X
রবিবার, ০১ আগস্ট ২০২১, ১৭ শ্রাবণ ১৪২৮

সেকশনস

ফ্রিল্যান্সিংয়ে সুবাতাস, ফ্রিল্যান্সারদের প্রণোদনা দেওয়ার উদ্যোগ

আপডেট : ০২ জুন ২০২১, ২০:২৫

দেশে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের সময় ফ্রিল্যান্সিং খাত ঝুঁকির মুখে পড়লেও পরে সামলে ওঠে।  এখন এ খাত বেশ ভালো করছে বলে জানা গেছে।  ফ্রিল্যান্সারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেলো, স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় এ খাতে প্রবৃদ্ধি অন্তত ২০ শতাংশ।  অন্যান্য ব্যবসা, বিভিন্ন খাত যখন লোকসান গুনছে, ধুঁকছে তখন এ খাত কীভাবে প্রবৃদ্ধি দেখছে? সুলুক সন্ধান করতে গিয়ে জানা গেলো করোনার জন্যই এমন হয়েছে।

বিশ্বে করোনা দেখা দিলে দেশ-বিদেশের বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানই বন্ধ হয়ে যায়। অনেক প্রতিষ্ঠান তাদের ক্ষতি পোষাতে কর্মী ছাঁটাই, বেতন কমিয়ে দেওয়া, অফিস ছেড়ে দেওয়ার মতো কাজ করে প্রতিষ্ঠানের নামটা বাঁচিয়ে রাখে।  সেসময় ফ্রিল্যান্সাররাও কাজ হারিয়ে অনেকটা ধুঁকতে থাকেন।  পরিস্থিতি একটু একটু করে স্বাভাবিক হতে শুরু করলেও অনেকেই পুরনো কর্মীদের আর কাজে ফেরায় না।  যাদের ফেরায় তাদের হোম অফিস (ওয়ার্ক ফ্রম হোম) দেয়।  আর অতিরিক্ত যা কাজ থাকে তা কোম্পানিগুলো আউটসোর্সিং করতে থাকে।  এতে করে ফ্রিল্যান্সাররা আবারও কাজ পেতে শুরু করেন।  লোকসান কাভার করে ফ্রিল্যান্সাররা কাজ ও আয়ের মুখ দেখতে শুরু করেছে।

এদিকে ফ্রিল্যান্সার উদ্যোক্তাদের এই খাতে আরও বেশি মনোযোগী হয়ে কাজ করতে প্রণোদনা দেওয়ার কথা ভাবছে সরকার। সরকারের আইসিটি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক সম্প্রতি অর্থমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছেন।  সেই চিঠিতে প্রতিমন্ত্রী বাংলাদেশের ফ্রিল্যান্সারদের অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রার ওপর ১০ শতাংশ হারে রফতানি ভর্তুকি সুবিধা তথা নগদ প্রণোদনা দেওয়ার বিষয়টি বিবেচনার জন্য সুপারিশ করেছেন।

চিঠিতে লেখা হয়েছে, আইসিটি খাতে রফতানি বিকাশে অর্থ মন্ত্রণালয়ের সুদূর প্রসারী উদ্যোগের ফলে যৌক্তিকভাবেই ২০১৮ সালে সফটওয়্যার, আইটিইএস ও হার্ডওয়্যারের আওতাভুক্ত পণ্য ও সেবা খাতে ১০ শতাংশ হারে রফতানিকারককে ভর্তুকি দেওয়া হয়েছে। যা বাংলাদেশ ব্যাংকের ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি তারিখে ৩ নম্বর সার্কুলারের মাধ্যমে বাস্তাবায়িত হয়েছে।  কিন্তু ওই সার্কুলারে রফতানি ভর্তুকি প্রাপ্তব্য তালিকায় এমন কিছু সেবা বা পণ্যের উল্লেখ রয়েছে যা ফ্রিল্যান্সারদের মাধ্যমে হওয়া সত্ত্বেও ব্যক্তি পর্যায়ে এই ভর্তুকির সুবিধা প্রাপ্যতা রাখা হয়নি। ফ্রিল্যান্সারদের এ ভর্তুকির আওতায় আনা হলে তাদের রফতানি আয়ের পুরো অর্থ বৈধ ব্যাংকিং চ্যানেলে দেশে আসবে এবং জিডিপি প্রবৃদ্ধিতে ইতিবাচক প্রভাব রাখবে।

