X
সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ৯ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ মসজিদ

মসজিদের নাম অ্যারোপ্লেন মসজিদ 

আপডেট : ৩১ মে ২০২১, ১৩:৩২

বাংলাদেশের যে স্থাপনাশৈলী এখনও বিমোহিত করে চলেছে অগণিত মানুষকে, তার মধ্যে আছে দেশজুড়ে থাকা অগণিত নয়নাভিরাম মসজিদ। এ নিয়েই বাংলা ট্রিবিউন-এর ধারাবাহিক আয়োজন ‘বাংলাদেশের প্রসিদ্ধ মসজিদ’। আজ থাকছে রাজধানীর অ্যারোপ্লেন মসজিদ।

রাজধানীর এলিফ্যান্ট রোডে মসজিদটি নির্মিত হয় ষাটের দশকে। তখন থেকেই লোকে এটাকে অ্যারোপ্লেন মসজিদ কিংবা বিমান মসজিদ বলে ডাকে। ঢাকার প্রায় সবার কাছেই পরিচিত ব্যতিক্রমি মসজিদটি। স্থাপত্যশৈলী নান্দনিক হলেও মূল আকর্ষণ হলো পাঁচতলা এই মসজিদে বসানো অতিকায় এক উড়োজাহাজের মডেল। 

মসজিদটির প্রতিষ্ঠাতা মো. ইসমাইল। ১৯৮১ সালে তিনি মারা যান।  মো. ইসমাইলের বাবা মো. ইব্রাহিম ছিলেন ঢাকার নবাবদের স্টেটের মুনশি। সে সুবাদে নীলক্ষেত ও লালমাটিয়া এলাকায় তিনি প্রায় দুই হাজার বিঘা জমির মালিকানা পান।

বাবার মৃত্যুর পর মো. ইসমাইল নিজেদের প্রায় ৯ কাঠা জমির ওপর ১৯৬০ সালে মসজিদটির নির্মাণকাজ শুরু করেন। মো. ইসমাইলের ছোট ছেলে আনিসুর রহমানের সূত্রে জানা যায়, প্রতিষ্ঠালগ্নে মসজিদটি ছিল একতলা। মসজিদের নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার পর ছাদে উড়োজাহাজের একটি মডেল স্থাপন করা হয়।

স্বাধীনতার পর একতলা মসজিদটি দোতলা করা হয়। যতবার মসজিদের উচ্চতা বাড়ানো হয়েছে , ততবার উড়োজাহাজের মডেলটিকে উপরে তোলা হয়েছে। মিনারের চূড়ায় ৬০ বছরের পুরনো উড়োজাহাজটি অক্ষত আছে এখনও।

১৯৭৯ সালে মসজিদটি ওয়াক্‌ফ সম্পত্তি হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ২০০২ সালে এই মসজিদটিতে আবাসিক মাদ্রাসার কার্যক্রম শুরু হয়।

সময়ের পালাক্রমে ধীরে ধীরে মসজিদটি সম্প্রসারিত হয়েছে। বদলেছে সড়কের নামও। সড়কটির নাম এখন শহীদ জননী জাহানারা ইমাম সরণি। বিখ্যাত অ্যারোপ্লেন  মসজিদের সহকারী ইমাম বলেন, ‘এটি একটি ঐতিহ্যবাহী মসজিদ। ঢাকায় এমন মসজিদ আর পাওয়া যাবে না। মানুষ মসজিদটি দেখতে আসেন, নামাজ পড়েন, ভালো লাগে।’

মসজিদটিতে অর্ধ শতাধিক আবাসিক শিক্ষার্থী রয়েছে। এর পরিচালনার দায়িত্বে আছেন প্রয়াত মো. ইসমাইলের পরিবারের সদস্যরা। মসজিদের অধীনে কিছু দোকান রয়েছে। মূলত, দোকানভাড়া ও দানবাক্সে পাওয়া অর্থ দিয়েই মসজিদটি পরিচালনা করা হয়।

তবে মসজিদের নাম কেন অ্যারোপ্লেন মসজিদ রাখা হয়েছে তার সঠিক তথ্য জানা যায়নি। ধারণা করা হয় প্রতিষ্ঠাতা মো. ইব্রাহিম মসজিদটিকে একটি অন্যরকম ল্যান্ডমার্ক হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতেই এমন নাম রেখেছেন। ষাটের দশকে ‘ছাতা মসজিদ’, ‘জাহাজ মসজিদ’ ইত্যাদি নামে মসজিদ ছিল। এ কারণে সম্ভবত তিনি এমন নাম রেখেছেন।

/এফএ/

সম্পর্কিত

মসজিদে একই ওয়াক্তে একাধিক জামাত করা যাবে কি?

