X
বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১২ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

মসজিদ-মাদ্রাসায়ও দলীয়করণ হচ্ছে: নুর

আপডেট : ২৯ মে ২০২১, ১৪:২৯

শুধু প্রশাসনে নয় মসজিদ মাদ্রাসায়ও দলীয়করণ হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক ভিপি এবং ছাত্র-যুব-শ্রমিক অধিকার পরিষদের সমন্বয়ক নুরুল হক নুর। শনিবার (২৯ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবের তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া হলে বাংলাদেশ লেবার পার্টি আয়োজিত ‘রাজনৈতিক সংকট: উত্তরণ কোন পথে’ শীর্ষক মতবিনিময় সভায় তিনি এই অভিযোগ করেন।

প্রশাসনে পদোন্নতির ক্ষেত্রে, নিয়োগের ক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের অনুগত নয় এমন কেউ সুযোগ পান না দাবি করে নুর বলেন, ‘আজকে শুধু প্রশাসনে নয়, মসজিদ মাদ্রাসায়ও তারা দলীয়করণ করছে। মাদ্রাসা যারা চালান, তারা যদি সরকারবিরোধী মনোভাবের হয় তাদের সরিয়ে দিয়ে সরকারের অনুগত লোককে দায়িত্ব দেওয়া হয়। এটি রুখতে আমাদের দরকার রাজনৈতিক ঐক্যমতের।’

আমাদের মনস্তাত্ত্বিক একটা পরিবর্তন আনতে হবে উল্লেখ করে ডাকসুর সাবেক ভিপি বলেন, ‘বলা হয়, শুধু রাজনৈতিক দলের দায়িত্ব, দেশের নাগরিক হিসেবে আপনাদেরও দায়িত্ব আছে। আজকের এই পরিস্থিতির জন্য আমি এবং আপনি সবাই দায়ী। বেলারুশে করোনার মধ্যে নির্বাচনে ভোট দিতে পারেনি বলে জনগণ রাস্তায় নেমে এসেছে। ২০১৪, ২০১৮ সালে এ রকম নির্বাচন হয়েছে এ দেশে, আমাদের জনগণ কিছুই করেনি। এই অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য জনগণকে মুখ্য ভূমিকা পালন করতে হবে। মানুষকে সংগঠিত হতে হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা চাই বিচার বিভাগ স্বাধীনভাবে কাজ করুক, নির্বাচন কমিশন কোনও ঠুঠ জগন্নাথ প্ৰতিষ্ঠানে পরিণত হবে না। ভারতে কমিশন যেভাবে কাজ করেছে ঠিক সেভাবে কাজ করবে। কালকেই নির্বাচন ঘোষণা করলেই হবে না। একটা অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করে সে সরকারকে দায়িত্ব দিতে হবে রাজনৈতিক দলের ঐক্যমতের ভিত্তিতে। সেই সরকারের কাজ হবে অসঙ্গতিগুলোকে লাইনে নিয়ে আসা।’

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি শওকত মাহমুদ, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা. মোস্তাফিজুর রহমান ইরান প্রমুখ।

 

/এসও/আইএ/

সম্পর্কিত

দেশকে অস্থিতিশীল করতে মন্দিরে হামলা: চরমোনাই পীর

দেশকে অস্থিতিশীল করতে মন্দিরে হামলা: চরমোনাই পীর

রেজা-নূরের দলে নতুন কী?

রেজা-নূরের দলে নতুন কী?

নুরের গণঅধিকার পরিষদকে নিষিদ্ধের দাবি মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের

নুরের গণঅধিকার পরিষদকে নিষিদ্ধের দাবি মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের

‘২০ দলীয় জোটকে বসিয়ে রাখলে বিকল্প পথে সক্রিয় হবে এলডিপি’

‘২০ দলীয় জোটকে বসিয়ে রাখলে বিকল্প পথে সক্রিয় হবে এলডিপি’

‘চিকিৎসকরা মতামত দিলে রওশন এরশাদকে বিদেশে নেওয়া হবে’

আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৫:০৭

চিকিৎসকরা ইতিবাচক মতামত দিলে জাতীয় পার্টির চিফ প্যাট্রন রওশন এরশাদকে বিদেশে নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জিএম কাদের। তিনি বলেন, ‘রওশন এরশাদের ব্লাড প্রেসার ও হার্টবিট ভালো আছে, কিন্তু নিস্তেজ অবস্থায় আছেন তিনি।’

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) দুপুরে রাজধানীর বনানীতে দলের চেয়ারম্যানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় জিএম কাদের এ তথ্য জানান। রওশন এরশাদের রোগমুক্তি কামনায়  এ অনুষ্ঠান করা হয়।

জিএম কাদের বলেন, ‘দীর্ঘ দিন ধরে রওশন এরশাদ সিএমএইচ-এ চিকিৎসাধীন আছেন। তার ব্লাড প্রেসার ও হার্টবিট ভালো আছে, কিন্তু নিস্তেজ অবস্থায় আছেন তিনি। চিকিৎসকরা ইতিবাচক মতামত দিলে তাকে বিদেশে নেওয়া হবে।’ চিকিৎসকরা বলেছেন, রওশন এরশাদ মূলত বার্ধক্যজনিত  রোগে ভুগছেন। তারা সর্বোচ্চ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলেও জানান গোলাম মোহাম্মদ কাদের।

 

/এসটিএস/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

‘জন্মলগ্ন থেকে খালি মাঠে গোল দেওয়ায় অভ্যস্ত বিএনপি’

‘জন্মলগ্ন থেকে খালি মাঠে গোল দেওয়ায় অভ্যস্ত বিএনপি’

কর্মসূচির নামে জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা: ওবায়দুল কাদের

কর্মসূচির নামে জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা: ওবায়দুল কাদের

দেশকে অস্থিতিশীল করতে মন্দিরে হামলা: চরমোনাই পীর

দেশকে অস্থিতিশীল করতে মন্দিরে হামলা: চরমোনাই পীর

রেজা-নূরের দলে নতুন কী?

রেজা-নূরের দলে নতুন কী?

‘প্রতিবাদ’ শব্দটিকে নির্বাসনে পাঠানো হয়েছে: রিজভী

আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৩৪

দ্রব্যমূল্যের প্রতিবাদ জানিয়েছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, ‘দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধিতে কে প্রতিবাদ করবে? প্রতিবাদ করলে আপনাকে যেতে হবে শ্রীঘরে না হয় লাল ঘরে। প্রতিবাদ বলে গণতন্ত্রে যে শব্দটি স্বীকৃত, সেই শব্দটিকে নির্বাসনে পাঠিয়েছে এই সরবার। এইটাই হলো বাস্তবতা।’

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে শ্রমিক দলের মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী বলেন, ‘এই সরকারের আমলে জুট মিলের শ্রমিকরা আন্দোলনে করে। বিভিন্ন মিল-ফ্যাক্টরি-কারখানা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে একের পর এক। এটাতো অত্যন্ত স্বাভাবিক ঘটনা। কারণ পেঁয়াজ, মরিচ বা সোয়াবিন তেলের দাম বাড়লে এই সরকারের তাতে কিছু যায় আসে না।’

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন, দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেনসহ অনেকে।

 

/জেডএ/আইএ/

সম্পর্কিত

‘বছরে ৩৫ বার দ্রব্যের দাম বাড়লেও ৭ বছরে শ্রমিকের বেতন বাড়ে না’

‘বছরে ৩৫ বার দ্রব্যের দাম বাড়লেও ৭ বছরে শ্রমিকের বেতন বাড়ে না’

‘জন্মলগ্ন থেকে খালি মাঠে গোল দেওয়ায় অভ্যস্ত বিএনপি’

‘জন্মলগ্ন থেকে খালি মাঠে গোল দেওয়ায় অভ্যস্ত বিএনপি’

কর্মসূচির নামে জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা: ওবায়দুল কাদের

কর্মসূচির নামে জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা: ওবায়দুল কাদের