জানতে চাইলে জুনাইদ আহমেদ পলক বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, করোনার প্রথম দিকে মনে হয়েছিলো ফ্রিল্যান্সাররা কাজ হারাবে।  ইউরোপের বাজারগুলো বন্ধ হয়ে গিয়েছিল।  এখন তারা  আউটসোর্স করছে।  দেখা গেলো ফ্রিল্যান্সিংয়ে কাজ কমেনি।  কাজ বেড়েছে, কাজের পরিধিও বেড়েছে।  গত ১৪ মাসে ফ্রিল্যান্সিং খাত পজিটিভ বলে তিনি মন্তব্য করেন। 

২০২০ সালের ২৫ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী ফ্রিল্যান্সার উদ্যোক্তাদের একই প্ল্যাটফর্মে এনে তাদের পেশার স্বীকৃতি দেওয়ার লক্ষ্যে আইডি কার্ড দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।  তারা নিবন্ধনের আওতায় এসেছে।  ফলে ক্যাশ ইনসেন্টিভ দেওয়া হলে ফ্রিল্যান্সাররা আরও উৎসাহী হয়ে কাজ করবে বলে মনে করেন পলক।

প্রসঙ্গত, দেশে সাড়ে ৬ লাখ ফ্রিল্যান্সারের মধ্যে এখন সক্রিয় এক লাখেরও বেশি।  যারা ভালো আয় করছেন।  কয়েক হাজার ফ্রিল্যান্সার আছেন যাদের বার্ষিক আয় কোটি টাকারও বেশি।  আইসিটি বিভাগ বলছে, দেশের ফ্রিল্যান্সারদের বার্ষিক আয় বর্তমানে ৫০০ মিলিয়ন ডলার।

ফ্রিল্যান্সাররা খুশি

দেশের ফ্রিল্যান্সারদের কাছে জনপ্রিয় দুই সাইট হলো আপওয়ার্ক ও ফাইভার।  এই দুটো সাইট থেকে ফ্রিল্যান্সাররা বিভিন্ন কাজ পেয়ে থাকেন।  তবে কাজের জন্য আরও অনেক সাইট ও মার্কেটপ্লেস রয়েছে।  তাদের আয়ও ভালো।  ডেয়োট্রনের প্রতিষ্ঠাতা ফ্রিল্যান্সার সাইদুর মামুন খান ঢাকায় বসে কাজ করেন।  তিনি আপওয়ার্কের হেড অব মার্কেটিং ডাটা অপারেশনস।  পাশাপাশি নিজেও ফ্রিল্যান্সার হিসেবে কাজ করেন।  গত বছরের তুলনায় এ বছর তার কাজের পরিমাণ বেড়েছে।  তিনি জানান, তাদের কাজের গ্রোথ ২০ শতাংশ।  কখনও কখনও বেশিও হচ্ছে। 

মাগুরার আড়পাড়া গ্রামে বসে কাজ করেন অয়ন।  মোবাইল ইন্টারনেটই তার ভরসা।  গত বছর করোনা শুরু হলে বেশ হতাশ হয়ে পড়েছিলেন।  কাজ কমে তা নেমে গিয়েছিল ১০০ ডলারে।  এখন তা আবার মাসে ২৫০ থেকে ৩০০ ডলারে পৌঁছে গেছে।  ফাইভার ডট কমে কাজ করা অয়ন বললেন, নতুন নতুন কাজ আসতে শুরু করেছে।  ইমেজ প্রসেসিং, ওয়েবসাইট তৈরি, বিভিন্ন টুল তৈরির কাজ করছেন অয়ন।  নিজের বাড়িতে বাসে মাসে ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা আয় করাকে বেশ ভালো বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ঢাকায় বসে মাসে এই পরিমাণ আয় করলে তা দিয়ে নিজের চলা ও পরিবার চালাতে হিমশিম খেতে হতো।  জানালেন, এভাবে কাজ এলে চলতি বছরের শেষ নাগাদ মাসে ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা আয় করতে পারবেন।