মসজিদে একই ওয়াক্তে একাধিক জামাত করা যাবে কি?

দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য মক্কার দুই মসজিদে ব্রেইল কোরআন শরিফ

দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য মক্কার দুই মসজিদে ব্রেইল কোরআন শরিফ

জুমার খুতবায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় কথা বলার আহ্বান

জুমার খুতবায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় কথা বলার আহ্বান

পূর্ণিমা তিথিতে ঘরে ঘরে মা লক্ষ্মীর বন্দনা

পূর্ণিমা তিথিতে ঘরে ঘরে মা লক্ষ্মীর বন্দনা

ফরিদপুরের চর-ঝাউকান্দা ইউপি নির্বাচন স্থগিত

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৩৮

সীমানা জটিলতায় ফরিদপুর জেলার চরভদ্রাসন উপজেলার চর-ঝাউকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ওই ইউনিয়নের সীমানা ও ওয়ার্ড পুনর্নির্ধারণের আগেই নির্বাচনি তফসিল ঘোষণা কেন অবৈধ হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত।

এক রিট আবেদনের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে সোমবার (২৫ অক্টোবর) বিচারপতি মো. মুজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি মোহাম্মদ কামরুল হাসান মোল্লার সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এসব আদেশ দেন।

আদালতে রিটের পক্ষে শুনানিতে ছিলেন ব্যারিস্টার তৌফিক ইনাম টিপু। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল নওরোজ রাসেল চৌধুরী।

রিট আবেদনে বলা হয়, চর-ঝাউকান্দা ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডের মধ্যে পাঁচটি ওয়ার্ড পদ্মায় বিলীন হয়ে যায়। তাই ফরিদপুর জেলা প্রশাসন বিদ্যমান ওয়ার্ড ও ভোটার এলাকার সীমানা নির্ধারণ করতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন। নতুন করে সীমানা নির্ধারণ ও ভোটার এলাকা পুনর্গঠনের জন্য কর্মকর্তাও নিয়োগ করা হয়।

পরে গত ৮ আগস্ট সীমানা নির্ধারণ কর্মকর্তরা নতুন খসড়া তালিকা প্রকাশ করলেও চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ হয়নি। কোনও গেজেটও প্রকাশ হয়নি। এ অবস্থায় নতুন করে ওয়ার্ড পুনর্গঠন ও ভোটার এলাকা নির্ধারণের আগেই সেখানে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা বেআইনি। তাই সীমানা নির্ধারণে জটিলতার অভিযোগ তুলে চর-ঝাউকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. ফরহাদ হোসেন মৃধা এ রিট দায়ের করেন।

/বিআই/এফএ/

সম্পর্কিত

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ‘তদন্ত কমিশন’ গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ‘তদন্ত কমিশন’ গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

বাউল শিল্পী রিতা দেওয়ানসহ তিন জনের বিচার শুরু

বাউল শিল্পী রিতা দেওয়ানসহ তিন জনের বিচার শুরু

বাবার জিম্মায় থাকা শিশুকে দেশের বাইরে নিতে নিষেধাজ্ঞা

বাবার জিম্মায় থাকা শিশুকে দেশের বাইরে নিতে নিষেধাজ্ঞা

ক্যাসিনোকাণ্ডে কমিশনার সাঈদের সহযোগীকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

ক্যাসিনোকাণ্ডে কমিশনার সাঈদের সহযোগীকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৮:১৯

নব প্রতিষ্ঠিত সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে ‘বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়’ নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়েছে।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় সিন্ডিকেট সভায় নতুন নামকরণের এ প্রস্তাব অনুমোদন করা হয়।

সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোর্শেদ আহমেদ চৌধুরী সভায় সভাপতিত্ব করেন।

সভার শুরুতেই বর্তমান সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম পরিবর্তন করে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্ত্রী ‘বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় সিলেট’ নামকরণের প্রস্তাব করেন উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোর্শেদ আহমেদ চৌধুরী।