দেশকে অস্থিতিশীল করতে মন্দিরে হামলা: চরমোনাই পীর

দেশকে অস্থিতিশীল করতে মন্দিরে হামলা: চরমোনাই পীর

‘বছরে ৩৫ বার দ্রব্যের দাম বাড়লেও ৭ বছরে শ্রমিকের বেতন বাড়ে না’

আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৪:২৪

এক বছরে ৩৫ বার দ্রব্যের দাম বাড়লেও সাত বছরে একবারও শ্রমিকের বেতন বাড়ে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান। তিনি বলেন, ‘ব্যবসায়ীদের লোকসান কমাতে তেলের দাম বাড়ালো। সরকার কিন্তু শ্রমিকদের কষ্ট লাঘবে তাদের বেতন বাড়ালো না। কেন?’ 

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে দ্রব্যমূল্যের ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে শ্রমিক দলের মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, ‘সয়াবিন তেলের দাম প্রতিলিটারে একেবারে ৭ টাকা বাড়ানো হয়েছে। ফেব্রুয়ারি থেকে অক্টোবর পর্যন্ত সাতবার দাম বাড়ানো হয়েছে। এই পর্যায়ে এসে প্রতিলিটার সয়াবিনের দাম বেড়েছে ৪৫ টাকা। ব্যবসায়ীরা যুক্তি দেখিয়েছেন, করোনার কারণে তাদের অনেক লোকসান হয়েছে বলে তেলের দাম বাড়ানো হয়েছে। অথচ যে পরিমাণ তেল এখনও মজুত রয়েছে সেটা দিয়ে আরও তিন মাস চলার কথা।’

বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেন, ‘এই সরকার যদি আরও ক্ষমতায় থাকে তাহলে দ্রব্যের দাম আরও বৃদ্ধি পাবে। কমবে না। কারণ এটা বিনা ভোটের সরকার। বিনা ভোটের সরকার কারও কাছে দায়বদ্ধ না। জনগণের ভোটে নির্বাচিত হলে তারা জনগণের কথা ভাবতো। জনগণের সরকারের জন্য গণতান্ত্রিক ও গণআন্দোলনের মাধ্যমে এই সরকারকে হটাতে হবে। আগামী দিনে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন হবে এবং সেটা বিএনপির নেতৃত্বে।’

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন, দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, শ্রমিক দলের সভাপতি আনোয়ার হোসেনসহ অনেকে।

 

/জেডএ/আইএ/

সম্পর্কিত

‘চিকিৎসকরা মতামত দিলে রওশন এরশাদকে বিদেশে নেওয়া হবে’

‘চিকিৎসকরা মতামত দিলে রওশন এরশাদকে বিদেশে নেওয়া হবে’

‘প্রতিবাদ’ শব্দটিকে নির্বাসনে পাঠানো হয়েছে: রিজভী

‘প্রতিবাদ’ শব্দটিকে নির্বাসনে পাঠানো হয়েছে: রিজভী

‘জন্মলগ্ন থেকে খালি মাঠে গোল দেওয়ায় অভ্যস্ত বিএনপি’

‘জন্মলগ্ন থেকে খালি মাঠে গোল দেওয়ায় অভ্যস্ত বিএনপি’

কর্মসূচির নামে জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা: ওবায়দুল কাদের

কর্মসূচির নামে জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা: ওবায়দুল কাদের

‘জন্মলগ্ন থেকে খালি মাঠে গোল দেওয়ায় অভ্যস্ত বিএনপি’

আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৩:৪১

নির্বাচনে জন্মলগ্ন থেকে খালি মাঠে গোল দেওয়ায় বিএনপি অভ্যস্ত বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনা সরকার কখনও খালি মাঠে গোল দিতে চায় না। সরকার চায় প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন। আর খালি মাঠে গোল দিতে আওয়ামী লীগ অভ্যস্তও নয়। বিএনপিই জন্মলগ্ন থেকে এ চর্চা করে আসছে।’

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) সকালে তার সরকারি বাসভবনে ব্রিফিংয়ে এসব কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘১৫ ফেব্রুয়ারির খালি মাঠে নির্বাচনে কথা বিএনপি ভুলে গেলেও জনগণ এখনও ভোলেনি।’