/এমআর/

হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট হাইড করবেন যেভাবে

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ২১:৪৫

আর্কাইভড চ্যাটস ফোল্ডারের জন্য নতুন একটি ফিচার নিয়ে এসেছে হোয়াটসঅ্যাপ। এই ফিচারের সাহায্যে আপনি চান না এমন সব চ্যাট হাইড বা লুকানো যাবে। হোয়াটসঅ্যাপে নতুন কোনও মেসেজ আসার পর আর্কাইভড চ্যাট সবার ওপরে চলে আসে। কিন্তু এটা কার্যকর হলে আর্কাইভড চ্যাট ‘আর্কাইভড চ্যাটস ফোল্ডারে’ই থেকে যাবে। কখনও চ্যাট লিস্টের শুরুতে আসবে না। সংশ্লিষ্ট চ্যাটকে মূল চ্যাটলিস্টে আনতে হলে সেটাকে ‘আন-আর্কাইভ’ করতে হবে।

এ সম্পর্কে হোয়াটসঅ্যাপ এক বিবৃতিতে জানায়, নতুন মেসেজ আসার পর আর্কাইভড মেসেজ মূল চ্যাট লিস্টে চলে আসে। ব্যবহারকারীরা এটা চান না।  ব্যবহারকারীরা আর্কাইভড মেসেজ আর্কাইভড চ্যাট ফোল্ডারেই রাখতে চান বলে আমরা শুনেছি। এ কারণে নতুন একটি সুবিধা যুক্ত করা হয়েছে, যেন কোনও মেসেজ আসার পরও আর্কাইভড চ্যাট আর্কাইভড ফোল্ডারেই থেকে যায়। হোয়াটসঅ্যাপের নতুন এই ফিচারের মাধ্যমে বিরক্তিকর এবং আপনি পেতে চান না এমন কোনও মেসেজ থেকে সহজে মুক্তি মিলবে।

এ ধরনের মেসেজ হাইড করতে চাইলে নিচের ধাপগুলো অনুসরণ করতে হবে। 

১. স্মার্টফোনে হোয়াটসঅ্যাপ ওপেন করুন।

২. যে চ্যাটটি আর্কাইভ করতে চান সেটিতে চাপ দিয়ে ধরুন।

৩. ওপরের ডান কোণায় একটি আর্কাইভ বাটন দেখতে পাবেন যেটি দেখতে ‘ডাউন অ্যারো’র মতো। 

৪. চ্যাট আর্কাইভ করতে বাটনটিতে ক্লিক করতে হবে।

৫. আপনি চাইলে সব চ্যাট আর্কাইভ করতে পারবেন। এ জন্য শুরুতে ‘চ্যাটস’ অপশনে ক্লিক করুন।  এরপর ‘মোর অপশনস’ থেকে ‘সেটিংসে’ যান। 

৬. এবার ‘চ্যাটস’ অপশন থেকে ‘চ্যাট হিস্ট্রি’তে গিয়ে আর্কাইভ করে দিন।

সূত্র: গেজেটস নাউ

 

/এইচএএইচ/আইএ/

সম্পর্কিত

মেটাভার্সের পথে ফেসবুক!

মেটাভার্সের পথে ফেসবুক!

