X
রবিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ৪ আশ্বিন ১৪২৮

সেকশনস

৮ বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীকে সম্মান জানালো জাতিসংঘ

আপডেট : ২৮ মে ২০২১, ১৫:০৪
image

শান্তিরক্ষা মিশনে অংশ নিয়ে জীবন উৎসর্গ করা আট বাংলাদেশিকে ‘দ্যাগ হ্যামারশোল্ড মেডেল’ পদকে ভূষিত করেছে জাতিসংঘ। বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা দিবস উপলক্ষে এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে ৪৪টি দেশের ১২৯ শান্তিরক্ষীকে এই পদক প্রদান করা হয়। ২০২০ সালে শান্তিরক্ষা মিশনে তারা মৃত্যুবরণ করেন।

পদক পাওয়া ১২৯ জনের মধ্যে আট জনই বাংলাদেশি। যা যেকোনও দেশের জন্য সর্বোচ্চ। বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠার মহৎ উদ্দেশ্যে উৎসর্গকৃত জীবনের শক্তি, বিশুদ্ধতা ও নশ্বরতাকেই স্মরণ করতেই এই পদক প্রদান করা হয়।

পদক পাওয়া বাংলাদেশের আট শান্তিরক্ষী হলেন- মালিতে নিয়োজিত মিনুস্মা মিশনের ওয়ারেন্ট অফিসার আবদুল মো. হালিম, কঙ্গোতে নিয়োজিত মনুস্কো মিশনের ওয়ারেন্ট অফিসার মো. সাইফুল ইমাম ভূঁইয়া, সার্জেন্ট মো. জিয়াউর রহমান, সার্জেন্ট এমডি মোবারক হোসেন ও ল্যান্স কর্পোরাল মো. সাইফুল ইসলাম, সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিকে নিয়োজিত মিনুস্কা মিশনের ল্যান্স কর্পোরাল মো. আবদুল্লাহ আল মামুন ও সার্জেন্ট মো. ইব্রাহীম এবং দক্ষিণ সুদানে নিয়োজিত আনমিস্ মিশনের ওয়াসারম্যান নুরুল আমিন। 

জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা দেশের পক্ষে এসব পদক গ্রহণ করেন। নিহত শান্তিরক্ষীদের পরিবারের কাছে পদকগুলো পাঠিয়ে দিতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে জাতিসংঘের বাংলাদেশ মিশন।

পদক প্রদান অনুষ্ঠান উপলক্ষে প্রদত্ত এক শোক বার্তায় রাষ্ট্রদূত ফাতিমা বলেন, 'আমি জাতিসংঘের পতাকাতলে কর্তব্যরত অবস্থায় জীবনদানকারী নীল হেলমেটের সকল সাহসী পুরুষ ও নারীর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা প্রদর্শন করছি এবং তাঁদের পরিবার ও স্বজনদের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করছি'। তিনি আরও বলেন, 'বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠার পবিত্র দায়িত্ব পালনকালে বাংলাদেশ তার অনেক বীর সেনানীকে হারিয়েছে। কিন্তু এই ত্যাগ জাতিসংঘে দায়িত্ব পালনের কোনো আহ্বানে সাড়া দিতে কখনই আমাদের জন্য বাধা হয়ে দাঁড়ায়নি; বরং, শান্তির লক্ষ্যে নিজেদেরকে উৎসর্গ করার দৃঢ় সঙ্কল্পকে আরও জোরদার করেছে।' আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে উদ্দেশ্য করে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি বলেন, বুভুক্ষা ও দূর্দশা মুক্ত বিশ্ব প্রতিষ্ঠা করে শান্তির অনুসন্ধান করলেই কেবল কর্তব্যরত অবস্থায় জীবনদানকারী এই শান্তিরক্ষীদের প্রতি প্রকৃত সম্মান প্রদর্শন করা হবে।

আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষী দিবসের এবারের প্রতিপাদ্য হল ‘স্থায়ী শান্তির পথে: শান্তি ও নিরাপত্তার জন্য যুব-শক্তিকে বৃদ্ধি করা’। দিবসটি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানের শুরুতে মহাসচির গুতেরেজ বিগত সাত দশক ব্যাপী জাতিসংঘের পতাকাতলে কর্তব্যরত অবস্থায় জীবনদানকারী সামরিক ও বেসামরিক শান্তিরক্ষীগণের বিদেহী আত্মার স্মরণে জাতিসংঘ সদর দপ্তরের উত্তর লনে অবস্থিত ‘শান্তিরক্ষী মেমোরিয়াল সাইট’-এ পুস্পস্তবক অর্পন করেন।

উল্লেখ্য জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে বাংলাদেশ বর্তমানে সর্বোচ্চ শান্তিরক্ষী প্রেরণকারী দেশ। জাতিসংঘের ৯টি শান্তিরক্ষা মিশনে বাংলাদেশের প্রায় ৭ হাজার শান্তিরক্ষী কর্মরত রয়েছেন। এ পর্যন্ত শান্তিরক্ষা মিশনে কর্তব্যরত অবস্থায় বাংলাদেশের ১৫৯ জন শান্তিরক্ষী মৃত্যুবরণ করেছেন।
প্রতিবছরই যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতিসংঘ সদরদপ্তরে আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষা দিবস উদযাপন করা হয়। কোভিড-১৯ অতিমারিজনিত কারণে এবারের অনুষ্ঠানটি ভার্চুয়ালভাবে আয়োজন করা হয়েছে।

/এসএসজেড/জেজে/

সম্পর্কিত

ইন্দোনেশিয়ার মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গি নেতা অভিযানে নিহত

ইন্দোনেশিয়ার মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গি নেতা অভিযানে নিহত

১০ হাজার হাইতির অভিবাসীকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

১০ হাজার হাইতির অভিবাসীকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাজ্যে বিরল ‘ম্যাড কাউ’ রোগে গবাদি পশুর মৃত্যু

যুক্তরাজ্যে বিরল ‘ম্যাড কাউ’ রোগে গবাদি পশুর মৃত্যু

ইসরায়েলের জেল থেকে পালানো শেষ দুই ফিলিস্তিনি আটক

ইসরায়েলের জেল থেকে পালানো শেষ দুই ফিলিস্তিনি আটক

ইন্দোনেশিয়ার মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গি নেতা অভিযানে নিহত

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৪:১০

জঙ্গি গোষ্ঠী ইস্ট ইন্দোনেশিয়া মুজাহিদিন (এমআইটি)-এর নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী। তিনি আইএসের সহযোগী ছিলেন। সুলাওয়েসি প্রদেশের সামরিক বাহিনীর প্রধান জানিয়েছেন, শনিবার বিকালে একটি গ্রামে সামরিক বাহিনী ও পুলিশ সদস্যদের যৌথ অভিযানে বন্দুকযুদ্ধে আলী কালোরা নিহত হন।

নিহত ইস্ট ইন্দোনেশিয়া মুজাহিদিনের- এমআইটি নেতা আলী কালোরা

অভিযানে জাকা রমাদান নামে আরেক জঙ্গি গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যাওয়ার ঘটনা নিশ্চিত করেন সুলাওয়েসি’র সামরিক বাহিনীর প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ফরিদ মাকরুফ। অভিযানে জঙ্গিদের আস্তানা থেকে বিস্ফোরক, এম-১৬ রাইফেল ও চাপাতি উদ্ধার করা হয়। জঙ্গি তৎপরতায় ব্যবহৃত আরও অনেক আলামত পাওয়া গেছে।