বিএনপি নেতারা তাদের ব্যর্থতা আড়াল করতে ও কর্মী সমর্থকদের রোষানল থেকে বাঁচার জন্য এসব বক্তব্য দিচ্ছেন বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবারও বলেন, ‘নির্বাচন আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে নয়, নির্বাচন হবে নির্বাচন কমিশনের অধীনে।’

বিএনপির কর্মসূচি দিলেই জনগণের মনে আতঙ্ক সৃষ্টি হয় বলে মন্তব্য করেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘বিএনপি কর্মসূচির নামে কোনোরূপ সন্ত্রাস ও জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে আওয়ামী লীগ জনগণকে সঙ্গে নিয়ে কঠোরভাবে প্রতিহত করবে।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘সভা-সমাবেশ সবার সাংবিধানিক অধিকার, কিন্তু সমাবেশের অনুমতি না দিলে বিএনপি বলতো সরকার গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না; আর অনুমতি দিলে হামলা, সন্ত্রাস সৃষ্টি করে জনগণের সম্পদ বিনষ্ট করে।’

পূজামণ্ডপের ঘটনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে সরকারের মামলা দেওয়ার অভিযোগ সত্য নয় জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘কে কোন দল করে সেটা দেখে নয়, ভিডিও ফুটেজ দেখেই চিহ্নিতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার মাধ্যমে বিএনপি পরিস্থিতি ঘোলাটে করতে চেয়েছিল, কিন্তু সরকার তা শক্ত হাতে দমন করেছে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি জাতিকে বিভ্রান্ত করছে এবং বিভেদ তৈরি করছে।’ তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করছে দেশকে উন্নয়নের সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে নিতে, আর এটাই বিএনপি’র গাত্রদাহের কারণ।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘গত মঙ্গলবার নয়াপল্টনে পুলিশের ওপর হামলা এবং সন্ত্রাস সৃষ্টির মাধ্যমে বিএনপি প্রমাণ করেছে, তারা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনে সক্ষম নয়। তাদের কর্মসূচি মানে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা।’

ওই দিনের কথিত সম্প্রীতি সমাবেশের আড়ালে বিএনপির ভিন্ন কোনও এজেন্ডা ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখা দরকার বলে মনে করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘তবে কি অপরাধীদের বাঁচানোর জন্যই সম্প্রীতি সমাবেশের নামে বিএনপির এ সন্ত্রাস?’

সেতুমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আসলে হামলা, সংঘর্ষ, ষড়যন্ত্র আর সন্ত্রাসী বিএনপির রাজনীতি। সেটা পূজামণ্ডপে হোক আর নয়াপল্টনে হোক। বিএনপি এই বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসতে পারছে না।’

স্থানীয় সরকার নির্বাচনের পরবর্তী ধাপে যে সব এলাকায নির্বাচন হবে সে সব এলাকার আওয়ামী লীগের প্রতিটি সাংগঠনিক ইউনিটকে এখন থেকেই প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ইউনিট সমূহকে এখন থেকেই মিটিং করে রেজুলেশন প্রস্তুত করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘যখন যে এলাকার জন্য নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হবে তার পরপরই ইউনিয়ন থেকে উপজেলা এবং জেলা হয়ে রেজুলেশন কেন্দ্রে জমা দিতে হবে।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তফসিল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এলাকার রেজুলেশন জমা দেওয়া নিশ্চিত করতে এখন থেকে সভা করে আগেই রেজুলেশন তৈরির কাজ করার নির্দেশনা দেন।

 

/পিএইচসি/আইএ/

সম্পর্কিত

কর্মসূচির নামে জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা: ওবায়দুল কাদের

কর্মসূচির নামে জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা: ওবায়দুল কাদের

দেশকে অস্থিতিশীল করতে মন্দিরে হামলা: চরমোনাই পীর

দেশকে অস্থিতিশীল করতে মন্দিরে হামলা: চরমোনাই পীর

কর্মসূচির নামে জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে কঠোর ব্যবস্থা: ওবায়দুল কাদের