চিপ সংকটে পড়তে পারে ইন্টেল

চিপ সংকটে পড়তে পারে ইন্টেল

লেনোভো বাজারে নিয়ে এলো দুটি নতুন ট্যাব

লেনোভো বাজারে নিয়ে এলো দুটি নতুন ট্যাব

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

মেটাভার্সের পথে ফেসবুক!

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ২০:৫১

মেটাভার্স নামে নতুন একটি ডিজিটাল দুনিয়া তৈরির লক্ষে একটি বড় টিম নিয়ে কাজ শুরু করেছে ফেসবুক। মেটাভার্সের পরিচিতি দিতে ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী জাকারবার্গ বলেন, মেটাভার্স হলো এমন এক ডিজিটাল দুনিয়া যেখানে একজন ফেসবুক ব্যবহারকারী ভার্চুয়ালি বিভিন্ন ডিভাইস ব্যবহার ও যোগাযোগ করতে পারবে।

এ বিষয়ে এই টিমের কার্যনির্বাহী এন্ড্রু বোসওর্থ বলেন, এই টিমটি মূলত ফেসবুকের ভার্চুয়াল রিয়েলিটির একটি অংশ হিসেবে কাজ করবে।

এদিকে ভার্জকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে জাকারবার্গ বলেন, মেটাভার্সকে আপনারা এভাবে ভাবতে পারেন, এটি ইন্টারনেটের এমন একটি জগত, যেখানে আপনি সবকিছু মনিটরে দেখছেন এমন নয় বরং আপনি তার ভেতরেই রয়েছেন।

রয়টার্স জানায়, ফেসবুক ভার্চুয়াল রিয়েলিটি ও অগমেন্টেড রিয়েলিটি খাতে বেশ বড় রকমের বরাদ্দ করছে। তারা রিস্টব্যান্ড প্রযুক্তি, এআর গ্লাস ও অকুলাস ভিআর হেডসেট নিয়ে ডেভেলপমেন্টের কাজ করছে। সংবাদ মাধ্যমটি আরও জানায়, প্রতিষ্ঠানটি এ ছাড়া অনেকগুলো ভিআর গেমিং স্টুডিও কিনেছে। সঙ্গে রয়েছে বিগবক্স ভিআর। আর এসব কাজে প্রতিষ্ঠানটি প্রায় ১০ হাজার কর্মী নিয়োগ করেছে।

মার্ক জাকারবার্গ জানান- তিনি মনে করেন, আগামী দিনের কম্পিউটিং প্ল্যাটফর্মের জন্য তার এই বিনিয়োগ একটি গভীর প্রভাব ফেলবে। তিনি আরও বলেন, আমি বিশ্বাস করি এই মেটাভার্স মোবাইল ইন্টারনেটের একটি উত্তরসূরি হবে।  আমাদের পরবর্তী পথযাত্রায় এটি সহায়ক হবে। আশা করছি এটা আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে আমরা এটি করতে পারবো।  যদি এটি ভালোভাবে করতে পারি তাহলে আমাদের এই সামাজিক যোগাযোগ প্রতিষ্ঠানটি হয়তো আগামীতে একটি মেটাভার্স প্রতিষ্ঠানে পরিণত হবে।

 

/এইচএএইচ/এনএইচ/

সম্পর্কিত

হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট হাইড করবেন যেভাবে

হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট হাইড করবেন যেভাবে

চিপ সংকটে পড়তে পারে ইন্টেল

চিপ সংকটে পড়তে পারে ইন্টেল

লেনোভো বাজারে নিয়ে এলো দুটি নতুন ট্যাব

লেনোভো বাজারে নিয়ে এলো দুটি নতুন ট্যাব

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

চিপ সংকটে পড়তে পারে ইন্টেল

আপডেট : ৩০ জুলাই ২০২১, ১৬:০৭

আগামী দুই বছর চিপ সংকটে পড়তে পারে ইন্টেল। এমনই সংকেত দিয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির কার্যনির্বাহী প্রধান প্যাট জেলসিংগার। আর এই সংকটকালটি চলতে পারে অন্তত দুই বছর।