আলী কালোরা জঙ্গি গোষ্ঠী ইস্ট ইন্দোনেশিয়া মুজাহিদিনের (এমআইটি)-এর নেতা ছিলেন। নিরাপত্তা বাহিনীর মোস্ট ওয়ান্টেড তালিকায় ছিলেন তিনি। তার সঙ্গে জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস-এর নিবিড় যোগাযোগ ছিল বলে দাবি করছে প্রশাসন। এর আগে ইস্ট ইন্দোনেশিয়ার মুজাহিদিন গোষ্টীটি সংখ্যালঘু পুলিশ কর্মকর্তাসহ একাধিক হত্যকাণ্ডের দায় স্বীকার করেছে। 

এদিকে এমআইটির আরও চার সদস্যের খোঁজে অভিযান অব্যাহত রেখেছে নিরাপত্তা বাহিনী। 

/এলকে/

সম্পর্কিত

যুক্তরাজ্যে এক বাংলাদেশির ছুরিকাঘাতে আরেক বাংলাদেশি নিহত

যুক্তরাজ্যে এক বাংলাদেশির ছুরিকাঘাতে আরেক বাংলাদেশি নিহত

কাবুলে ড্রোন হামলাকে ‘মর্মান্তিক ভুল’ বললো যুক্তরাষ্ট্র

কাবুলে ড্রোন হামলাকে ‘মর্মান্তিক ভুল’ বললো যুক্তরাষ্ট্র

জাকার্তার বায়ু দূষণ রোধে ব্যবস্থা নেননি ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্ট: আদালত

বায়ু দূষণ মামলায় ইন্দোনেশিয়ার প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে যুগান্তকারী রায়

কারাগারে অগ্নিকাণ্ডে ইন্দোনেশিয়ায় অন্তত ৪১ জনের মৃত্যু

ইন্দোনেশিয়ার কারাগারে আগুন, অন্তত ৪১ জনের মৃত্যু

১০ হাজার হাইতির অভিবাসীকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১৩:১১

যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাসের দক্ষিণাঞ্চলের ডেল রিও সীমান্তে অবস্থান করা হাইতি অভিবাসীদের চরম মানবিক সংকট দেখা দিয়েছে। ৩৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় খোলা আকার নিচে কমপক্ষে ১০ মানুষ যুক্তরাষ্ট্র প্রবেশের অপেক্ষায় আছেন। কিন্তু তাদের যত দ্রুত সম্ভব হাইতিতে ফেরত পাঠানো হবে জানিয়েছে প্রশাসন।

সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ বলছেন, মানবিক দিক বিবেচনায় কিছু অভিবাসীকে সাময়িক সময়ের জন্য সীমান্ত থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। কারণ স্থানীয় কর্মকর্তারা তাদের জন্য খাবার ও স্যানিটেশন ব্যবস্থা করতে হিমশিম খাচ্ছেন।

বহু দূর থেকে আগত এসব অভিবাসীদের নিয়ে সমস্যায় যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন সরকারের নীতি নির্ধারকরা বলছেন, এদের মধ্যে দুই হাজার লোককে ইমিগ্রেশন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে। তারা যেখান থেকে এসেছেন সেখানেই পাঠানোর বিষয়ে কঠোর অবস্থানে প্রশাসন। যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় রবিবার থেকে তাদের প্রত্যাবাসনের কাজ শুরু হবে।

শনিবার হাইতির প্রধানমন্ত্রী এরিয়েল হেনরি অভিবাসীদের জন্য মানবিক সহায়তা পাঠিয়েছেন। তিনি বলেন, যারা ফিরে আসছে তাদের স্বাগত জানাতে আমরা প্রস্তুত।

অভিবাসীবিষয়ক সংগঠনগুলো জানিয়েছে, লাতিন ও উত্তর আমেরিকার অভিবাসীরা উন্নত জীবনের আশায় প্রায় সময়ই যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের চেষ্টা চালান।

/এলকে/

সম্পর্কিত

মহাকাশ ঘুরে পৃথিবীতে ফিরলেন চার পর্যটক

মহাকাশ ঘুরে পৃথিবীতে ফিরলেন চার পর্যটক

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

ক্যাপিটল প্রাঙ্গণে ট্রাম্প সমর্থকদের মিছিল

ক্যাপিটল প্রাঙ্গণে ট্রাম্প সমর্থকদের মিছিল

সবচেয়ে সাদা রঙ আবিষ্কার, হবে এসির বিকল্প!

