকে অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, দেশের ৩৭তম টেলিভিশন চ্যানেল হিসেবে স্পাইস টিভি বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের সম্প্রচার সেবায় যুক্ত হলো। 

 

 

 

 

/এইচএএইচ/আইএ/

সম্পর্কিত

লেনোভো বাজারে নিয়ে এলো দুটি নতুন ট্যাব

লেনোভো বাজারে নিয়ে এলো দুটি নতুন ট্যাব

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

শিশুদের প্রোগ্রামিং ও গণিত শিক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: মোস্তাফা জব্বার

শিশুদের প্রোগ্রামিং ও গণিত শিক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: মোস্তাফা জব্বার

শিশুদের প্রোগ্রামিং ও গণিত শিক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: মোস্তাফা জব্বার

আপডেট : ২৮ জুলাই ২০২১, ২০:৫৬

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ডিজিটাল যুগের উপযোগী মানবসম্পদ তৈরির জন্য শিশুদের প্রোগ্রামিং ও গণিত শিক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে। ডিজিটাল যুগের উপযোগী হিসেবে নতুন প্রজন্মকে তৈরি করতে না পারলে তারা যুগের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করতে পারবে না বলে মনে করেন তিনি।

বুধবার (২৮ জুলাই) ঢাকায় নিজের কার্যালয় থেকে ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে ‘প্রেসিডেন্সি ইন্টারন্যাশনাল স্কুল’ আয়োজিত হ্যাকাথন উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, ‘ডিজিটাল কনটেন্ট মানে পাওয়ার পয়েন্ট না। উন্নত দেশগুলোতে শিক্ষার ডিজিটাল কনটেন্টের দৃষ্টান্ত তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, ‘একটি অ্যান্ড্রয়েড টিভি ও পেনড্রাইভে রাখা ডিজিটাল কনটেন্ট দিয়ে সহজে শ্রেণিকক্ষ ডিজিটাল করা সম্ভব।’ দেশের ৬৫০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ডিজিটাল পদ্ধতিতে শিক্ষাদান করা হচ্ছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, ‘কনটেন্ট মানে শিশুদের জন্য আকর্ষণীয় এবং শৈল্পিক আধেয়।’

ডিজিটাল সংযুক্তিতে বাংলাদেশ উন্নত দেশের তুলনায় পিছিয়ে নেই উল্লেখ করে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ বিশ্বের ৮০টি দেশে সফট্ওয়্যার রফতানি করছে।  দেশে চাহিদার প্রায় ৭০ ভাগ মোবাইলফোন উৎপাদন করছে। হাওর, দ্বীপ ও দুর্গম চরাঞ্চলসহ দেশের প্রতিটি ইউনিয়নে উচ্চগতির ইন্টারনেট সংযোগ পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে।  ইতোমধ্যে ৫৮৭টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফ্রি ওয়াইফাই জোন করা হয়েছে এবং ১২ হাজারেরও বেশি ফ্রি ওয়াইফাই জোন করার কাজ চলছে।’

প্রেসিডেন্সি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের চেয়ারম্যান আশরাফুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে  বাংলাদেশ কম্পিউটার সোসাইটির ভাইস প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক রেজাউল করিম বক্তৃতা করেন।

/এইচএএইচ/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

চুরি-ছিনতাই হওয়া স্মার্টফোনের তথ্য ও ছবি মুছবেন যেভাবে

চুরি-ছিনতাই হওয়া স্মার্টফোনের তথ্য ও ছবি মুছবেন যেভাবে

এক সেকেন্ডেই ৫০ হাজার মুভি ডাউনলোড

এক সেকেন্ডেই ৫০ হাজার মুভি ডাউনলোড

একদিনে ঢাকায় ফিরলো ৮ লাখ সিম কার্ড

একদিনে ঢাকায় ফিরলো ৮ লাখ সিম কার্ড

সর্বশেষ

গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুই বন্ধুর

গাছের সঙ্গে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় প্রাণ গেল দুই বন্ধুর