আপডেট : ২৮ অক্টোবর ২০২১, ১৩:৩১

বিএনপির কর্মসূচি দিলেই জনগণের মনে আতঙ্ক সৃষ্টি হয় বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, ‘বিএনপি কর্মসূচির নামে কোনোরূপ সন্ত্রাস ও জনভোগান্তি সৃষ্টি করলে আওয়ামী লীগ জনগণকে সঙ্গে নিয়ে কঠোরভাবে প্রতিহত করবে।’

বৃহস্পতিবার (২৮ অক্টোবর) সকালে তার সরকারি বাসভবনে ব্রিফিংয়ে বিএনপিকে সতর্ক করে দিয়ে এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘সভা-সমাবেশ সবার সাংবিধানিক অধিকার, কিন্তু সমাবেশের অনুমতি না দিলে বিএনপি বলতো সরকার গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে না; আর অনুমতি দিলে হামলা, সন্ত্রাস সৃষ্টি করে জনগণের সম্পদ বিনষ্ট করে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘শেখ হাসিনা সরকার কখনও খালি মাঠে গোল দিতে চায় না। সরকার চায় প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন। আর খালি মাঠে গোল দিতে আওয়ামী লীগ অভ্যস্তও নয়।’ তিনি বলেন, ‘বিএনপিই জন্মলগ্ন থেকে এ চর্চা করে আসছে।’

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘১৫ ফেব্রুয়ারির খালি মাঠে নির্বাচনে কথা বিএনপি ভুলে গেলেও জনগণ এখনও ভোলেনি।’

বিএনপি নেতারা তাদের ব্যর্থতা আড়াল করতে ও কর্মী সমর্থকদের রোষানল থেকে বাঁচার জন্য এসব বক্তব্য দিচ্ছেন বলেও মন্তব্য করেন ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবারও বলেন, ‘নির্বাচন আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে নয়, নির্বাচন হবে নির্বাচন কমিশনের অধীনে।’

পূজামণ্ডপের ঘটনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে সরকারের মামলা দেওয়ার অভিযোগ সত্য নয় জানিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘কে কোন দল করে সেটা দেখে নয়, ভিডিও ফুটেজ দেখেই চিহ্নিতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার মাধ্যমে বিএনপি পরিস্থিতি ঘোলাটে করতে চেয়েছিল, কিন্তু সরকার তা শক্ত হাতে দমন করেছে।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘বিএনপি জাতিকে বিভ্রান্ত করছে এবং বিভেদ তৈরি করছে।’ তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করছে দেশকে উন্নয়নের সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে নিতে, আর এটাই বিএনপি’র গাত্রদাহের কারণ।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘গত মঙ্গলবার নয়াপল্টনে পুলিশের ওপর হামলা এবং সন্ত্রাস সৃষ্টির মাধ্যমে বিএনপি প্রমাণ করেছে, তারা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালনে সক্ষম নয়। তাদের কর্মসূচি মানে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করা।’

ওই দিনের কথিত সম্প্রীতি সমাবেশের আড়ালে বিএনপির ভিন্ন কোনও এজেন্ডা ছিল কিনা তা খতিয়ে দেখা দরকার বলে মনে করেন ওবায়দুল কাদের। তিনি প্রশ্ন রেখে বলেন, ‘তবে কি অপরাধীদের বাঁচানোর জন্যই সম্প্রীতি সমাবেশের নামে বিএনপির এ সন্ত্রাস?’

সেতুমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আসলে হামলা, সংঘর্ষ, ষড়যন্ত্র আর সন্ত্রাসী বিএনপির রাজনীতি। সেটা পূজামণ্ডপে হোক আর নয়াপল্টনে হোক। বিএনপি এই বৃত্ত থেকে বেরিয়ে আসতে পারছে না।’

স্থানীয় সরকার নির্বাচনের পরবর্তী ধাপে যে সব এলাকায় নির্বাচন হবে সে সব এলাকার আওয়ামী লীগের প্রতিটি সাংগঠনিক ইউনিটকে এখন থেকেই প্রস্তুতি নেওয়ার নির্দেশ দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘ইউনিট সমূহকে এখন থেকেই মিটিং করে রেজুলেশন প্রস্তুত করতে হবে।’