সবচেয়ে সাদা রঙ আবিষ্কার, হবে এসির বিকল্প!

যুক্তরাজ্যে বিরল ‘ম্যাড কাউ’ রোগে গবাদি পশুর মৃত্যু

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১২:২০

ব্রাজিলের পর এবার যুক্তরাজ্যে গবাদি পশুর বিরল রোগ ‘ম্যাড কাউ’ শনাক্ত হয়েছে। আক্রান্ত হয়ে একটি গরুর মৃত্যুর খবর জানিয়েছে বিবিসি।

যুক্তরাজ্যের অ্যানিমেল অ্যান্ড প্ল্যান্ট হেলথ এজেন্সি –এপিএইচএ’র কর্মকর্তা বলছেন, ইংল্যান্ডের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে সমারসেটের একটি খামারে ম্যাড কাউ রোগে আক্রান্ত হওয়ার পর ওই পশুর মৃত্যু হয়। এ অবস্থায় সংক্রমণের উৎস খুঁজতে তদন্ত শুরু করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

আপাতত খামারটিতে খাদ্য নিরাপত্তা সংক্রান্ত কোনো ঝুঁকি নেই বলে জানিয়েছে এপিএইচএ। ভেটানারি কর্মকর্তা ক্রিস্টিন মিডলমিস বলেন, সংক্রমণে গবাদি পশুর মৃত্যুর খবর খামারিদের জন্য উদ্বেগজনক। আমরা তাদের পাশে আছি’। সম্প্রতি ব্রাজিলের দুই রাজ্যে এই রোগে গবাদি পশু আক্রান্ত হয়। তাৎক্ষণিকভাবে চীনে মাংস রফতানি বন্ধ করে দেয় দেশটি।

যুক্তরাজ্যে ২০১৪ সাল থেকে এখন পর্যন্ত পাঁচটি পশুর শরীরে ম্যাড কাউ রোগ শনাক্ত হয়েছে। ৯০ –এর দশকে সংক্রমণ মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়লে ম্যাড কাউ রোগ নিয়ন্ত্রণে লাখ লাখ গরু হত্যা করা হয়। তখন গরুর মাংস শিল্পে সংকট দেখা দেয়।

/এলকে/

সম্পর্কিত

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

যুক্তরাজ্যে এক বাংলাদেশির ছুরিকাঘাতে আরেক বাংলাদেশি নিহত

যুক্তরাজ্যে এক বাংলাদেশির ছুরিকাঘাতে আরেক বাংলাদেশি নিহত

‘মধ্যযুগীয় বোরকা’ মন্তব্যে বিতর্কে ব্রিটিশ সংস্কৃতিমন্ত্রী

‘মধ্যযুগীয় বোরকা’ মন্তব্যে বিতর্কে ব্রিটিশ সংস্কৃতিমন্ত্রী

৯০ বছর গোপন থাকবে প্রিন্স ফিলিপের উইল

৯০ বছর গোপন থাকবে প্রিন্স ফিলিপের উইল

ইসরায়েলের জেল থেকে পালানো শেষ দুই ফিলিস্তিনি আটক

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:৩৪

ইসরায়েলের হাই সিকিউরিটি কারাগার থেকে পালানো শেষ দুই ফিলিস্তিনিকে আটক হয়েছে। রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, পশ্চিম তীরের জেনিন শহর অভিযান চালালে আটক হয় দুই ফিলিস্তিনি।