সাঁতারে বিশ্ব রেকর্ড গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম সোনা

টোকিও অলিম্পিকসাঁতারে বিশ্ব রেকর্ড গড়ে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম সোনা

ইয়াবাসহ গ্রেফতার পুলিশ সদস্য রিমান্ডে

ইয়াবাসহ গ্রেফতার পুলিশ সদস্য রিমান্ডে

করোনায় অসহায় মানুষের পাশে মৌসুমী ও সুমি  (ভিডিও)

করোনায় অসহায় মানুষের পাশে মৌসুমী ও সুমি  (ভিডিও)

খুলনার হাসপাতালে মৃত্যু কমেছে

খুলনার হাসপাতালে মৃত্যু কমেছে

বরগুনায় আগুনে পুড়েছে করোনা টিকা রাখার ফ্রিজ

বরগুনায় আগুনে পুড়েছে করোনা টিকা রাখার ফ্রিজ

মাল্টার জেলে বন্দি ১৬৫ বাংলাদেশির ভাগ্যে কী আছে?

মাল্টার জেলে বন্দি ১৬৫ বাংলাদেশির ভাগ্যে কী আছে?

ঝরে পড়াদের শিক্ষায় ফিরিয়ে আনার আহ্বান বাউবি ভিসির

ঝরে পড়াদের শিক্ষায় ফিরিয়ে আনার আহ্বান বাউবি ভিসির

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৩ মৃত্যু 

রাজশাহী মেডিক্যালে আরও ১৩ মৃত্যু 

ঢাকা-আঙ্কারা পর্যটন বাড়ানো আহ্বান

ঢাকা-আঙ্কারা পর্যটন বাড়ানো আহ্বান

টিভিতে আজ

টিভিতে আজ

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৮ মৃত্যু

ময়মনসিংহ মেডিক্যালে আরও ১৮ মৃত্যু

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

‘নাসা স্পেস অ্যাপস চ্যালেঞ্জ’র নিবন্ধন শুরু

শিশুদের প্রোগ্রামিং ও গণিত শিক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: মোস্তাফা জব্বার

শিশুদের প্রোগ্রামিং ও গণিত শিক্ষায় গুরুত্ব দিতে হবে: মোস্তাফা জব্বার

চুরি-ছিনতাই হওয়া স্মার্টফোনের তথ্য ও ছবি মুছবেন যেভাবে

চুরি-ছিনতাই হওয়া স্মার্টফোনের তথ্য ও ছবি মুছবেন যেভাবে

এক সেকেন্ডেই ৫০ হাজার মুভি ডাউনলোড

এক সেকেন্ডেই ৫০ হাজার মুভি ডাউনলোড

একদিনে ঢাকায় ফিরলো ৮ লাখ সিম কার্ড

একদিনে ঢাকায় ফিরলো ৮ লাখ সিম কার্ড

ডিজিটাল হাটে পশু বিক্রি হয়েছে ২৪২৪ কোটি টাকার

ডিজিটাল হাটে পশু বিক্রি হয়েছে ২৪২৪ কোটি টাকার

কৌশলগত অংশীদার হলো ক্রাউডফান্ডলি ও অথল্যাব

কৌশলগত অংশীদার হলো ক্রাউডফান্ডলি ও অথল্যাব

হোয়াটসঅ্যাপের মাল্টিডিভাইস ফিচার সম্পর্কে যা জানা প্রয়োজন

হোয়াটসঅ্যাপের মাল্টিডিভাইস ফিচার সম্পর্কে যা জানা প্রয়োজন

অনলাইনে শিশু-কিশোর বিজ্ঞান কংগ্রেস, নিবন্ধন শুরু

অনলাইনে শিশু-কিশোর বিজ্ঞান কংগ্রেস, নিবন্ধন শুরু

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নিরাপদ রাখতে যা করতে হবে

ফেসবুক অ্যাকাউন্ট নিরাপদ রাখতে যা করতে হবে

© 2021 Bangla Tribune