তিনি বলেন, চাহিদার ঊর্ধ্বগতি, মহামারি ইত্যাদির কারণে সংকট আরও দীর্ঘ হতে পারে।

জেলসিংগার বিবিসিকে জানান, এর বিপরীতে নতুন ফ্যাক্টরি তৈরি করা অনেক কঠিন হবে এবং তা হবে সময়সাপেক্ষ। ইন্টেল এ বছরের শেষ নাগাদ আমেরিকা এবং ইউরোপে নতুন ফ্যাক্টরি তৈরি করতে পারে। তবে তা করতে অন্তত এক থেকে দুই বছর সময় লাগবে। আর এই সময়ের মধ্যে আমাদের চাহিদার বিপরীতে যোগানের ভারসাম্য রাখতে হবে।

বিবিসি জানায়, চীনের সঙ্গে ইন্টেলের শতকরা ২৫ ভাগ রেভিনিউর সম্পর্ক রয়েছে।

এ ব্যাপারে জেলসিংগার বলেন,  টেকনোলজির ক্ষেত্রে এটি একটি অপূরণীয় চাহিদা তৈরি করে যা তাদের অর্থনীতিকে উপরের দিকে তুলছে। তারপরও তিনি আশা করছেন আমেরিকা এবং চীনের মধ্যে সম্পর্ককে ভালো করার ক্ষেত্রে ইন্টেল একটি ভালো প্রভাবক হিসেবে কাজ করবে।

তিনি বলেন, আমরা চীনের সঙ্গে ব্যবসা করতে আগ্রহী। তবে এটি যদি সম্ভব না হয় তাহলে বাধ্য হয়েই আমাদের দেশের ভেতরে সমাধান খুঁজতে হবে। তবে অন্য যেকোনো জায়গাতেই আমাদের সম্পর্ক তৈরি করার সুযোগ রয়েছে। তারা বাইডেন প্রশাসনকে জানিয়েছেন, এ ব্যাপারে ইউরোপের সঙ্গে ভালো সম্পর্ক তৈরি করা যেতে পারে যেটা পূর্বের প্রশাসনের কারণে কিছুটা নষ্ট হয়েছিল।

/এইচএএইচ/এমএস/

সম্পর্কিত

হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট হাইড করবেন যেভাবে

হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট হাইড করবেন যেভাবে

মেটাভার্সের পথে ফেসবুক!

মেটাভার্সের পথে ফেসবুক!

লেনোভো বাজারে নিয়ে এলো দুটি নতুন ট্যাব

লেনোভো বাজারে নিয়ে এলো দুটি নতুন ট্যাব

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

লেনোভো বাজারে নিয়ে এলো দুটি নতুন ট্যাব

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ২৩:৫১

করোনা মহামারির সময়ে হোম অফিস, অনলাইন ক্লাস, মিটিং, ওয়ার্কশপ এখন সব ডিজিটাল ডিভাইসনির্ভর। সন্তানের স্কুল থেকে শুরু করে পরিবারের জ্যেষ্ঠ সদস্যের দিন কাটছে ডিজিটাল দুনিয়ায়৷ আর এমন পরিবর্তনকে স্বাগত জানাতে বিশ্বখ্যাত ব্র্যান্ড  লেনেভো নিয়ে এসেছে ট্যাব।  যারা ভালো মানের ট্যাব খুঁজছেন, তাদের জন্য বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যাচ্ছে চারটি ট্যাব।  লেনোভো ট্যাব এম৮ এবং লেনোভো ট্যাব এম১০ এই দুটি মডেলের চারটি ভ্যারিয়েন্টের ডিভাইস এখন পাওয়া যাচ্ছে বাজারে। 