অভিযানের বিষয়ে ইসরায়েল সেনাবাহিনীর মুখপাত্র আভিচয় আদ্রাই জানান, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে পলাতক আসামিদের ঘিরে ফেলা হয়। পরে বাধ্য হয়ে দুইজন আত্মসমর্পণ করেন।

এদের মধ্যে একজন নায়েফ কামামজি অন্যজন মুনাদেল ইয়াকুব ইনফিয়াত। এ নিয়ে পলাতক ৬ ফিলিস্তিনিকে আটক করতে সক্ষম হয়েছে ইসরায়েল।

গত (৬ সেপ্টেম্বর) গিলবোয়া কারাগারে সুড়ঙ্গ খুঁড়ে পালিয়ে যায় ছয় ফিলিস্তিনি। এই ঘটনার পর ইসরায়েল এবং পশ্চিম তীর জুড়ে ব্যাপক তল্লাশি শুরু হয়। পালিয়ে যাওয়া সকলেই পশ্চিম তীরের জেনিন শহরের বাসিন্দা। এ ঘটনারয় কারাগারের নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও জোরদার করেছে তেল আবিব।

/এলকে/

সম্পর্কিত

ফিলিস্তিনিদের ‘মুক্তি’র নতুন প্রতীক চামচ

ফিলিস্তিনিদের ‘মুক্তি’র নতুন প্রতীক চামচ

জেনারেল সিসির আমন্ত্রণে মিসরে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী

জেনারেল সিসির আমন্ত্রণে মিসরে ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী

ইসরায়েলের কারাগার থেকে পালানো দুই ফিলিস্তিনি গ্রেফতার

জেল পালানো দুই ফিলিস্তিনি ফের গ্রেফতার

মহাকাশ ঘুরে পৃথিবীতে ফিরলেন চার পর্যটক

আপডেট : ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১১:০৬

মহাকাশ ভ্রমণে নতুন মাইলফলক স্পর্শ করলো চার পর্যটক। কক্ষপথে তিনদিন ভ্রমণ শেষে শনিবার নিরাপদে পৃথিবীতে ফিরে এসেছেন তারা। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ঐতিহাসিক সফর শেষে যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় শনিবার (১৮ সেপ্টেম্বর) আটলান্টিক মহাসাগরে স্পেসএক্স-এর ক্যাপুসলে করে অতরণ করতে দেখা যায় তাদের।

পরে একটি বোটে করে তাদের তীরে নিয়ে আসেন সংশ্লিষ্টরা। আর মহাকাশ থেকে ফেরার দৃশ্য সরাসরি সম্প্রচার করে স্পেসএক্স। সাধারণ পর্যটক হিসেবে মহাকাশ ও পৃথিবীর কক্ষপথে ভ্রমণ এটিই প্রথম।

এর আগে, গত বুধবার যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডার কেনেডি স্পেস সেন্টার থেকে ৪ জনকে নিয়ে কক্ষপথের উদ্দেশে রওনা হয় স্পেসএক্সের ফ্যালকন নাইন রকেট। এই মহাকাশ যাত্রার নাম দেওয়া হয় ‘ইন্সপিরেশন ফোর’।

স্পেসএক্স-এর ক্যাপসুলে চেপে ফিরলেন চার পর্যটক

এটি ছিল প্রথম পূর্ণাঙ্গ বাণিজ্যিক ফ্লাইট। ধনকুবের এলন মাস্কের প্রতিষ্ঠান স্পেস এক্স’র রকেট। মিশনে ধনকুবের জ্যারেড আইজ্যাকম্যানের নেতৃত্বে আরও তিন সাধারণ যাত্রী অংশ নেন। এই তিনজন হলেন, পেডিয়াট্রিক ক্যানসার থেকে বেঁচে যাওয়া ২৯ বছর বয়সী হেইলি আর্সেনউক্স। দ্বিতীয়জন মার্কিন বিমানবাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা ক্রিস সেমব্রোস্কি। তৃতীয় ব্যক্তি ৫১ বছর বয়সী ভূতত্ত্ববিদ সিয়ান প্রক্টর। 