সভায় সর্বসম্মতিক্রমে নতুন নামকরণের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়। সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণের জন্য প্রস্তাবিত উন্নয়ন পরিকল্পনার বিষয়সহ অন্যান্য বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়।

সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত  ছিলেন— সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ, সংসদ সদস্য গাজী মোহাম্মদ শাহনওয়াজ, জাতীয় অধ্যাপক ডা. শাহলা খাতুন, বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের সদস্য প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভিসি অধ্যাপক ডা. ছয়েফ উদ্দিন আহমেদ, বাংলাদেশ মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন- বিএমএ’র সভাপতি ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাসার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার খলিলুর রহমান, আর. টি. এম. ইন্টারন্যাশনালের প্রতিষ্ঠাতা ড. আহমদ আল-কবির, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. শাখাওয়াত হোসেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার ও পরিচালক (অর্থ) নইমুল হক চৌধুরী।

উল্লেখ্য, সিলেটবাসীর দীর্ঘদিনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ঘোষণা ও নির্দেশনায় ২০১৮ সালের ১ অক্টোবর সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় আইন অনুমোদন হয়। একই বছরের ২০ নভেম্বর উপাচার্য হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন অধ্যাপক ডা. মোর্শেদ আহমেদ চৌধুরী।

বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুযায়ী, ৭টি মেডিক্যাল কলেজ, একটি ডেন্টাল কলেজ ও ৯টি নার্সিং কলেজকে অধিভুক্ত করে দুটি ব্যাচের শিক্ষার্থীদের ভর্তি ও রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করে অ্যাকাডেমিক কার্যক্রম চলমান রয়েছে। এর অংশ হিসেবে চলতি মাসের ২৪ তারিখ থেকে শুরু হয়েছে এমবিবিএস কোর্সের প্রথম পরীক্ষা।

এর আগে বিএসসি ইন নার্সিং এবং পোস্ট বেসিক বিএসসি নার্সিং পরীক্ষা সফলভাবে সম্পন্ন করে ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্মাণের লক্ষ্যে সিলেট নগরীর উপকণ্ঠে দক্ষিণ সুরমায় ৮০ একর ভূমি অধিগ্রহণের প্রাথমিক কাজ ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। এছাড়া অন্যান্য কাজও দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে। খবর: বাসস

/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

বোরো সংগ্রহে অনিয়মকারী চালকল মালিকের লাইসেন্স বাতিল

বোরো সংগ্রহে অনিয়মকারী চালকল মালিকের লাইসেন্স বাতিল

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ‘তদন্ত কমিশন’ গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ‘তদন্ত কমিশন’ গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

অর্থপাচার মামলায় সাহেদের জামিন প্রশ্নে হাইকোর্টের রুল

অর্থপাচার মামলায় সাহেদের জামিন প্রশ্নে হাইকোর্টের রুল

প্রকাশ্যে জামায়াতের বিচার দাবি তদন্ত সংস্থার

প্রকাশ্যে জামায়াতের বিচার দাবি তদন্ত সংস্থার

বোরো সংগ্রহে অনিয়মকারী চালকল মালিকের লাইসেন্স বাতিল

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৮:০৮

অভ্যন্তরীণ বোরো ধান ও চাল সংগ্রহ কর্মসূচিতে অনিয়ম করা চালকল মালিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। জানা গেছে, এবার অভ্যন্তরীণ বোরো ধান ও চাল সংগ্রহ কর্মসূচিতে অনিয়ম করলে চালকলের লাইসেন্স বাতিল, চালকলের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন  এবং জামানত বাজেয়াপ্ত করতে হবে। এমন নির্দেশ দিয়ে খাদ্য অধিদফতরকে চিঠি পাঠিয়েছে খাদ্য মন্ত্রণালয়। রবিবার (২৪ অক্টোবর) খাদ্য অধিদফতরের মহাপরিচালককে এই চিঠি পাঠানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়েছে, অভ্যন্তরীণ বোরো সংগ্রহ মৌসুমে চুক্তির যোগ্য ছিল কিন্তু চুক্তি করেনি, এমন চালকলগুলোকে যথাযথ প্রক্রিয়ায় লাইসেন্স বাতিল ও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে বিদ্যুৎ বিভাগে চিঠি পাঠানোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