লেনোভো ট্যাব এম ৮:  এতে আছে আট ইঞ্চি এইচডি ডিসপ্লে, কোয়াড কোর ২.০ গিগাহার্টজ প্রসেসর, ডলবি অডিও স্পিকার, ৫১০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি, পেছনে ৮ মেগা পিক্সেলের অটোফোকাস ক্যামেরা, সামনের ক্যামেরা ২ মেগা পিক্সেলের।  এটি ২ জিবি র‌্যাম, ৩২ জিবি রম এবং এবং ৩ জিবি র‌্যাম ও ৩২ জিবি রমের দুটি ধরনে পাওয়া যাচ্ছে৷  

লেনোভো ট্যাব এম১০: প্রিমিয়াম গ্যাজেটে যা থাকা উচিত, তার সবই পাওয়া যাবে এই ট্যাবে- ১০.১ ইঞ্চি আইপিএস এইচডি স্ক্রিন, ডলবি অ্যাটমোস ডুয়াল স্পিকার, অ্যান্ড্রয়েড ১০ আপডেট। ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারিতে রয়েছে টানা ১০ ঘণ্টা ব্রাউজিং ও ৮ ঘণ্টা ভিডিও প্লেব্যাক সুবিধা।  পেছনে ৮ মেগা পিক্সেলের অটো ফোকাস ক্যামেরা, রয়েছে ৫ মেগা পিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা।  এর র‌্যাম ৪ জিবি আর রম ৬৪ জিবি, যা ২৫৬ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।  

দুই মডেলের ট্যাবে রয়েছে মেটাল ফিনিশ, বক্সের ভেতরে ইউএসবি টাইপ সি চার্জার।  ১৪ হাজার ৯৯৯ থেকে ২৮ হাজার ৯৯৯ টাকার মধ্যে বেছে নিতে পারবেন আপনার পছন্দের ট্যাব। লেনোভো ট্যাব পাওয়া যাচ্ছে www.salextra.com.bd ও অন্যান্য অনলাইন মার্কেট প্লেসগুলোতে। ঘরে বসে সেলেক্সট্রা শপে অর্ডার করলে ঢাকার ভেতরে ডেলিভারি পৌঁছে যাবে ৪৮ ঘণ্টায়।  ক্রেডিট কার্ড ছাড়া ইএমআইতে পণ্য কেনার সুযোগও থাকছে।  বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন ফেসবুকের www.facebook.com/salextraonline এই লিংকে।

/এইচএএইচ/এমআর/

সম্পর্কিত

হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট হাইড করবেন যেভাবে

হোয়াটসঅ্যাপে চ্যাট হাইড করবেন যেভাবে

মেটাভার্সের পথে ফেসবুক!

মেটাভার্সের পথে ফেসবুক!

চিপ সংকটে পড়তে পারে ইন্টেল

চিপ সংকটে পড়তে পারে ইন্টেল

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

সব পণ্যে ফেস আইডি আনতে পারে অ্যাপল

আপডেট : ২৯ জুলাই ২০২১, ১৩:৪২

বর্তমানে অ্যাপলের অল্প কিছু পণ্যে ফেস আইডি সুবিধা রয়েছে।  এর মধ্যে রয়েছে আইপ্যাড এবং আইফোন। এছাড়া অ্যাপলের অন্যান্য পণ্যে শুধু টাচ আইডি ব্যবহার করা হয়। তবে সম্প্রতি মার্ক গুরম্যানের পাওয়ার অন নিউজলেটারের বক্তব্য অনুসারে হয়তো এর একটি আমূল পরিবর্তন আসবে।

গুরম্যান দাবি করছেন, অ্যাপল তার আগামীর সব পণ্যে অথবা বেশিরভাগ পণ্যে ফেস আইডি আনার পরিকল্পনা করছে। তিনি আরও দাবি করেন, অ্যাপল পরিকল্পনা করছে আগামী প্রযুক্তির বাজারে তাদের ম্যাক, আইপ্যাড, আইফোন- এসব পণ্যে ফেস আইডি নিয়ে আসবে। সম্ভবত অ্যাপল তাদের আগামী পণ্যে টাচ আইডি বাদ দিয়েও দিতে পারে বলে তিনি মন্তব্য করেন।  কেননা এর চেয়ে ফেস আইডি তুলনামূলক সস্তা এবং নিরাপত্তার মানেও টাচ আইডির চেয়ে উন্নত।