তিনি বলেন, ‘যখন যে এলাকার জন্য নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা হবে তার পরপরই ইউনিয়ন থেকে উপজেলা এবং জেলা হয়ে রেজুলেশন কেন্দ্রে জমা দিতে হবে।’

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তফসিল ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গে সংশ্লিষ্ট এলাকার রেজুলেশন জমা দেওয়া নিশ্চিত করতে এখন থেকে সভা করে আগেই রেজুলেশন তৈরির কাজ করার নির্দেশনা দেন।

 

/পিএইচসি/আইএ/

সম্পর্কিত

‘জন্মলগ্ন থেকে খালি মাঠে গোল দেওয়ায় অভ্যস্ত বিএনপি’

‘জন্মলগ্ন থেকে খালি মাঠে গোল দেওয়ায় অভ্যস্ত বিএনপি’

দেশকে অস্থিতিশীল করতে মন্দিরে হামলা: চরমোনাই পীর

দেশকে অস্থিতিশীল করতে মন্দিরে হামলা: চরমোনাই পীর

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

দেশকে অস্থিতিশীল করতে মন্দিরে হামলা: চরমোনাই পীর

দেশকে অস্থিতিশীল করতে মন্দিরে হামলা: চরমোনাই পীর

রেজা-নূরের দলে নতুন কী?

রেজা-নূরের দলে নতুন কী?

নুরের গণঅধিকার পরিষদকে নিষিদ্ধের দাবি মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের

নুরের গণঅধিকার পরিষদকে নিষিদ্ধের দাবি মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের

‘২০ দলীয় জোটকে বসিয়ে রাখলে বিকল্প পথে সক্রিয় হবে এলডিপি’

‘২০ দলীয় জোটকে বসিয়ে রাখলে বিকল্প পথে সক্রিয় হবে এলডিপি’

আরবি পড়লে কর্মসংস্থান হবে: জাফরুল্লাহ

আরবি পড়লে কর্মসংস্থান হবে: জাফরুল্লাহ

রাজনৈতিক কর্মসূচির জন্য কারও অনুমতি নেবেন না নুর

রাজনৈতিক কর্মসূচির জন্য কারও অনুমতি নেবেন না নুর

রেজা কিবরিয়া ও নুরের নেতৃত্বে গণঅধিকার পরিষদের আত্মপ্রকাশ

রেজা কিবরিয়া ও নুরের নেতৃত্বে গণঅধিকার পরিষদের আত্মপ্রকাশ

নয়া পল্টনে মিছিলের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বিএনপি নেতাকর্মীরা

নয়া পল্টনে মিছিলের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বিএনপি নেতাকর্মীরা

ধর্মান্ধ চক্রান্তের সঙ্গে বিএনপির একটা রাজনৈতিক সম্পর্ক আছে: ইনু

ধর্মান্ধ চক্রান্তের সঙ্গে বিএনপির একটা রাজনৈতিক সম্পর্ক আছে: ইনু

উপাসনালয়ে সিসি ক্যামেরা বাধ্যতামূলক করার দাবি

উপাসনালয়ে সিসি ক্যামেরা বাধ্যতামূলক করার দাবি

সর্বশেষ

‘চিকিৎসকরা মতামত দিলে রওশন এরশাদকে বিদেশে নেওয়া হবে’

‘চিকিৎসকরা মতামত দিলে রওশন এরশাদকে বিদেশে নেওয়া হবে’

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোকে দুই মাসের মধ্যে রেজিস্ট্রেশন নেওয়ার নির্দেশনা

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলোকে দুই মাসের মধ্যে রেজিস্ট্রেশন নেওয়ার নির্দেশনা

ডিএমপিতে এক বছরের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পেলেন বর্তমান কমিশনার

ডিএমপিতে এক বছরের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ পেলেন বর্তমান কমিশনার

কালো ঝলমলে

কালো ঝলমলে

সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় রাষ্ট্র নিশ্চুপ নেই: হাইকোর্ট

সাম্প্রদায়িক হামলার ঘটনায় রাষ্ট্র নিশ্চুপ নেই: হাইকোর্ট

© 2021 Bangla Tribune