খাদ্য মন্ত্রণালয় থেকে চুক্তির পরিমাণের ৮০ ভাগ কিংবা এর বেশি পরিমাণ চাল সরবরাহ করা মিলগুলোকে বিশেষ বিবেচনায় জামানত অবমুক্ত করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

চুক্তির পরিমাণের ৮০ শতাংশের কম সরবরাহকারী চালকলগুলোকে বিশেষ বিবেচনায় অসরবরাহ করা চালের আনুপাতিক হারে জামানত বাজেয়াপ্ত করারও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

চুক্তি করেছে কিন্তু কোনও চাল সরবরাহ করেনি, এমন মিলের জামানত বাজেয়াপ্তসহ যথাযথ প্রক্রিয়ায় লাইসেন্স বাতিল করতে বলা হয়েছে।

 

 

/এসআই/এপিএইচ/

সম্পর্কিত

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ‘তদন্ত কমিশন’ গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ‘তদন্ত কমিশন’ গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

অর্থপাচার মামলায় সাহেদের জামিন প্রশ্নে হাইকোর্টের রুল

অর্থপাচার মামলায় সাহেদের জামিন প্রশ্নে হাইকোর্টের রুল

প্রকাশ্যে জামায়াতের বিচার দাবি তদন্ত সংস্থার

প্রকাশ্যে জামায়াতের বিচার দাবি তদন্ত সংস্থার

৭ তলা থেকে পড়ে শ্রমিকের মৃত্যু

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৮:০৬

রাজধানীর পল্লবীর একটি নির্মাণাধীন ভবনের ৭ তলা থেকে পড়ে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার (২৫ অক্টোবর) সকালে এ ঘটনা ঘটে। ওই শ্রমিকের নাম এ কে এম মনিরুজ্জামান  মনির (৫০)। তিনি টাঙ্গাইল জেলার নগাপুর উপজেলার সারোটিয়া গ্রামের মমতাজ উদ্দিনের ছেলে।

মনিরুজ্জামানের সহকর্মী মো. তোহুরুল জানিয়েছেন, সোমবার সকাল নয়টায় মিরপুর ১২ পল্লবী থানাধীন মিরপুর ১২ নম্বর এলাকার একটি নির্মাণাধীন ১১ তলা ভবনের ৭ তলার বাইরের পাশে মাচা বেধে কাজ করছিলেন মনিরুজ্জামান। এসময় পা ফসকে নিচে পড়ে যান তিনি। গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতাল, সেখান থেকে  পঙ্গু হাসপাতাল, পরে  ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক বেলা সোয়া ১১টার দিকে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

হাসপাতাল ক্যাম্প পুলিশের এএসআই  আব্দুল খাঁন বলেন, মরদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য ঢামেক মর্গে রাখা হয়েছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট থানাকে অবিহিত করা হয়েছে।

/এআইবি/এআরআর/এমআর/

সম্পর্কিত

‘২০২২ সালে কোনও সাম্প্রদায়িক হামলা দেখতে চাই না’

‘২০২২ সালে কোনও সাম্প্রদায়িক হামলা দেখতে চাই না’

বাড়ছে বায়ুদূষণ, ডিসেম্বরে ঢাকায় ‘স্বাস্থ্যগত জরুরি অবস্থা’র শঙ্কা

বাড়ছে বায়ুদূষণ, ডিসেম্বরে ঢাকায় ‘স্বাস্থ্যগত জরুরি অবস্থা’র শঙ্কা

বংশালে নারীর লাশ উদ্ধার, শরীরে আঘাতের চিহ্ন

বংশালে নারীর লাশ উদ্ধার, শরীরে আঘাতের চিহ্ন

চট্টগ্রাম ছাড়া অন্য এলাকার আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে

চট্টগ্রাম ছাড়া অন্য এলাকার আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে

বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে ‘তদন্ত কমিশন’ গঠনের নির্দেশনা চেয়ে রিট

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৮:১৩

১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং তাঁর পরিবার-পরিজনের  হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে তদন্ত কমিশন চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে।

সোমবার (২৫ অক্টোবর) হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সুবীর নন্দী দাসের পক্ষে আইনজীবী মো. আসফাকোজ্জোহা রিটটি দায়ের করেন।

রিট আবেদনে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব এবং অর্থ মন্ত্রণালয়ের সচিবকে বিবাদী করা হয়েছে।