গুরম্যান আরও জানান, বর্তমানের ম্যাকে ফেস আইডি নেই। তার একটি কারণ হতে পারে এর ডিসপ্লে অনেক পাতলা এবং এটাতে ডেপথ সেন্সর কাজ করবে না। 

সংবাদ মাধ্যম উবার গিজমো জানায়, সব মিলিয়ে অ্যাপল যদি তাদের ভবিষ্যতের সব পণ্যে ফেস আইডি নিয়ে আসে তাতে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না।

/এইচএএইচ/এমএস/

সম্পর্কিত

কিস্তিতে মূল্য পরিশোধের সুযোগ আনছে অ্যাপল

কিস্তিতে মূল্য পরিশোধের সুযোগ আনছে অ্যাপল

অ্যাপলের স্মার্ট ঘড়িতে ইসিজি ফিচার ব্যবহার করবেন যেভাবে

অ্যাপলের স্মার্ট ঘড়িতে ইসিজি ফিচার ব্যবহার করবেন যেভাবে

বাজারে অ্যাপল পণ্যের ঘাটতির বিষয়ে সতর্ক করলেন টিম কুক

বাজারে অ্যাপল পণ্যের ঘাটতির বিষয়ে সতর্ক করলেন টিম কুক

যে কারণে আইফোনের সঙ্গে চার্জার দেওয়া বন্ধ করেছে অ্যাপল

যে কারণে আইফোনের সঙ্গে চার্জার দেওয়া বন্ধ করেছে অ্যাপল

সর্বশেষ

প্রথমবারের মতো কমনওয়েলথ সম্মেলনে যোগ দিতে অটোয়ায় বঙ্গবন্ধু

প্রথমবারের মতো কমনওয়েলথ সম্মেলনে যোগ দিতে অটোয়ায় বঙ্গবন্ধু

প্রিন্সেস ডায়ানা-চার্লসের বিয়ের কেক নিলামে

প্রিন্সেস ডায়ানা-চার্লসের বিয়ের কেক নিলামে

ঘরে বসেই দেদার আড্ডা

আজ বন্ধু দিবসঘরে বসেই দেদার আড্ডা

কেন বারবার একই ভুল

কেন বারবার একই ভুল

তুরস্কে দাবানলের তাণ্ডবে পুড়ে মরছে পশু-পাখি

তুরস্কে দাবানলের তাণ্ডবে পুড়ে মরছে পশু-পাখি

এখনও শেষ হয়নি বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচার

এখনও শেষ হয়নি বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ডের বিচার

মানবতাবিরোধী অপরাধ করছে মিয়ানমার জান্তা

মানবতাবিরোধী অপরাধ করছে মিয়ানমার জান্তা

উচ্ছেদ হবেন লাখ লাখ মার্কিনি!

উচ্ছেদ হবেন লাখ লাখ মার্কিনি!

আগস্টের প্রথম প্রহরে শত আলো জ্বললো

আগস্টের প্রথম প্রহরে শত আলো জ্বললো

বিক্ষোভে উত্তাল ফ্রান্স

বিক্ষোভে উত্তাল ফ্রান্স

‘দূরপাল্লার বাসে শ্রমিকরা আসতে চাইলে, সেই বাস পুলিশ ধরবে না’

‘দূরপাল্লার বাসে শ্রমিকরা আসতে চাইলে, সেই বাস পুলিশ ধরবে না’

কর্মস্থলে ফেরা হলো না ২ পোশাকশ্রমিকের

কর্মস্থলে ফেরা হলো না ২ পোশাকশ্রমিকের

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

© 2021 Bangla Tribune