ড্রাগন ক্যাপসুলে চেপে ৫৩৮ কিলোমিটার উচ্চতায় ঘুরে আসেন তারা। চার পর্যটক ঘণ্টায় ১৭ হাজার পাঁচশ মাইল বেগে পৃথিবীর কক্ষপথ প্রদক্ষিণ করতে সক্ষম হন।

/এলকে/

সম্পর্কিত

১০ হাজার হাইতির অভিবাসীকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

১০ হাজার হাইতির অভিবাসীকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

ক্যাপিটল প্রাঙ্গণে ট্রাম্প সমর্থকদের মিছিল

ক্যাপিটল প্রাঙ্গণে ট্রাম্প সমর্থকদের মিছিল

সবচেয়ে সাদা রঙ আবিষ্কার, হবে এসির বিকল্প!

সবচেয়ে সাদা রঙ আবিষ্কার, হবে এসির বিকল্প!

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ইন্দোনেশিয়ার মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গি নেতা অভিযানে নিহত

ইন্দোনেশিয়ার মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গি নেতা অভিযানে নিহত

১০ হাজার হাইতির অভিবাসীকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

১০ হাজার হাইতির অভিবাসীকে ফেরত পাঠাবে যুক্তরাষ্ট্র

যুক্তরাজ্যে বিরল ‘ম্যাড কাউ’ রোগে গবাদি পশুর মৃত্যু

যুক্তরাজ্যে বিরল ‘ম্যাড কাউ’ রোগে গবাদি পশুর মৃত্যু

ইসরায়েলের জেল থেকে পালানো শেষ দুই ফিলিস্তিনি আটক

ইসরায়েলের জেল থেকে পালানো শেষ দুই ফিলিস্তিনি আটক

মহাকাশ ঘুরে পৃথিবীতে ফিরলেন চার পর্যটক

মহাকাশ ঘুরে পৃথিবীতে ফিরলেন চার পর্যটক

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

অস্ট্রেলিয়া-যুক্তরাষ্ট্র মিথ্যাচার করেছে:  ফ্রান্স

ক্যাপিটল প্রাঙ্গণে ট্রাম্প সমর্থকদের মিছিল

ক্যাপিটল প্রাঙ্গণে ট্রাম্প সমর্থকদের মিছিল

‘শুধু ক্ষমা চাইলেই হবে না, যুক্তরাষ্ট্রকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে’   

‘শুধু ক্ষমা চাইলেই হবে না, যুক্তরাষ্ট্রকে ক্ষতিপূরণ দিতে হবে’   

আফগান মেয়েদের স্কুল থেকে বাদ দেওয়া উচিত না: ইউনিসেফ

আফগান মেয়েদের স্কুল থেকে বাদ দেওয়া উচিত না: ইউনিসেফ

পুতিনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

পুতিনের সঙ্গে বসছেন এরদোয়ান

সর্বশেষ

আগাম জামিন পেলেন কেয়া কসমেটিকসের চেয়ারম্যান ও তার স্ত্রী

আগাম জামিন পেলেন কেয়া কসমেটিকসের চেয়ারম্যান ও তার স্ত্রী

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

সিরাজগঞ্জে ইঞ্জিন বিকল, উত্তর-দক্ষিণবঙ্গের রেল যোগাযোগ বন্ধ

সিরাজগঞ্জে ইঞ্জিন বিকল, উত্তর-দক্ষিণবঙ্গের রেল যোগাযোগ বন্ধ

‘শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে তরুণদের দক্ষতাবৃদ্ধি জরুরি’

‘শান্তি ও নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণে তরুণদের দক্ষতাবৃদ্ধি জরুরি’

খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ আরও ৬ মাস বাড়লো

খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ আরও ৬ মাস বাড়লো

© 2021 Bangla Tribune