রিট আবেদনে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রনায়কদের হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে তদন্ত কমিশন গঠনের নজিরসহ এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট আইনের আলোকে বিভিন্ন দেশের আদালতের প্রকাশিত রায়ের নজির তুলে ধরা হয়। এছাড়াও রিটে ১৯৮২ সালে ব্রিটিশ পার্লামেন্টের সদস্যদের দ্বারা গঠিত বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের তদন্ত কমিশনের প্রাথমিক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে এ বিষয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্মম হত্যাকাণ্ডের ষড়যন্ত্র এবং পরবর্তী পদক্ষেপগুলো সম্পূর্ণ পর্যালোচনা ও নিরীক্ষার লক্ষ্যে একটি স্বাধীন জাতীয় কমিশন গঠনের আরজি জানানো হয়েছে।

আগামী সপ্তাহে বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের হাইকোর্ট বেঞ্চে রিটটি শুনানির জন্য উপস্থাপন করা হবে বলে জানিয়েছেন রিটকারী আইনজীবী।

 

/বিআই/এপিএইচ/এমওএফ/

সম্পর্কিত

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

বোরো সংগ্রহে অনিয়মকারী চালকল মালিকের লাইসেন্স বাতিল

বোরো সংগ্রহে অনিয়মকারী চালকল মালিকের লাইসেন্স বাতিল

বাবার জিম্মায় থাকা শিশুকে দেশের বাইরে নিতে নিষেধাজ্ঞা

বাবার জিম্মায় থাকা শিশুকে দেশের বাইরে নিতে নিষেধাজ্ঞা

অর্থপাচার মামলায় সাহেদের জামিন প্রশ্নে হাইকোর্টের রুল

অর্থপাচার মামলায় সাহেদের জামিন প্রশ্নে হাইকোর্টের রুল

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মসজিদে একই ওয়াক্তে একাধিক জামাত করা যাবে কি?

মসজিদে একই ওয়াক্তে একাধিক জামাত করা যাবে কি?

দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য মক্কার দুই মসজিদে ব্রেইল কোরআন শরিফ

দৃষ্টি প্রতিবন্ধীদের জন্য মক্কার দুই মসজিদে ব্রেইল কোরআন শরিফ

জুমার খুতবায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় কথা বলার আহ্বান

জুমার খুতবায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় কথা বলার আহ্বান

পূর্ণিমা তিথিতে ঘরে ঘরে মা লক্ষ্মীর বন্দনা

পূর্ণিমা তিথিতে ঘরে ঘরে মা লক্ষ্মীর বন্দনা

ছবিতে জশনে জুলুস

ছবিতে জশনে জুলুস

ঈদে মিলাদুন্নবীতে রাজধানীতে বর্ণাঢ্য জশনে জুলুস

ঈদে মিলাদুন্নবীতে রাজধানীতে বর্ণাঢ্য জশনে জুলুস

আজ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী

আজ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী

রবিউল আউয়াল: যে মাস আনন্দের, বেদনারও

রবিউল আউয়াল: যে মাস আনন্দের, বেদনারও

কুনজর থেকে শিশুকে রক্ষায় টিপ দেওয়া যাবে?

কুনজর থেকে শিশুকে রক্ষায় টিপ দেওয়া যাবে?

শান্তি-সম্প্রীতির জন্য প্রার্থনা মসজিদে

শান্তি-সম্প্রীতির জন্য প্রার্থনা মসজিদে

সর্বশেষ

ফরিদপুরের চর-ঝাউকান্দা ইউপি নির্বাচন স্থগিত

ফরিদপুরের চর-ঝাউকান্দা ইউপি নির্বাচন স্থগিত

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

‘বঙ্গমাতা’র নামে সিলেট মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের নামকরণের প্রস্তাব অনুমোদন

চট্টগ্রামে পূজামণ্ডপে হামলাচেষ্টা মামলার ১৬ আসামি রিমান্ডে 

চট্টগ্রামে পূজামণ্ডপে হামলাচেষ্টা মামলার ১৬ আসামি রিমান্ডে 

সুদানে সরকার ভেঙে জরুরি অবস্থা জারি

সুদানে সরকার ভেঙে জরুরি অবস্থা জারি

শনাক্ত ২৮৯ জনের ২১০ জনই ঢাকার

শনাক্ত ২৮৯ জনের ২১০ জনই ঢাকার

© 2021 Bangla Tribune